সবকিছু নষ্টদের অধিকারে যাবে (কবিতা)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

সবকিছু নষ্টদের অধিকারে যাবে হুমায়ুন আজাদের লেখা সবকিছু নষ্টদের অধিকারে যাবে কাব্যগ্রন্থের 'শিরোনাম-কবিতা'।[১] ১৯৮৫ খ্রিষ্টাব্দে (১৩৯২ বঙ্গাব্দ) আগামী প্রকাশনী, ঢাকা থেকে এটি গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয়।[২] কবিতাটি সবকিছু নষ্টদের অধিকারে যাবে (১৯৮৫) কাব্যগ্রন্থে অর্ন্তভুক্ত।

সবকিছু নষ্টদের অধিকারে যাবে কাব্যগ্রন্থের কবিতাসমূহ[সম্পাদনা]

হুমায়ুন আজাদ তার প্রথম দুটি কবিতার বইয়ের পর এই বইতেও আবেগ ফুটিয়ে তুলেছিলেন নিজস্ব ভঙ্গীতে; প্রেমের কবিতা 'আমাকে ভালোবাসার পর' ছিলো একটি পুনরাবৃত্তি ছাঁচের কবিতা, 'তুমি সোনা আর গাধা করো' ছিলো একটি বিদ্রূপাত্মক কবিতা।[৩]

  • সবকিছু নষ্টদের অধিকারে যাবে
  • আমি কি ছুঁয়ে ফেলবো
  • অন্ধ যেমন
  • তুমি সোনা আর গাধা করো
  • না, তোমাকে মনে পড়ে নি
  • তোমাকে ছাড়া কি করে বেঁচে থাকে
  • আমাকে ভালোবাসার পর
  • তোমার পায়ের নিচে
  • কতোবার লাফিয়ে পড়েছি
  • আমি যে সর্বস্বে দেখি
  • কবিতা-কাফনে মোড়া অশ্রুবিন্দু
  • বাংলা ভাষা
  • ব্যাধিকে রূপান্তরিত করছি মুক্তোয়
  • নাসিরুল ইসলাম বাচ্চু
  • কবির লাশ
  • ভেতরে ঢোকার পর
  • অনুপ্রাণিত কবি আর প্রেমিকের মতো
  • তোমার ফটোগ্রাফ
  • পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশে
  • পৃথিবীতে একটিও বন্দুক থাকবেনা
  • আশির দশকের মানুষেরা
  • যতোবার জন্ম নিই
  • নৌকো, অধরা সুন্দর
  • খাপ না খাওয়া মানুষ

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. মাহমুদুর রহমান (জুন ২৮, ২০১৪)। "সবকিছু নষ্টদের অধিকারে যাবে?"যুগান্তর। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১২, ২০১৭ 
  2. ""সবকিছু নষ্টদের অধিকারে যাবে""। রকমারি। ৫ জুলাই ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০২-০৪ 
  3. "হুমায়ুন আজাদের কবিতা"arts.bdnews24.com 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]