কেইন (কুস্তিগীর)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(Kane (wrestler) থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কেইন
Kane in 2013.png
২০১৩ সালে কেইন
জন্ম নামগ্লেন টমাস জেকবস[১]
জন্ম (১৯৬৭-০৪-২৬) ২৬ এপ্রিল ১৯৬৭ (বয়স ৫১)[২][৩]
টোরেজন ডি আর্ডোজ, মাদ্রিদ, স্পেন[২][৩][৪]
বাসস্থানটেনেসি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র[৫]
শিক্ষা প্রতিষ্ঠাননর্থইস্ট মিসৌরি স্টেট ইউনিভার্সিটি
দাম্পত্য সঙ্গীক্রিস্টাল গোইন্স (বি. ১৯৯৫)
সন্তান
পেশাদারি কুস্তি ক্যারিয়ার
রিংয়ে নামঅ্যাঙ্গাস কিং[৬]
ব্রুইজার মাস্তিনো[১]
ক্রিসমাস ক্রিয়েচার[১]
ডিজেল[১]
ডুম্সডে[১]
ইসাক ইয়ানকেম, ডিডিএস[১]
কেইন[১]
মাইক আনাবম[১]
ইউনিবোম[১]
কথিত
প্রশিক্ষণকেন্দ্র
Parts Unknown
প্রশিক্ষকদিয়ান মালেন্কো
অভিষেকজুন ১৮, ১৯৯২

গ্লেন থমাস জেকব্স‌ (জন্ম এপ্রিল ২৬, ১৯৬৭), যিনি রিং নাম কেইন নামে পরিচিত, একজন মার্কিন পেশাদার কুস্তিগির, অভিনেতা, ব্যবসায়ী এবং কর্মজীবনে রাজনীতিবিদ।[৭] তিনি বর্তমানে মার্কিন বিনোদনমূলক ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ডাব্লিউডাব্লিউই-র সাথে চুক্তিবদ্ধ রয়েছেন।

জেকব্স‌ ১৯৯২ সালে স্বাধীনভাবে তার পেশাগত কুস্তি কর্মজীবন শুরু করেন। ১৯৯৫ সালে ওয়ার্ল্ড রেসলিং ফেডারেশনে (বর্তমানে ডাব্লিউডাব্লিউই) যোগ দেবার পূর্বে তিনি স্মোকি মাউন্টেন রেস্টলিং (এসএমডব্লিও) এবং ইউনাইটেড স্টেস্টস রেস্টলিং আসোসিয়েশনে (ইউএসডব্লিওএ) কুস্তি খেলেছেন। জেকবস ১৯৯৭ পর্যন্ত বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন, যখন তিনি "কেইন" হিসাবে পুনরায় উপস্থিত হয়েছিলেন, ছিলেন মানসিকভাবে বিরক্ত এবং দ্যা আন্ডারটেকার এর ছোট সৎ ভাই, যার সাথে জেকবস-এর ফিয়াডও ছিল, আবার দ্যা ব্রাদার্স অফ ডেস্ট্রাকশন নামে টিমও গড়েছিলেন।

তার অভিষেকের পরে, তিনি ১৯৯০ এর শেষের দিকে এবং ২০০০ এর শুরুর দিক পর্যন্ত কোম্পানির এটিচিউড এরা-র নিয়মিত কুস্তিগীর ছিলেন, যেখানে তিনি ঐ এরার "পোস্টার বয়" স্টোন কোল্ড স্টিভ অস্টিন কে ১৯৯৮ সালের জুনে কিং অফ দ্যা রিং পে পার ভিউ (পিপিভি) এর মেইন ইভেন্টে ডাব্লিউডাব্লিউএফ চ্যাম্পিয়নশিপ এর জন্য পরাজিত করেছিলেন। আর এটি ছিল তার প্রথম পে পার ভিউ মেইন ইভেন্ট।পরবর্তী ২০ বছরে জেকবস অনবরত পিপিভি ম্যাচগুলোতে ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন।

তিনি সাবেক ডাব্লিউডাব্লিউএফ চ্যাম্পিয়ন (একবার), ইসিডাব্লিউ চ্যাম্পিয়ন (একবার), ডাব্লিউডাব্লিউই এর ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়ন (একবার) এবং ১২ বার ওয়ার্ল্ড ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়ন, যা তিনি বিভিন্ন পার্টনারের সাথে হয়ে ডাব্লিউডাব্লিউএফ/ডাব্লিউডাব্লিউই ওয়ার্ল্ড ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপ, ডাব্লিউসিডাব্লিউ ওয়ার্ল্ড ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপএবং ডাব্লিউডাব্লিউই ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপ জিতেছেন। এছাড়াও তিনি দুবার আন্তঃমহাদেশীয় চ্যাম্পিয়ন, ২০১০ মানি ইন দ্যা ব্যাংক বিজেতা এবং ডাব্লিউডাব্লিউই গ্র্যান্ড স্ল্যাম এর তৃতীয় বিজেতা।এছাড়াও রয়্যাল রাম্বাল এ সর্বোচ্চ ৪৪ জনকে এলিমিনেট করার রেকর্ডও তার।

পেশাদার কুস্তির বাইরে, জেকবসকে চলচ্চিত্র এবং টেলিভিশনে অসংখ্যবার অতিথি শিল্পী হিসেবে দেখা গেছে, যার মধ্যে তিনি প্রধান চরিত্রে ছিলেন - ডাব্লিউডাব্লিউই স্টুডিও প্রোডাকশনের সি নো ইভল (২০০৬) এবং সি নো ইভল ২ (২০১৪) তে। জেকবস উদারবাদী রাজনীতির একজন দীর্ঘকালীন সমর্থক।

২০১৮ সালের ১লা মে-তে, জেকবস নক্স কাউন্টি, টেনেসি-এর রিপাবলিকান প্রাথমিক নির্বাচনে মেয়র আসনে জয়যুক্ত হন।

পরিচ্ছেদসমূহ

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

জেকবস তোররেজন দে আরদোস নামক স্পেনের একটি শহরে মার্কিন বিমানবাহিনীর একজন সদস্যের পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।[৮][৯] তিনি সেন্ট লুইস, মিসৌরিতে বড় হন এবং মিসৌরিতেই বোলিং গ্রিনের একটি হাই স্কুলে পড়েন, যেখানে তিনি ফুটবল এবং বাস্কেটবলে দক্ষতা অর্জন করেন। তিনি নর্থইস্ট মিসৌরি স্টেট ইউনিভার্সিটি (যা বর্তমানে ট্রুম্যান স্টেট ইউনিভার্সিটি নামে পরিচিত) থেকে ইংরেজি সাহিত্যের উপর ডিগ্রি অর্জন করেন, যেখানে তিনি ফুটবলবাস্কেটবল উভয়ই খেলেন।

পেশাদার কুস্তি যাত্রা[সম্পাদনা]

প্রাথমিক কর্মজীবন (১৯৯২-১৯৯৫)[সম্পাদনা]

কুস্তিঘেরে জেকবস প্রথমে অ্যাঙ্গাস কিং নামে পরিচিত ছিল, যখন তিনি সি.এস.ডব্লিউ.এ. এর সাথে সেন্ট লুইস মিসৌরিতে ডেবিউ করেন, যে কোম্পানিটির মালিক ছিলেন তারই বাল্যকালের বন্ধু মার্ক মার্টোন। এরপর জেকবস দক্ষিণে চলে যান এবং ডুমসডে নামে কুস্তি শুরু করেন, যেখানে তার আবির্ভাব ঘটে ইউনাইটেড স্টেটস রেস্লিং এসোসিয়েশন (ইউ.এস.ডব্লিউ.এ.) এ ক্রিস্টমাস ক্রিয়েচার হিসেবে। এছাড়াও স্মোকি মাউন্টেন রেস্লিং (এস.এম.ডব্লিউ) এ কুস্তি করেন উনাবোম্ব নামে, যেখানে তিনি দ্যা ডাইনামিক ডুয়ো নামে আল স্নোর সাথে একটি টিম গড়ে এস.এম.ডব্লিউ ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপ জিতেন।ইউ.এস.ডব্লিউ.এ. তে থাকাকালীন সময়ে জেকবস (ডুমসডে নামে) ইউ.এস.ডব্লিউ.এ. হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপ জিতেন। জেকবস তার নিজ নামে প্রো রেস্লিং ফুজিওয়ারা গুমি তেও কাজ করেন। ১৯৯৩ সালে, জেকবস (ব্রুইজার মাস্তিনো নামে) তার প্রথম ম্যাচটি হারেন ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশীপ রেস্লিং (ডব্লিউ.সি.ডব্লিউ) এ স্টিং এর বিরুদ্ধে। ১৯৯৪ এবং ১৯৯৫ সালে জেকবস (ডুমসডে নামে) পুয়েরতো রিকোতে ওয়ার্ল্ড রেস্লিং কাউন্সিল(ডব্লিউ.ডব্লিউ.সি.) এও কুস্তি করেন, যেখানে তার ফিয়াড চলে ইনভেডার#১ এর সাথে।

ওয়ার্ল্ড রেস্লিং ফেডারেশন/এন্টারটেইনমেন্ট/ডাব্লিউডাব্লিউই[সম্পাদনা]

শুরুর দিকে (১৯৯৫-১৯৯৭)[সম্পাদনা]

জেকবস ফেব্রুয়ারি ২০, ১৯৯৫ এ ব্র্যান্ডে মাইক আনাবম নামে ওয়ার্ল্ড রেস্লিং ফেডারেশন (ডব্লিউ ডব্লিউ ই) এ যাত্রা শুরু করেন, যেখানে তিনি রিনো রিগিংসকে একটি ডার্ক ম্যাচে হারান। তিনি উনাবোম্ব নামে আগস্ট পর্যন্ত কুস্তি করেন।

জেকবস প্রথম টেলিভিশনে আসেন ইসাক ইয়ানকেম, ডিডিএস, জেরি লওলার এর ব্যক্তিগত ডেন্টিস্ট হিসেবে ১৯৯৫ সালের ২৬ জুনে -এর একটি পর্বে।জেকবস এর ভাবগম্ভীর উচ্চতা এবং ওজনের উপর গুরুত্ব রেখে তাকে দানবাকৃতি চরিত্র দেয়া হয় যাকে লওলার ভাড়া করেন তার দীর্ঘকালীন শত্রু ব্রেট হার্ট এর থেকে নিজেকে মুক্ত করতে। তার ইন-রিং অভিষেক ঘটে ১৫ই আগস্টের একটি সুপারষ্টারস টেপিং এ, যেখানে হার্ট তাকে কাউন্ট আউটের মাধ্যমে পরাজিত করেন। ঐ মাসের সামারস্ল্যাম ইভেন্টে, ইয়ানকেমকে ডিসকোয়ালিফাই করা হয় হার্টকে টপ এবং মধ্য দড়িতে ঝুলিয়ে দেয়ার জন্য।১৬ই অক্টোবরে এর মেইন ইভেন্টে একটি স্টিল কেইজ ম্যাচে হার্ট তাকে এবং সবশেষে ৬ই নভেম্বরে হার্ট এবং হাকুশির বিরুদ্ধে একটি ট্যাগ টিম ম্যাচে, যেখানে লওলার ছিল তার পার্টনার আবার পরাজিত হন।হার্টের সাথে দ্বন্দ্বের পরে, জেকবসের পুশ অনেক কমে যায় এবং নভেম্বরের সারভাইভর সিরিজে একটি এলিমিনেশন ম্যাচে একটি ব্যর্থ টিমের অংশ হন। জেকবস ১৯৯৬ সালের জানুয়ারিতে রয়্যাল রাম্বল ম্যাচে অংশগ্রহণ করেন এবং নিয়মিত র শোএর শিরোনামে থাকেন, যদিও জবার হিসেবে। এপ্রিলের বাকি দিনগুলোতে ইয়ানকেমকে দেখা যায় তিনি দ্যা আন্ডারটেকার, জ্যাক রবার্টস, মার্ক মেরো এবং দ্যা আল্টিমেট ওয়ারিয়রের কাছে পরাজিত হয়েছেন।জেকবস মে মাসে কুয়েতের একটি লাইভ ইভেন্ট এবং সেপ্টেম্বরে দক্ষিণ আফ্রিকার ট্যুরে অংশগ্রহণ করেন, আর এরপরেই তার ইয়ানকেম গিমিক শেষ হয়ে যায়।

১৯৯৬ সালের সেপ্টেম্বরে, প্লে বাই প্লে ঘোষণাকারী জিম রস জেকবসকে ডিজেল এবং রেজর রেমনকে রিক বোগনার নামে পরিচিত করান, যার ফলে সাবেক দুজন কুস্তিগীর কেভিন ন্যাশ এবং স্কট হল-এর প্রস্থান হয়েছিল। তারা দুজন প্রাথমিকভাবে ট্যাগ টিম হিসেবে প্রতিযোগিতা করেছিল এবং ডিসেম্বরে ইন ইয়র হাউজ ১২ঃইটস টাইম পেপারভিউতে ওয়েন হার্ট এবং দ্যা ব্রিটিশ বুলডগের কাছে ডাব্লিউডাব্লিউএফ ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপ হেরেছিলেন। ডিজেল হিসেবে, সুপারষ্টারসের ডিসেম্বর ২২ এডিশনের মেইন ইভেন্টে ডিসকোয়ালিফিকেশনের মাধ্যমে দ্যা আন্ডারটেকারের কাছে হেরেছিলেন এবং ১৯৯৭ সালের ১১ই জানুয়ারি শটগান স্যাটারডে নাইট ইভেন্টে মার্ক মেরোর নিকট জয়ী হন। ডিজেল এবং রেমন কে সর্বশেষ টেলিভিশনে দেখা যায় ১৯৯৭ রয়্যাল রাম্বল এ, যেখানে জেকবস ছিলেন ৩য়-শেষ প্রতিযোগী। পুরো এপ্রিল জুড়ে জেকবস বিভিন্ন লাইভ ইভেন্টে ডিজেল হিসেবে কাজ করেছেন।

ডাব্লিউডাব্লিউএফ চ্যাম্পিয়ন (১৯৯৭-১৯৯৮)[সম্পাদনা]

