প্রমোদ কুমার শতপথী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

Pramod Kumar Satapathy

Smt. Amita Satpathy receiving Ashoka Chakra awarded to her husband Shri Pramod Kumar Satpathy (Posthumous) from the President, Smt. Pratibha Devisingh Patil, during the 60th Republic Day Parade-2009, in New Delhi.jpg
Smt. Amita Satpathy receiving Ashoka Chakra awarded to her husband Shri Pramod Kumar Satpathy (Posthumous) from the President, Smt. Pratibha Devisingh Patil, during the 60th Republic Day Parade-2009, in New Delhi
জন্ম
মৃত্যু১৫ ফেব্রুয়ারি ২০০৮(২০০৮-০২-১৫)
জাতীয়তাIndian
দাম্পত্য সঙ্গীAmita Satpathy
Police career
Allegiance India
RankAssistant Commandant
AwardsAshoka Chakra ribbon.svg Ashoka Chakra

সহকারী কমান্ড্যান্ট প্রমোদ কুমার শতপথী, এসি ছিলেন ওড়িশা স্পেশাল সশস্ত্র পুলিশের স্পেশাল অপারেশন গ্রুপের একজন পুলিশ অফিসার, যা ভারতের ওড়িশা পুলিশের অধীনে আসে। তিনি মরণোত্তর ভারতের সর্বোচ্চ শান্তিকালীন বীরত্বের পুরস্কার অশোক চক্র দ্বারা ভূষিত হন।

২০০৮ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারির রাতে ভারতের ওড়িশার ভুবনেশ্বর ও তার আশেপাশের বিভিন্ন স্থানে প্রায় ৫০০ সশস্ত্র নকশাল পুলিশকে আক্রমণ করে। এই সংবাদ শুনে, শ্রী শতপথী মাত্র ২০ জন উপলব্ধ পুলিশকর্মী নিয়ে নয়াগড়ের জঙ্গলের অভ্যন্তরে পৌঁছেছিলেন এবং লুকিয়ে থাকা জঙ্গিদের উপর আক্রমণ শুরু করেছিলেন। পরবর্তী লড়াইয়ে, শ্রী শতপথী সাহসের সাথে এই অভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনি শহীদ হন। [১]

অশোক চক্র পুরস্কার প্রাপ্ত[সম্পাদনা]

এই সাহসী কাজের জন্য তিনি মরণোত্তরভাবে ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ এ ভারতের সর্বোচ্চ বীরত্বের পুরস্কার অশোক চক্র দ্বারা ভূষিত হন। [২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Ashoka Chakra awardees and their saga of gallantry"PIB, Government of India 
  2. "Posthumous honour for top police official"। The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মার্চ ২০১৮