অশোক চক্র (পদক)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(অশোক চক্র পুরস্কার থেকে পুনর্নির্দেশিত)
অশোক চক্র
Ashoka-chakra.png

Ashoka Chakra ribbon.svg
ভারতের শান্তিকালীন সর্বোচ্চ সামরিক সম্মান অশোক চক্র এবং এর রিবন
দেশ ভারত ভারত
পুরস্কারদাতা দেশ ভারত ভারত
ধরন পদক
যোগ্যতা *টেরিটোরিয়াল আর্মি, মিলিটারি এবং আইনানুগভাবে গঠিত অন্য যে কোনও বাহিনী, সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী বিমানবাহিনী, যে কোনও রিজার্ভ ফোর্সের সেনাবাহিনীর সকল স্তরের কর্মকর্তা, পুরুষ ও মহিলা।
  • সশস্ত্র বাহিনীর নার্সিং সার্ভিসের সদস্যরা।
  • কেন্দ্রীয় প্যারা-মিলিটারি ফোর্সেস এবং রেলওয়ে সুরক্ষা বাহিনী সহ সকল স্তরের নাগরিক নাগরিক এবং পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা।[১]
পুরস্কৃত হওয়ার কারণ সবচেয়ে স্পষ্টতই সাহসিকতার জন্য, বা শৌর্যের জন্য অন্যথায় সাহসী বা বীরত্ব বা আত্মত্যাগের জন্য পুরস্কৃত। [১]
মর্যাদা বর্তমানে পুরস্কৃত
পরিসংখ্যান
প্রতিষ্ঠিত ১৯৫২
প্রথম পুরস্কৃত ১৯৫২
শেষ পুরস্কৃত ২০১৯
সর্বমোট পুরস্কৃত ৮৩ (As of 2018)[২][৩]
মরনোত্তর
পুরস্কারসমূহ
৫৮
পূর্ববর্তী
পরবর্তী (উর্ধতন) ভারত রত্ন
সমমান পরমবীর চক্র[ক][৫][৬][৭]
পরবর্তী (অধীনস্থ) পদ্মবিভূষণ[৬]

অশোক চক্র যুুুদ্ধ ব্যতীত বীরত্ব, সাহসী কর্ম বা আত্মত্যাগের জন্য ভূষিত করা হয় ভারতের সর্বোচ্চ শান্তিকালীন সামরিক সম্মান । এটি পরমবীর চক্রের (পিভিসি) সমতুল্য এবং শত্রুর মোকাবেলা ব্যতীত " অসামান্য সাহসী বা বীরত্ব বা আত্মত্যাগ" হিসাবে ভূষিত করা হয়। সম্মানটি সামরিক বা বেসামরিক কর্মীদের পুরস্কৃত হতে পারে।

ফ্লাইট লেঃ সুহাস বিশ্বাস প্রথম ভারতীয় বিমানবাহিনীর অফিসার যিনি অশোকচক্র পেয়েছিলেন। অশোক চক্রের পরবর্তী পুরস্কারগুলি পদক ফিতাটির জন্য একটি বার দ্বারা স্বীকৃত। একজন প্রাপককে বীরত্বের পৃথক কাজ ছাড়াও কীর্তি চক্র বা শৌর্য চক্র প্রদান করা হয়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

পদকটি মূলত ১৯৫২ সালের ৪ জানুয়ারীতে "অশোকচক্র, প্রথম শ্রেণি" হিসাবে শান্তিকালীন সাহসী সম্মাননা পুরস্কারের ত্রি-শ্রেণির ক্রমের প্রথম পদক হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। ১৯৬৭ সালে, এই সম্মাননা পুরস্কারগুলিকে "শ্রেণিবদ্ধ" সিস্টেম থেকে সরানো হয়েছিল এবং এর নামকরণ করা হয়েছিল অশোক চক্র, কীর্তি চক্র এবং শৌর্য চক্র। সম্মাননা পুরস্কার সম্পর্কে স্বাধীন ভারতীয় দৃষ্টিভঙ্গি বোঝার এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এটি পদ্ম বিভূষণ সিরিজ, বিশিষ্ট পরিষেবা মেডেল সিরিজ, জীবন রক্ষাকারী মেডেল সিরিজ এবং প্রতিরক্ষা সুরক্ষা কর্পস পদক সিরিজের পরিবর্তনের দিকে পরিচালিত করবে।