এপ্রিল ১৯৯৭ সাল থেকে, ডাব্লিউডাব্লিউএফ ধীরে ধীরে এবং সূক্ষ্মভাবে জেকবস-এর নতুন ক্যারেক্টারের অবিষেক তৈরি করতে লাগলো। ইন ইয়র হাউজ ১৪ঃ রিভেঞ্জ অফ দ্যা 'টেকার পেপারভিউ ইভেন্টে আন্ডারটেকার তার সাবেক ম্যানেজার পল বিয়ারার-এর চেহারায় একটি ফায়ার বল ছুঁড়ে মেরেছিলেন, যিনি অসফলভাবে তার সহযোদ্ধা ম্যানকাইন্ডকে সাহায্য করতে চেয়েছিলেন, যাতে ম্যানকাইন্ড ডাব্লিউডাব্লিউএফ চ্যাম্পিয়নশীপ ম্যাচটি জিতে। ১২ই মে -এর একটি পর্বে, ম্যানকাইন্ড বিয়ারারকে পুনরায় পরিচয় করিয়ে দেন, যখন তার মুখ ব্যাপকভাবে ব্যান্ডেজ করা ছিল। এই আঘাতের মাধ্যমেই বিয়ারার আবার আন্ডারটেকারের সাথে পুনরায় যুক্ত হতে পারে, যেখানে বিয়ারার আন্ডারটেকারের বড় একটি গুপ্ত খবর ফাঁস করে দিবে বলে ভয় দেখিয়েছিল। একটি রহস্যময় সাক্ষাৎকারের সময়, বিয়ারার বলেছিল, যে আগুন তার চেহারা পুড়ে দিয়েছে সে তা পছন্দ করেছে কারণ ঐ একই আগুন আন্ডারটেকারের শৈশবকালেও লেগেছিল। যখন আন্ডারটেকার বারংবার বিয়ারারের সাথে যুক্ত হওয়ার প্রস্তাব প্রত্যাখান করে যাচ্ছিল, বিয়ারার তাকে এই বলে পীড়া দেয়া শুরু করলো যে, তার সেই হারানো ভাই কেইন (পরে বিয়ারারের ছেলে এবং আন্ডারটেকারের সৎ ভাই হিসেবে প্রকাশিত হয়) ডাব্লিউডাব্লিউএফ এ আসছে তাকে চ্যালেঞ্জ করতে। আসন্ন মাসগুলোতে, বিয়ারার সরাসরি না তবে বলল যে, আন্ডারটেকার তার পরিবারকে দুর্ঘটনাবশত তাদের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া কক্ষে আগুন লাগিয়ে মেরে ফেলেছিল, শুধু কেইন বাদে, যে শারীরিক এবং মানসিকভাবে ঐ ঘটনায় ভীত ছিল। আন্ডারটেকার জোড় গলায় বলল, কেইন একজন পাইরোমেনিয়াকএবং সে-ই আগুন লাগিয়েছিল আর তার তো বেঁচে থাকার কথা না (যদিও এটি অক্টোবর ১৯৯৮ তে মিথ্যা প্রমাণিত হয় যখন আন্ডারটেকার স্বীকার করে যে সে-ই আগুন দিয়েছিল।

জেকবস পুনরায় অভিষেক করেন কেইন হিসেবে ১৯৯৭ সালের ৫ই অক্টোবর ব্যাড ব্লাডঃ ইন ইয়র হাউস পেপারভিউতে, যেখানে তিনি আন্ডারটেকারকে তারই সিগ্ন্যাচার মুভ টোম্বস্টোন পাইলড্রাইভার দেন এবং আন্ডারটেকার তার প্রথম হেল ইন অ্যা সেল ম্যাচ শন মাইক্যালস-এর বিরুদ্ধে হেরে যান। বলা বাহুল্যু, যেহেতু কেইন আগুন দ্বারা আহত হয়েছিলেন আর তাছাড়া জেকবস এর পরিচয় লুকানোর জন্য, তার এই ক্যারেক্টারের ছিল একটি মুখোশ, দীর্ঘ প্রসারিত চুল এবং লাল ও কালো পোশাক যা তার প্রায় পুরো শরীরটাকেই ঢেকে রাখতো। পরের পুরো বছরটাই, কেইন এবং দ্যা আন্ডারটেকার একজন আরেকজনের সাথে দ্বন্দ্বে মেতে ছিল আর তাদের এই দ্বন্দ্বের মাঝে তাদের ইতিহাসগুলোও প্রকাশিত হচ্ছিল। কেইন হিসেবে জেকবস প্রথম ম্যাচ জিতেন সারভাইভর সিরিজে ম্যানকাইন্ড-এর বিরুদ্ধে। এর সপ্তাহের আগেই, কেইন যথেচ্ছভাবে আহমেদ জনসন, রোড ওয়ারিয়র হক, দ্যা হার্ডি বয়েজ, ফ্ল্যাশ ফাঙ্ক, ক্রাশ এবং ক্যাকটাস জ্যাক/ডিউড লাভ/ম্যানকান্ডের আরেক রূপ এদের উপর হামলা চালান। শুরুতে আন্ডারটেকার কেইন-এর মোকাবেলা করতে চাননি এই জন্য যে, তিনি বলেছিলেন, তিনি তার নিজের রক্তের সাথে যুদ্ধ করবেন না। একটি ছোট পার্টনারশীপের পরে, কেইন আন্ডারটেকারের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেন এবং রয়্যাল রাম্বলে শন মাইকেলসের বিপক্ষে আন্ডারটেকারকে একটি ডাব্লিউডাব্লিউএফ চ্যাম্পিয়নশীপে হস্তক্ষেপ করে তাকে হারিয়ে দেন। ম্যাচ শেষে, কেইন আন্ডারটেকারকে একটি ক্যাসকেটে আটকে সেটি তালাবদ্ধ করে তাতে আগুন ধরিয়ে দেন, যদিও এটি পরবর্তীতে প্রকাশ পায় যে, কেইন-এর অগোচরে তাতে আগুন লাগানোর আগেই আন্ডারটেকার ঐ ক্যাসকেট থেকে বেরিয়ে যান। নো ওয়ে আউট অফ টেক্সাসঃ ইন ইয়র হাউস পেপারভিউতে কেইন ভেইডারকে পরাজিত করেন।

পরের মাসে, ২৯ মার্চ, রেসলমেনিয়া ১৪ তে আন্ডারটেকার কেইন-এর মোকাবেলা করতে রিটার্ন করেন, যেখানে আন্ডারটেকার কেইনকে তিনটি টোম্বস্টোন পাইলড্রাইভার দিয়ে তাকে পরাজিত করেন। ম্যাচের পরে, কেইন এবং পল বিয়ারার আন্ডারটেকারকে আক্রমণ করেন। তাদের এই দ্বন্দ্ব চলতে থাকে ২৬ এপ্রিল আনফরগিভেনঃ ইন ইয়র হাউস পর্যন্ত, যেখানে আন্ডারটেকার কেইনকে একটি ইনফার্নো ম্যাচে পরাজিত করেন। এই ম্যাচে, বিয়ারার আন্ডারটেকারকে আক্রমণ করে কেইনকে সাহায্য করতে চেয়েছিল যখন কেইন ব্যাকস্টেজে ফিরে যাচ্ছিল, আর তখনই ভেইডার জোর করে কেইনকে আবার রিং এ ফেরত নিয়ে আসেন। এরপর আন্ডারটেকার চারদিকে আগুন দিয়ে ঘেরা তিন দড়ির উপর দিয়ে তাদের দুজনের উপরেই লাফ দেন এবং এরপর কেইন এর ডান হাতে আগুন ধরিয়ে দেন। ওভার দ্যা এজঃ ইন ইয়র হাইজ পেপারভিউতে কেইন ভেইডারকে পরাজিত করেন একটি মুখোশ বনাম মুখোশ ম্যাচে।

১লা জুনে এর একটি পর্বে, কেইন আন্ডারটেকারকে হারিয়ে ডাব্লিউডাব্লিউএফ চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য নাম্বার ওয়ান কন্টেন্ডার হন। কিং অফ দ্যা রিং পেপারভিউতে, কেইন একটি ফার্স্ট ব্লাড ম্যাচে স্টোন কোল্ড স্টিভ অস্টিনকে হারিয়ে ডাব্লিউডাব্লিউএফ চ্যাম্পিয়নশীপ জিতেন যেখানে ম্যানকাইন্ড এবং আন্ডারটেকার হস্তক্ষেপ করেছিল। যদিও পরের রাতের -তে কেইন ঐ চ্যাম্পিয়নশীপ অস্টিনের কাছে হারিয়েছিলেন।

দ্যা ব্রাদার্স অফ ডেসট্রাকশন (১৯৯৮-২০০২)[সম্পাদনা]

এরপর কেইন ম্যানকাইন্ডের সাথে একটি ট্যাগ টিম গঠন করেন, যার সাথে মিলে তিনি দুইবার ডাব্লিউডাব্লিউএফ ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপ জিতেন।এই বেল্ট হারানোর পরে তিনি ম্যানকাইন্ড-এর দিকে ঘুরে দাঁড়ান এবং আন্ডারটেকারের সাথে বন্ধুত্ব করেন। ব্রেকডাউনঃ ইন ইয়র হাউজ পেপারভিউতে, কেইন, আন্ডারটেকার এবং অস্টিন একটি ট্রিপল থ্রেট ম্যাচ খেলেন অস্টিনের ডাব্লিউডাব্লিউএফ বেল্টের জন্য; কেইন এবং আন্ডারটেকার শুধুমাত্র অস্টিনকেই পিন দিতে পারবেন, তাই তারা একই সময়ে অস্টিনকে পিন দিলেন। এই দুজন সৎ ভাই জাজমেন্ট ডেঃ ইন ইয়র হাউজ পেপারভিউতে লড়াই করেন শূণ্য ডাব্লিউডাব্লিউএফ চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য, যেখানে ম্যাচটিতে কোনো প্রকৃত বিজয়ী থাকে না; ম্যাচের সময়ে, আন্ডারটেকার পল বিয়ারারের জন্য কেইন-এর সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেন এবং তাতে কেইন হয়ে যায় হিরো এবং আন্ডারটেকার ভিলেইন। সারভাইভর সিরিজে ডাব্লিউডাব্লিউএফ চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য কেইন "ডেডলি গেইমস" টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করেন, কিন্তু কোয়ার্টার ফাইনালে আন্ডারটেকার কেইনকে এলিমিনেট করে দেন। রক বটমঃ ইন ইয়র হাউজ পেপারভিউতে অস্টিন এবং আন্ডারটেকারের মধ্যকার "জীবন্ত দাফন ম্যাচে" কেইন আন্ডারটেকারকে আক্রমণ করে তাকে হারিয়ে দেন। ফলে দ্যা কর্পোরেশন কেইনকে একটি পাগলা গারদে আটকে দেন। যদিও ডিসেম্বরে, কেইন ঐ পাগলা গারদ থেকে মুক্তি পাবার জন্য কর্পোরেশনে যোগদান করেন। পরবর্তীতে কর্পোরেশন তার সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করে তাকে দল থেকে বের করে দেয়।

এর কিছু সময় পরে, কেইন এক্স-পাকের সাথে একটি ট্যাগ টিম গঠন করেন এবং টরি কে গার্লফ্রেন্ড হিসেবে পান। এক্স-পাকের সাথে থাকার সময়ে, কেইন তার বোবাবৃত্তি থেকে বেরিয়ে এসে একটি ইলেক্ট্রোলেরিঙ্কস এর সাহায্যে কথা বলা শুরু করেন। তিনি ডি-জেনারেশন এক্স এর কাছ থেকে সহযোগীতা লাভ করেন, যেহেতু এক্স-পাক তাদের একজন সদস্য ছিল। তার প্রথম সহায়হীন শব্দ ছিল, ডি এক্স শ্লোগান "সাক ইট"। এক্স-পাক এবং কেইন দুইবার ডাব্লিউডাব্লিউএফ ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপ জিতেছিলেন। তাদের টিমটি ভাঙে যখন এক্স পাক কেইন-এর সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করে এবং আবার ডিএক্স এ যোগ দেয়। কেইন এবং এক্স পাকের মধ্যে তখন একটি দীর্ঘ দ্বন্দ্ব বাধেঁ, ২০০০ সালের শুরুর দিকে যা আরও বেড়ে যায় যখন টরিও বিশ্বাসঘাতকতা করে এক্স পাক এবং ডিএক্স-এ যোগ দেয়। এক্স পাক এবং কেইন-এর এই দ্বন্দ্ব শেষ হয় রেসলমেনিয়া ২০০০ এ, যখন কেইন রিকিশির সাথে টিম গঠন করে এক্স পাক এবং রোড ডগকে পরাজিত করেন। রেসলমেনিয়ার কিছু সময় পরে, কেইন তার হাতে আঘার পাওয়ার দরুন এক মাস বিরতিতে ছিলেন।

২৯ মে এর একটি পর্বে কেইন পুনরায় ফিরে আসেন, যখন তিনি আন্ডারটেকার এবং দ্যা রককে ম্যাকম্যান-হেলমস্লি ফ্যাকশনে সাহায্য করেন। এই দ্বন্দ্বে জড়িত হওয়ার ফলে তিনি কিং অফ দ্যা রিং পেপারভিউতে একটি মেইন ইভেন্ট ম্যাচ পান ভিন্স এবং শেন ম্যাকম্যান এবং পরে চ্যাম্পিয়ন ট্রিপল এইচ-এর বিরুদ্ধে। এই ম্যাচের সময় আন্ডারটেকার এবং কেইন-এর দ্বন্দ্ব পুনরায় বেধেঁ যায় কিন্তু খুব শীঘ্রই তারা তাদের সম্পর্কটাকে আবার ঠিক করে নেয়। পরে কেইন আন্ডারটেকারকে প্রবলবেগে আক্রমণ করে আবার ভিলেইন রূপ ধারণ করে যা তাদের দুজনকে সামারস্ল্যাম-এ আবার একটি ম্যাচের দিকে ধাবিত করে। ম্যাচটি শেষ হয়ে যায় যখন আন্ডারটেকার কেইন-এর মুখোশ খুলে ফেলে, ফলে কেইন তার চেহারা ঢেকে রিং থেকে পালিয়ে যায়। বছরের বাকি সময়গুলোতে কেইন ডাব্লিউডাব্লিউএফ চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য বাদানুবাদে থাকে এবং তা শেষ হয় ২০০০ সালে ক্রিস জেরিকোর সাথে একটি দ্বন্দ্বে; কেইন সারভাইভর সিরিজে এবং আবার রেবিলিয়নে জেরিকোকে পরাজিত করেন, কিন্তু আরমাগেডনে একটি লাস্ট ম্যান স্ট্যান্ডিং ম্যাচে তিনি জেরিকোর নিকট পরাজিত হন।

রয়্যাল রাম্বলের পরপরই, কেইন আন্ডারটেকারের সাথে বন্ধুত্ব গড়ে আবার হিরোতে পরিণত হন, যে রয়্যাল রাম্বলে তিনি ঐ সময়ে ১১ জন কুস্তিগীরকে এলিমিনেট করার রেকর্ড গড়েছিলেন এবং নিজে ছিলেন রানার-আপ, আর তাকে এলিমিনেট করেছিলেন স্টিভ অস্টিন। ২০০১ এর শুরুর দিকে, কেইন হার্ডকোর চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য লড়েছিলেন এবং রেসলমেনিয়া ২৭ এ একটি ট্রিপল থ্রেট ম্যাচে বিগ শো এবং রাভেনকে হারিয়ে সেই টাইটেলটি জিতেছিলেন। ঐ বছরেই কেইন এবং আন্ডারটেকার "দ্যা ব্রাদার্স অফ ডেসট্রাকশন" নামে টিম গঠন করেন এবং এজ ও খ্রিসচান, রিকিশি ও হাকু এবং দ্যা ট্যু ম্যান পাওয়ার ট্রিপ-এর সাথে দ্বন্দ্ব বাধেঁ। যখন দ্যা ট্যু ম্যান পাওয়ার ট্রিপের সাথে দ্বন্দ্ব চলছিল, তখন অস্টিন এবং ট্রিপল এইচ কেইন-এর বাম হাত ভেঙে ফেলেছিলেন। জাজমেন্ট ডে পেপারভিউতে কেইন ট্রিপল এইচকে হারিয়ে ডাব্লিউডাব্লিউএফ আন্তঃমহাদেশীয় চ্যাম্পিয়নশিপ জিতেন। তিনি তৃতীয় গ্র্যান্ড স্ল্যাম চ্যাম্পিয়ন এবং তিনিই প্রথম ব্যক্তি যিনি ডাব্লিউডাব্লিউএফ, আন্তঃমহাদেশীয়, ট্যাগ টিম এবং হার্ডকোর চ্যাম্পিয়নশীপ জিতে গ্র্যান্ড স্ল্যাম সম্পূর্ণ করেন। স্ম্যাকডাউন এর একটি পর্বে ডায়মন্ড ডালাস পেইজের হস্তক্ষেপের কারণে কেইন আলবার্টের নিকট তার টাইটেলটি হারান। দ্যা ইনভেসনের সময়ে, কেইন এবং আন্ডারটেকারের সাথে ডিডিপি এবং ক্রিস ক্যানিয়নের সাথে দ্বন্দ্ব বাধেঁ যখন পেইজ আন্ডারটেকারের স্ত্রী সারাকে চুপি চুপি অনুসরণ করা শুরু করেন। তাদের এই দ্বন্দ্ব চূড়ান্ত রূপ ধারণ করে সামারস্ল্যাম এ, যখন তারা পেইজ এবং ক্যানিয়নকে একটি স্টিল কেইজ ম্যাচে পরাজিত করেন, ফলে তাদের হাতে চলে আসে ডাব্লিউডাব্লিউএফ ট্যাগ টিম এবং ডাব্লিউসিডাব্লিউ ট্যাগ টিম উভয় চ্যাম্পিয়নশীপ। আনফরগিভেন পেপারভিউ ইভেন্টে কেইন এবং আন্ডারটেকার ক্রোনিক টিমকে পরাজিত করেন এবং সারভাইভর সিরিজে ট্যান ম্যান উইনার টেইকস অল ম্যাচে টিম ডাব্লিউডাব্লিউএফ এর হয়ে বিজয়ী হন।

