রবীন্দ্রপ্রবন্ধ: রাষ্ট্র ও সমাজচিন্তা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রবীন্দ্রপ্রবন্ধ: রাষ্ট্র ও সমাজচিন্তা
লেখকহুমায়ুন আজাদ
প্রচ্ছদ শিল্পীসমর মজুমদার
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা
বিষয়রবীন্দ্রপ্রবন্ধ
ধরনগবেষণা
প্রকাশিতআগস্ট, ১৯৭৩
প্রকাশক
মিডিয়া ধরনমুদ্রণ (শক্তমলাট)
পৃষ্ঠাসংখ্যা১৪৪
আইএসবিএন9-844-01437-0
পূর্ববর্তী বই— 
পরবর্তী বইঅলৌকিক ইস্টিমার (১৯৭৩) 

রবীন্দ্রপ্রবন্ধ: রাষ্ট্র ও সমাজচিন্তা বাংলাদেশী লেখক হুমায়ুন আজাদ রচিত একটি গবেষণা গ্রন্থ। ১৯৭৩ সালের আগস্টে প্রথম বাংলা একাডেমী ঢাকা থেকে এটি গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয়। পরবর্তীতে ফেব্রুয়ারি ১৯৯৯ সালে (মাঘ, ১৪০৫ বঙ্গাব্দ) একুশে গ্রন্থমেলায় আগামী প্রকাশনী, ঢাকা থেকে এটি পুনরায় গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয়।

আজাদ এই সমালোচনা গ্রন্থ উৎসর্গ করেছেন তার শিক্ষক মুহম্মদ আবদুল হাই এবং মোফাজ্জল হায়দার চৌধুরীকে[১]

সারাংশ[সম্পাদনা]

বইটি মূলত হুমায়ুন আজাদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তরের ছাত্র থাকাকালীন রচনা; হুমায়ুন আজাদ বইটির ভূমিকা অংশেই বলেছেন যে, তার নিজের ছাত্রজীবন অর্থাৎ ষাটের দশকের প্রতি রয়েছে বিশেষ আবেগ। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর নিয়ে গবেষণা তার স্নাতকোত্তর পরীক্ষার মূল বিষয় ছিলো। ১৯৬৮ সালে স্নাতকোত্তর পরীক্ষা দেন হুমায়ুন আজাদ এবং পরীক্ষার বিভিন্ন নথিপত্র তিনি পরে সংকলন করে সেটা বই আকারে ১৯৭৩ সালের আগস্ট মাসে প্রকাশ করেন।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাঙালি সংস্কৃতির অগ্রজ গুরু - বইটির পরতে পরতে তা রয়েছে, রবীন্দ্রনাথের ব্যক্তিগত জীবন, চিন্তা-ভাবনা, মতবাদ, সবই হুমায়ুন আজাদ সংক্ষেপে গুছিয়ে লিখেছেন।

গবেষণা তালিকা[সম্পাদনা]

এই গ্রন্থে মোট পাঁচটি গবেষণা প্রবন্ধ অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। প্রবন্ধসমূহের নাম হলো:[১]

  1. স্বকালের পটভূমিতে রবীন্দ্রনাথ
  2. রাষ্ট্র ও সমাজচিন্তা
  3. মুসলমান ও হিন্দুমুসলমান সম্পর্ক
  4. ইউরোপ ও ইংরেজ বনাম ভারত ও ভারতবাসী
  5. শিক্ষাচিন্তা

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. হুমায়ুন আজাদ (১৯৯৯)। "সূচিপত্র"। রবীন্দ্রপ্রবন্ধ: রাষ্ট্র ও সমাজচিন্তাঢাকা: আগামী প্রকাশনী। পৃষ্ঠা ৯। আইএসবিএন 9-844-01437-0 |আইএসবিএন= এর মান পরীক্ষা করুন: checksum (সাহায্য) 

বহি:সংযোগ[সম্পাদনা]