হেকলার অ্যান্ড কক জি৩

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
হেকলার অ্যান্ড কক জি৩
Heckler & Koch G3 Kunststoffschaft Display noBG.png
নরওয়ের তৈরিকৃত ভার্শন এজি-৩
প্রকার যুদ্ধ/অ্যাসল্ট রাইফেল
উদ্ভাবনকারী  জার্মানি
(পূর্বে পশ্চিম জার্মানি)
ব্যবহার ইতিহাস
ব্যবহারকাল ১৯৫৯–১৯৯৭ (জার্মানি)
১৯৬০–বর্তমান (অন্যান্য দেশ)
ব্যবহারকারী দেখুন ব্যবহারকারী
যুদ্ধে ব্যবহার যুদ্ধ
উৎপাদন ইতিহাস
নকশাকারী কেটমে
মাউসার
হেকলার অ্যান্ড কক
নকশাকাল ১৯৫০
উৎপাদনকারী হেকলার অ্যান্ড কক
রেইনমেটাল
উৎপাদনকাল ১৯৫৮–বর্তমান
উৎপাদন সংখ্যা ৮,০০০,০০০[১]
তথ্যাবলি
ওজন ৪.৩৮ কেজি (৯.৬৬ পা) (জি৩এ৩)
৪.৭ কেজি (১০ পা) (জি৩এ৪)
৫.৫৪ কেজি (১২.২ পা) (জি৩এসজি/১)
৪.১ কেজি (৯.০ পা) (জি৩কেএ৩)
৪.৪ কেজি (৯.৭ পা)(জি৩কেএ৪)
দৈর্ঘ্য ১,০২৫ মিমি (৪০.৪ ইঞ্চি) (জি৩এ৩)
১,০২৫ মিমি (৪০.৪ ইঞ্চি) স্টক সম্প্রসারিত / ৮৪০ মিমি (৩৩.১ ইঞ্চি) স্টক সংকুচিত (জি৩এ৪)
১,০২৫ মিমি (৪০.৪ ইঞ্চি) (জি৩এসজি/১)
৮৯৫ মিমি (৩৫.২ ইঞ্চি) স্টক সম্প্রসারিত / ৭১১ মিমি (২৮.০ ইঞ্চি) স্টক সংকুচিত (জি৩কেএ৪)
ব্যারেলের দৈর্ঘ্য ৪৫০ মিমি (১৭.৭ ইঞ্চি)
৩১৫ মিমি (১২.৪ ইঞ্চি) (জি৩কে)
প্রস্থ ৪৫ মিমি (১.৮ ইঞ্চি)
উচ্চতা ২২০ মিমি (৮.৭ ইঞ্চি) ম্যাগাজিন সহ

কার্টিজ ৭.৬২×৫১মিমি ন্যাটো
গুলির হার ৫০০–৬০০ রাউন্ড/মিনিট
নিক্ষেপণ বেগ ৮০০ মি/সে (২,৬২৫ ফুট/সে)
৭৪৭ মি/সে (২,৪৫১ ফুট/সে) (G3KA4)
কার্যকর পাল্লা ২০০–৪০০ মিটার (২১৯–৪৩৭ গজ)
৬০০ মিটার (৬৫৬ গজ) ফিরো জেড২৪ টেলিস্কোপ সাইট
সর্বোচ্চ পাল্লা ৩,৭০০ মিটার (৪,০৪৬ গজ)
ফিডিং ৫, ১০, ২০, ৩০, অথবা ৪০ রাউন্ড ম্যাগাজিন, এবং ৫০, ১০০ রাউন্ড ড্রাম ম্যাগাজিন
সাইট আয়রন সাইট, টেলিস্কোপ সাইট

জি৩ (জার্মান: Gewehr 3) একটি জার্মান যুদ্ধ রাইফেল যা কিনা স্নাইপার ও অ্যাসল্ট রাইফেলের সংমিশ্রণ। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ কালীন পরবর্তী সময়ে পশ্চিম জার্মানিতে এই রাইফেল তৈরি করা হয়। এটির সেমি অটোমেটিক এবং অটোমেটিক সংস্করণ রয়েছে। এতে টেলিস্কোপ, নাইট ভিশন টুলস সেট করা যায়। তাছাড়া গ্রেনেড ছোড়ার সুবিধাও রয়েছে।

এতে টেলিস্কোপ সংযুক্তির ব্যবস্থা থাকায় এটি ব্যাটেল ফিল্ড স্নাইপার রাইফেল হিসাবেও বেশ জনপ্রিয় ।

ব্যবহারকারী[সম্পাদনা]

Heckler & Koch G3 Holzschaft Display noBG.png

যুদ্ধে ব্যবহার[সম্পাদনা]

১৯৬০[সম্পাদনা]