২০০২ সালে, বিগ শোএর সাথে কেইন-এর একটি ছোট দ্বন্দ্ব শুরু হয় এবং রয়্যাল রাম্বলে কেইন একাই তাকে এলিমিনেট করেন। এরপর কার্ট এঙ্গলের সাথে তার দ্বন্দ্ব শুরু হয়, যার নিকট কেইন রেসলমেনিয়া ২৮ এ পরাজিত হন। ২৫শে মার্চে, ডাব্লিউডাব্লিউএফ দুটো ব্র্যান্ডে বিভক্ত হয়, র এবং স্ম্যাকডাউন! যেখানে কেইনকে তে পাঠানো হয়। নিউ ওয়ার্ল্ড অরডারের সাথে কেইনের একটি ছোট দ্বন্দ্ব চলে এবং সে তার মুখোশের মধ্য দিয়ে মানুষের মতই কথা বলা শুরু করে এবং তার ফ্যানদের উল্লেখ করে বলেন "ক্যানেনাইটস"। এপ্রিলে, চেয়ার দিয়ে এক্স পাক কেইন-এর মাথায় আঘাত করেন এবং তার মুখোশ খুলে ফেলেন, কেইন তখন তার মাংশপেশীতে আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে অফ-স্ক্রীনে চলে যান।

মুখোশ খোলা (২০০২-২০০৪)[সম্পাদনা]

২০০৩ সালে কেইন অর্ধ-মুখোশ পরিহিত, এ মুখোশ খোলার আগের সপ্তাহে

২০০২ সালের আগস্টে, যখন ডাব্লিউডাব্লিউএফ এর নতুন নাম ডাব্লিউডাব্লিউই এর ব্র্যান্ডে ফিরে আসেন নতুন পোশাকে এবং অর্ধ-মুখোশে। ২৩ সে সেপ্টেম্বর এ, লেন্স স্ট্রম এবং খ্রিসচানকে হারিয়ে হারিকেনের সাথে একজোট হয়ে ওয়ার্ল্ড ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপ জিতেন। এর পরের সপ্তাহে, ট্রিপল এইচরিক ফ্লেয়ার-এর হস্তক্ষেপ উপেক্ষা করে কেইন আন্তঃমহাদেশীয় চ্যাম্পিয়নশীপ জিতেন ক্রিস জেরিকোর কাছ থেকে। ৭ই অক্টোবর এর পর্বে, কেইন একাই সফলভাবে একটি চার টিম টেবিলস, লেডার ও চেয়ার ম্যাচে ওয়ার্ল্ড ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপ রক্ষা করেন, কারণ হারিকেন ট্রিপল এইচ ও রিক ফ্লেয়ার দ্বারা আঘাতপ্রাপ্ত হওয়ায় ম্যাচে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। এই ম্যাচটি পরবর্তীতে ডাব্লিউডাব্লিউই এর ২০০২ সালের "ম্যাচ অফ দ্যা ইয়ার" মনোনয়ন পায়। পরের সপ্তাহে তে, ক্রিস জেরিকো ও খ্রিসচানের কাছে তারা তাদের চ্যাম্পিয়নশীপটি হারান।

অক্টোবরেও কেইন-এর সাথে ট্রিপল এইচ-এর দ্বন্দ্ব চলতে থাকে, ফলে ২০ অক্টোবর নো মারসি পেপারভিউতে তাদের একটি ম্যাচ দেয়া হয়, যেখানে কেইন-এর আন্তঃমহাদেশীয় এবং ট্রিপল এইচ-এর ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপ দুটোই হুমকির মুখে ছিল। এই ম্যাচের আগের সপ্তাহগুলোতে ট্রিপল এইচ গুজব রটেছিল যে, কয়েক বছর আগে, কেইন-এর একটি মেয়ের সাথে যার নাম কেটি ভিক, তার সাথে ব্যর্থ প্রেম ছিল। সে আরও বললো যে, একটি গাড়ি দূর্ঘটনায় ভিক যখন মারা যায়, তখন নাকি তার লাশের সাথে কেইন যৌন মিলন করেছিল। ট্রিপল এইচ তার সেই কার্যের ভিডিও দেখাবে বলেও ভয় দেখিয়েছিলও; যদিও যে ফুটেজ দেখানো হয়েছিল তাতে দেখা গেছে, ট্রিপল এইচ (কেইন-এর মতো পোশাক পরে) কফিন এর মধ্যে একটি ম্যানিকুইন-এর সাথে যৌন কৌতুক করছে। পরের সপ্তাহে কেইন-এর ট্যাগ টিম পার্টনার হারিকেন ট্রিপল এইচ-এর এই কাজের জন্য জবাব দিল ট্রিপল এইচ এর একটি ভিডিও ফুটেজ দেখিয়ে, যেখানে ট্রিপল এইচ (যদিও কয়েকজন ট্রিপল এইচ এর মুখোশ পড়েছিল) ডুশ নিচ্ছেন। এই ব্যাপারটি কুস্তি ভক্তরা ভালোভাবে নেননি। নো মারসিতে ট্রিপল এইচ ও রিক ফ্লেয়ার-এর প্রতারণার কারণে কেইন ট্রিপল এইচ এর নিকট পরাজিত হন এবং দুটো টাইটেল-ই সমন্বয় করে ট্রিপল এইচ পেয়ে যান। ২৮শে অক্টোবর এর পর্বে, একটি ক্যাসকেট ম্যাচে (তবে চ্যাম্পিয়নশীপ না) ট্রিপল এইচকে হারিয়ে তাদের এই দ্বন্দ্বের শেষ করেন। সারভাইভর সিরিজে, ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য কেইন প্রথম বার এলিমিনেশন চ্যামবার ম্যাচ খেলেন, যে ম্যাচে শন মাইকেলস বিজয়ী হন।

কেইন ২০০৩ রয়্যাল রাম্বল ম্যাচে ২২ তম প্রবেশকারী ছিলেন এবং শেষ ৩ জনের একজন ছিলেন। এরপর কেইন রব ভ্যান ড্যাম এর সাথে একটি ট্যাগ টিম গঠন করে অবশেষে ওয়ার্ল্ড ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপ জিতেন। ব্যাড ব্লাড পেপারভিউতে লা রেজিস্টেন্সের নিকট ওয়ার্ল্ড ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপ হারানোর পরে, ট্রিপল এইচ তার এভোলিউশন টিমে যোগ দেয়ার জন্য কেইনকে প্রস্তাব দেন। এর সহ-জেনারেল ম্যানেজার স্টোন কোল্ড স্টিভ অস্টিন কেইনকে বলেন, যদি কেইন ট্রিপল এইচ-এর প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন, তবে তাকে ট্রিপল এইচের ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য ম্যাচ খেলার সুযোগ দেয়া হবে; তবে আরেকজন সহ-জেনারেল ম্যানেজার এরিক বিশফ গোঁ ধরে বসেন যে, যদি এই ম্যাচে কেইন হেরে যায়, তাহলে তাকে মুখোশ খুলে ফেলতে হবে। কেইন অস্টিনের প্রস্তাব গ্রহণ করেন এবং পরের সপ্তাহে ম্যাডিসন স্কয়ার গার্ডেনে ট্রিপল এইচকে চ্যালেঞ্জ করেন। ট্রিপল এইচ তার সহযোগীদের সাহায্য দ্বারা ম্যাচটিতে জিতে যান এবং ২৩শে জুন ২০০৩ এ এর পর্বে, কেইন তার মুখোশ খুলে ফেলেন। এরপর কেইন ভিলেইন হয়ে যান এবং তার পার্টনার ভ্যান ড্যামকে চকস্ল্যাম দেন এবং সামারস্ল্যাম এ তাকে পরাজিত করেন। কেইন এর এই মুখোশ খোলার ব্যাপারটি তাকে মানসিকভাবে দুর্বল করে দেয় এবং জিম রসের সাথে এক সাক্ষাৎকারে কেইন রসকে আক্রমণ করেন এবং রসের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেন। পরে স্টেজে কেইন লিন্ডা ম্যাকম্যানকেও আক্রমণ করেন। তার এই কাজের ফলে তার সাথে শেইন ম্যাকম্যানের (লিন্ডার ছেলে) দ্বন্দ্বে আরও আগুন লেগে যায়। আনফরগিভেন এ একটি লাস্ট ম্যান স্ট্যান্ডিং এবং সারভাইভর সিরিজে একটি এম্বুল্যান্স ম্যাচে কেইন শেইন ম্যাকম্যানকে পরাজিত করেন। ঐ দিনই, ভিন্স ম্যাকম্যান এবং দ্যা আন্ডারটেকারের মধ্যকার একটি বারিড এলাইভ (জীবন্ত দাফন) ম্যাচে কেইন হস্তক্ষেপ করেন, যেখানে তিনি ম্যাকম্যানকে সাহায্য করেন ম্যাচটি জিততে। পরের মাসে আরমাগেডন এ, তিনি ট্রিপল এইচ এবং চ্যাম্পিয়ন বিল গোল্ডবার্গের বিপক্ষে একটি ট্রিপল থ্রেট ন্যাচে ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য লড়াই করেন, যে ম্যাচে ট্রিপল এইচ জিতে যান। ২০০৪ এর জানুয়ারিতে, কেইন রয়্যাল রাম্বল ম্যাচে অংশ নেন; তিনি এলিমিনেট হন যখন তিনি আন্ডারটেকারের প্রবেশদ্বার সঙ্গীতের ঘন্টার আওয়াজ শুনে বিভ্রান্ত হন এবং বকার টি তাকে এলিমিনেট করতে সক্ষম হন। পরের সপ্তাহগুলোতে, কেইন বারংবার বলতে লাগলো যে, আন্ডারটেকার "মৃত" এবং কেইন বিভিন্ন অস্বাভাবিক ঘটনার সম্মুখীন হন যেমন রিং এর উপর যেখানে তিনি দাঁড়িয়ে আচেন সেখানে প্রবল বেগে ঝড়বৃষ্টি। অবশেষে আন্ডারটেকার রেসলমেনিয়া ২০ এ ফিরে আসেন (পুনরায় ডেডম্যান অভিব্যাক্তি নিয়ে- যেখানে পল বিয়ারার তার পাশে ছিল) এবং কেইনকে পরাজিত করেন।

লিটার সাথে কাহিনী (২০০৪-২০০৫)[সম্পাদনা]

এইজের বিপক্ষে একটি স্টিল কেইজ ম্যাচে রক্তাক্ত কেইন

রেসলমেনিয়া ২০ এ হারার পরে, কেইন লিটার প্রেমে পড়ে যান, যদিও লিটা তা প্রত্যাখ্যান করেন। ফলে কেইন তাকে অপহরণ করেন এবং তাকে একটি অজানা প্রশ্ন করেন, যার হ্যাঁসুচক উত্তর দেন ঐ মাসের শেষের দিকে। ঐ একই রাতে, কেইন একটি ২০ ম্যান ব্যাটাল রয়্যাল ম্যাচ জিতেন, যার ফলে তিনি ব্যাড ব্লাডে ক্রিস বেনোয়ার বিপক্ষে ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপ ম্যাচ খেলার সুযোগ পান। ব্যাড ব্লাডের ছয় দিন আগে এইজ এবং বেনোয়ার বিপক্ষে কেইন এবং লা রেজিস্টেন্সের মধ্যে একটি ট্যাগ টিম ম্যাচে কেইন বেনোয়াকে ক্রিপলার ক্রসফেইস এবং পরে একটি বিরাট চকস্ল্যাম দিয়ে তাকে পরাজিত করেন। কয়েকদিন পরে লিটা ঘোষণা করে যে, সে গর্ভবতী এবং তার বাচ্চার জন্মদাতা হচ্ছে তার সেই সময়ের স্ক্রীনের ভিতরে এবং বাইরের বয়ফ্রেন্ড ম্যাট হার্ডি। ২১ শে জুন এর পর্বে, কেইন দাবি করলো যে, সে ঐ বাচ্চার পিতা। পরের সপ্তাহে, কেইন বর্ণনা দিল, সে লিটাকে গর্ভবতী করেছে তার উত্তরাধিকার অব্যহত রাখার জন্য। তারও কয়েক সপ্তাহ আগে, কেইন শন মাইকেলসকে জঘণ্য আক্রমণ করেছিল এই দাবি করে যে, তার ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপের পথে মাইকেলস একটি বড় বাধা। কেইনকে শান্ত করার জন্য, জেনারেল ম্যানেজার এরিক বিশফ কেইনকে ক্রিস বেনোয়ার বিপক্ষে একটি রি-ম্যাচ দেন, যেখানে এরিক বেনোয়াকে বলেন যে তাকে জিততে হলে শুধুমাত্র সাবমিশনের মাধ্যমেই জিততে হবে, যেখানে কেইন যেকোনো উপায়ে জিততে পারবে। পুরো ম্যাচটি জুড়ে কোনো প্রকার আধিপত্য না করে বরং কেইন পরাজিত হলো আবার বেনোয়ার কাছে। ম্যাচ শেষে, লিটা রিং এ এসে কেইনকে একটি লো-ব্লো দিল, পরে কেইন এর জবাবস্বরূপ তাকে চকস্ল্যাম দিতে গিয়ে থেমে গেল যখন সে বুঝতে পারলো যে লিটা এইসব করছে যাতে তাদের বাচ্চাটি নষ্ট হয়ে যায়।

