দক্ষিণ দিল্লি জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দক্ষিণ দিল্লি জেলা
জেলা
দক্ষিণ দিল্লি জেলা দিল্লি-এ অবস্থিত
দক্ষিণ দিল্লি জেলা
দক্ষিণ দিল্লি জেলা
দিল্লির মানচিত্রে দক্ষিণ দিল্লি জেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৮°৩৩′১৮″ উত্তর ৭৭°১১′৩১″ পূর্ব / ২৮.৫৫৪৯° উত্তর ৭৭.১৯১৯° পূর্ব / 28.5549; 77.1919স্থানাঙ্ক: ২৮°৩৩′১৮″ উত্তর ৭৭°১১′৩১″ পূর্ব / ২৮.৫৫৪৯° উত্তর ৭৭.১৯১৯° পূর্ব / 28.5549; 77.1919
দেশ ভারত
কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলদিল্লি
সরকার
 • শাসকদিল্লি পৌরসংস্থা
ভাষা
 • সরকারিহিন্দি, ইংরেজি
সময় অঞ্চলভারতীয় সময় (ইউটিসি+৫:৩০)
নিকটবর্তী শহরফরিদাবাদ
লোকসভা কেন্দ্রদক্ষিণ দিল্লি
নগর প্রশাসনদিল্লি পৌরসংস্থা
দিল্লির ৯টি জেলার মানচিত্র

দক্ষিণ দিল্লি হল ভারতের দিল্লি জাতীয় রাজধানী অঞ্চলের একটি প্রশাসনিক জেলা।

দক্ষিণ দিল্লির জেলার পূর্ব সীমান্তে যমুনা নদী, উত্তরে নতুন দিল্লি জেলা, দক্ষিণ-পূর্বে হরিয়ানা রাজ্যের ফরিদাবাদ জেলা, দক্ষিণ-পশ্চিমে হরিয়ানার গুরগাঁও জেলা ও পশ্চিমে দক্ষিণ পশ্চিম দিল্লি জেলা অবস্থিত।

দক্ষিণ দিল্লি জেলার জনসংখ্যা ২,২৫৮,৩৬৭ (২০০১ সালের জনগণনা অনুসারে)। এই জেলার আয়তন ২৫০ বর্গ কিলোমিটার। জেলার জনঘনত্ব প্রতি বর্গকিলোমিটারে ৯,০৩৪ জন।

দক্ষিণ দিল্লি জেলা তিনটি মহকুমায় বিভক্ত: ডিফেন্স কলোনি, হৌজ খাসকালকাজি[১]

জনপরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

২০১১ সালের জনগণনা অনুসারে, দক্ষিণ দিল্লি জেলার জনসংখ্যা ২,৭৩৩,৭৫২।[২] জনসংখ্যার হিসেবে এই জেলা জামাইক রাষ্ট্রের প্রায় সমান।[৩] মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নেভাডা অঙ্গরাজ্যের জনসংখ্যাও এই জেলার প্রায় সমান।[৪] জনসংখ্যার হিসেবে এই জেলা ভারতের ৬৪০টি জেলার মধ্যে ১৪৪তম স্থানের অধিকারী।[২] জেলার জনঘনত্ব ১০,৯৩৫ জন প্রতি বর্গকিলোমিটার (২৮,৩২০ জন/বর্গমাইল) ।[২] ২০০১-২০১১ দশকে এই জেলার জনসংখ্যার বৃদ্ধির হার ২০.৫৯%।[২] দক্ষিণ দিল্লির জেলার লিঙ্গানুপাতের হার প্রতি ১০০০ পুরুষে ৮৫৯ জন নারী।[২] জেলার সাক্ষরতার হার ৮৭.০৩%।[২]

গুরুত্ব[সম্পাদনা]

দক্ষিণ দিল্লি জেলা দিল্লির একটি বিরাট অঞ্চল নিয়ে গঠিত। এই জেলায় দিল্লির বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ একালা অন্তর্ভুক্ত। এই জেলার ঐতিহাসিক গুরুত্বও অপরিসীম। দিল্লির ১১টি ‘ঐতিহাসিক শহরে’র মধ্যে ৪টি দক্ষিণ দিল্লি জেলায় অবস্থিত। এগুলি হল: রাই পিথোরা (১ম), মেহরাউলি (২য়), সিরি (হৌজ খাস সহ) (৩য়) ও তুঘলকাবাদ (৫ম)।

দক্ষিণ দিল্লি জেলার কয়েকটি জনবসতি মধ্যযুগে স্থাপিত হয়েছিল। এগুলিকে সরাই বলা হয়। এলাকাগুলি এখন খুবই জনবহুল ও অবহেলিত। সরাইগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য কালুসরাই, জিয়াসরাই, বেরসরাই, লাদোসরাই, কাটোয়ারিয়া সরাই, ইউসুফ সরাই, হৌজ খাস চত্বর, মুনিরকা, কোটলা মুবারকপুর, বেগমপুর, মহম্মদপুর, খিরকি, গোবিন্দপুরী, আধচিনি, ছত্তরপুর গ্রাম, বদরপুর, আয়ানগর, মান্ডি গ্রাম, ডেরা গ্রাম ইত্যাদি।