  • মিয়ানমারের অভ্যন্তরিণ দ্বন্দ্ব (১৯৪৮-বর্তমান)[১১]
  • পর্তুগিজ ঐপনিবেশিক যুদ্ধ (১৯৬১-১৯৭৪[১২]
  • পাপুয়া দ্বন্দ্ব (১৯৬২-বর্তমান)[১৩]
  • দ্য ট্রাবলস (১৯৬০-১৯৯৮)[১৪]
  • কলম্বিয়ার দ্বন্দ্ব (১৯৬৪-বর্তমান)[১৪]
  • রোহেদেশিয়ান যুদ্ধ (১৯৬৪-১৯৭৯[১৫][১৬]
  • পাক-ভারত যুদ্ধ (১৯৬৫)[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]
  • দক্ষিণ আফ্রিকান সীমান্ত যুদ্ধ (১৯৬৬-১৯৯০)[১৪]
  • নাইজেরিয়ান গৃহযুদ্ধ (১৯৬৭-১৯৭০)[১৭]
  • ফুটবল যুদ্ধ (১৯৬৯)[১৮]

১৯৭০[সম্পাদনা]

1980s[সম্পাদনা]

  • ইরান-ইরাক যুদ্ধ (১৯৮০-১৯৮৮)[২৩][২৪]
  • সেইচেলেস বিদ্রোহ (১৯৮১)[২৫]
  • দ্বিতীয় সুডানিজ গৃহযুদ্ধ (১৯৮৩-২০০৫)[২৬]
  • লাইবেরিয়ান গৃহযুদ্ধ (১৯৮৯-১৯৯৭)

১৯৯০[সম্পাদনা]

  • তুয়ারেগ বিদ্রোহ (১৯৯০–১৯৯৫)]][২৭]
  • উপসাগরীয় যুদ্ধ (১৯৯০-১৯৯১)[২৮]
  • যুগোস্লাভিয়ার যুদ্ধ (১৯৯১-২০০১)
  • কঙ্গ গৃহযুদ্ধ (১৯৯৭-১৯৯৯)[২৯]
  • কারগিল যুদ্ধ (১৯৯৯)[৩০]

২০০০[সম্পাদনা]

  • আফগানিস্তান যুদ্ধ (২০০১-বর্তমান)[৩১]
  • ইরাক যুদ্ধ (২০০৩-২০১১)[২৮]
  • কিভু দ্বন্দ্ব (২০০৪-বর্তমান)[৩২]
  • সোমালিৎা গৃহযুদ্ধ (২০০৯-বর্তমান)[৩৩]

২০১০[সম্পাদনা]

  • লিবিয়ান দ্বন্দ্ব (২০১১-বর্তমান[৩৪]
  • সারিয়ান গৃহযুদ্ধ (২০১১-বর্তমান)[২০]
  • ইয়েমেনি গৃহযুদ্ধ (২০১৪–বর্তমান)[২০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Jenzen-Jones 2017, পৃ. 31।
  2. ড় ঢ় য় কক কখ কগ কঘ কঙ কচ কছ Gangarosa, 2001. pp. 76-77.
  3. "Eesti Kaitsevägi - Tehnika - Automaat AK-4" (Estonian ভাষায়)। 
  4. "www.diomil.ir"। ২০ জানুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ ডিসেম্বর ২০০৯ 
  5. Nigeria: Arms Procurement and Defense Industries. Retrieved on October 5, 2008.
  6. www.hkd-usa.com
  7. "www.pof.gov.pk"। ১ জুন ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ ডিসেম্বর ২০০৯ 
  8. "Military Industry Corporation (MIC) Official Website"। ২৭ মে ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ ডিসেম্বর ২০০৯ 
  9. "www.mil.se"। ২৭ মে ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ ডিসেম্বর ২০০৯ 
  10. "G3 – A4 AUTOMATIC INFANTRY RIFLE."। ১ জানুয়ারি ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ ডিসেম্বর ২০০৯ 
  11. Thompson 2019, পৃ. 43।
  12. Thompson 2019, পৃ. 30-31।
  13. Thompson 2019, পৃ. 44।
  14. Thompson 2019, পৃ. 29।
  15. McNab 2002, পৃ. 197।
  16. Thompson 2019, পৃ. 32-34।
  17. McNab 2002, পৃ. 185।
  18. Montes, Julio A. (মে ২০০০)। "Infantry Weapons of the Salvadoran Forces"Small Arms Review। খণ্ড 3 নং 8। ২০১৯-০১-১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০১-১৯ 
  19. "Arms for freedom"। ২৯ ডিসেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-৩১ 
  20. Thompson 2019, পৃ. 56।
  21. Thompson 2019, পৃ. 35।
  22. McNab 2002, পৃ. 62।
  23. McNab 2002, পৃ. 137।
  24. Thompson 2019, পৃ. 38-41।
  25. Thompson 2019, পৃ. 32।
  26. "Sudan – Global trade, local impact: Arms Transfers to all Sides in the Civil War in Sudan" (PDF)Human Rights Watch Report10 (4): 24–25। আগস্ট ১৯৯৮। 
  27. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; SAS 2005 নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  28. Thompson 2019, পৃ. 57।
  29. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; SAS 2003 নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  30. Thompson 2019, পৃ. 46।
  31. Thompson 2019, পৃ. 59-61।
  32. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; FDLR নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  33. Thompson 2019, পৃ. 65।
  34. Jane's infantry weapons, 2009-2010 2009/2010 (35th সংস্করণ)। Jane's Information Group। ৫ জানুয়ারি ২০০৯। আইএসবিএন 978-0-7106-2869-5 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]