সামারস্ল্যামে কেইন এবং ম্যাট হার্ডি একটি "টিল ডেথ ডু আস পার্ট" ম্যাচে লড়াই করেন, যেখানে জয়ীকে লিটা বিয়ে করতে বাধ্য থাকবে এই শর্ত থাকে। কেইন হার্ডিকে পরাজিত করেন এবং ২৩ শে আগস্ট এর পর্বে লিটাকে বিয়ে করেন। যদিও অনুষ্ঠানের সময় হার্ডি কেইনকে আক্রমণ করেন, কিন্তু সবশেষে কেইন হার্ডিকে স্টেজের বাইরে চকস্ল্যাম দেন (বাস্তবিকভাবে, হার্ডির কিছু সময় দরকার ছিল তার হাঁটুর চোঁট থেকে আরোগ্য লাভ করার জন্য)। তাদের বিয়ের এক সপ্তাহ পরে, জেনারেল ম্যানেজার এরিক বিশফ কেইন এবং লিটাকে একটি গিফট দেন, যা ছিল আনফরগিভেন এ কেইন তার পছন্দমতো যেকোনো ম্যাচ গ্রহণ করতে পারবে। শন মাইকেলসকে (কেইন তার গলা ভেঙে দিয়েছিল) নির্বাচন করা হয়েছিল এবং একটি নো-ডিসকোয়ালিফিকেশন ম্যাচে কেইন তার নিকট পরাজিত হন। পরের রাতে, ১৩ই সেপ্টেম্বর, এর পর্বে, ম্যাচটি ছিল জিনি স্টিনসকির (প্রথম ম্যাচ) বিপক্ষে, যিনি কেইনকে পছন থেকে একটি স্টিল চেয়ার দিয়ে আঘাত করেন, ম্যাচ চলাকালীন সময়ে কেইন দূর্ঘটনাবশত লিটার উপর পড়ে যান, ফলে লিটার গর্ভপাত হয়ে যায়। তার বাচ্চার মৃত্যুর জন্য কেইন স্টিনসকির বিপক্ষে ম্যাচে চান এবং হিরো রূপ ধারণ করেন। টাবু টুয়েসডেতে একটি স্টিল চেইন ম্যাচে তিনি স্টিনসকির নিকট পরাজিত হন এবং ম্যাচ শেষে স্টিনসকি একটি চেয়ার দিয়ে কেইনের গলনালী ভেঙে দেয়ার ফলে কয়েক মাস তিনি রিং এর বাইরে থাকেন। এই আক্রমণটি কাহিনীসূত্রের পুনরাবৃত্তি ছিল যেখানে কেইন ঠিক একইভাবে মাইকেলসকে আহত করেছিল। এই ইনজুরির ফলে কেইন সি নো ইভল চলচ্চিত্রে কাজ করার জন্য সময় পেয়ে যায়।

২০০৫ এর জানুয়ারিতে কেইন আবার ফিরে আসেন এবং নিউ ইয়ার'স রেভোলিউশনে স্টিনসকিকে পরাজিত করেন। রেসলমেনিয়া ২১ এর পরে, কেইন এবং লিটা আবার পুনর্মিলিত হন এবং লিটার প্রতিদ্বন্দ্বী ট্রিস স্ট্র্যাটাস-এর বিরুদ্ধে শত্রুতা শুরু হয়। যার ফলে কেইন এবং ট্রিসের ভাড়া করা বডিগার্ড ভিসেরার বিপক্ষে ব্যাকলেশে একটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় যেখানে কেইন জয়ী হন। পরে লিটা কেইনের দিকে ঘুরে দাঁড়ান এবং তার ঐ সময়ের বাস্তব জীবনের প্রেমিক এইজের সাথে সম্পর্ক শুরু করেন, ১৬ই মে র এর পর্বে গোল্ড রাশ ট্যুর্নামেন্টে এইজকে সাহায্য করার মাধ্যমে এবং তাকে মানি ইন দ্যা ব্রিফকেস দেন যা দিয়ে এইজ কেইনকে আঘাত দেন। এর মাধ্যমে কেইন এবং এইজের মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়ে যায়, যাকে ভ্যানজেন্সে স্টিনসকির হস্তক্ষেপ সত্ত্বেও কেইন পরাজিত করেন। এই দ্বন্দ্ব শেষ হয় ২৫শে জুলাই এর পর্বে একটি স্ট্রেচার ম্যাচে যেখানে এইজ কেইনকে পরাজিত করেন। এইজের প্রতি লিটার কোমলতা তাদের বাস্তব জীবনের প্রণয়ে পরিনত হয় যখন ম্যাট হার্ডির সাথেও লিটা প্রণয়ে জড়িত। হার্ডিকে পরবর্তীতে আবার ভাড়া করা হয় এবং লিটাকে নিয়ে কেইনের বদলে ম্যাট এবং এইজের মধ্যে বিরোধ শুরু হয়।

বিগ শো-এর সাথে টিম গঠন (২০০৫-২০০৬)[সম্পাদনা]

কেইনের সঙ্গে তার এক অন্ধ ভক্তের দ্বারা আঁকা একটি প্রতিকৃতি

১৭ই অক্টোবর, ২০০৫ এ কেইন আঠারো ম্যান ব্যাটাল রয়্যাল জেতার মাধ্যমে ডাব্লিউডাব্লিউই টেলিভিশনে ফিরে আসেন। তার এই জয়ের ফলে কেইন, বিগ শো এবং শন মাইকেলসের মধ্যে একটি ইন্টারনেট ভোটের আয়োজন করা হয় যার মাধ্যমে সিদ্ধ্বান্ত নেয়া হবে যে কে টাবু টুয়েসডেতে ডাব্লিউডাব্লিউই চ্যাম্পিয়নশিপ এর জন্য ম্যাচ খেলবে। টাবু টুয়েসডের আগের সপ্তাহে, অনেক অনুষ্ঠানে কেইন এবং বিগ শো টিম হয়ে অনেক ম্যাচ খেলেছেন। ঐ ভোটে মাইকেলস বিজয়ী হন এবং কেইন ও বিগ শো একজোট হয়ে লেন্স কেড এবং ট্রেভর মারডোকের বিপক্ষে লড়াই করে ওয়ার্ল্ড ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপ জিতেন। ২০০৫ এর বাকি সময়গুলোতে, তারা তাদের চ্যাম্পিয়নশীপ ধরে রাখেন, যে সময়ে তারা স্ম্যাকডাউন ব্র্যান্ডের সদস্যদের সাথে একটি আন্ত প্রচারমূলক দ্বন্দ্বে লিপ্ত হন। ১২ই ডিসেম্বর এ, এলিমিনেশন চ্যাম্বার কোয়ালিফাইং ম্যাচে কেইন ট্রিপল এইচকে পরাজিত করেন এবং নিউ ইয়ার'স রেভোলিউশনে এলিমিনেশন চ্যাম্বার ম্যাচে অংশগ্রহণ করেন কিন্তু তিনি কারলিটো এবং ক্রিস মাস্টার্স দ্বারা এলিমিনেট হন। ২০০৬ সালের শুরুর দিক জুড়ে কারলিটোক্রিস মাসস্টার্সের সাথে কেইন ও বিগ শোএর দ্বন্দ্ব চলতে থাকে এবং অবশেষে ২ এপ্রিল রেসলমেনিয়া ২২ এ তাদের বিপক্ষে তারা লড়াই করে জয়ী হন। পরের দিন, স্পিরিট স্কোয়াডের সদস্য কেনি এবং মাইকির নিকট কেইন এবং বিগ শো তাদের ওয়ার্ল্ড ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশিপটি হারান। এক সপ্তাহ পরে, কেইন এবং বিগ শো তাদের হারানো টাইটেলের জন্য স্পিরিট স্কোয়াডের সদস্য জনি এবং নিকির বিপক্ষে রিম্যাচ খেলেন, কিন্তু কেইন এবং বিগ শো ডিসকোয়ালিফাই হন।

পরের সপ্তাহগুলোতে, যারা ১৯ মে তারিখটি উল্লেখ করেছেন তাদেরকেই আক্রমণ করেছেন। ব্যাকল্যাশে কেইন এবং বিগ শোএর ম্যাচের সময়ে পুরো এরিনা জুড়ে কেইনের স্বর প্রতিধ্বনি হতে লাগলো "১৯ মে", "এটা আবার হবে" এবং "তারা সব জানতে যাচ্ছে", ফলে কেইন দৃশ্যত কাপা শুরু করে। তখন বিগ শো কেইনকে চেয়ার দিয়ে আঘাত করে, ফলে ম্যাচটি শেষ হয়ে যায়। ১৯ মে, স্ম্যাকডাউনে রে মিস্তেরিও-র জন্য জন ব্র্যাডশো লেফিল্ড এর বাছাই করা প্রতিদ্বন্দ্বী হন কেইন। উপরোক্ত স্বর এবং মুখোশের ভিডিও চালু করা শুরু করলে, তিনি লেফিল্ড এবং মিস্তেরিও দুজনকেই চকস্ল্যাম দিয়ে রিং এর বাইরে চলে যান। এর পরের পর্বে, সে বলেছিল, ১৯ মে তার মা এবং দত্তক পরিবার আগুনে পুড়ে মারা গিয়েছিল। ২৯ মে এর পর্বেও ঐ একই স্বর চলছিল, ঐ দিন তিনি সেই স্বরের মুখোমুখি হন, যেখানে ছিল এক ভণ্ড কেইন (লুক গেলোওস), পড়েছিল কেইনের পুরোনো পোশাক এবং মুখোশ, সে কেইনকে শেল্টন বেঞ্জামিনের বিপক্ষে আন্তঃমহাদেশীয় চ্যাম্পিয়নশীপ ম্যাচে চকস্ল্যাম দেন। পরবর্তী সপ্তাহগুলোতে কেইন এবং সেই ভণ্ডের সাথে লড়াই চলতে থাকে, যার ফলে এদের দুজনের মধ্যে ভেনজেন্সে একটি ম্যাচ বরাদ্দ করা হয়, যে ম্যাচে আসল কেইন ঐ ভণ্ডের কাছে পরাজিত হন। ২৬ জুন এ, কেইন ঐ ভণ্ডকে রিং-এর উপর দিয়ে ছুঁড়ে ফেলেন এবং তার মুখোশ খুলে ফেলে বলেন "আমি বিশ্বাস করি এটা আমার"। এর পরের দুই মাস কেইন ডাব্লিউডাব্লিউই টেলিভিশনে অনুপস্থিত ছিল কারণ সে ইউরোপে গিয়েছিল তার চলচ্চিত্র সি নো ইভল -এর প্রচারের জন্য।

কেইন সামারস্ল্যামে ফিরে আসেন এবং উমাগাকে আক্রমণ করেন, কারণ সে ডি-জেনারেশন এক্স বনাম ভিন্স এবং শেইন ম্যাকম্যানের ট্যাগ টিম ম্যাচে হস্তক্ষেপ করেছিল। এরপর কেইন তার সাবেক পার্টনার বিগ শো-এর মুখোমুখি হন ইসিডাব্লিউ চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য কিন্তু হেরে যান। এর অল্প কিছু সময় পরই, উমাগার সাথে তার একটি বড় ধরনের দ্বন্দ্ব বাঁধে যা শেষ ৯ অক্টোবরে একটি লুজার লিভস র ম্যাচ (যে হারবে সে ছেড়ে চলে যাবে), যে ম্যাচে কেইন পরাজিত হন।

ইসিডাব্লিউ চ্যাম্পিয়ন (২০০৬-২০০৮)[সম্পাদনা]

২০০৬ এ স্ম্যাকডাউনে আসার পর পুনরায় দ্যা আন্ডারটেকারের সাথে একত্রিত হন

১৩ অক্টোবরে, ২০০২ সালে ব্র্যান্ড বিভক্তের পরে কেইন প্রথম বার স্ম্যাকডাউনে আসেন। ৩ নভেম্বরে, কেইন দ্যা আন্ডারটেকারের সাথে দ্যা ব্রাদার্স অফ ডেস্ট্রাকশন নামে টিম গঠন করে মনটেল ভনটাভিয়াস পোর্টার (এমভিপি) এবং মি. কেনেডিকে পরাজিত করেন। কেইনের সাথে এমভিপি-এর দ্বন্দ্ব বিভিন্ন ম্যাচের মধ্যে চলতে থাকে। তাদের এই দ্বন্দ্বের শেষ পরিণতি ছিল আরমাগেডোনে একটি ইনফার্নো ম্যাচ; এমভিপি-র পিঠ আগুন লাগিয়ে দিয়ে কেইন এই ম্যাচে জিতে যান। পুরো বছর জুড়েই এমভিপি-র সাথে কেইনের ম্যাচ চলতে থাকে। রয়্যাল রাম্বলের আগের স্ম্যাকডাউনে, কিং বকার, এমভিপি, দ্যা মিয, ক্রিস বেনোয়া এবং ফিনলের সাথে একটি সিক্স ম্যান এলিমিনেশন ওভার-দ্যা-টপ-রোপ ব্যাটাল রয়্যালে অংশগ্রহণ করেন। কিন্তু এই ম্যাচে কোনো বিজয়ী থাকে না কারণ কেইন এলিমিনেট হওয়ার পরে বাকি প্রতিযোগীরা যখন তাকে আক্রমণ করেছিল তখন আন্ডারটেকার এসে হস্তক্ষেপ করেছিল।

রয়্যাল রাম্বলে, কিং বকারকে কেইন এলিমিনেট করেন, কিন্তু বকার আবার বে-আইনীভাবে রিং-এ প্রবেশ করে কেইনকে এলিমিনেট করেন। কয়েক সপ্তাহ পরে স্ম্যাকডাউনে, বকার যখন হাউস্টনে তার নিজ শহরের চাবি গ্রহণ করছিলেন, তখন কেইন তাকে আক্রমণ করেন এবং তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। নো ওয়ে আউটে, কেইন কিং বকারকে পরাজিত করেন। ২৩ ফেব্রুয়ারি, দ্যা গ্রেট খালির হস্তক্ষেপের কারণে, একটি ফলস কাউন্ট এনিহয়ের মানি ইন দ্যা ব্যাংক কোয়ালিফাইং ম্যাচে কিং বকারের নিকট কেইন পরাজিত হন, ফলে তাদের দুজনের মধ্যে দ্বন্দ্ব জ্বলে উঠে। রেসলমেনিয়া ২৩ এর আগে, কেইন একটি হুক নিয়ে হাঁটাচলা শুরু করেন, যা সি নো ইভল এ জেকব গুডনাইট হয়ে যে হুক ব্যবহার করেছিলেন সেটার মতই। একটি লাইভ ইভেন্টে, কেইন খালির নিকট পরাজিত হন। ম্যাচ চলাকালীন সময়ে, রেসলমেনিয়া ৩ তে হাল্ক হোগান যেভাবে এন্ডর দ্যা জায়ান্টকে নিক্ষেপ করেছিলেন, সেভাবেই প্রথম বার কেইন খালিকে তুলে রিং-এর বাইরে নিক্ষেপ করেছিলেন।