ঐতিহাসিক গুরুত্ব ছাড়াও এই জেলার অর্থনৈতিক ও শিক্ষাগত গুরুত্বও অপরিসীম। এশিয়ার বৃহত্তম কম্পিউটার ও আইটি বাজার নেহেরু প্লেস এই জেলায় অবস্থিত। ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি দিল্লিঅল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সেস – দেশের এই দুটি প্রথম সারির প্রযুক্তি ও চিকিৎসাবিজ্ঞান গবেষণা প্রতিষ্ঠান দক্ষিণ দিল্লির হৌজ খাস অঞ্চলে অবস্থিত। দক্ষিণ দিল্লির কুতুব ইনস্টিটিউশনাল এরিয়াতে দিল্লির ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ ফরেন ট্রেড অবস্থিত।

২০০৯ সালের হিসেব অনুযায়ী, দক্ষিণ দিল্লি জেলায় ২০% অঞ্চল বনভূমি। এই জেলায় বেশ কয়েকটি উদ্যান, বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য, বায়োডাইভার্সিটি পার্ক ও সবুজ বলয় রয়েছে। হৌজ খাসের ডিয়ার পারক ও রোজ গার্ডেন এবং দিল্লির দক্ষিণ সীমান্ত ও আরাবল্লি পর্বতের পাদদেশে অবস্তিত অসোলা ভাট্টি বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য দক্ষিণ দিল্লির বনভূমির উদাহরণ।

মেহরাউলি-গুরগাঁও রোড, মেহরাউলি-বদরপুর রোড, শ্রীঅরবিন্দ মার্গ, অগস্ট ক্রান্তি মার্গ, প্রেস এনক্লেভ রোড ইত্যাদি দিল্লির কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা এই জেলায় অবস্থিত। এছাড়া ইনার রিং রোড, আউটার রিং রোড ও ২ নং জাতীয় সড়ক – দিল্লির এই তিনটি কেন্দ্রীয় রাস্তাও এই জেলার উপর দিয়ে প্রসারিত।

জীবনযাত্রা[সম্পাদনা]

দক্ষিণ দিল্লি জেলা নতুন দিল্লিমধ্য দিল্লির মতো দিল্লির একটি অভিজাত অঞ্চল। উল্লেখ্য, প্রথম দুই জেলা ‘লুটেয়েন’স দিল্লি’ নামে পরিচিত। গ্রেটার কৈলাস, চিত্তরঞ্জন পার্ক, অলকানন্দা, হৌজ খাস, গ্রিন পার্ক, ডিফেন্স কলোনি, নিউ ফ্রেন্ডস কলোনি, জসোলা বিহার, গুলমোহর পার্ক, গুলমোহর এনক্লেভ ও বসন্ত কুঞ্জের মতো অভিজাত এলাকা দক্ষিণ দিল্লি জেলায় অবস্থিত। লুটেয়েন’স দিল্লির বাইরে এই অঞ্চলেই জমির দাম সবচেয়ে বেশি। দক্ষিণ দিল্লির নগরাঞ্চলীয় গ্রাম – যেমন হৌজ খাস গ্রাম, শাহপুর জাট ও লাদোসরাই ডিজাইনার বুটিক, রেস্টুরেন্ট, আর্ট গ্যালারি ও ডিজাইন স্টুডিওর একটি কেন্দ্র।[৫][৬]

সরোজিনী নগর মার্কেট, লাজপত মার্কেট, সাউথ এক্সটেনশন, কোটলা মুবারকপুর, এম-ব্লক মার্কেট ইত্যাদি দিল্লির কিছু বিখ্যাত বাজার এবং অনসল প্লাজা, অ্যাম্বিয়েন্স, ডিএলএফ, এমজিএফ মেট্রোপলিটান, সিলেক্ট সিটিওয়াক ইত্যাদি শপিং মল দক্ষিণ দিল্লি জেলায় অবস্থিত।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Organisational Structure Official website.
  2. "District Census 2011"। Census2011.co.in। ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-৩০ 
  3. US Directorate of Intelligence। "Country Comparison:Population"। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১০-০১Jamaica 2,868,380 July 2011 est  line feed character in |quote= at position 8 (সাহায্য)
  4. "2010 Resident Population Data"। U. S. Census Bureau। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-৩০Nevada 2,700,551  line feed character in |quote= at position 7 (সাহায্য)
  5. "Art edges out history in Delhi's ancient Lado Sarai village"। The Times Of India। এপ্রিল ১১, ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুন ২০১৩ 
  6. "Delhi's soho"। Hindustan Times। June 15, 201। সংগ্রহের তারিখ 16 June 2013  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]