মাইকেল ডি ভেনুতো

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মাইকেল ডি ভেনুতো
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামমাইকেল জেমস ডি ভেনুতো
জন্ম (1973-12-12) ১২ ডিসেম্বর ১৯৭৩ (বয়স ৪৫)
হোবার্ট, তাসমানিয়া, অস্ট্রেলিয়া
ডাকনামডিভা
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম
ডানহাতি লেগ ব্রেক
ভূমিকাব্যাটসম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ )
২৯ মার্চ ১৯৯৭ 
অস্ট্রেলিয়া বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
শেষ ওডিআই১৭ ডিসেম্বর ১৯৯৭ 
অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৯১-২০০৮তাসমানিয়ান টাইগার্স (দল নং ৫)
১৯৯৯সাসেক্স
২০০০-২০০৬ডার্বিশায়ার (দল নং ৩)
২০০৭-২০১২ডারহাম (দল নং ২৩)
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই এফসি এলএ টি২০
ম্যাচ সংখ্যা ৩২৪ ২৯৯ ৪৬
রানের সংখ্যা ২৪১ ২৪,৫১৮ ৯,৮০২ ৯৫১
ব্যাটিং গড় ২৬.৭৭ ৪৬.৪৩ ৩৩.০২ ২৩.৭৭
১০০/৫০ ০/২ ৫৯/১৪৩ ১৬/৪৬ ০/৭
সর্বোচ্চ রান ৮৯ ২৫৪* ১৭৩* ৯৫*
বল করেছে ৮০৭ ২০০ ৭৮
উইকেট
বোলিং গড় ৯৬.৮০ ৩৬.২০ ১৭.৬০
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - - -
সেরা বোলিং ১/০ ১/১০ ৩/১৯
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/– ৩৯৫/– ১২৩/– ১০/–
উৎস: ক্রিকইনফো, ১৬ অক্টোবর ২০১৭

মাইকেল জেমস ডি ভেনুতো (ইংরেজি: Michael James Di Venuto; জন্ম: ১২ ডিসেম্বর, ১৯৭৩) ইতালীয় বংশোদ্ভূত ও তাসমানিয়ার হোবার্টে জন্মগ্রহণকারী সাবেক অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তারকা। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। দলে তিনি মূলতঃ বামহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে তাসমানিয়ান টাইগার্সের প্রতিনিধিত্ব করেন মাইকেল ডি ভেনুতো[১]

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

১৯৯০-এর দশকে দুর্দণ্ড প্রতাপে তাসমানিয়ার পক্ষে খেলেছেন। ফলশ্রুতিতে অস্ট্রেলিয়া জাতীয় ক্রিকেট দলের পক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য আমন্ত্রণ লাভ করেন। কিন্তু নয়টি খেলায় অংশ নেয়ার পর দল থেকে বাদ পড়েন তিনি। তাসমানিয়ার দলীয় সঙ্গী জেমি কক্স, ডেন হিলসশন ইয়ংয়ের ন্যায় সমসাময়িক খেলোয়াড়দের সাথে তিনিও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সফলতা লাভ করতে পারেননি। ঐ সময় অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দল বৈশ্বিক ক্রিকেটে একচ্ছত্র প্রাধান্য বিস্তার করেছিল। ফলে দলের সদস্য হওয়া বেশ কঠিনতর ছিল।

অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেও কাউন্টি ক্রিকেটে খেলা চালিয়ে যান। অতঃপর জুলাই, ২০১২ সালে ডারহাম কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাব থেকে অবসর নেন।[২] এরপূর্বে কাউন্টিতে ডার্বিশায়ার ও সাসেক্সের পক্ষে খেলেন তিনি।

কোচিং[সম্পাদনা]

ডারহাম থেকে অবসর নেয়ার পর অস্ট্রেলিয়ার তৎকালীন প্রধান কোচ মিকি আর্থারের পরিচালনায় পূর্ণাঙ্গকালীন ব্যাটিং কোচের দায়িত্ব পান তিনি।[৩] জানুয়ারি, ২০১৬ সালে দায়িত্বপ্রাপ্ত কোচ ড্যারেন লেহম্যান অসুস্থ হলে তিনি দলকে নিয়ে ভারত সফরে যান ও টি২০ আন্তর্জাতিকে দলকে পরিচালনার দায়িত্ব পান।[৪] ২০১৬ সালের আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের লক্ষ্যে ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ তারিখে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া কর্তৃপক্ষ দলের সদস্যদের তালিকা প্রকাশ করা হয়।[৫] এতে তাকে দল পরিচালনার দায়িত্ব দেয়া হয়। ২০১৬ সালের শুরুর দিকে গ্রাহাম ফোর্ড সারে ক্লাবের প্রধান কোচের পদ থেকে ইস্তফা দিলে তাকে এ পদে মনোনয়ন দেয়া হয়।[৬]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ইতালীয় পাসপোর্ট ধারণ করায় কাউন্টি ক্রিকেটে খেলতে অসুবিধে হয়নি তার। এরফলে ২০১২ সালের আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ বাছাইপর্বে ইতালি দলের সদস্যরূপে অভিষেক ঘটে তার। তার বড় ভাই পিটারও ইতালির পক্ষে ইউরোপীয় ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশীপে খেলেছেন।[৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Cricinfo Tasmanian Players, Retrieved 1 May, 2017"। ২৬ মার্চ ২০০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ মে ২০১৭ 
  2. "Michael Di Venuto"। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৭-০৯ 
  3. "Michael Di Venuto Appointed Australia Batting Coach"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০২-০৩ 
  4. Brettig, Daniel (২৪ জানুয়ারি ২০১৬)। "Lehmann diagnosed with deep vein thrombosis"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০১৬ 
  5. "Smith to lead, Wade, Boyce dropped from World T20 squad"ESPNCricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 
  6. Michael di Venuto: Surrey appoint Australian as head coach Retrieved 29 February 2016
  7. "Michael Di Venuto to play Twenty20 for Italy"Herald Sun। ২৬ জানুয়ারি ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জানুয়ারি ২০১২ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]