রেসলমেনিয়ার পরে, উইলিয়াম রিগ্যাল এবং ডেভ টেইলরের সাথে তার দ্বন্দ্ব শুরু হয়। এরপর বুগিম্যান সে দ্বন্দ্বে অংশ নেন এবং কেইনের সাথে যোগ দেন। ৪ মে স্ম্যাকডাউনে, ইউনাইটেড এস্টেটস চ্যাম্পিয়নশীপের (এমভিপি চ্যাম্পিয়ন) জন্য নাম্বার ওয়ান কন্টেন্ডার ম্যাচে অংশ নেন। কিন্তু রিগ্যাল এবং টেইলরের হস্তক্ষেপের কারণে কেইন পরাজিত হন। ২৫ মে স্ম্যাকডাউনে, ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য একটি ফ্যাটাল ফোর ওয়ে নাম্বার ওয়ান কন্টেন্ডার ম্যাচে অংশ নেন তবে সেই ম্যাচে বাতিস্তা জিতে যান। এরপর কেইন মার্ক হেনরির সাথে একটি ছোট দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েন। ওয়ান নাইট স্ট্যান্ডে একটি লাম্বারজ্যাক ম্যাচে কেনি ডিক্সট্রা এবং চেভো গারেরোর হস্তক্ষেপের কারণে হেনরির নিকট কেইন পরাজিত হন। ৬ জুলাই স্ম্যাকডাউনে, জেনারেল ম্যানেজার থেডর লং ঘোষণা করেন যে, দ্যা গ্রেট এমেরিকান ব্যাশে ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য কেইন এইজের মুখোমুখি হবেন। কেইনের দ্বারা এইজ আহত হওয়ার পরে টাইটেলটি শূণ্য করে দেওয়া হয় এবং নাম্বার ওয়ান কন্টেন্ডার ম্যাচে বাতিস্তা কেইনের বিপক্ষে লড়াই করেন। ম্যাচ চলাকালীন সময়ে, নতুন ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়ন দ্যা গ্রেট খালি বাতিস্তাকে আক্রমণ করেন এবং ম্যাচটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। ফলে দুজনকেই নাম্বার ওয়ান কন্টেন্ডার ঘোষণা করা হয় এবং দ্যা গ্রেট এমেরিকান ব্যাশে একটি ট্রিপল থ্রেট ম্যাচ বরাদ্দ করা হয়। খালি কেইনকে পিন দিয়ে তার টাইটেল ধরে রাখেন। ১৮ আগস্ট স্যাটারডে নাইট'স মেইন ইভেন্টে, কেইন বাতিস্তার সাথে টিম করে খালি এবং ফিনলেকে পরাজিত করেন। এরপর ফিনলের সাথে কেইনের একটি কাহিনীসূত্র শুরু হয়, যার ফলে সামারস্ল্যামে তাদের মধ্যে একটি ম্যাচ বরাদ্দ হয়, যে ম্যাচে ফিনলেকে চকস্ল্যাম দিয়ে কেইন জয়ী হন। তাদের এই দ্বন্দ্ব স্ম্যাকডাউনেও চলে, যেদিন হর্ন্সওগলের হস্তক্ষেপের কারণে নাম্বার ওয়ান কন্টেন্ডার ট্যুর্নামেন্টে ফিনলের নিকট কেইন পরাজিত হন।

এরপর ১৬ অক্টোবর ইসিডাব্লিউ তে কেইন আসেন, ইসিডাব্লিউ চ্যাম্পিয়ন সিএম পাঙ্কের বাছাই করা পার্টনার হিসেবে এবং তারা দুজনে একটি থ্রি অন টু হ্যান্ডিক্যাপ ম্যাচে জন মরিসন, দ্যা মিয এবং বিগ ড্যাডি ভি কে পরাজিত করেন। এই পরাজয়ের বদলা নিতে, ১৯ অক্টোবর স্ম্যাকডাউনে বিগ ড্যাডি ভি কেইনকে আক্রমণ করেন এবং এদের মধ্যে শুরু হয়ে যায় দ্বন্দ্ব। পরের সপ্তাহগুলোতে তাদের যুদ্ধ চলতে থাকে। সাইবার সানডে তে, ইউনাইটেড এস্টেটস চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য চ্যাম্পিয়ন এমভিপি-এর বিপক্ষে লড়াই করার জন্য কেইন মনোনীত হন, ঐ ম্যাচে কাউন্ট আউটের মাধ্যমে কেইন জিতে যান কিন্তু টাইটেল প্রাপ্ত হন না। এরপর বিগ ড্যাডির সাথে তার দ্বন্দ্ব চলতে থাকে, সারভাইভর সিরিজে তারা দুজন বিপরীত দলে অবস্থান নেন, যেখানে কেইনের টিম জিতে যায়। বিগ ড্যাডি অবশেষে মার্ক হেনরির সাথে টিম গঠন করে, যেখানে কেইন সিএম পাঙ্কের সাথে যোগ দেয়। তাদের এই দ্বন্দ্ব শেষ হয় আরমাগেডনে, যে ম্যাচে বিগ ড্যাডি পাঙ্ককে পিন দেয়ার পরে জিতে যান।

রেসলমেনিয়া ২৪ এর আগে একটি ব্যাটাল রয়্যাল ম্যাচে, সর্বশেষ কুস্তিগীর তার সাবেক শত্রু মার্ক হেনরিকে এলিমিনেট করে জয়ী হন, এর ফলে চেভো গারেরোর বিপক্ষে ইসিডাব্লিউ চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য একটি ম্যাচ প্রাপ্ত হন। ঐ ম্যাচে কেইন গারেরোকে পরাজিত করেন এবং ঐ ম্যাচটি ছিল রেসলমেনিয়ার ইতিহাসে দ্বিতীয় দ্রুততম ম্যাচ - মাত্র ১১ সেকেন্ডের। চ্যাম্পিয়নশীপ জেতার অল্প কিছু সময় পরে, কেইন আনুষ্ঠানিকভাবে ইসিডাব্লিউ তে যোগ দেন। ব্যাক্লেশে, কেইন গারেরোর বিপক্ষে তার ইসিডাব্লিউ চ্যাম্পিয়নশীপ রক্ষা করেন। এরপর কেইন সিএম পাঙ্কের সাথে টিম গঠন করে জাজমেন্ট ডেতে ডাব্লিউডাব্লিউই ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপ ম্যাচ প্রাপ্ত হন তবে ম্যাচটিতে তারা হেরে যান। ২০০৮ ডাব্লিউডাব্লিউই ড্রাফট-এর অংশ হিসেবে, কেইন ব্র্যান্ডে চলে যান এবং ইসিডাব্লিউ চ্যাম্পিয়নশীপকে মুখ্য করে তোলেন। নাইট অফ চ্যাম্পিয়নস-এ একটি ট্রিপল থ্রেট ম্যাচে (বিগ শো তৃতীয় প্রতিযোগী) মার্ক হেনরির নিকট তিনি তার টাইটেলটি হারান।

ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়ন (২০০৮-২০১১)[সম্পাদনা]

২৬ জুলাই এ, দ্যা গ্রেট এমেরিকান ব্যাশে একটি ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপ ম্যাচ থেকে কেইনকে প্রত্যাখ্যান করা হয়, যার ফলে কেইন রাগান্বিত হয়ে ধারাভাষ্যকার মাইকেল কোল এবং জেরি লওলারকে আক্রমণ করে ভিলেইন রূপ ধারণ করেন। গ্রেট এমেরিকান ব্যাশে, চ্যাম্পিয়ন সিএম পাঙ্ক এবং চ্যালেঞ্জার বাতিস্তা উভয়কেই কেইন আক্রমণ করেন। সেপ্টেম্বরে, রে মিস্তেরিওর সাথে তার দ্বন্দ্ব শুরু হয় যা শেষ হয় সারভাইভর সিরিজে। ২ মার্চ এ, একটি ট্রিপল থ্রেট ম্যাচে (রে মিস্তেরিও তৃতীয় প্রতিযোগী) মাইক নক্সকে পিন দিয়ে রেসলমেনিয়া ২৫মানি ইন দ্যা ব্যাংক ল্যাডার ম্যাচে অংশগ্রহণ করার সুযোগ পান, যে ম্যাচে অবশেষে সিএম পাঙ্ক বিজয়ী হন। ২০০৯ ড্রাফটের সময়ে, ব্রায়ান কেন্ড্রিককে হারিয়ে ড্রাফটে অংশ নিয়ে আবার স্ম্যাকডাউনে চলে আসেন। সেখানে কেইনের সাথে সিএম পাঙ্কের দ্বন্দ্ব বাঁধে এবং তা শেষ হয় ব্যাকলেশে। এরপর ভারত ভ্রমণ এবং তার আঘাতের আরোগ্য লাভের জন্য বিরতিতে যান, ফিরে আসেন দ্যা ব্যাশে এবং দ্যা গ্রেট খালিকে একটি স্টিল চেয়ার দিয়ে আঘাত করে ডলফ জিগলারকে জিতিয়ে দেন। এর ফলে খালির সাথে তার দ্বন্দ্ব শুরু হয় এবং খালিকে সামারস্ল্যাম এবং ব্রেকিং পয়েন্টে একটি সিঙ্গাপুর কেন ম্যাচে পরাজিত করেন। ব্র্যাগিং রাইটসে, ক্রিস জেরিকোর পাশাপাশি বিজয়ী টিম স্ম্যাকডাউনের সহ-অধিনায়ক ছিলেন তিনি। এরপর সারভাইভর সিরিজে ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়ন দ্যা আন্ডারটেকার এবং বিগ শোএর সাথে একটি ট্রিপল থ্রেট ম্যাচে অংশ নেয়ার জন্য নাম্বার ওয়ান কন্টেন্ডার ম্যাচে ক্রিস জেরিকোকে ব্যর্থ চ্যালেঞ্জ করেছিলেন। নভেম্বরে, কেইন আবার আন্ডারটেকারের সাথে একত্রিত হয়ে বিগ শো এবং জেরিকোর সাথে দ্বন্দ্বে মাতেন, ফলে হিরো রূপ ধারণ করেন। রেসলমেনিয়া ২৬ এ, মানি ইন দ্যা ব্যাংক ল্যাডার ম্যাচ চলাকালীন সময়ে, কেইন ব্রিফকেইসটি নিতে ব্যর্থ হন বরং জ্যাক সোয়েগার জিতে যান। পরবর্তী কয়েক মাস ধরে, কেইন বিভিন্ন সিঙ্গেল ম্যাচে জড়িত ছিলেন, যার মধ্যে ছিল ফ্যাটাল ফোর ওয়ে পেপারভিউ ইভেন্টে ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য কোয়ালিফাইং ম্যাচে মে মাসে সিএম পাঙ্কের কাছে পরাজয়।

৪ জুন স্ম্যাকডাউনে, কেইন বলল মেমোরিয়াল ডে-এর সপ্তাহে সে তার ভাই আন্ডারটেকারকে জায়মান অবস্থায় পেয়েছে এবং যে তার এই অবস্থা করেছে সেই প্রতিশোধ নেয়ার শপথও নিল সে। আন্ডারটেকারের আহত হওয়ার কারণে, তার স্থানে অন্য কাউকে দেয়ার জন্য একটি ব্যাটাল রয়্যাল অনুষ্ঠিত হল, যেখানে রে মিস্তেরিও জিতে যায় সর্বশেষ কেইনকে এলিমিনেট করে। প্রথম মানি ইন দ্যা ব্যাংক পেপারভিউ ইভেন্টে কেইন চতুর্থ বার মানি ইন দ্যা ব্যাংক ল্যাডার ম্যাচে অংশ নেন। সে ম্যাচটি জিতে যায় এবং ঐ রাতেই তার মানি ইন দ্যা ব্যাংক কন্ট্র্যাক্ট ক্যাশ ইন করে রে মিস্তেরিওকে (যে কিছুক্ষণ আগেই জ্যাক সোয়েগারকে হারিয়েছিল) হারিয়ে ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপ জিতে যান, আর এভাবেই কেইন হয়ে যায় ডাব্লিউডাব্লিউই-এর ইতিহাসে প্রথম কুস্তিগীর যিনি ডাব্লিউডাব্লিউই, ইসিডাব্লিউ এবং ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপ জিতেন। তিনিই হয়ে যান প্রথম কুস্তিগীর যিনি একই রাতে মানি ইন দ্যা ব্যাংক ক্যাশ ইন করে বিজয়ী হন এবং সবচেয়ে দ্রুততম ৪৭ মিনিটের মধ্যে ক্যাশ ইন করার রেকর্ড গড়েন। ২৩ জুলাই স্ম্যাকডাউনে, আন্ডারটেকারকে জায়মান অবস্থায় পাঠানোর জন্য মিস্তেরিওকে অভিযুক্ত করলেন; মিস্তেরিও তার অভিযোগের প্রতিরোধ করল এবং বলল কেইন নিজেই অপরাধী। সামারস্ল্যামে, মিস্তেরিওর বিপক্ষে কেইন তার ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপ রক্ষা করেন, তাদের ম্যাচ শেষে, আন্ডারটেকার হাজির হন।প্রকাশ হয়ে যায়, আন্ডারটেকারকে আক্রমণকারী কেইন-ই ছিলেন, ফলে কেইন আবার ভিলেইন রূপ ধারণ করেন এবং তাদের দ্বন্দ্ব আবার জ্বলে উঠে। নাইট অফ চ্যাম্পিয়নসে একটি নো হোল্ডস বার্ড ম্যাচে আন্ডারটেকারকে হারিয়ে কেইন তার ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপ রক্ষা করেন। স্ম্যাকডাউনের পরের পর্বে, ড্রুইড দ্বারা রিংসাইডে একটি ক্যাসকেট আনা হয়, পল বিয়ারারের আবির্ভাব হয় এবং সে আন্ডারটেকারকে সাপোর্ট করা শুরু করে। হেল ইন অ্যা সেল-এ, বিয়ারার আন্ডারটেকারের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করে এবং কেইনের সাথে হাত মিলিয়ে তাকে সাহায্য করে, ফলে কেইন তার চ্যাম্পিয়নশীপ রক্ষা করতে সক্ষম হয়। ব্র্যাগিং রাইটসে, একটি বারিড এলাইভ ম্যাচে দ্যা নেক্সাসের সাহায্যে আন্ডারটেকারকে হারিয়ে আবারও তার টাইটেল রক্ষা করেন এবং তাদের দ্বন্দ্বের অবসান হয়।

এরপর তার সাথে এইজের শত্রুতা আবার জ্বলে উঠে, যাকে সারভাইভর সিরিজে কেইনের ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাপিয়নশীপের জন্য নতুন চ্যালেঞ্জার ঘোষণা করা হয় ২৮ অক্টোবর স্ম্যাকডাউনে। ১২ নভেম্বর, এইজ বিয়ারারকে অপহরণ করেন এবং তাদের টাইটেল ম্যাচের আগে তাকে মানসিকভাবে নিচু করতে কেইনের সাথে মনস্তাত্ত্বিক খেলা শুরু করেন। সারভাইভর সিরিজে, কেইন তার টাইটেল রক্ষা করতে পারেন যখন রেফারী বুঝতে পারেন যে ম্যাচটি ড্র হয়েছে কারণ উভয়ই একজন আরেকজনকে একই সময়ে পিন দিয়েছে। যেহেতু তখনও বিয়ারার এইজের কব্জায় ছিল, পরবর্তী পেপারভিউতে রিম্যাচের জন্য কেইন রাজি হল। ৩ ডিসেম্বরে, একটি নন-টাইটেল ম্যাচে এইজ কেইনকে হারিয়ে তাদের টাইটেল ম্যাচটির ধরন কি হবে তার সিদ্ধ্বান্ত নেয়ার অধিকার অর্জন করল; এইজ পছন্দ করল টেবিলস, লেডার ও চেয়ার ম্যাচ। দেখা গেল কেইন পল বিয়ারারের মত দেখতে কাউকে নিয়ে রিং ত্যাগ করছে, তবে একটি ট্রাকের পিছে আসল বিয়ারার বাঁধা ছিল। পরের সপ্তাহে, কেইন ভুলবশত বিয়ারারকে আহত করে ফেলেন এই ভেবে যে এটা এইজের আরেক ঠকবাজি, ফলে বিয়ারার কাহিনী থেকে মুছে যায়। এর পরের সপ্তাহে, এইজকে খুঁজতে কেইন স্টেডিয়ামের সব জায়গায় ছোটাছুটি করতে লাগলো কিন্তু পুরো স্ম্যাকডাউনের কুস্তিগীররা তাদের দুজনকে এক প্রকার আটকে রাখলেন। টিএলসি তে, একটি ফোর ওয়ে টেবিলস ম্যাচে (আরও ছিলেন মিস্তেরিও এবং আলবার্তো ডেল রিও) এইজের নিকট পরাজিত হন। ৭ জানুয়ারি, ২০০১ স্ম্যাকডাউনে, কেইন ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য রিম্যাচ পান যা ছিল একটি লাস্ট ম্যান স্ট্যান্ডিং ম্যাচ, কিন্তু ব্যর্থ হন।