১৯৯৯ সালের ১ ফেব্রুয়ারি থেকে কেন্দ্রীয় সরকার অশোক চক্র প্রাপকদের জন্য এক মাসিক উপবৃত্তি চালু করে ১৪০০ টাকা । জম্মু ও কাশ্মীর ১৫০০ টাকার নগদ পুরস্কার এই পুরস্কার প্রাপকদের জন্য।

সংক্ষিপ্ত বিবরণ[সম্পাদনা]

অভিমুখে: বৃত্তাকার সোনার গিল্ট, ১-৩ /৮ ইঞ্চি  ব্যাস। কেন্দ্রে অশোকের চক্র (চাকা), চারদিকে পদ্ম পুষ্পস্তবক অর্পিত এবং অলঙ্কৃত প্রান্তযুক্ত স্ট্রেইট বার সাসপেন্ডার দ্বারা স্থগিত।মেডেলের প্রান্তে নামকরণ করা হয়েছে ।

বিপরীতে: মাঝখানে ফাঁকা, পদকের উপরের প্রান্তে হিন্দিতে এবং নিম্ন প্রান্তে ইংরেজিতে "অশোক চক্র" নাম খোদিত থাকে। দুপাশে রয়েছে পদ্মের নকশা। কেন্দ্রটি ফাঁকা, সম্ভবত এই পুরস্কারের বিবরণ সেখানে খোদাই করা যেতে পারে সেই উদ্দেশ্য নিয়ে। ১৯৬৭-এর পূর্বের পুরস্কারগুলিতে ক্লাসের কোনও ইঙ্গিত নেই এবং প্রকৃতপক্ষে এই পদক এবং ১৯৬৭-পরবর্তী পুরস্কারগুলির মধ্যে কোনও পার্থক্য নেই।

ফিতা: ৩২ মিমি দৈর্ঘ্যৈর, একটি ঘন সবুজ রঙের ফিতে  সঙ্গে কেন্দ্রে ২ মিমি দৈর্ঘ্যের কমলা রঙের ফিতে।

আজ অবধি, ৮৩ জনকে "অশোক চক্র" ভূষিত করা হয়েছে। [৩]

অশোক চক্র প্রাপক[সম্পাদনা]

