আবদুল হক (প্রাবন্ধিক)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আবদুল হক
জন্ম১৯১৮
মৃত্যু১৯৯৭
জাতীয়তা ব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
 পাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
 বাংলাদেশ
পরিচিতির কারণবাঙ্গালী প্রাবন্ধিক, নাট্যকার, লেখক
পুরস্কারবাংলা একাডেমী পুরস্কার

আবদুল হক (১৯১৮-১৯৯৭) বাংলাদেশের প্রাবন্ধিক, সাংবাদিক এবং লেখক ছিলেন। তিনি বাংলা একাডেমির উপ-পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। ১৯৭৪ সালে তিনি বাংলা একাডেমী পুরস্কার লাভ করেছিলেন। এছাড়া তিনি দাউদ পুরস্কার হিলালী স্মৃতি স্বর্ণপদক লাভ করেছিলেন।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

আবদুল হক ১৯১৮ চাপাইনবাবগঞ্জ জেলার উদয়নগর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৪৪ সালে তিনি রাজশাহী কলেজ থেকে ইংরেজিতে বিএ এবং ১৯৪৬ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএ নিয়ে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। [১]

শিক্ষা জীবন[সম্পাদনা]

হক ১৯৩৬ সালে কানসাট হাই ইংলিশ স্কুল থেকে প্রথম বিভাগে ম্যাট্রিকুলেশন এবং ১৯৩৯-এ করটিয়ার সাদত কলেজ থেকে প্রথম বিভাগে আই.এ. পাস করেন। রাজশাহী সরকারি কলেজ থেকে ১৯৪৪ সালে ইংরেজিতে স্নাতক এবং ১৯৪৬ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম এ পাস করেন।[২]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

আবদুল হক ১৯৪৫ সালে ডেইলি আজাদ এর উপ-সম্পাদক হিসাবে যোগদান করেন। পরে তিনি সাওগাত- এ কাজ করেছিলেন। তিনি ১৯৪৭ সালে ঢাকার আঞ্চলিক তথ্য অফিসে কর্মী লেখক হিসাবে যোগ দিয়েছিলেন। পরে ভারত বিভাগের পরে তিনি বাংলা উন্নয়ন বোর্ডে সহকারী প্রকাশনা অফিসার হিসাবে কাজ করেছিলেন। পরে তাকে পদোন্নতি অফিসার পদে পদোন্নতি দেওয়া হয়। তাঁকে বুদ্ধির মুক্তি আন্দোলনের অন্যতম উত্তরসাধক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। [৩]

১৯৬৪ সালে তিনি দাউদ পুরস্কারে ভূষিত হন। পেশাগত জীবনে তিনি ১৯৬৫ থেকে ১৯৮১ সাল পর্যন্ত বাংলা উন্নয়ন বোর্ড ও বাংলা একাডেমীতে দায়িত্বরত ছিলেন। তিনি ১৯৭৪ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন।[১] [৪]

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

১৯৭৪ সালে তিনি বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কারে ভূষিত হন । তিনি বেশ কয়েকটি নাটক রচনা করেছিলেন। তার প্রবন্ধগুলি জার্নালে প্রকাশিত হত এবং বইগুলিতে প্রকাশিত হত। ১৯৮১ সালে তিনি বাংলা একাডেমি থেকে পরিচালক হিসাবে অবসর গ্রহণ করেন। ১৯৮৮ সালে তিনি আবুল হাসনাত সাহিত্য পুরস্কার এবং ১৯৯০ সালে হিলালী স্মৃতি স্বর্ণপদক লাভ করেন। [১]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

হক ১৯৯৭ সালে মারা যান। [১]

গ্রন্থসমূহ[সম্পাদনা]

তার উল্লেখযোগ্য প্রবন্ধগ্রন্থসমূহ হচ্ছে

  • ক্রান্তিকাল, (১৯৬২),
  • সাহিত্য ঐতিহ্য মূল্যবোধ, (১৯৬৮),
  • বাঙালী জাতীয়তাবাদ ও অন্যান্য প্রসঙ্গ, (১৩৮০),
  • সাহিত্য ও স্বাধীনতা, (১৯৭৪),
  • ভাষা আন্দোলনঃ আদি পর্ব (১৯৭৬)
  • নিঃসঙ্গ চেতনা ও অন্যান্য প্রসঙ্গ,
  • চেতনার অ্যালবাম ও বিবিধ প্রসঙ্গ

গল্পগ্রন্থসমূহ হচ্ছে

  • রোকেয়ার নিজ বাড়ী (১৯৬৭),

নাটকগ্রন্থসমূহ হচ্ছে

  • অদ্বিতীয়া (১৯৫৬),
  • ফেরদৌসী (১৩৭১),
  • সোনার ডিম (১৯৭৬),

অনুবাদগ্রন্থসমূহ হচ্ছে

  • পুতুলের সংসার (১৯৬৬),
  • প্রেতাত্মা (১৯৬৬),
  • রসমার্স হোম (১৯৬৭),
  • হেড্ডা গাবলার (১৯৬৭),
  • মহাস্থপতি (১৯৬৬),
  • জন গাব্রিয়েল বর্কম্যান প্রভৃতি।[২][৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. আহমেদ, ওয়াকিল। "হক, আবদুল১"bn.banglapedia.org (ইংরেজি ভাষায়)। বাংলাপিডিয়া। সংগ্রহের তারিখ ১৮ আগস্ট ২০১৮ 
  2. মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান ও সৈয়দ আকরম হোসেন সম্পাদিত, প্রবন্ধ সংগ্রহ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ১৯৯২, পৃষ্ঠা- ৪৯৫-৪৯৬
  3. ইসলাম, মুহম্মদ সাইফুল (ফেব্রুয়ারি ২০০৭)। ফজলুল হক, আবুল কাসেম; ইসলাম, মুহম্মদ সাইফুল, সম্পাদকগণ। মানুষের স্বরূপ (১ সংস্করণ)। ঢাকা: কথাপ্রকাশ। পৃষ্ঠা ৩৮৩। আইএসবিএন 984-8524487 
  4. "আবদুল হক" [Abdul Haque]। UPL Authors (Bangla ভাষায়)। আপ বুক। 
  5. সেলিনা হোসেন ও নুরুল ইসলাম সম্পাদিত; বাংলা একাডেমী চরিতাভিধান; দ্বিতীয় সংস্করণ: ফেব্রুয়ারি, ১৯৯৭; পৃষ্ঠা- ৪১, আইএসবিএন ৯৮৪-০৭-৪৩৫৪-৬