২০১১ রয়্যাল রাম্বল ম্যাচে কেইন অংশগ্রহণ করেন, যা ছিল ইতিহাসের সবচেয়ে বড় রয়্যাল রাম্বল ম্যাচ এবং তিনি ছিলেন ৪০ তম এবং সর্বশেষ অংশীদার। এরপর ২০১১ এলিমিনেশন চ্যাম্বার ম্যাচে ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য কেইন লড়াই করেন, ড্রু ম্যাকিনটায়ার এবং বিগ শোকে এলিমিনেট করেন এবং এইজ তাকে এলিমিনেট করেন। পরের মাসে, কেইন পুনরায় বিগ শোএর সাথে একত্রিত হন তাদের একই শত্রু দ্যা কোর-এর বিপক্ষে, আর এভাবে সে আবার হিরো রূপ ধারণ করেন। কেইন এবং বিগ শো ট্যাগ টিম টাইটেলের জন্য তাদেরকে চ্যালেঞ্জ করা শুরু করেন এবং অন্যান্য কুস্তিগীরদের তাদের আক্রমণ থেকে রক্ষা করা শুরু করেন। রেসলমেনিয়া ২৭ এ, বিগ শো এবং কেইন স্যান্তিনো মারেলা এবং কফি কিংস্টোনের সাথে একজোট হয়ে দ্যা কোরকে পরাজিত করেন। পরের সপ্তাহে, এদের মধ্যে আবার রিম্যাচ দেয়া হয় টু আউট অফ থ্রি ফলস ম্যাচে, যেখানে কেইনের টিম বিজয়ী হয়। ২২ এপ্রিল স্ম্যাকডাউনে, বিগ শো এবং কেইন কোর সদস্য জাস্তিন গেব্রিয়েল এবং হিথ স্লেটারকে হারিয়ে ডাব্লিউডাব্লিউই ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপ জিতেন, এটি ছিল তাদের টিমের দ্বিতীয় চ্যাম্পিয়নশীপ। বিগ শো এবং কেইন এরপর নিউ নেক্সাসের সাথে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে যায়। ওভার দ্যা লিমিটে, সিএম পাঙ্ক এবং ম্যাসন রায়ানের বিপক্ষে তাদের টাইটেল রক্ষা করে পরের রাতে তে, মাইকেল ম্যাকগিলিকাটি এবং ডেভিড অতুঙ্গার নিকট তাদের চ্যাম্পিয়নশীপ হারান। বিগ শো আহত হওয়ার কারণে, এই ম্যাচের পর তাদের টিম ভেঙে যায়। কেইন দ্বিতীয় বার্ষিক স্ম্যাকডাউন মানি ইন দ্যা ব্যাংক ল্যাডার ম্যাচে অংশ নেন, কিন্তু ম্যাচটিতে ড্যানিয়েল ব্রায়ান জয়ী হন। ২২ জুলাই স্ম্যাকডাউনে, মার্ক হেনরি কেইনকে আক্রমণ করে স্টিল চেয়ার দিয়ে কেইনের পায়ে আঘাত করেন। ডাব্লিউডাব্লিউই এর রিপোর্ট মোতাবেক ঐ আঘাতের ফলে কেইনের ফিবুলা ফেটে যায়, সম্ভবত ৫ মাস তাকে রিং এর বাইরে থাকার জন্য।

পুনরায় মুখোশ পড়া এবং টিম হেল নো (২০১১–২০১৩)[সম্পাদনা]

এপ্রিল ২০১২ রেসলমেনিয়া ২৮ এ, কেইন তার লাল মুখোশের উপর ধাতব মুখোশ পড়ে প্রবেশ করছেন

২০১১ সালের নভেম্বরের শুরুর দিকে, ডাব্লিউডাব্লিউই কেইন এবং একটি জ্বলন্ত লাল মুখোশের চিত্র প্রচার করা শুরু করলো এবং শেষ করলো স্ক্রীনে "কেইন পুনরুত্থিত হবে" এই লিখাটুকু উঠিয়ে। ১২ ডিসেম্বর র এ, কেইন ফিরে আসেন একটি ধাতব মুখোশ এবং নতুন পোশাক পড়ে যা অনুপ্রেণিত হয় ময়নাতদন্তের পর মানুষের শরীর ছেদ করার পদ্ধতিতে। কেইন তার ধাতব মুখোশ খোলার আগেই (ফলে নতুন লাল মুখোশ আর দেখা যায় না) সিনাকে আক্রমণ করে মার্ক হেনরি ও জন সিনার মধ্যকার মেইন ইভেন্ট ম্যাচে হস্তক্ষেপ করেন এবং আবার ভিলেইন রূপ ধারণ করেন। পরের সপ্তাহগুলোতে কেইন অনবরত সিনাকে আক্রমণ করতে থাকেন। সিনার মিত্র জ্যাক রাইডারকেও কেইন আক্রমণ এবং আহত করেন। রয়্যাল রাম্বলে কেইন এবং সিনা একটি ডাবল কাউন্ট আউট ম্যাচে লড়াই করেন। ম্যাচের পরে, রাইডারকে একটি টম্বস্টোন পাইলড্রাইভার এবং পরে সিনাকে চকস্ল্যাম দেন। ১৯ ফেব্রুয়ারি এলিমিনেশন চ্যাম্বারে, একটি এম্বুলেন্স ম্যাচে সিনা কেইনকে হারিয়ে তাদের দ্বন্দ্বের শেষ করেন। মার্চ মাসে, র‍্যান্ডি অরটনকে আক্রমণ করে তার সাথে দ্বন্দ্বের সূচনা করেন। পরে কেইন বলেন যে সে নিজেকে আবার দানব বলে মনে করতে যায় এবং সে বিশ্বাস করে অরটনকে হারানোর মাধ্যমেই তা পাওয়া যাবে। অরটনও পালটা আক্রমণ শুরু করলো, যার ফলে তাদের মধ্যে রেসলমেনিয়া ২৮ এ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় এবং কেইন জয়ী হন। পরের স্ম্যাকডাউনে রিম্যাচে, একটি নো ডিসকোয়ালিফিকেশন ম্যাচে অরটন কেইনকে পরাজিত করেন। অরটন এবং তার বাবা "কাউবয়" বব অরটনকে আক্রমণ করার পরে, একটি ফলস কাউন্ট এনিহোয়েআর ম্যাচে এক্সট্রিম রুলসে তারা মুখোমুখি হন, যে ম্যাচে একটি স্টিল চেয়ারের সদ্ব্যবহার করে অরটন জিতে যায়। ওভার দ্যা লিমিটে, কেইন রাইডারকে পরাজিত করেন।

কেইন এবং সিএম পাঙ্কের মধ্যে একটি নন-টাইটেল ম্যাচে ড্যানিয়েল ব্রায়ান হস্তক্ষেপ করেন এমনভাবে যে চেয়ার দিয়ে ব্রায়ান না বরং পাঙ্ক কেইনকে আঘাত করেছে, এর ফলে ডাব্লিউডাব্লিউই চ্যাম্পিয়ন সিএম পাঙ্ক এবং ব্রায়ানের সাথে একটি ত্রি-পাক্ষিক দ্বন্দ্ব শুরু হয় কেইনের। ১ জুন স্ম্যাকডাউনে, কেইন এবং পাঙ্কের মধ্যে ডাব্লিউডাব্লিউই চ্যাম্পিয়নশীপ অনুষ্ঠিত হয় যা ব্রায়ানের উভয়কেই আক্রমণ করার কারণে ডাবল ডিসকোয়ালিফিকেশনে শেষ হয়ে যায়। ৪ জুন এ, একটি নন-টাইটেল ম্যাচে কেইন সিএম পাঙ্ককে পরাজিত করেন এবং ২২ জুন স্ম্যাকডাউনে, ব্রায়ানকে পরাজিত করেন। এদিকে, ব্রায়ানের প্রাক্তন প্রেমিকা এজে-এর অনুভূতি কেইন এবং পাঙ্ক উভয়েরই প্রতি জেগে উঠে। তাদের এই দ্বন্দে নো ওয়ে আউটে একটি ট্রিপল থ্রেট ম্যাচে রূপ নেয়, যেখানে কেইনকে এজে বিভ্রান্ত করার কারণে পাঙ্ক তার টাইটেল রক্ষা করতে পারেন। র ১০০০ এ, কেইন আবার হিরো রূপ ধারণ করেন যখন তাকে জিন্ডার মহল, ড্রু ম্যাকিনটায়ার, টাইলার রিকস, কার্ট হওকিনস, হুনিকো এবং কামাচোর আক্রমণ থেকে তার ভাই দ্যা আন্ডারটেকার রক্ষা করে। সামারস্ল্যামে, ব্রায়ানের নিকট কেইন পরাজিত হন।

কেইন ড্যানিয়েল ব্রায়ানকে জড়িয়ে ধরার আহ্বান জানাচ্ছে

ব্রায়ান এবং কেইনের সমস্যার জন্য, এজে ডা. শেল্বির রাগ সংবরণ ক্লাসে তাদের নাম লিখান এবং এরপর তাদেরকে জোর করে একটি "হাগ ইট আউট" ম্যাচ খেলতে দেয়া হয়। ডা. শেল্বি এবং এজের ব্যবস্থাপনায়, এই দুই প্রতিপক্ষ একটি টিম গঠন করে তাদের প্রবল সংগঠনের মাধ্যমে দ্যা প্রাইম টাইম প্লেয়ারস (ড্যারেন ইয়াং এবং টাইটাস ও'নেইল) কে হারিয়ে ডাব্লিউডাব্লিউই ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য নাম্বার ওয়ান কন্টেন্ডার হন এবং নাইট অফ চ্যাম্পিয়নসে কফি কিংস্টোন এবং আর-ট্রুথকে হারিয়ে টাইটেল জিতেন। কেইন এবং ব্রায়ান পরের রাতের এ, সাবেক চ্যাম্পিয়নদের একটি রিম্যাচে হারিয়ে প্রথমবার সফলভাবে তাদের টাইটেল রক্ষা করেন। পরের সপ্তাহে এ, টুইটার ভোটের মাধ্যমে "টিম হেল নো" তাদের অফিসিয়াল টিমের নাম গ্রহণ করা হয়। টিম রোড স্কলারসদের (কডি রোডস এবং ড্যামিয়েন স্যান্ডো) সাথে টিম হেল নো-এর একটি দ্বন্দ্ব শুরু হয় এবং বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তাদের বিপক্ষে তারা তাদের টাইটেল অক্ষয় রাখেন। ২৬ নভেম্বর এ, দ্যা শিল্ড (ডীন অ্যামব্রোস, সেথ রলিন্স এবং রোমান রেইন্স) দ্বারা কেইন এবং ব্রায়ান উভয়েই প্রবলবেগে আক্রমণিত হন। টিম হেল নো রাইবেকের সাথে সন্ধি করে দ্যা শিল্ডের মুখোমুখি হয়, কিন্তু টিএলসিতে, একটি টেবিলস, লেডারস এবং চেয়ারস ম্যাচে তারা পরাজিত হন। ডিসেম্বর ২০১২ এবং জানুয়ারি ২০১৩-র মধ্যে তারা টিম রোড স্কলারস এবং ৩ এমবি (ড্রু ম্যাকিনটায়ার এবং হিথ স্ল্যাটার)-এর বিপক্ষে সফলভাবে তাদের টাইটেল রক্ষা করেন। ১১ ফেব্রুয়ারি র এ, ডলফ জিগলারকে হারিয়ে ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য এলিমিনেশন চ্যাম্বার ম্যাচের শেষ জায়গাটি দখল করেন কেইন, কিন্তু দ্বিতীয় ব্যক্তিই হন সে যে এলিমিনেট হন ঐ ম্যাচে। ৭ এপ্রিল রেসলমেনিয়া ২৯ এ, টিম হেল নো ডলফ জিগলার এবং বিগ ই ল্যাংস্টোনকে হারিয়ে আরেকবার সফলভাবে তাদের টাইটেল রক্ষা করেন। রেসলমেনিয়ার পরে, দ্যা শিল্ডের কবল থেকে আন্ডারটেকারকে রক্ষা করে তাদের সাথে টিম হেল নো-এর শত্রুতা আবার জেগে উঠে। ২২ এপ্রিল এ, একটি ছয় ম্যান ট্যাগ টিম ম্যাচে দ্যা শিল্ডের নিকট টিম হেল নো এবং দ্যা আন্ডারটেকার পরাজিত হন। কেইন এবং ব্রায়ান এরপর দ্যা শিল্ডের সদস্যদের সাথে ট্যাগ টিম এবং সিঙ্গেল ম্যাচে অংশ নেন, কিন্তু পরাজিত হন। ১৯ মে এক্সট্রিম রুলসে, তাদের ২৪৫ দিনের আধিপত্য শেষ করে শিল্ড সদস্য সেথ রলিন্স এবং রোমান রেইন্সের নিকট তাদের ডাব্লিউডাব্লিউই ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়নশীপ হারান। ২৭ মে রিম্যাচে তারা আবারো হেরে যান দ্যা শিল্ডের নিকট। ১৪ জুন স্ম্যাকডাউনে, কেইন, ব্রায়ান এবং র‍্যান্ডি অরটন দ্যা শিল্ডের যে আনপিন্ড/আনসাবমিটেড রেকর্ড ভেঙে দেন। তিন দিন পরে পেবেক এবং পরের রাত এ, ইউনাইটেড এস্টেটস চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য কেইন ডীন অ্যামব্রোসকে চ্যালেঞ্জ করে ব্যর্থ হন।

৮ জুলাই এ, কেইন মানি ইন দ্যা ব্যাংক কোয়ালিফাইং ম্যাচে খ্রিসচানকে হারান আর এরপরে নবাগত ওয়াট ফ্যামিলি তাকে আক্রমণ করে আহত করেন এবং এর ফলে কেইন আর মানি ইন দ্যা ব্যাংক ম্যাচ খেলতে পারেন না। কেইন তিন সপ্তাহ পরে ফিরে এসে ব্রায়ানের নিকট পরাজিত হন। ঐ ম্যাচের পরে, দ্যা ওয়াট ফ্যামিলি আবার তাকে আক্রমণ করেন এবং সামারস্ল্যামে ব্রেই ওয়াটের বিপক্ষে একটি রিং অফ ফায়ার ম্যাচ ঠিক করা হয়। এরিক রোয়ান এবং লুক হারপারের হস্তক্ষেপের কারণে কেইন পরাজিত হন এবং আরও একবার আক্রমণের পর, ওয়াট ফ্যামিলি তাকে তুলে নিয়ে রিং এর বাইরে চলে যায়। স্টোরিলাইনটি এভাবে তৈরি করায় কেইন সি নো ইভল ২ চলচ্চিত্র করার পর্যাপ্ত সময় পেয়ে যায়।

দ্যা অথোরিটি (২০১৩–২০১৫)[সম্পাদনা]

