পাকিস্তানের সংসদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(Parliament of Pakistan থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
পাকিস্তানের সংসদ
مجلسِ شورىٰ
Majlis-e-Shoora
ধরন
ধরন
দ্বিকক্ষ
হাউসব্যবস্থাপক সভা
জাতীয় সমাবেশ
নেতৃত্ব
ব্যবস্থাপক সমাবেশের চেয়ারম্যানরাজা রাব্বানী, (পিপিপি)
১২ মার্চ ২০১৫ থেকে
জাতীয় সমাবেশের স্পিকারসরদার আয়াজ সাদিক, (পিএমএল-এন)
৫ নভেম্বর ২০১৫ থেকে
সংসদ নেতা (উচ্চ)রাজা জাফর-উল-হক, (পিএমএল-এন)
১২ মার্চ ২০১৫ থেকে
সংসদ নেতা (নিম্ন)নওয়াজ শরীফ, (পিএমএল-এন)
৫ জুন ২০১৩ থেকে
বিরোধী দলীয় নেতা (উচ্চ)আইতজাজ আহসান, (পিপিপি)
১২ মার্চ ২০১৫ থেকে
বিরোধী দলীয় নেতা (নিম্ন)সৈয়দ খুরশিদ আহমেদ শাহ, (পিপিপি)
৭ জুন ২০১৩ থেকে
গঠন
আসন৪৪৬ সংসদ সদস্যদের
১০৪ ব্যবস্থাপক সভার সদস্য
৩৪২ MNAs
ব্যবস্থাপক সভা রাজনৈতিক দল
জাতীয় সমাবেশ রাজনৈতিক দলসরকারি জোট (209)

Opposition (131)

নির্বাচন
ব্যবস্থাপক সভা ভোটদান ব্যবস্থাসিঙ্গল ট্রান্সফারেবল ভোট
জাতীয় সমাবেশ ভোটদান ব্যবস্থাMixed member majoritarian (First past the post for most seats, 60 seats reserved for women and 10 seats reserved for religious minorities by proportional representation)
ব্যবস্থাপক সভা সর্বশেষ নির্বাচন5 March 2015
জাতীয় সমাবেশ সর্বশেষ নির্বাচন11 May 2013
সভাস্থল
Parliament House Building
Islamabad, Pakistan
ওয়েবসাইট
www.na.gov.pk
www.senate.gov.pk

পাকিস্তানের সংসদ আনুষ্ঠানিকভাবে মজলিস-ই-শূরা হিসেবে আখ্যায়িত (উর্দু: مجلسِ شورىٰ‎‎ — Majlis-e Šūrá); যা পাকিস্তানের ফেডারেল বা যুক্তরাষ্ট্রীয় ও সুপ্রিম বা সর্বোচ্চ আইনের বিধান অনুযায়ী একটি গঠন তন্ত্র। এটা একটি দ্বিকক্ষবিশিষ্ট যুক্তরাষ্ট্রীয় আইন-সভা বা পরিষদ যা ব্যবস্থাপক সভা (ইংরেজি: Senate) এবং জাতীয় সমাবেশ দ্বারা গঠিত। ব্যবস্থাপক সভা এখানে উচ্চকক্ষ হিসেবে এবং জাতীয় সমাবেশ নিম্ন কক্ষসমূহ হিসেবে উপস্থাপিত হয়। পাকিস্তানের ইসলামী প্রজাতন্ত্রের সংবিধান অনুযায়ী, পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি সংসদের অংশীভূত। জাতীয় সমাবেশ পাঁচ বছরের জন্য নির্বাচিত হয় যা বয়স্ক ভোটাধিকার এবং এক মানুষ এক ভোটের ভিত্তিতে হয়ে থাকে। জাতীয় সমাবেশের একজন সদস্যের অধিকার উল্লেখিত সময়কাল পর্যন্ত থাকে যদিনা সদস্যের মৃত্যুবরণ হয় অথবা পদত্যাগ হয়। জাতীয় সমাবেশের মেয়াদ এছাড়াও শেষ হয়ে আসে যদি প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শক্রমে সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বা রাষ্ট্রপতির কর্তৃক বিবেচনার ভিত্তিতে সংবিধান অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সংসদ কার্যক্রম ইসলামাবাদের সংসদ ভবনে হয়, যেখানে উভয় কক্ষের জন্য ডিবেটিং চেম্বার উপস্থিত হয়। ১৯৬০ সাল পর্যন্ত, সংসদ করাচিতে অবস্থিত ছিল। পাকিস্তানের সংসদ বিশ্বের প্রথম এবং একমাত্র সংসদ যা স্ব-উৎপন্ন সৌর শক্তির উপর সম্পূর্ণরূপে পরিচালিত হয়।[১]

