সুজাতা (অভিনেত্রী)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সুজাতা
সুজাতা (অভিনেত্রী).jpg
জন্ম(১৯৫২-১২-১০)১০ ডিসেম্বর ১৯৫২[১]
মৃত্যু৬ এপ্রিল ২০১১(2011-04-06) (বয়স ৫৮)
চেন্নাই, ভারত
পেশাঅভিনেত্রী
কর্মজীবন১৯৬৮-২০০৬
দাম্পত্য সঙ্গীজয়কর
সন্তানসজিত, দিব্য

সুজাতা (১০ ডিসেম্বর ১৯৫২[১]-৬ এপ্রিল ২০১১)[২] ছিলেন একজন ভারতীয় অভিনেত্রী যিনি তামিল, তেলুগু, কন্নড় এবং মালায়ালাম ভাষার চলচ্চিত্রে কাজ করেছেন। সুজাতা অভিনীত প্রথম তামিল ভাষার চলচ্চিত্র ছিলো ১৯৭৪ সালে মুক্তি পাওয়া আভাল ওরু তোডার কাদাই যেটি তামিল চলচ্চিত্র শিল্পের খ্যাতনামা পরিচালক কৈলাস বলচন্দ পরিচালনা করেছিলেন।[৩] তিনি তার অভিনীত বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে সহ-শিল্পী হিসেবে কালজয়ী অভিনেতা কমল হাসনকে পেয়েছিলেন।[২] তিনি এছাড়াও তেলুগু সিনেমা শিল্পের কিংবদন্তী অভিনেতা এনটিআরের সঙ্গেও অভিনয় করার সুযোগ পেয়েছিলেন।[৪] তার জন্ম শ্রীলঙ্কায় হয়েছিলো, তিনি ১৫ বছর বয়সে ভারতে চলে আসেন পরিবারসমেত এবং স্থায়ীভাবে বাস করা শুরু করেন।[২] তার চলচ্চিত্র জীবন শুরু হয় মালায়ালাম ভাষার চলচ্চিত্রে কাজ করার মধ্য দিয়ে।

জীবনের প্রথমার্ধ[সম্পাদনা]

সুজাতা ১০ ডিসেম্বর ১৯৫২ সালে শ্রীলঙ্কার গালেতে একটি মালয়ালি -ভাষী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেছিলেন যেখানে তিনি তার শৈশবের বেশিরভাগ দিন সেখানেই কাটিয়েছিলেন। তিনি স্কুল নাটকে অংশগ্রহণ করেন এবং পরে তামিলনাড়ুতে চলে আসেন যখন তার বয়স ছিল প্রায় ১৫। তিনি এর্নাকুলাম জংশন , একটি মালায়লাম চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

মালয়ালম চলচ্চিত্র থাপস্বিনীতে সুজাতার অভিষেক হয় । তার প্রথম তামিল চলচ্চিত্র ছিল কে. বালাচান্দর পরিচালিত আভাল ওরু থোদর কাথাই । তিনি আবার কে. বালাচন্দরের সাথে আভারগাল (১৯৭৭)-এ অভিনয় করেন - প্রধান তারকা রজনীকান্ত এবং কমল হাসান । সুজাতা তামিল, মালায়ালাম, তেলেগু, কন্নড় এবং হিন্দি সিনেমা নামে পাঁচটি ভাষায় 240 টিরও বেশি ছবিতে অভিনয় করেছেন। তিনি আভাল আওয়ার থোডার কাধাই , আন্নাক্কিলি , আভারগাল একজন নির্যাতিত স্ত্রী , বিধি , মায়াঙ্গুগিরাল ওরু মাধু , সেন্টামিজ পাত্তু এবং আভাল ভারুওয়ালার মতো চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন এবংতেলেগু যেমন গুপ্পেদু মনসুতে তার অভিষেক ।

চরিত্রের ভূমিকা[সম্পাদনা]

১৯৮০-এর দশকে, তিনি চরিত্রের ভূমিকা পালন করতে শুরু করেন, প্রায়শই মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেন। কোডি পারকুথু , উজাইপ্পালি , বাবার মতো চলচ্চিত্রে একজন সিনিয়র অভিনেতা হিসেবে তার অভিনয় যা তিনি রজনীকান্তের মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন ; এবং ভিলেন যেটিতে তিনি অজিত কুমারের শুভাকাঙ্ক্ষী চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। ভারালারু (২০০৬) ছিল তার শেষ ছবি।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

হৃদরোগের জন্য চিকিৎসাধীন অবস্থায়, সুজাতা ৬ এপ্রিল ২০১১ সালে চেন্নাইতে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান।

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডস দক্ষিণ
  • 1975 – উরাভু সোল্লা ওরুভানের জন্য ফিল্মফেয়ার সেরা তামিল অভিনেত্রী পুরস্কার
  • 1976 – আন্নাকিলির জন্য ফিল্মফেয়ার শ্রেষ্ঠ তামিল অভিনেত্রী পুরস্কার
  • 1977 – আভারগালের জন্য ফিল্মফেয়ার শ্রেষ্ঠ তামিল অভিনেত্রী পুরস্কার
  • 1979 – গুপ্পেদু মনসুর জন্য ফিল্মফেয়ার সেরা তেলেগু অভিনেত্রী পুরস্কার
নন্দী পুরস্কার
  • 1997- পেলির জন্য শ্রেষ্ঠ চরিত্র অভিনেত্রীর জন্য নন্দী পুরস্কার
তামিলনাড়ু রাজ্য চলচ্চিত্র পুরস্কার
  • 1981 - থুনাইভির জন্য বিশেষ সেরা অভিনেত্রী
  • 1982 - পরিচাইক্কু নেরামাচুর জন্য বিশেষ সেরা অভিনেত্রী
তামিলনাড়ু সরকার
  • কালাইমামণি

উল্লেখযোগ্য ফিল্মগ্রাফি[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Sujatha's last film"। ৯ এপ্রিল ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  2. Sujatha's career
  3. Dream debut
  4. "Actress Sujatha dies at 58, 7 June 2011"। ৩ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]