মূল
# মরণোত্তর সম্মানের ইঙ্গিত দেয়
List of award recipients, showing the year
Year Recipient Refs.
২০১৯ নজির আহমেদ ওয়ানি # [৮]
২০১৮ জ্যোতি প্রকাশ নিরালা #
২০১৭ হাংগপন দাদা#
২০১৬ মোহন নাথ গোস্বামী #
২০১৪ মুকুন্দ ভরদারাজন #
২০১৪ নীরজ কুমার সিং #
২০১৪ কে প্রসাদ বাবু # [৯]
২০১২ নভদীপ সিং #
২০১১ লইশরাম জ্যোতিন সিং #
২০১০ রাজেশ কুমার #
২০১০ ডি শ্রীরাম কুমার
২০১০ মোহিত শর্মা # [১০]
২০০৯ বাহাদুর সিং বোহরা #
২০০৯ হেমান্ত কারকারে #
২০০৯ বিজয় সালাসকার #
২০০৯ অশোক কামটে#
২০০৯ তুকারাম ওম্বলে #
২০০৯ গজেন্দ্র সিং বিশট #
২০০৯ সন্দীপ উন্নিকৃষ্ণন #
২০০৯ মোহন চাঁদ শর্মা #
২০০৯ যোজান থমাস # [১১]
২০০৯ আরপি ডেইংডো #
২০০৯ প্রমোদ কুমার শতপথী #
২০০৮ দীনেশ রঘু রমন #
২০০৭ রাধাকৃষ্ণণ নায়ার হর্ষন #
২০০৭ চুনি লাল #
২০০৭ বসন্ত বেনুগোপাল #
২০০৪ ত্রিবেণী সিং #
২০০৪ সংযোগ ছেত্রি #
২০০২ সুরিন্দর সিং #
২০০২ রামবীর সিং তোমার #
২০০১ কমলেশ কুমারী #
২০০০ সুধীর কুমার ওয়ালিয়া #
১৯৯৭ পুনিত নাথ দত্ত #
১৯৯৭ শান্তি স্বরূপ রানা #
১৯৯৬ অরুণ সিং জাসরোটিয়া #
১৯৯৫ রাজীব কুমার জুন #
১৯৯৫ সুজ্জন সিং #
১৯৯৫ হর্ষ উদয় সিং গৌর #
১৯৯৪ নীলকান্তন জয়চন্দ্রন নায়ার #
১৯৯৩ রাকেশ সিং# [১২]
১৯৯২ সন্দীপ শঙ্কলা #
১৯৯১ রণধীর প্রসাদ বর্মা #
১৯৮৭ নীরজা ভানোট #
১৯৮৫ ছেরিং মুতুপ
১৯৮৫ নির্ভয় সিং #
১৯৮৫ ভবানী দত্ত জোশী
১৯৮৫ রাম প্রকাশ রোপরিয়া
১৯৮৫ যশবীর সিং রায়না
১৯৮৫ ভূকান্ত মিশ্র
১৯৮৫ রাকেশ শর্মা
১৯৮৪ গেননেডি স্ট্রেকালভ
১৯৮৪ ইউরি মাল্যসেভ
১৯৮১ সাইরাস অ্যাডি পিঠাওয়ালা
১৯৭৪ গুরনাম সিং
১৯৭২ উম্মেদ সিং মাহরা #
১৯৬৯ যশ রাম সিং
১৯৬৫ জিয়া লাল গুপ্ত
১৯৬২ খরকা বাহাদুর লিম্বু
১৯৬২ মান বাহাদুর রাই
১৯৫৮ এরিক জেমস টাকার #
১৯৫৮ জেম বাজিরাও সাকপাল
১৯৫৭ জগন্নাথ রাওজি চিত্নিস #
১৯৫৭ পোলুর মুথুস্বামী রমন #
১৯৫৭ জোগিন্দর সিং #
১৯৫৬ সুন্দর সিং
১৯৫২ সুহাস বিশ্বাস
১৯৫২ বচিত্তর সিং #
১৯৫২ নরবাহাদুর থাপা [১৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Though the Ashoka Chakra is placed below the PVC in order of wear, it is considered as a peacetime equivalent to Param Vir Chakra (or PVC).[৪]
  1. http://www.indianarmy.gov.in/Site/FormTemplete/frmTempSimple.aspx?MnId=p6xUHC5yMgV3Tyuw9ZIb6w==&ParentID=tFRV4t12pKRhSFm2sMq5yQ==
  2. "Awardees - Gallantry Awards"gallantryawards.gov.in 
  3. https://timesofindia.indiatimes.com/india/martyred-corporal-jyoti-prakash-nirala-joins-elite-iaf-club-tomorrow/articleshow/62647401.cms
  4. "Awards Warb" (PDF)Ministry of Home Affairs (India)। পৃষ্ঠা 1। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  5. Chakravorty 1995, পৃ. 40।
  6. "Precedence Of Medals"indianarmy.nic.in/। Indian Army। সংগ্রহের তারিখ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  7. "Precedence of Medals"। Indian Army। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০১৪ 
  8. "411 Republic Day Gallantry and Other Defence Decorations Announced"pib.nic.in। Press Information Bureau, Government of India। 
  9. "The President, Shri Pranab Mukherjee giving away the highest gallantry award Ashok Chakra to Shri K. Venkatraman father of the Reserve Inspector, Govt. of Andhra Pradesh, Shri K.L.V.S.S.H.N.V. Prasad Babu, (Posthumous), during the 65th Republic Day Parade 2014, in New Delhi on January 26, 2014."। Press Information Bureau, India। ২৬ জানুয়ারি ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  10. "Ashoka Chakra recipients (2009–16)"। Indian Army Web Portal। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  11. "Ashoka Chakra awardees and their saga of gallantry" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Press Information Bureau, India। ২৫ জানুয়ারি ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  12. "Ashoka Chakra recipients (1993–2009)"। Indian Army Web Portal। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  13. "Ashoka Chakra recipients (1952–92)"। Indian Army Web Portal। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]