২০১৪ সালে "কর্পোরেট" কেইন

দুই মাস পর ২৭ অক্টোবর হেল ইন অ্যা সেলে ফিরে এসে ওয়াট ফ্যামিলি এবং দ্যা মিয উভয়কেই আক্রমণ করেন। পরের রাতে এ, কেইন স্টেফেনি ম্যাকম্যানকে বশ্যতা স্বীকার করে তার মুখোশ হস্তান্তর করে ভিলেইন রূপ ধারণ করেন এবং পরের সপ্তাহে দ্যা অথোরিটির সহযোগী সদস্য হিসেবে যোগ দিয়ে তার আনুগত্যকে আরও পরিষ্কার করেন। তার চরিত্র পরিবর্তন হওয়ার কারণে, সে মুখোশ ছাড়াই থাকলো এবং স্যুট টাই পড়ে একদম ফিট হয়ে দ্যা অথোরিটির কর্পোরেট আদর্শ হয়ে যান এবং "ডিরেক্টরস অফ অপেরাশনস" নামে একটি কাল্পনিক চরিত্র পান। ২০১৪ রয়্যাল রাম্বলে কেইন অংশ নেন এবং সিএম পাঙ্ক দ্বারা এলিমিনেট হন। ম্যাচ চলাকালীন সময়ে সে আবার এসে পাঙ্ককে এলিমিনেট করে রয়্যাল রাম্বলে সর্বোচ্চ এলিমিনেটধারীর রেকর্ড বরাবর নিজের রেকর্ড গড়ান; যদিও তার সর্বোচ্চ এলিমিনেশনের তের বছরের পুরনো রেকর্ড ভাঙ্গেন রোমান রেইন্স মাত্র একটি সিঙ্গেল রাম্বলে। এরপর কেইন অথোরিটির শত্রু ড্যানিয়েল ব্রায়ানের সাথে নিজেকে দ্বন্দ্বে জড়ান, যার ফলে ব্রায়ান এবং কেইনের মধ্যে একটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় এবং এলিমিনেশন চ্যাম্বারে ব্রায়ান এবং র‍্যান্ডি অরটনের মধ্যকার এলিমিনেশন চ্যাম্বার ম্যাচে কেইন হস্তক্ষেপ করেন।

২০১৪ এ "ডিমান (দৈত্য)" কেইন

রেসলমেনিয়া ৩০ এর পরে, শিল্ডের নিকট কেইন এবং দ্যা নিউ এইজ আউটলোস হারার পরে, স্টিফেনি ম্যাকম্যান কেইনকে তীব্র ভর্ৎসনা করে সে যে আগে "বিগ রেড মন্সটার" ছিলো তাকে খুঁজে বের করতে বলেন। ঐ সপ্তাহেই ১৫ এপ্রিল মেইন ইভেন্টে, কেইন আবার মুখোশ পড়ে ফিরে এসে বিগ শোকে আক্রমণ করেন। ২১ এপ্রিল এ, স্টিফেনি ম্যাকম্যান কেইনকে প্ররোচনা দিয়ে তার দ্বারা ড্যানিয়েল ব্রায়ান এবং তার স্ত্রী ব্রি বেলাকে আক্রমণ করিয়ে এক্সট্রিম রুলসে ডাব্লিউডাব্লিউই ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য নাম্বার ওয়ান কন্টেন্ডার ঘোষণা করেন। এক্সট্রিম রুলসে ড্যানিয়েলের নিকট কেইন টাইটেল ম্যাচটি পরাজিত হন। মানি ইন দ্যা ব্যাংকে, কেইন সেথ রলিন্সকে সাহায্য করে তাকে মানি ইন দ্যা ব্যাংক কন্ট্র্যাক্ট জিততে সাহায্য করেন। এরপর কেইন ডাব্লিউডাব্লিউই ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য একটি ল্যাডার ম্যাচে অংশ নেন, যে ম্যাচে জন সিনা জয়ী হন। ব্যাটালগ্রাউন্ডে, জন সিনা, র‍্যান্ডি অরটন এবং রোমান রেইন্সের বিপক্ষে ডাব্লিউডাব্লিউই ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য একটি ফ্যাটাল ফোর ওয়ে ম্যাচে অংশ নেন, কিন্তু সিনা তার টাইটেল রক্ষা করেন। ২৮ জুলাই এ, কেইনের সাথে রোমান রেইন্সের ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু ম্যাচ শুরু হওয়ার আগেই কেইন এবং র‍্যান্ডি অরটন রোমানকে আক্রমণ করেন।

৪ আগস্ট এ, একটি লাস্ট ম্যান স্ট্যান্ডিং ম্যাচে রোমান রেইন্সের নিকট কেইন হারার পরে, কেইন তার মুখোশ পরিত্যাগ করে স্টিফেনির নিকট জমা দেন। পরের সপ্তাহে এ, কেইন আবারও অথোরিটির ডিরেক্টর অফ অপারেশনস হিসেবে তার ভূমিকা পালন করা শুরু করেন। সারভাইভর সিরিজের মেইন ইভেন্টে, কেইন টিম অথোরিটির একজন ছিলেন, কিন্তু ডলফ জিগলার দ্বারা এলিমিনেট হন যিনি টিম সিনার হয়ে ম্যাচটি জিতিয়ে দেন। সারভাইভর সিরিজের পরে রাইব্যাকের সাথে কেইনের দ্বন্দ্ব শুরু হয়, যার ফলে টিএলসি তে তাদের মধ্যে একটি চেয়ার ম্যাচ সংগঠিত হয়, যেখানে রাইব্যাক বিজয়ী হন। রয়্যাল রাম্বলে কেইন চারজন কুস্তিগীরকে এলিমিনেট করেন, আর এভাবে রয়্যাল রাম্বল ম্যাচে সর্বোচ্চ এলিমিনেটকারীর রেকর্ড অতিক্রম করেন। ফাস্টল্যানে, কেইন, বিগ শো এবং সেথ রলিন্স মিলে ডলফ জিগলার, এরিক রোয়ান এবং রাইব্যাককে পরাজিত করেন। রেসলমেনিয়া ৩১ এ, দ্বিতীয় বার্ষিক এন্ডর দ্যা জায়ান্ট মেমোরিয়াল ব্যাটাল রয়্যালে কেইন অংশ নেন এবং সিজারো দ্বারা এলিমিনেট হয়ে যান। এক্সট্রিম রুলসে, সেথ রলিন্স এবং র‍্যান্ডি অরটনের মধ্যকার ডাব্লিউডাব্লিউই ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য একটি স্টিল কেইজ ম্যাচের দ্বাররক্ষক হিসেবে ছিলেন, যেখানে রলিন্স বিজয়ী হন। পেবেক-এ, ডীন অ্যাম্ব্রোস, র‍্যান্ডি অরটন, রোমান রেইন্স এবং সেথ রলিন্সের মধ্যকার ফ্যাটাল ফোর ওয়ে টাইটেল ম্যাচে রলিন্সকে সাহায্য করে তার ডিরেক্টর অফ অপারেশনস পদটিকে সুরক্ষিত করেন। মানি ইন দ্যা ব্যাংকে, কেইন মানি ইন দ্যা ব্যাংক ল্যাডার ম্যাচে অংশ নেন, যে ম্যাচে সেইমাস জয়ী হন। ১৩ জুলাই এ, ব্রক লেসনার স্টিলের সিঁড়ি দিয়ে কেইনের গোড়ালীতে আঘাত করে তাকে আহত করেন। এই আঘাতের পরে, রলিন্স কেইনের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেন এবং তার আহত গোড়ালীতে লাথি মারেন।

পরবর্তী দ্বন্দ্ব (২০১৫-২০১৮)[সম্পাদনা]

Kane during a WWE event in 2016

নাইট অফ চ্যাম্পিয়নসে কেইন আবার তার "ডিমান" রূপে ফিরে আসেন এবং সেইমাসকে তার মানি ইন দ্যা ব্যাংক ক্যাশ ইন করতে বাধা দিয়ে সেথ রলিন্সকে আক্রমণ করেন আর এভাবে হিরো রূপ ধারণ করেন। "ডিমান" এবং "কর্পোরেট" উভয় রূপেই কেইন এবার আবির্ভূত হন এবং সেথ রলিন্সের সাথে দ্বন্দ্ব চালিয়ে যেতে থাকেন এবং ১২ অক্টোবর এ একটি লাম্বারজ্যাক ম্যাচে সেথকে পরাজিত করেন। হেল ইন অ্যা সেল-এ, সেথের বিপক্ষে "ডিমান" কেইন তার ডাব্লিউডাব্লিউই ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশীপ ম্যাচটিতে পরাজিত হন এবং চুক্তি অনুযায়ী "কর্পোরেট" কেইনকে তার ডিরেক্টোর অফ অপারেশনস পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়। হেল ইন অ্যা সেলের পরে, দ্যা আন্ডারটেকারের সাথে একত্র হয়ে দ্যা ওয়াট ফ্যামিলির সাথে দ্বন্দ্ব শুরু করেন। সারভাইভর সিরিজে, একটি ট্যাগ টিম ম্যাচে দ্যা ব্রাদার্স অফ ডেস্ট্রাকশন ব্রেই ওয়াট এবং লুক হারপারকে পরাজিত করেন। ২০১৬ রয়্যাল রাম্বল ম্যাচে, কেইন সপ্তম প্রবেশধারী ছিলেন এবং ব্রাউন স্ট্রোম্যান তাকে এলিমিনেট করেন। ফাস্টলেন এ, কেইন বিগ শো এবং রাইব্যাকের সাথে টিম গঠন করে ওয়াট ফ্যামিলিকে পরাজিত করেন। রেসলমেনিয়া ৩২ এ, তিনি এন্ডর দ্যা জায়ান্ট মেমোরিয়াল ব্যাটাল রয়্যাল ম্যাচে অংশ নেন এবং রানার্স আপ হয়ে বিজয়ী ব্যারন করবাইনের নিকট হতে এলিমিনেট হন। ১৯ জুলাই ২০১৬ ডাব্লিউডাব্লিউই ড্রাফটে, কেইন ড্রাফট হয়ে স্ম্যাকডাউনে চলে আসেন। ব্যাকলেশে, রেন্ডি অরটনের হস্তক্ষেপ সত্ত্বেও ব্রেই ওয়াটকে পরাজিত করেন। সারভাইভর সিরিজে, কিক-অফ শোতে, কেইন লুক হার্পারকে পরাজিত করেন। ২৯ নভেম্বর স্ম্যাকডাউন লাইভে, তাদের মধ্যে রিম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় যেখানে কেইন বিজয়ী হন। ১৬ অক্টোবর ২০১৭ এ, প্রায় এক বছর অনুপস্থিত থাকার পর, কেইন আকস্মিকভাবে ফিরে আসেন যখন সে রিং এর নিচ থেকে উঠে রোমান রেইন্সকে আক্রমণ করেন, যার ফলে ব্রাউন স্ট্রোম্যানের সাথে সংগঠিত স্টিল কেইজ ম্যাচে রোমান হেরে যায় এবং টিএলসি তে, কেইন দ্যা মিজ-এর টিমে যোগ দেন, ফলে এ চলে আসেন এবং আবার হীল রূপ ধারণ করেন। ২২ অক্টোবর, কার্ট এঙ্গেল, ডীন অ্যামব্রোস এবং সেথ রলিন্সের বিপক্ষে একটি ফাইভ অন থ্রি হ্যান্ডিক্যাপ টিএলসি ম্যাচে কেইন, মিজ, স্ট্রোম্যান, সিজারো এবং সেইমাস পরাজিত হন, কেইন এবং তার সাথীরা যখন স্ট্রোম্যানের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেন। এরপর কেইনের সাথে স্ট্রোম্যানের দ্বন্দ্ব পুনরায় শুরু হয়। ১১ ডিসেম্বর এ, কেইন এবং স্ট্রোম্যানের মধ্যে ব্রক লেসনারেইউনিভার্সাল চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য নাম্বার ওয়ান কন্টেন্ডারের জন্য একটি ম্যাচ হয়, যা ডাবল কাউন্ট আউটে শেষ হয়। ফলে রয়্যাল রাম্বলে, ট্রিপল থ্রেট ম্যাচ হয় এবং লেসনার তার টাইটেল রক্ষা করেন। পরের রাতে এ, স্ট্রোম্যানের বিপক্ষে একটি লাস্ট ম্যান স্ট্যান্ডিং ম্যাচে কেইন পরাজিত হওয়ার পর কিছু দিন তাকে দেখা যায় না। ১৯ মার্চ এ কেইন আবার ফিরে আসেন এবং জন সিনা যখন আন্ডারটেকারকে আহ্বান করেন তখন কেইন তাকে চকস্ল্যাম দেন। পরের সপ্তাহে এ, নো ডিসকোয়ালিফিকেশন ম্যাচে কেইন সিনার নিকট পরাজিত হন। রেসলমেনিয়া ৩৪ এ, কেইন অ্যান্ডর দ্যা জায়ান্ট মেমোরিয়াল ব্যাটাল রয়্যাল এ অংশ নেন এবং শেষ চারে টিকে থাকেন।

টিমে হেল নো পুনর্মিলন (২০১৮ - বর্তমান)[সম্পাদনা]

কেইন ফেইসরূপে ২৬ জুুন স্ম্যাকডাউন লাইভে ফিরে আসেন এবং স্ম্যাকডাউন ট্যাগ টিম চ্যাম্পিয়ন দ্যা ব্লাজিয়ন ব্রাদার্সের কাছ থেকে ড্যানিয়েল ব্রায়ানকে রক্ষা করেন।আর এভাবে টিম হেল নো-এর পুনর্মিলন ঘটে।

অন্যান্য মিডিয়া[সম্পাদনা]

জেকবস "জেকব গুডনাইট" হিসেবে ডাব্লিউডাব্লিউই স্টুডিওর প্রথম সৃষ্টি সি নো ইভল এ অভিষেক করেন, যা ২৯ মে ২০০৬ এ মুক্তি পায়।এছাড়াও ম্যাকগ্রাবার নামক চলচ্চিত্রেও তাকে দেখা যায় যেখানে তার সহশিল্পী ছিলেন আরও কয়েকজন কুস্তিগীর মন্টেল ভোন্টাভিয়াস পোর্টার, ক্রিস জেরিকো, দ্যা গ্রেট খালি, মার্ক হেনরি এবং বিগ শোসি নো ইভল ২-এও তিনি অভিনয় করেন, যা আগস্ট ২০১৩ সালে ঘোষণা হয় এবং ২১ অক্টোবর ২০১৪ তে মুক্তি পায়।

মার্চ ২০০২ এ, দ্যা উইকেস্ট লিঙ্কের একটি স্পেশাল ডাব্লিউডাব্লিউই পর্বে তাকে দেখা যায় এবং সর্বশেষ রাউন্ডে বাবা রে ডাডলিকে হারিয়ে জয়ী হন এবং এই বিজয়ে প্রাপ্ত অর্থ তার পছন্দের চ্যারিটি মেমফিস, টেনিসিতে অবস্থিত সেন্ট জুড চিল্ড্রেন'স হসপিটালে দান করেন। স্মলভিলে টিভি সিরিজের "কমব্যাট" পর্বে টাইটান হিসেবে তাকে দেখা যায় যেখানে তার সাথে ছিল সাবেক ডাব্লিউডাব্লিউই ডিভা এশলে মিজারো। এই পর্বটি ২২ মার্চ, ২০০৭ এ প্রচারিত হয়। এছাড়াও তাকে শেফ বয়ারডি বিজ্ঞাপনেও দেখা যায় যেখানে তিনি তার পুরো মুখ জুড়ে থাকা মুখোশটি পড়ে খাওয়ার চেষ্টা করে।

