আন শিঁয়েন আন্দালিও

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
আন শিঁয়েন আন্দালিও
আন শিঁয়েন আন্দালিও (১৯২৯).jpg
ফরাসি পোস্টার
পরিচালক লুইস বুনুয়েল
প্রযোজক
রচয়িতা
অভিনয়শিল্পী
সুরকার রিশার্ড ভাগণার
চিত্রগ্রাহক
  • এলবার্ট ড্যুবার্গেন
  • জিমি বার্লিয়েট (অস্বীকৃত)
সম্পাদক লুইস বুনুয়েল
পরিবেশক লেস গ্র্ন্দ্স ফিল্মস ক্লাসিক্স (ফ্রান্স)
মুক্তি
  • ৬ জুন ১৯২৯ (১৯২৯-০৬-০৬) (France)
দৈর্ঘ্য ২১ মিনিট
ভাষা নির্বাক চলচিত্র
(ফরাসি ইন্টারটাইটেল)
নির্মাণব্যয় < ১০০,০০০ ফ্রাঙ্ক

আন শিঁয়েন আন্দালিও (ফরাসি: Un Chien Andalou (ফরাসি উচ্চরণ: ​[œ̃ ʃjɛ̃ ɑ̃dalu], ইংরেজি: An Andalusian Dog) স্প্যানিশ পরিচালক লুইস বুনুয়েল এবং শিল্পী সালভাদোর দালির ১৯২৯ সালের ফরাসি নির্বাক পরাবাস্তববাদী স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র[১] এটি বুনুয়েলের প্রথম চলচ্চিত্র যা সর্বপ্রথম প্যারিসের স্টুডিও দেস আর্সুলাইন্সে সীমিত প্রদর্শনের মাধ্যমে ১৯২৯ সালে মুক্তি দেয়া হয়, কিন্তু জনপ্রিয় হয়ে ওঠায় এর প্রদর্শনী আট মাসব্যাপী স্থায়ী হয়।[২]

প্রচলিত অর্থে চলচ্চিত্রটির কোনো কাহিনী বা গল্প নেই। "একদা এক সময়" থেকে "আট বছর পরে" বলে একলাফে চলচ্চিত্রের কাহিনী পরিবর্তিত হয়ে যায়, কিন্তু সে অর্থে ঘটনা বা চরিত্রের কোন বিকাশ ঘটে নি। এছাড়াও এর কাহিনিী বা চরিত্রায়নে তেমন কোনো ধারাবাহিকতা রক্ষা করা হয় নি। খুবই আলগাভাবে সম্পর্কযুক্ত কয়েকটি দৃশ্যের সমন্বয়ে নির্মত এই চলচ্চিত্রে দালির স্বপ্ন যুক্তির পাশাপাশি ফ্রয়েডীয় জনপ্রিয় মুক্তানুষঙ্গ বিশ্লেষণকে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে।

সংক্ষিপ্তসার[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্রের শুরুর একটি দৃশ্যে সিমন মারেইল

"একদা এক সময়" শিরোনাম কার্ডের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্র শুরুর পরবর্তীকালে দেখা যায়, মধ্যবয়স্ক এক লোক (লুইস বুনুয়েল) ব্যালকনির দরজার নিকট একটি ক্ষুর ধার দিচ্ছেন এবং নিজের বুড়ো আঙুলে ক্ষুরের ধার পরিক্ষা করে দেখছেন। ধার দেয়া শেষে তিনি দরজা খোলেন এবং ব্যালকনি থেকে তার মাথার উপরে মেঘে ঢাকা চাঁদ নজরে আসে। এরপর ক্লোজআপ দৃশ্যে একটি শান্ত-স্নিগ্ধ তরুণীকে তরুণী সিমন মারেইল দেখা যায়। এবার চাঁদটি মেঘমুক্ত অবস্থায় দেখা যায় এবং দেখা যায় লোকটি ক্ষুর দিয়ে তরুণীর চোখ কাটছে এবং সেখান থেকে ভিট্রেয়াস হিউমার বা কাচিক হাস্যরস উপচে পড়ে। দৃশ্যত এ থেকে বোঝানো হয় যে তরুণীর চোখ এটি কাটা হয়েছে।

পরবর্তী "আট বছর পর" শিরোনাম নানদের মতো পোশাক পরিহিত এক তরুণকে (পিয়েরে বাচেফ) বাইসাইকেল চালিয়ে শান্ত শহুরে পথ ধরে যেতে দেখা যায়। আরেকটি দৃশ্যে পূর্বের তরুণীকে দেখা যায় দামী আসবাবে সাজানো উপরতলার একটি অ্যাপার্টমেন্ট দ্রুত বই পড়ছে। সে তরুণের বাইসাইকেলে শব্দ শুনতে পেলে বইটি (বইটি হল জোহানস্‌ ভারমিরের দ্য লেইসমেকার) একপাশে সরিয়ে রাখে।

অভিনয়ে[সম্পাদনা]

  • সিমন মারেইল – তরুণী (সিমন মারেইল হিসেবে)
  • পিয়েরে বাচেফ – তরুণ এবং দ্বিতীয় তরুণ (পিয়েরে বাচেফ হিসেবে)
  • লুইস বুনুয়েল – প্রস্তাবনার ব্যক্তি (অস্বীকৃত)
  • সালভাদোর দালি – সিমিনারিস্ট এবং সৈকতে লোক (অস্বীকৃত)
  • রবার্ট হোমেট – তৃতীয় তরুণ (অস্বীকৃত)
  • মার্ভাল – সেমিনারিস্ট (অস্বীকৃত)
  • ফানো মেসান – উভলিঙ্গ যুবতী (অস্বীকৃত)
  • জেইমি মিরাভেইল্স – মোটা সেমিনারিস্ট (অস্বীকৃত)

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

  • Buñuel, Luis; Salvador Dalí (১৯৬৮)। Classic Film Scripts: L'Age d'Or and Un Chien Andalou। Marianne Alexandre (trans.)। New York: Simon and Schuster। আইএসবিএন 0-85647-079-1 

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Un Chien Andalou"। IMDb। সংগৃহীত ২০ জুন ২০১১ 
  2. "Un Chien Andalou"। সংগৃহীত ৮ জুলাই ২০০৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]