২০১৫–১৬ বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মিনিস্টার ফ্রিজ বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ ২০১৫-১৬
মিনিস্টার ফ্রিজ বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ ২০১৫-১৬.jpg
মৌসুম২০১৫
তারিখ২৬ নভেম্বর, ২০১৫ হতে
২৮ জানুয়ারি, ২০১৬ পর্যন্ত
চ্যাম্পিয়নউত্তর বারিধারা স্পোর্টিং ক্লাব
(১ম শিরোপা)
শীর্ষ স্থানেউত্তর বারিধারা স্পোর্টিং ক্লাব
উন্নীতউত্তর বারিধারা স্পোর্টিং ক্লাব
আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ
অবনমনওয়ারী ক্লাব
মোট খেলা৫৬
মোট গোলসংখ্যা১০৩ (ম্যাচ প্রতি ১.৮৪টি)
সর্বোচ্চ স্কোরিংঅগ্রণী ব্যাংক ৪-১ ফকিরেরপুল

(১ ডিসেম্বর, ২০১৫)
আরামবাগ ২-৩ বাংলাদেশ পুলিশ

(২২ ডিসেম্বর, ২০১৫)
সব পরিসংখ্যান ২৮ জানুয়ারি,২০১৬ অনুযায়ী সঠিক।

২০১৫–১৬ বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ (পৃষ্টপোষকতা জনিত কারণে মিনিস্টার ফ্রিজ বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ নামেও পরিচিত) বাংলাদেশের পেশাদার ফুটবল লীগের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ(বিসিএল)-এর চতুর্থ মৌসুম।[১] জটিলতার কারণে এই মৌসুম শুরু হয় ২৬ নভেম্বর, ২০১৫ তারিখে[১][২][৩] মোট আটটি দল এই মৌসুমে অংশ গ্রহণ করে। দলগুলি হচ্ছে- উত্তর বারিধারা স্পোর্টিং ক্লাব, অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড স্পোর্টস ক্লাব, আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ, ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব, ওয়ারী ক্লাব, ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব, টি এন্ড টি ক্লাব, ও বাংলাদেশ পুলিশ এসি[৩] মৌসুমের সকল খেলা তথা ৫৬টি ম্যাচ ঢাকা মহানগরীর দুটি ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হয়।[১] উত্তর বারিধারা স্পোর্টিং ক্লাব এই মৌসুমের শিরোপা জয় করে অন্যদিকে ওয়ারী ক্লাব ঢাকা সিনিয়র ডিভিশন লীগে অবনমিত হয়।[৪]

পৃষ্টপোষক, পুরস্কার ও নিয়ম[সম্পাদনা]

মিনিস্টার ফ্রিজ ও প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড এই মৌসুমের মুখ্য পৃষ্টপোষক হিসেবে অর্থায়ন করে। এছাড়াও প্রগতি ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড, ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড, নভোএয়ার ও ট্রেজার সিকিউরিটিস লিমিটেড এই মৌসুমের সহযোগী পৃষ্টপোষণা করে। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন অংশগ্রহণ বাবদ প্রতিটি দলকে ৫ লাখ টাকা দেয়।পুরষ্কার হিসেবে শিরোপা জয়ী ও রানার্স-আপ দলের জন্য ৫ লাখ ও ২ লাখ নগদ অর্থ প্রদান এবং মৌসুমের ১ম ও ২য় স্থান অর্জনকারী দলকে সরাসরি ২০১৬ সালের প্রিমিয়ার লিগে উত্তরণ এবং সর্বনিম্ন পয়েন্ট প্রাপ্ত দল ঢাকা সিনিয়র ডিভিশন লীগে অবনমনের নিয়ম করা হয়।[৩][৫]

দল ও ভেন্যুসমূহ[সম্পাদনা]

দলসমূহ[সম্পাদনা]

এই মৌসুমে প্রাথমিকভাবে ১০ দলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত হলেও ৮টি দল অংশগ্রহণ করে। ৮টি দলের মধ্যে ৬টি দল পূর্ব মৌসুমের অংশগ্রহণকারী দল। উত্তর বারিধারা ২০১৩-১৪ প্রিমিয়ার লীগের অবনমিত দল হিসেবে এই মৌসুমে যোগ দেয়। নতুন দল হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশ অ্যাথলেটিক ক্লাবের পেশাদার ফুটবল প্রতিযোগীতায় অভিষেক ঘটে। যাত্রাবাড়ী ও বাসাবো তরুণ সংঘ লীগ থেকে নাম প্রত্যাহার করে।[৬]

ক্রম দল টীকা সুত্র
অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড স্পোর্টস ক্লাব পূর্ব মৌসূমের দল [৭]
আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ পূর্ব মৌসূমের দল
উত্তর বারিধারা স্পোর্টিং ক্লাব প্রিমিয়ার লীগের অবনমিত দল
ওয়ারী ক্লাব পূর্ব মৌসূমের দল
মতিঝিল টিএন্ডটি ক্লাব পূর্ব মৌসূমের দল
ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব পূর্ব মৌসূমের দল
বাংলাদেশ পুলিশ অ্যাথলেটিক ক্লাব প্রথমবার বিসিএল-এ অংশগ্রহণ
ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব পূর্ব মৌসূমের দল

ভেন্যু সমূহ[সম্পাদনা]

এই মৌসুমের উদ্বোধনীসহ কিছু খেলা ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম ও বেশীরভাগ ম্যাচ বীর শ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছে।[১]

