সাহারা মরুভূমি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সাহারা মরুভূমি
The Great Desert
Desert
A satellite image of the Sahara by NASA World Wind.
A satellite image of the Sahara by NASA World Wind.
দেশসমূহ আলজেরিয়া, চাদ, মিশর, লাইবেরিয়া, মালি, মৌরিতানিয়া, মরক্কো, নাইগার, সুদান, তিউনিসিয়া
সর্বোচ্চ বিন্দু Emi Koussi ১১,২০৪ ফু (৩,৪১৫ মি)
 - স্থানাঙ্ক ১৯°৪৭′৩৬″ উত্তর ১৮°৩৩′৬″ পূর্ব / ১৯.৭৯৩৩৩° উত্তর ১৮.৫৫১৬৭° পূর্ব / 19.79333; 18.55167
সর্বনিম্ন বিন্দু Qattara Depression −৪৩৬ ফু (−১৩৩ মি)
 - স্থানাঙ্ক ৩০°০′০″ উত্তর ২৭°৫′০″ পূর্ব / ৩০.০০০০০° উত্তর ২৭.০৮৩৩৩° পূর্ব / 30.00000; 27.08333
দৈর্ঘ্য ৪,৮০০ কিলোমিটার (২,৯৮৩ মাইল), E/W
প্রস্থ ১,৮০০ কিলোমিটার (১,১১৮ মাইল), N/S
ক্ষেত্র ৯২,০০,০০০ বর্গকিলোমিটার (৩৫,৫২,১৪০ বর্গমাইল)
Biome Desert
This video over the Sahara and the Middle East was taken by the crew of Expedition 29 on board the International Space Station.
Tadrart Acacus desert in western Libya, part of the Sahara.
The top image shows the Safsaf Oasis on the surface of the Sahara. The bottom (using radar) is the rock layer underneath, revealing black channels cut by the meandering of an ancient river that once fed the oasis.

সাহারা মরুভূমি (আরবি: الصحراء الكبرى‎, al-ṣaḥrāʾ al-kubrā , 'the Greatest Desert') পৃথিবীর বৃহত্তম মরুভূমি। এই মরুভূমি আফ্রিকা মহাদেশে অবস্থিত।সাহরা শব্দটি আরবি (صحارى ṣaḥārā [১][২] [ˈsˤɑħɑːrɑː]).[৩][৪]থেকে উৎপত্তি হয়েছে।এর আয়তন প্রায় ৯০ লক্ষ বর্গ কিলোমিটার। এবং লোকসংখ্যা ২০ লক্ষের বেশি হবে না। পাহাড়, মালভূমি, বালি ও অনূর্বর ভূমি দ্বারা সাহারা মালভূমি গঠিত। বেশ কিছু মরূদ্যানও আছে। কূপ ও প্রস্রবণ থেকেই কিছু পানি পাওয়া যায়।

বিস্তৃতি[সম্পাদনা]

মিশর, মরক্কো, আলজেরিয়া, তিউনিসিয়া, লিবিয়া, চাদ, সুদান, নাইজার, মালি প্রভৃতি দেশ পর্যন্ত সাহারা মরুভূমি বিস্তৃত।

খনিজ পদার্থ[সম্পাদনা]

সাহারার লিবিয়াআলজেরিয়া অংশে প্রচুর তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাস পাওয়া গেছে। তা ছাড়া এই মরুভূমিতে তামা, লোহা, ফসফেট ইত্যাদি অনেক খনিজ দ্রব্যও আছে।

আবহাওয়া[সম্পাদনা]

অত্যন্ত গরম ও শুকনো। বার্ষিক গড় বৃষ্টিপাত ২০ সেমি-র বেশি হয় না। দিনে প্রচন্ড গরম ও রাতে ঠান্ডা। কখনো কখনো পাহাড়ের চূড়ায় বরফও জমে থাকতে দেখা যায়। শীতকাল থেকে গ্রীষ্মকালে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রী সে থেকে ৪৩ ডিগ্রী সে পর্যন্ত ওঠানামা করে।

অধিবাসী[সম্পাদনা]

অধিকাংশই যাযাবর। তারা ছাগল, ভেড়া, ও উট পালন করে এবং পানির সন্ধানে ঘুরে বেড়ায়। খেজুর, গম, বার্লি ইত্যাদি চাষ করে।

গাছপালা[সম্পাদনা]

মরুভূমির কোনো কোনো জায়গায় ঘাস, গুল্ম ও ছোট গাছ জন্মে। পানির সন্ধানে গাছ গুলোর মূল মাটির খুব গভীরে পৌঁছায় এবং অনেক ক্ষেত্রেই বাতাস থেকে পাতার মাধ্যমে পানি গ্রহণ করে।

পশুপাখী[সম্পাদনা]

সাপ, গিরগিটি ও খেঁকশিয়ালের মত প্রাণী বাস করে। যাযাবর ও পণ্যবাহকেরা যাতায়াতের জন্য উট ব্যবহার করে। ৭০ প্রজাতির স্তন্যপায়ী, ৯০ প্রজাতির পাখি, ১০০ প্রজাতির সরীসৃপ আর কিছু আর্থ্রোপোডা পর্বের প্রাণীর বসবাস সাহারায়। [৫]

পূর্বাবস্থা[সম্পাদনা]

১০,০০০ বছর আগে সাহারার আবহাওয়া অপেক্ষাকৃত আর্দ্র ও শীতল ছিল, বেশ কিছু হ্রদ ও ছোট নদীর অবস্থানের প্রমাণ পাওয়া যায়। বর্তমানে শুষ্ক মরুভূমি, এমন কিছু অঞ্চলের পাহাড়ের গুহায় আদিম মানুষের বসবাসের চিহ্ন (গুহাচিত্র ও পাথরের যন্ত্রপাতি) পাওয়া গেছে যা থেকে বোঝা যায় ঐ এলাকা থেকে এক সময়ে সহজে পানির নাগাল পাওয়া যেত।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] এই এলাকায় হাতি জিরাফ ও অন্যান্য প্রাণী বাস করত।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

BlankMap-Africa.svg আফ্রিকা বিষয়ক এই নিবন্ধটি অসম্পুর্ণ, আপনি চাইলে এটিকে সমৃদ্ধ করতে পারেন।

  1. "Sahara." Online Etymology Dictionary. Douglas Harper, Historian. Retrieved 25 June 2007.
  2. "English-Arabic online dictionary"। Online.ectaco.co.uk। ২৮ ডিসেম্বর ২০০৬। সংগৃহীত ১২ জুন ২০১০ 
  3. Wehr, Hans (১৯৯৪)। A Dictionary of Modern Written Arabic (Arabic-English) (4th সংস্করণ)। Wiesbaden: Otto Harrassowitz। পৃ: ৫৮৯। আইএসবিএন 0-87950-003-4 
  4. al-Ba'labakkī, Rūḥī (২০০২)। al-Mawrid: Qāmūs ‘Arabī-Inklīzī (Arabic ভাষায়) (16th সংস্করণ)। Beirut: Dār al-‘Ilm lil-Malāyīn। পৃ: ৬৮৯। 
  5. http://www.desertusa.com/du_sahara_life.html