জাতীয় সমাবেশ[সম্পাদনা]

পাকিস্তানের জাতীয় সমাবেশ সংসদের নিম্নকক্ষের হয়ে থাকে। জাতীয় সমাবেশে মোট ৩৪২ টি আসন রয়েছে। এর মধ্যে ২৭২ টি সরাসরি নির্বাচিত হয়, ৬০ টি সংরক্ষিত হয় নারীদের জন্য এবং আরও ১০ টি সংরক্ষিত হয় ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের জন্য। পাকিস্তানের জাতীয় মসাবেশ দেশের সার্বভৌম বিধানিকের গঠন তন্ত্র। এটা জনগণের ইচ্ছার উপর গঠিত যা গণতান্ত্রিক এবং বহুদলীয় যুক্তরাষ্ট্র সংসদীয় পদ্ধতির অধীনে পরিচালিত হয়। জাতীয় সমাবেশ সংঘের আইন প্রবর্তন করে থাকে ক্ষমতা দিক থেকে।এই আইন প্রবর্তন করা হয় যুক্তরাষ্ট্রীয় বিধানিক তালিকা অনুযায়ী। এর বিতর্ক, মুলতবি প্রস্তাব, প্রশ্ন ঘন্টা এবং স্থায়ী কমিটির মাধ্যমে জাতীয় সমাবেশ নির্বাহী উপর পরিক্ষা করে থাকে এবং নিশ্চিত করে যে সরকারী কার্যাবলীতে নাগরিকদের মৌলিক অধিকার লঙ্ঘন করে না। জাতীয় সমাবেশের সদস্য নির্বাচিত করা হয় সরাসরি এবং বিনামূল্যে ভোট পদ্ধতির দ্বারা।

ব্যবস্থাপক সভা[সম্পাদনা]

সকল যুক্তরাষ্ট্রিয় ইউনিট কে সমান ভাবে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য পাকিস্তানের ব্যবস্থাপক সভা সৃষ্টি করার প্রধান উদ্দেশ্য ছিল। ব্যবস্থাপক সভার সমান অধিকার প্রাপ্ত প্রাদেশিক সদস্য জাতীয় সমাবেশের বৈষম্যের ভারসাম্য এনে দেয় এবং সন্দেহ এবং আশঙ্কাকে দুরীভূত করে থাকে। এ ছাড়াও, যদি বঞ্চনা ও শোষণ সংক্রান্ত বিষয় থাকে সেইক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করে। ব্যবস্থাপক সভা একটি সাংগঠনিক গঠন, যা প্রদেশ/দেশের অঞ্চল কে প্রতিনিধিত্ব করে এবং উন্নীত করে সমতা, শান্তি ও সম্প্রীতি,যা একটি জাতির সমৃদ্ধির জন্য অপরিহার্য ও গুরুত্বপূর্ণ। ব্যবস্থাপক সভা মোট ১০০ জন সদস্য নিয়ে গঠিত, যাদের মধ্যে ১৪ জন সদস্যকে প্রত্যেক প্রাদেশিক সমাবেশ দ্বারা নির্বাচিত করা হয়, ৮ জন সদস্যকে জাতীয় সমাবেশ সদস্য দ্বারা ফেডারেলি এডমিনিসটেরেড ট্রিবাল এরিয়াস (সংক্ষেপে- ইংরেজি: FATAs) থেকে নির্বাচিত করা হয়, ২ জন সদস্য যাদের ১ জন নারী ও আর ১ জন টেকনোক্র্যাট যাদের কে জাতীয় সমাবেশের সদস্য দ্বারা ফেডারেল ক্যাপিটাল থেকে নির্বাচিত করা হয়, ৪ জন নারী সদস্য ও ৪ জন টেকনোক্র্যাট সদস্যদের প্রত্যেক প্রাদেশিক সমাবেশের সদস্য দ্বারা নির্বাচিত করা হয়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ ১৯৪৭ সালের ১৪ আগস্ট গণপরিষদে লর্ড মাউন্টব্যাটেন দ্বারা বক্তৃতার উত্তর দিচ্ছেন।

ভিত্তি স্থাপন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "পাকিস্তানের সংসদ সৌর শক্তিতে সম্পূর্ণরূপে চালানো" (ইংরেজি ভাষায়)। দি ইকোনোমিক টাইমস। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]