সুষমা স্বরাজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মাননীয়া
সুষমা স্বরাজ
এমপি
Secretary Tillerson is Greeted by Indian Minister of External Affairs Swaraj (24074726498) (cropped).jpg
২০১৭ সালে সুষমা স্বরাজ
পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রণালয়
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
২৬ মে ২০১৪
প্রধানমন্ত্রীনরেন্দ্র মোদি
পূর্বসূরীসালমান খুরশিদ
প্রবসী ভারতীয় বিষয়ক মন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
২৬ মে ২০১৪ – 7 January 2016
প্রধানমন্ত্রীনরেন্দ্র মোদি
পূর্বসূরীবায়লার রবি
উত্তরসূরীPosition abolished
লোকসভায় বিরোধী দলের নেতা
কাজের মেয়াদ
21 December 2009 – 26 May 2014
পূর্বসূরীএল কে আদভানি
উত্তরসূরীVacant
Minister of Parliamentary Affairs
কাজের মেয়াদ
29 January 2003 – 22 May 2004
প্রধানমন্ত্রীAtal Bihari Vajpayee
পূর্বসূরীPramod Mahajan
উত্তরসূরীGhulam Nabi Azad
Minister of Health and Family Welfare
কাজের মেয়াদ
29 January 2003 – 22 May 2004
প্রধানমন্ত্রীAtal Bihari Vajpayee
পূর্বসূরীC. P. Thakur
উত্তরসূরীAnbumani Ramadoss
Minister of Information and Broadcasting
কাজের মেয়াদ
30 September 2000 – 29 January 2003
প্রধানমন্ত্রীAtal Bihari Vajpayee
পূর্বসূরীArun Jaitley
উত্তরসূরীRavi Shankar Prasad
5th Chief Minister of Delhi
কাজের মেয়াদ
13 October 1998 – 3 December 1998
লেফটেন্যান্ট গভর্নরVijai Kapoor
পূর্বসূরীSahib Singh Verma
উত্তরসূরীSheila Dikshit
Vidisha India সংসদ সদস্য
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
13 May 2009
পূর্বসূরীRampal Singh
South Delhi India সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
7 May 1996 – 3 October 1999
পূর্বসূরীMadan Lal Khurana
উত্তরসূরীVijay Kumar Malhotra
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মSushma Sharma
(1952-02-14) ১৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৫২ (বয়স ৬৭)
আম্বালা ক্যান্টনমেন্ট, পাঞ্জাব, ভারত
(now in Haryana, India)
রাজনৈতিক দলভারতীয় জনতা পার্টি
দাম্পত্য সঙ্গীস্বরাজ কুশল
সন্তান1 daughter
প্রাক্তন শিক্ষার্থীসনাতন ধর্ম কলেজ
পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়
জীবিকা • Lawyer  • Politician

সুষমা স্বরাজ (এই শব্দ সম্পর্কেএই শব্দ উচ্চারণ সম্পর্কে ) (জন্ম ১৪ ফেব্রুয়ারী ১৯৫২ খ্রিস্টাব্দ [১]) একজন ভারতীয় রাজনীতিবিদ এবং সুপ্রিম কোর্টের সাবেক আইনজীবী। ভারতীয় জনতা পার্টির একজন সিনিয়র নেতা ও সাবেক সভাপতি, তিনি ২৬ মে ২০১৪ সাল থেকে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন; ইন্দিরা গান্ধীর পর তিনি দ্বিতীয় নারী হিসাবে এই দফতরের প্রতিনিধিত্ব করছেন। তিনি সংসদ সদস্য (লোকসভা) হিসাবে সাতবার এবং আইন পরিষদের (বিধানসভা) সদস্য হিসাবে তিনবার নির্বাচিত হয়েছেন। ১৯৭৭ সালে ২৫ বছর বয়সে, তিনি উত্তর ভারতের হরিয়ানা রাজ্যর মন্ত্রীসভার সর্বকনিষ্ঠ মন্ত্রী হয়েছিলেন। ১৩ অক্টোবর ১৯৯৮ সাল থেকে ৩ ডিসেম্বর ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত তিনি দিল্লীর ৫ম মুখ্যমন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।[২]

প্রাথমিক জীবন এবং শিক্ষা[সম্পাদনা]

সুষমা স্বরাজ (নীর শর্মা) [৩] ১৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৫২ সালে হরিয়ানার আম্বালা ক্যান্টনমেন্টে[৪] হারেদে শর্মা ও শ্রীমতী লক্ষ্মী দেবীর সন্তান হিসাবে জন্মগ্রহণ করেন।[৫][৬] তার বাবা ছিলেন একজন বিশিষ্ট রাষ্ট্রীয় স্বায়ত্ত্বক সংঘের সদস্য। তার বাবা-মা পাকিস্তানের লাহোর শহরের ধরামপুরা এলাকা থেকে এসেছিলেন। [৭] তিনি আম্বালা ক্যান্টনমেন্টের সনাতন ধর্ম কলেজে পড়াশোনা করেন এবং সংস্কৃত ও রাজনৈতিক বিজ্ঞানে প্রধানের সাথে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। [৮] চণ্ডীগড়ের পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ে তিনি অধ্যয়ন করেন।[১][৮][৯] হরিয়ানার ভাষা বিভাগ দ্বারা অনুষ্ঠিত একটি রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে প্রতিযোগিতায় তাকে তিন বছরের জন্য সেরা হিন্দি বক্তার পুরস্কার জিতেছিল।[৫]