আন্ডারটেকার কমিক বুকের চৌদ্দতম প্রচারে কেইন চরিত্রটিকে নেয়া হয় যা কেওস! কমিকস ১৯৯৯ সালে সম্পাদনা করেন। তার চরিত্রটিকে মাত্র একবার কথা বলতে দেখা যায় আন্ডারটেকার হেলোয়িন স্পেশাল পর্বে যা ম্যানকাইন্ড কমিক বুকের একটি একক সংস্করণের সাথে জুড়ে দেয়া হয় যা ঐ একই কোম্পানির সম্পাদনা ছিল। ২০০৫ সালে মাইকেল শায়াপেটা কেইনের শিরোনামে জার্নি ইন্টু ডার্কনেসঃঅ্যান আনওথোরাইজড হিস্টোরি অফ কেইন নামের একটি বই প্রকাশ করেন। ৯ ডিসেম্বর ২০০৮ সালে, দ্যা টুইস্টেড, ডিস্টার্বড লাইফ অফ কেইন - এই শিরোনামে ডাব্লিউডাব্লিউই একটি তিন ডিস্কের রচনাসংগ্রহ প্রকাশ করেন। এই ডিভিডি কেইনের প্রথম দশ বছরের বিশেষ দ্বন্দ্ব এবং শত্রুতা ধারণ করে।

১৬ মার্চ ২০০৭ থেকে ১৩ মার্চ ২০০৮ পর্যন্ত জেকবস সিটিজেন এক্স ছদ্মনামে দ্যা টাইনি পলিটিকাল শো শিরোনামের একটি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেছিলেন। ২০০৭ থেকে ১৭ জুলাই ২০১১ পর্যন্ত তিনি অ্যাডভেঞ্চারঅফসিটিজেনএক্স.কমদ্যা অ্যাডভেঞ্চার অফ সিটিজেন এক্স নামের একটি ব্লগ চালাতেন, যদিও সর্বশেষ আপডেট পাওয়া যায় ২০১১ সালের ২৮ মে পর্যন্ত। যাইহোক, ১ জুলাই, ২০১২ তে নতুন আপডেট দিয়ে ওয়েবসাইটটিকে পুনরায় চালু করা হয়। লিউরকওয়েল.কম এর তিনি একজন নিয়মিত চাঁদাদাতা।

কেইন হিসেবে বিভিন্ন ভিডিও গেইমসেও তাকে দেখা যায়ঃ ডাব্লিউডাব্লিউএফ ওয়ার জোন, ডাব্লিউডাব্লিউএফ এটিচিউড, ডাব্লিউডাব্লিউএফ রেসলমেনিয়া ২০০০, ডাব্লিউডাব্লিউএফ স্ম্যাকডাউন!, ডাব্লিউডাব্লিউএফ রয়্যাল রাম্বল, ডাব্লিউডাব্লিউএফ নো মার্সি, ডাব্লিউডাব্লিউএফ স্ম্যাকডাউন! ২ঃ নোও ইয়র রোল, ডাব্লিউডাব্লিউএফ উইথ অথোরিটি!, ডাব্লিউডাব্লিউএফ রোড টু রেসলমেনিয়া, ডাব্লিউডাব্লিউএফ স্ম্যাকডাউন! জাস্ট ব্রিং ইট, ডাব্লিউডাব্লিউএফ র, ডাব্লিউডাব্লিউই রেসলমেনিয়া ১৮, ডাব্লিউডাব্লিউই রোড টু রেসলমেনিয়া ১৮, ডাব্লিউডাব্লিউই স্ম্যাকডাউন! শাট ইয়র মাউথ, ডাব্লিউডাব্লিউই ক্রাশ আওয়ার, ডাব্লিউডাব্লিউই রেসলমেনিয়া ১৯, ডাব্লিউডাব্লিউই র ২, ডাব্লিউডাব্লিউই স্ম্যাকডাউন! হেয়ার কামস দ্যা পেইন, ডাব্লিউডাব্লিউই ডে অফ রেকোনিং, ডাব্লিউডাব্লিউই সারভাইভর সিরিজ, ডাব্লিউডাব্লিউই স্ম্যাকডাউন! বনাম র, ডাব্লিউডাব্লিউই রেসলমেনিয়া ২১, ডাব্লিউডাব্লিউই ডে অফ রেকোনিং ২, ডাব্লিউডাব্লিউ স্ম্যাকডাউন! বনাম র ২০০৬, ডাব্লিউডাব্লিউই স্ম্যাকডাউন বনাম র ২০০৭, ডাব্লিউডাব্লিউই স্ম্যাকডাউন বনাম র ২০০৮, ডাব্লিউডাব্লিউই স্ম্যাকডাউন বনাম র ২০০৯, ডাব্লিউডাব্লিউই স্ম্যাকডাউন বনাম র ২০১০, ডাব্লিউডাব্লিউই স্ম্যাকডাউন বনাম র ২০১১, ডাব্লিউডাব্লিউই অল স্টারস, ডাব্লিউডাব্লিউই '১২, ডাব্লিউডাব্লিউই '১৩, ডাব্লিউডাব্লিউই টুকে১৪, ডাব্লিউডাব্লিউই টুকে১৫, ডাব্লিউডাব্লিউই টুকে১৬, ডাব্লিউডাব্লিউই টুকে১৭, ডাব্লিউডাব্লিউই টুকে১৮ এবং ডাব্লিউডাব্লিউই টুকে১৯

কুস্তিতে[সম্পাদনা]

Kane raises his right hand in anticipation of the chokeslam.
সিএম পাঙ্গক এর উপর কেইন চোকস্লাম দিচ্ছে
কেইন রেনডি ওরটন এর উপর থুম্বস্টোন পিলড্রাইভার দেওয়ার জন্য প্রস্তুত।
র ১০০০ এ কেইন কার্ট হকিন্সের উপর থুম্বস্টোন পিলড্রাইভারপ্রয়োগ করেছে।
কেইন সিএম পাঙ্গকের উপর ডাইভিং ক্লথ স্লাইন প্রয়োগ করছে।
Kane performing his signature entrance at SummerSlam in 2007.

ফিল্মোগ্রাফি[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

বছর শিরোনাম ভূমিকা
২০০৬ সি নো ইভল জেকব গুড নাইট
২০১০ ম্যাকগ্রাবার ট্যাংকার লুতিয
২০১৪ স্কুবি-ডো! রেসেলম্যানিয়া মিস্টরি নিজে
২০১৪ সী নো ইভল ২ জেকব গুড নাইট
২০১৬ কাউন্টডাউন লেঃ ক্রোনিন

টেলিভিশন[সম্পাদনা]

বছর শিরোনাম ভূমিকা নোট
২০০৭ স্মলভিলে টাইটান মৌসুম ৬, পর্ব ১৭: "কমব্যাট"

ওয়েব সিরিজ[সম্পাদনা]

বছর শিরোনাম অভিনয় নোট
২০১৩-২০১৫ দ্যা জেবিএল এন্ড রিনি শো নিজে পুনরাবৃত্তি ভূমিকা

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

২০১৪ সালে আলেকজেন্ড্রিয়া, ভারজিনিয়াতে ক্যাম্পেইন অফ লিবার্টি দ্বারা আমন্ত্রিত এক রাজনৈতিক সম্মেলনে জেকবস ভাষণ দিচ্ছেন

জেকবস উদারবাদী রাজনীতিতে সক্রিয়ভাবে জড়িত এবং একটি ব্লগের মাধ্যমে তিনি তার মত জানিয়েছেন। ২০০৮ সালে জেকবস টেক্সাস কংগ্রেসম্যান রন পলকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সমর্থন দিয়েছিলেন। তিনি ফ্রি স্টেট প্রজেক্টের একজনে সদস্য এবং এই সংগঠনের ২০০৯ নিউ হ্যাম্পশায়ার লিবার্টি ফোরাম এ ভাষণ দিয়েছিলেন। অর্থনীতিতে অস্ট্রিয়ান স্কুলের প্রচারণায় লাডউইগ ভন মাইসেস ইন্সটিটিউট যা পুঁজীবাদিতে বিশ্বাসী সেখানেও তিনি ভাষণ দিয়েছিলেন।

দ্যা টম উডস শো উদারবাদী পোডকাস্টে তিনি একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন, যেখানে তিনি উডস, হ্যারি ব্রাউন, রন পল, জন স্টসেল, পিটার শিফ এবং মারে রোথবার্ডকে তার রাজনৈতিক অনুপ্রেরণা বলে দাবি করেন এবং তিনি নিজেকে "তাত্ত্বিকভাবে একজন রোথবার্ডিয়ান"ও বলেন, কিন্তু তিনি এটা বিশ্বাস করেন না যে, তার জীবদ্দশায় তিনি একটি রাষ্ট্রহীন সমাজ অর্জন করতে পারবেন। কিছু টি পার্টি অধিভুক্ত গ্রুপ সেন. লামার আলেকজান্ডারের বিপক্ষে টেনেসিতে ২০১৪ রিপাবলিকান ইউ.এস. সেনেট প্রাইমারিতে জেকবসকে অন্তর্ভুক্ত করার চেষ্টা করেছিল।

২০১৬ এর মে মাসে, জেকবস বলেছিল যে, সে ২০১৮ এর নক্স কাউন্টি মেয়র আসনের জন্য একজন প্রজাতন্ত্রী হিসেবে প্রতিদ্বন্দীতা করার জন্য গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করেছেন, কিন্তু ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর তিনি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেন। ২০১৭ এর মার্চে, জেকবস ঘোষণা করেন যে, তিনি সরকারীভাবে একজন প্রজাতন্ত্রী হিসেবে নক্স কাউন্টির মেয়র আসনের জন্য প্রচারণা চালাচ্ছেন। ২০১৮ সালের মে মাসে, নক্স কাউন্টি, টেনেসির মেয়র আসনের জন্য পুঁজিবাদী প্রাথমিক নির্বাচনে তিনি জয়লাভ করেন।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

১৯৯৫ সালের ২৩শে আগস্ট ক্রিস্টাল মরিসা গোয়িনসকে জেকবস বিয়ে করেন এবং তাদের দুটি কন্যা সন্তান আছে।

কুস্তির বাইরে, জেকবস বিমাকারী হিসেবে কাজ করেন এবং তার ও তার স্ত্রীর নক্সভ্যালি, টেনেসিতে নিজস্ব একটি অলস্টেট এজেন্সী আছে। ২০১৫ এর জুলাই মাসে রিয়েলটর.কম (ন্যাশনাল এসোসিয়েশন অফ রিয়েলটরদের একটি ওয়েবসাইট)-এর সাথে এক সাক্ষাৎকারে জেকবস ইঙ্গিত দেন যে তাদের বীমা ব্যবসায় তাদের দুজনের বাধ্যবাধকতা তাদেরকে বাধ্য করছে তাদের জিফারসন সিটির বাড়িটিকে বিক্রয় করতে। তাদের এই বাড়িটি তৈরি হয় ২০০৫ সালে, যা এজেন্সি থেকে এক ঘণ্টার ড্রাইভ দূরে এবং জেকবস ও তার স্ত্রী দন্ড লঘু করতে করতে ক্লান্ত হয়ে গিয়েছিলেন।

চ্যাম্পিয়নশীপ এবং সাফল্য[সম্পাদনা]

লুচাস দে আপুয়েস্তাস রেকর্ড[সম্পাদনা]

বিজয়ী (বাজি) পরাজয়ী (বাজি) অবস্থান অনুষ্ঠান তারিখ
জেরি লওলার (চ্যাম্পিয়নশিপ) খ্রিস্টমাস ক্রিয়েচার (মুখোশ) ম্যামফিস, টেনে ইউএসডাব্লিউএ লাইভ ইভেন্ট 01992-12-28ডিসেম্বর ২৮, ১৯৯২
কেইন (মুখোশ) ভেইডার (মুখোশ) মিলোওয়াউকি, উইস্কোন্সিন ওভার দ্যা এইজ 01998-05-31মে ৩১, ১৯৯৮
ট্রিপল এইচ (চ্যাম্পিয়নশিপ) কেইন (মুখোশ) নিউ ইয়র্ক সিটি, নিউ ইয়র্ক 02003-06-23জুন ২৩, ২০০৩

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Kane Bio"। Online World of Wrestling। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৫, ২০০৮ 
  2. "Kane"Canoe.caQuébecor Média। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ৫, ২০০৭ 
  3. "IGN: Kane (WWE) Biography"। IGN। সংগ্রহের তারিখ মে ১৯, ২০০৮ 
  4. Oliver, Greg (২০০৭)। The Pro Wrestling Hall of Fame: The Heels। ECW Press। পৃষ্ঠা 228। আইএসবিএন 1-55022-759-9 
  5. Nair, Mona। "WWE wrestler challenges Lt. Gov. Ramsey to Internet sales tax debate"। WATE। সংগ্রহের তারিখ মে ২৪, ২০১৩ 
  6. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; bella নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  7. "404 - Page Not Found"jacobsagencytn.com 
  8. Dunham, Jeremy (সেপ্টেম্বর ১৫, ২০০৩)। "Smackdown Countdown 2003: Kane"। IGN। 
  9. Morrow, Terry (মার্চ ২৬, ১৯৯৯)। "Calm Influence of Family at Center of Life For This WWF Dynamo."। Knoxville News-Sentinel। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২২, ২০০৭ 
  10. "The 50 coolest maneuvers of all time"wwe.com। ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৫, ২০১৪ 
  11. Trionfo, Richard। "WWE SMACKDOWN REPORT: REY RETURNS TO THE RING; DOES DOLPH CASH IN THE BRIEFCASE?; IS CHRISTIAN TRYING TO BE THE BEST MAN IN THE WEDDING OF THE CENTURY OF THE YEAR OF NEXT WEEK?; SANDOW SAVES US"। PWInsider। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২১, ২০১২ 
  12. Stephens, David। "WWE RAW Results – 6/10/13 (Six days until Payback)"। WrestleView। সংগ্রহের তারিখ জুন ১২, ২০১৩ 
  13. Eck, Kevin (ডিসেম্বর ২৩, ২০১১)। ""Eck's Factor": Weekly Analysis for Dec. 23, 2011"। WWE। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১২, ২০১৩ 
  14. Benigno, Anthony; Herrera, Tom (ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৪)। "15 Superstars' 'secret weapons'"wwe.com। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৫, ২০১৪ 
  15. "411's Live! WWE No Way Out 2003 Coverage.::. Storm/Regal Vs Kane/RVD"। 411mania। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ২২, ২০১১ 
  16. Trionfo, Richard। "WWE SmackDown Report: Last Major Show Before Hell in a (or the) Cell; Tag Title Participants in Singles Matches; The Barrage Continues to Roll; Show and Sheamus Have Words for Each Other"। PWInsider। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২৯, ২০১২ 
  17. Parks, Greg। "Parks' WWE SmackDown Report 1/1: Ongoing "virtual time" coverage of the show, including Morrison vs. McIntyre for the I.C. Title"। Pro Wrestling Torch। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ২২, ২০১১ 
  18. Tait, James। "Tait's WWE SmackDown Report 2/24: Alt. perspective review of Vickie's "firing," Raw replays, Overall Picks & Highlights & Dusty Quotes"। Pro Wrestling Torch। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ২২, ২০১১ 
  19. Tedesco, Mike। "Smackdown Results – 6/24/11"। Wrestleview। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ২২, ২০১১ 
  20. Cupach, Michael। "Cupach's WWE SmackDown Report 7/2: Alt. perspective review of Friday's show, Mike Reax to matches & segments"। Pro Wrestling Torch। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ২২, ২০১১ 
  21. "Smackdown: The effects of Money and Monday"Canoe.ca। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  22. "SmackDown: Tag belts and rivalries in the cage"Canoe.ca। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  23. "Main Event: Tag belts, Bryan and Kane lead first live show"Canoe.ca। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  24. "WWF Bio"। WWF। এপ্রিল ২৯, ১৯৯৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১৯, ২০০৮ 
  25. Smoky Mountain Wrestling (১৯৯৫-০১-০২)। "Unabomb introduced by Eddie Gilbert; Unabomb & "Hot Stuff" Eddie Gilbert Vs. The Rock 'n' Roll Express"। SMW 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]