ফ্রেড মর্লে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফ্রেড মর্লে
Fred Morley.jpg
১৮৮৪ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে ফ্রেড মর্লে
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামফ্রেডরিক মর্লে
জন্ম(১৮৫০-১২-১৬)১৬ ডিসেম্বর ১৮৫০
সাটন-ইন-অ্যাশফিল্ড, নটিংহ্যামশায়ার, ইংল্যান্ড
মৃত্যু২৮ সেপ্টেম্বর ১৮৮৪(1884-09-28) (বয়স ৩৩)
সাটন-ইন-অ্যাশফিল্ড, নটিংহ্যামশায়ার, ইংল্যান্ড
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনবামহাতি ফাস্ট
ভূমিকাবোলার
সম্পর্কসন্তান: ‘সারাহ’, ‘হ্যারল্ড’ ও ‘অ্যালেন’
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২৬)
৬ সেপ্টেম্বর ১৮৮০ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টেস্ট২১ ফেব্রুয়ারি ১৮৮৩ বনাম অস্ট্রেলিয়া
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ২৩২
রানের সংখ্যা ১,৪০৪
ব্যাটিং গড় ১.৫০ ৫.৪০
১০০/৫০ ০/০ ০/০
সর্বোচ্চ রান ২* ৩১
বল করেছে ৯৭২ ৫৩,৬২১
উইকেট ১৬ ১,২৭৪
বোলিং গড় ১৮.৫০ ১৩.৪৩
ইনিংসে ৫ উইকেট ১১৯
ম্যাচে ১০ উইকেট ৩৬
সেরা বোলিং ৫/৫৬ ৮/২৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৪/০ ১০৯/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২২ জুলাই ২০১৭

ফ্রেডরিক (‘স্পিডি ফ্রেড’)[১][২][৩] মর্লে (ইংরেজি: Fred Morley; জন্ম: ১৬ ডিসেম্বর, ১৮৫০ - মৃত্যু: ২৮ সেপ্টেম্বর, ১৮৮৪) নটিংহামশায়ারের সাটন-ইন-অ্যাশফিল্ড এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা পেশাদার ইংরেজ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৮৮০ থেকে ১৮৮৩ সময়কালে ইংল্যান্ডের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন। শীর্ষে আরোহণকালে তাঁকে ইংল্যান্ডের সর্বাপেক্ষা দ্রুতগতিসম্পন্ন বোলার হিসেবে বিবেচনা করা হতো। এছাড়াও, ১৩ বছরব্যাপী নটিংহামশায়ারের পক্ষে খেলেন। বামহাতে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি বামহাতে ফাস্ট বোলিং করতেন ফ্রেড মর্লে

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

১৮৭৯-৮০ মৌসুমে মর্লে রিচার্ড ডাফ্টের সাথে উত্তর আমেরিকা সফরে যান। ১৮৮০ সালে তিনি খেলার জন্য মনোনীত হন যা পরবর্তীকালে ইংল্যান্ডে প্রথম টেস্ট খেলারূপে স্বীকৃতি লাভ করে। খেলায় তিনি ৮/১৪৬ পান; তন্মধ্যে, প্রথম ইনিংসেই পেয়েছিলেন পাঁচ উইকেট[৪] ১৮৮২-৮৩ মৌসুমে সম্মানীয় ইভো ব্লাইয়ের দলের সদস্যরূপে অ্যাশেজ করায়ত্ত্ব করতে অস্ট্রেলিয়া সফরে যান। তবে, কলম্বো বন্দরে দলের জাহাজে আরোহণের সময় তিনি গুরুতরভাবে উরুতে আঘাতপ্রাপ্ত হন।[৫] আনুষ্ঠানিকভাবে এ ঘটনাকে দূর্ভাগ্যজনকরূপে আখ্যায়িত করা হয়। তবে গুজব রয়েছে যে, কিছু ইতিহাসবেত্তা প্রতিপক্ষীয় ক্রিকেট দলের যোগসাজসে এটি ঘটেছে বলে দাবী করা হয়ে থাকে।[১][২]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

এ আঘাতের পর থেকে তাঁর বোলিং সক্ষমতা দূর্বলতর হতে থাকে। তিনি আর কখনো এ আঘাত থেকে উত্তরণ ঘটাতে সমর্থ হননি। ক্রমাগত স্বাস্থ্যের অবনতি ও আর্থিক সুবিধা আনয়ণে ব্যর্থ হওয়ায় তিনি তাঁর পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে প্রত্যাখ্যাত হন। বাদ-বাকী জীবন তাঁর করুণ অবস্থায় নিপতিত হয়।[৬]

মাত্র ৩৩ বছর বয়সে ২৮ সেপ্টেম্বর, ১৮৮৪ তারিখে মাত্রাতিরিক্ত দেহে জলের উপস্থিতির কারণে তাঁর দেহাবসান ঘটে।[৭] বামহাতে একটি বল রেখে তাঁকে সমাহিত করা হয়।[৬] ‘হান্না’ নাম্নী এক সেলাইকর্মীকে বিয়ে করেন। তাঁদের সংসারে ‘সারাহ’, ‘হ্যারল্ড’ ও ‘অ্যালেন’ নামীয় তিন সন্তান ছিল। জন্মকালীন ‘ফ্রেডেরিক মর্লে’ নামে তাঁকে নিবন্ধিত করা হয়েছিল।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Randall, Derek. Thomas, Peter Wynne. The History of Nottinghamshire County Cricket Club. Christopher Helm Publishers. 1992.
  2. Major, John Roy. More Than a Game: The Story of Cricket's Early Years. Harper Collins UK. 2007.
  3. Birley, Derek. A Social History of English Cricket. Aurum. 1999. pg267-270
  4. "Only Test: England v Australia at The Oval, Sep 6-8, 1880"espncricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১২-১৮ 
  5. Cricinfo biography on Fred Morley. http://content.cricinfo.com/england/content/player/17092.html
  6. Ambrose, Don. Malcolm, Lorimer. Cricket Grounds of Lancashire The Association of Cricket Statisticians and History 1992
  7. Brief profile of Frederick Morley by Don Ambrose. http://www.cricketarchive.com/Archive/Articles/0/957.html

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

  • Altham, Harry Surtees. A History of Cricket, Volume 1 (to 1914). George Allen & Unwin. 1962.