ভেন্যুর সংখ্যা অবস্থান ভেন্যুর নাম ধারণ ক্ষমতা
ঢাকা বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম ৩৬,০০০
বীর শ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়াম ২৫,০০০

ফলাফল[সম্পাদনা]

স্বাগতিক \ অতিথি অগ্রণী ব্যাংক আরামবাগ উত্তর বারিধারা ওয়ারী ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স বাংলাদেশ পুলিশ টিএন্ডটি ভিক্টোরিয়া
অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড স্পোর্টস ক্লাব ০–১ ১–২ ২–০ ৪–১ ০–০ ০–১ ৩–১
আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ ১–০ ০–১ ২–১ ০–০ ২–৩ ২–২ ১–১
উত্তর বারিধারা স্পোর্টিং ক্লাব ২–০ ১–১ ০–০ ১–১ ০–০ ০–২ ২–১
ওয়ারী ক্লাব ০–১ ০–০ ১–৩ ০–১ ১–১ ০–১ ২–১
ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব ২–১ ০–১ ০–৩ ০–৩ ০–৩ ২–১ ০–২
বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল ক্লাব ১–২ ০–১ ১–১ ১–২ ০–০ ১–১ ০–০
টিএন্ডটি ০–০ ০–১ ১–১ ১–০ ৩–০ ০–১ ০–০
ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব ২–১ ২–১ ০–১ ১–১ ০–২ ১–১ ০–০
২৮ জানুয়ারি ২০১৬ তারিখের ম্যাচ(সমূহ) খেলা শেষের পর হালনাগাদকৃত। উৎস: গ্লোবাল স্পোর্টস আরকাইভ
রং: নীল = স্বাগতিক দল বিজয়ী; হলুদ = ড্র; লাল = সফরকারী দল বিজয়ী।

পয়েন্ট তালিকা[সম্পাদনা]

১৪ ম্যাচে ২৭ পয়েন্ট নিয়ে শিরোপা জিতে উত্তর বারিধারা ক্লাব।[৮][৯][১০][১১] আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ রানার্স আপ হয়।[৪] পয়েন্ট তালিকায় তলানীতে থাকায় ওয়ারী ক্লাব ঢাকা সিনিয়র ডিভিশন লীগে অবনমিত হয়।[৪][১২]

অব দল খে ড্র হা স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন বা অবনমন
উত্তর বারিধারা স্পোর্টিং ক্লাব ১৪ ১৮ +৯ ২৭ বিপিএল-এ জন্য উত্তীর্ণ
আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ ১৪ ১৪ ১১ +৩ ২৩ বিপিএল-এ জন্য উত্তীর্ণ
টি এন্ড টি ক্লাব ১৪ ১৩ +৫ ২১
বাংলাদেশ পুলিশ অ্যাথলেটিক ক্লাব ১৪ ১৩ ১১ +২ ১৭
অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড স্পোর্টস ক্লাব ১৪ ১৫ ১৪ +১ ১৭
ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব ১৪ ১২ ১৫ −৩ ১৫
ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব ১৪ ২২ −১৩ ১৫
ওয়ারী ক্লাব ১৪ ১১ ১৫ −৪ ১৩ ঢাকা সিনিয়র ডিভিশন লীগে অবনমন

তথ্যসুত্র[সম্পাদনা]

  1. "মাঠে গড়াচ্ছে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ ফুটবল"দৈনিক সংগ্রাম। ২০১৫-১১-২০। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৩ 
  2. "চ্যাম্পিয়ন লিগ শুরু ২৬ নভেম্বর"বাংলাদেশ প্রতিদিন। ২০১৫-১১-২০। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-০৫ 
  3. "শুরু হচ্ছে মিনিস্টার ফ্রিজ বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ"সময় টিভি। ২০১৫-১১-২০। ২০১৯-০৭-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৩ 
  4. "বারিধারা-আরামবাগ প্রিমিয়ারে, ওয়ারী রেলিগেশনে"দৈনিক ইনকিলাব। ২০১৬-০২-০১। ২০১৯-০৭-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৩ 
  5. "বিসিএলের স্পন্সর মিনিস্টার ফ্রিজ"দৈনিক নয়া দিগন্ত। ২০১৫-১১-২০। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-০৫ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  6. "পেশাদার ফুটবল লীগে পুলিশ"দৈনিক যুগান্তর। ২০১৫-১০-১৫। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৩ 
  7. "আজ মাঠে গড়াচ্ছে চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ"দৈনিক ভোরের কাগজ। ২০১৫-১১-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-০৫ 
  8. "উত্তর বারিধারা চ্যাম্পিয়ন"দৈনিক যুগান্তর। ২০১৬-০১-২৮। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৩ 
  9. "প্রিমিয়ারে ফিরল উত্তর বারিধারা"প্রথম আলো। ২০১৬-০১-২৪। ২০১৯-০৭-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৩ 
  10. "বিসিএল চ্যাম্পিয়ন উত্তর বারিধারা"দৈনিক নয়া দিগন্ত। ২০১৬-০১-২৮। ২০১৯-০৭-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৩ 
  11. "চ্যাম্পিয়ন হয়ে প্রিমিয়ার লিগে উত্তর বারিধারা"বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম। ২০১৬-০১-২৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৩ 
  12. "প্রিমিয়ার লিগে উন্নীত উত্তর বারিধারা-আরামবাগ"দৈনিক সংগ্রাম। ২০১৬-০২-০১। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-০৫ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]