পেশা[সম্পাদনা]

১৯৭৩ সালে সুষমা স্বরাজ ভারতের সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হিসাবে অনুশীলন শুরু করেন।[১][৮]

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী (২০০৩-২০০৪)[সম্পাদনা]

তিনি ২০০৩ থেকে ২০০৪ এর সাধারণ নির্বাচন পর্যন্ত সময়ে অটল বিহারী বাজপেয়ীর নেতৃত্বের সরকারে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী ও সংসদীয় বিষয়ক মন্ত্রী ছিলেন। এই কার্যকালে তিনি ছয়টি অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান গঠন করেন। এগুলি ভোপাল ,ভুবনেশ্বর ,যোধপুর , পাটনা , রায়পুর এবং ঋষিকেশ- এ অবস্থিত।

রাজ্যসভা সাংসদ (২০০৬-২০০৯)[সম্পাদনা]

২০০৬ সালে হতে ২০০৯ সালের নির্বাচন পর্যন্ত তিনি রাজ্যসভা সাংসদ ছিলেন। এটা ছিল তার ৫ম বারের মতো রাজ্যসভার সদস্য হওয়া।

লোকসভা বিরোধী দলনেত্রী (২০০৯-২০১৪)[সম্পাদনা]

প্রায় ৪ লক্ষ ভোটের ব্যাবধানে মধ্য প্রদেশের বিদিশা কেন্দ্র থেকে বিজয়ের পর লালকৃষ্ণ আডবাণী উত্তরসূরি রূপে লোকসভায় বিরোধী দলনেত্রী নির্বাচিত হন। এই পদে তিনি ২০১৪ সালের নির্বাচন পর্যন্ত বহাল থাকেন।

পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রী[সম্পাদনা]

২০১৪ সালের ভারতীয় সাধারণ নির্বাচনে, তিনি দ্বিতীয় মেয়াদে মধ্যপ্রদেশে বিদিশা লোকসভা কেন্দ্র জিতেছিলেন ৪,০০,০০০ ভোটের পার্থক্য দ্বারা এবং তিনি নিজের আসন ধরে রেখেছিলেন।[১০] ২৬ মে ২০১৪ সালে তিনি কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রী হয়ে ওঠে। মার্কিন দৈনিক ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল কর্তৃক সুষমা স্বরাজ'কে ভারতের 'সর্বাধিক প্রিয় রাজনীতিবিদ' বলা হয়।[১১][১২] ইন্দিরা গান্ধীর পর তিনি দ্বিতীয় ভারতীয় মহিলা যিনি এই পদে আসীন হলেন।

ওআইসি সম্মেলন[সম্পাদনা]

অর্গানাইজেশন অফ ইসলামিক কো অপারেশনের বিদেশ মন্ত্রীদের ৪৬ তম পরিষদীয় বৈঠকে আমন্ত্রণ পেয়েছে ভারত। ২০১৯ এর মার্চ মাসের ১ ও ২ তারিখ আবু ধাবিতে এই বৈঠক সুষমা স্বরাজকে গেস্ট অফ অনার হিসেবে এ বৈঠকে উপস্থিত থাকার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর বিদেশমন্ত্রী শেখ আবদুল্লা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান।

এই প্রথমবার সম্মেলনে ভারত গেস্ট অফ অনার হিসেবে আমন্ত্রিত হচ্ছে। [১৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Sushma Swaraj. India Today. Retrieved 28 May 2016.
  2. "At a glance: Sushma Swaraj, from India's 'youngest minister' to 'aspiring PM'"India TV। ১৫ জুন ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৬ আগস্ট ২০১৩ 
  3. "Sushma Swaraj"Encyclopædia Britannica 
  4. "The push for a Swaraj party"Tehelka। ১২ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ডিসেম্বর ২০১৩ 
  5. "Sushma Swaraj Biography" 
  6. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; biodata নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  7. "Indian FM Sushma Swaraj's parents hailed from Lahore – Pakistan – Dunya News"dunyanews.tv। Dunya News। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  8. "Detailed Profile – Smt. Sushma Swaraj – Members of Parliament (Lok Sabha) – Who's Who – Government: National Portal of India"। India.gov.in.। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৪ 
  9. "Cabinet reshuffle: Modi government's got talent but is it being fully utilised?", The Economic Times, ১০ জুলাই ২০১৬ 
  10. BJP's Sushma Swaraj to contest Lok Sabha polls from Vidisha constituency. NDTV.com (13 March 2014). Retrieved 21 May 2014.
  11. Varadarajan, Tunku (জুলাই ২৪, ২০১৭)। "India's Best-Loved Politician"Wall Street Journal 
  12. "Sushma Swaraj is 'India's Best-Loved Politician', opines US magazine Wall Street Journal"Zee News। জুলাই ২৫, ২০১৭। 
  13. "OIC Summit" 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]