প্রবেশদ্বার:চিকিৎসাবিদ্যা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

চিকিৎসাবিদ্যা

Physician examining a patient.
Esclapius stick coloured.svg

চিকিৎসাবিদ্যা হল স্বাস্থ্য বিজ্ঞানের শাখা এবং রোগ ও আঘাতের অধ্যয়ন, নির্ণয় এবং চিকিত্সার মাধ্যমে মানব স্বাস্থ্য বজায় রাখা বা পুনরুদ্ধার করার সাথে সম্পর্কিত জনজীবনের খাত। এটি তন্ত্রগুলির একটি বিজ্ঞান তাদের রোগ — এবং চিকিত্সা উভয় জ্ঞানের একটি ক্ষেত্র এবং সেই জ্ঞানের প্রয়োগ অনুশীলন — একটি শিল্প বা নৈপুণ্য। যাইহোক, ওষুধ প্রায়শই চিকিত্সক এবং শল্যচিকিৎসকদের দ্বারা পরিচালিত বিষয়গুলিকে আরও নির্দিষ্টভাবে বোঝায়।

চিকিৎসাবিদ্যা হল জ্ঞানের একটি ক্ষেত্র (একটি বিজ্ঞান), এবং সেই জ্ঞানের প্রয়োগ (চিকিৎসা পেশা এবং অন্যান্য স্বাস্থ্য পেশাদার যেমন নার্সদের দ্বারা)। চিকিৎসা বিজ্ঞানের বিভিন্ন বিশেষ শাখা বিশেষ অঙ্গ বা রোগের সাথে সম্পর্কিত বিশেষায়িত চিকিৎসা পেশার সাথে মিলে যায়। ওষুধ বিজ্ঞান হল শরীরের তন্ত্র ও রোগের জ্ঞান, যখন ওষুধ পেশা বলতে সেই জ্ঞান প্রয়োগ করার জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে প্রশিক্ষিত সামাজিক গোষ্ঠীর লোকদের বোঝায়।

অভ্যন্তরীণ ওষুধের সংক্ষিপ্ত বিবরণ হিসাবে চিকিৎসা পেশাদারদের দ্বারা চিকিৎসাবিদ্যার ব্যবহার করা হয়। প্রাণি চিকিৎসাবিজ্ঞান হল মানুষ ব্যতীত অন্যান্য প্রাণী প্রজাতির স্বাস্থ্যসেবার অনুশীলন।

জানেন কী?...

  • একটিমাত্র কোষ (নিষিক্ত ডিম্বাণু) হতে শুরু করে যখন পূর্ণবয়স্ক অবস্থায় পৌছায়, মানব শরীরে মানবকোষের সংখ্যা হয় প্রায় ১০১৩। তবে পূর্ণবয়স্ক মানব শরীরে ব্যাক্টেরিয়ার সংখ্যা এর ১০ থেকে ১০০ গুণ বেশী। মানবকোষদের মধ্যে ক্ষুদ্রতম সকেন্দ্রিক (নিউক্লিয়াস যুক্ত) কোষ শুক্রাণু এবং বৃহত্তম কোষ ডিম্বাণু। ক্ষুদ্রতম কেন্দ্রহীন (নিউক্লিয়াসবিহীন) কোষ তঞ্চনকারী অনুচক্রিকা (platelet), দীর্ঘতম দেহকোষ কয়েকটি স্নায়ুকোষ। সর্বাপেক্ষা দীর্ঘজীবী কেন্দ্রহীন কোষ থাকে চোখের লেন্স-এ।
  • যেসব শরীরাংশের সংখ্যা অগণিত মনে হলেও সসীম এবং মানুষ জন্মাবার পর সাধারণত আর বাড়েনা: রোমকূপ, ডিম্বাণু(শিশুনারীর), নেফ্রন।.. আগে মনে করা হত পূর্ণবয়স্ক মানবদেহে নতুন স্নায়ুকোষ তৈরী হয়না। এখন প্রমাণিত মস্তিষ্কের বেশকিছু অঞ্চলে (যেমন ডেন্টেট জাইরাস) স্থানীয় স্টেমসেল থেকে আজীবন নতুন স্নায়ুকোষ তৈরী হতে থাকে।
  • গর্ভস্থ ভ্রুণের দেহে প্রথম দুবার রোম (ভ্রুণরোম বা ল্যানুগো) গজায় মাথা থেকে পা এক ঐক্যবদ্ধ তরঙ্গে ও ঝরে যায়ও একত্রে। পরে রোম গজানো বা ঝরা ঐক্যবদ্ধ হয়না বলেই সবসময় আমাদের দেহে কিছু রোম/চুল থাকে। তবে কিছু ধরণের দৈহিক পীড়ায় টেলোজেন এফ্লুভিয়াম হয় যখন দেহের সমস্ত চুল রোম একসঙ্গে টেলোজেন দশায় পৌছে ঝরে পড়ে।
  • যে কোন সাধারণ কন্ডোমকে হাওয়া ভরে ফুলিয়ে আয়তন ১৪.৫ লিটার (~৩ফুট লম্বা, ১.৫ ফুট ব্যাস) অবধি করলেও ফাটবে না (চাপ সহন ক্ষমতা >১ কিলো পাস্কাল)।
  • বিবর্তনের ফলে কুষ্ঠ রোগের জীবাণুর জিনোম ক্ষতবিক্ষত ও জীবাণুটি ব্যাক্টেরিয়াদের মধ্যে ধীরতম গতিতে বিভাজন করে, উষ্ণতা সহ্য করতে পারেনা, ও দেহের কেবল শীতল অংশ যেমন চামড়া, নাক, অণ্ডকোষ ইত্যাদিকে আক্রমণ করে। চিকিৎসা দ্বারা কুষ্ঠ রোগ সম্পূর্ণ নিরাময়যোগ্য।
  • "পরিমিত খাবার খেলে জীবন দীর্ঘ হয় ("caloric restriction leads to longivity") এই সত্য ইঁদুর, ফলের মাছি (ড্রসোফিলা), ঈস্ট ও মাটিতে বাসকারী গোলকৃমি (সি এলিগ্যান্স) এর ক্ষেত্রে পরীক্ষা দ্বারা প্রমাণিত। পরিমিত লালমদ পানে দীর্ঘজীবনের কারণ রেজভেরাট্রল

চিকিৎসাবিদ্যা বিষয়শ্রেনীসমূহ

সম্পর্কিত প্রবেশদ্বারসমূহ

সহযোগী উইকিমিডিয়া

সার্ভার ক্যাশ খালি করুন