চিকিৎসাবিজ্ঞানের রূপরেখা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আসক্লেপিওসের দণ্ড, প্রায়শই চিকিৎসাবিজ্ঞানের প্রতীক হিসেবে ব্যবহৃত হয়

নিচের রূপরেখাটি চিকিৎসাবিজ্ঞানের একটি সার্বিক চিত্র ও বিষয়ভিত্তিক নির্দেশিকা হিসেবে প্রদান করা হল। চিকিৎসাবিজ্ঞান – আরোগ্য, রোগ নিরাময় বা রোগমুক্তির বিজ্ঞান। রোগের চিকিৎসা ও প্রতিরোধ করে সুস্বাস্থ্য বজায় রাখার উদ্দেশ্যে স্বাস্থ্য সেবা সংক্রান্ত যাবতীয় বিচিত্র পেশাদারী বা বৃত্তিমূলক কর্মকাণ্ড চিকিৎসাবিজ্ঞানের আওতায় পড়েছে।

লক্ষ্য[সম্পাদনা]

চিকিৎসাবিজ্ঞানের শাখাসমূহ[সম্পাদনা]

  1. অবেদনবিজ্ঞান – শল্যচিকিৎসাতে রোগীর অস্ত্রোপচারের আগে, চলাকালীন সময় ও পরে রোগীর ব্যথা লাঘব ও সম্পূর্ণ শুশ্রুষার সাথে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসাবিজ্ঞানের শাখা
  2. হৃদবিজ্ঞান বা হৃদরোগবিজ্ঞান – হৃৎপিণ্ড ও রক্তবাহসমূহের অনিয়ম বা রোগ সংক্রান্ত চিকিৎসাবিজ্ঞানের শাখা
  3. সঙ্কটকালীন সেবা চিকিৎসাবিজ্ঞান – গুরুতর অসুস্থ রোগীদের নিবিড় সেবাজীবন রক্ষার উপর কেন্দ্রীভূত চিকিৎসাবিজ্ঞানের শাখা
  4. দন্তবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় দাঁতসহ মুখগহ্বরের রোগের চিকিৎসা নিয়ে গবেষণা করা হয়।
  5. চর্মবিজ্ঞান – ত্বক বা চর্ম, চুল এবং নখের সাথে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসাবিজ্ঞানের শাখা
  6. জরুরি চিকিৎসাবিজ্ঞানজরুরি বিভাগে প্রদেয় সেবার উপরে কেন্দ্রীভূত চিকিৎসাবিজ্ঞানের শাখা
  7. অন্তঃক্ষরাবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখাতে অন্তঃক্ষরা তন্ত্রের বিভিন্ন অনিয়ম ও রোগ নিয়ে আলোচনা করা হয়।
  8. রোগবিস্তার বিজ্ঞান – রোগের কারণ ও বিস্তার এবং এগুলিকে নিয়ন্ত্রণকারী কর্মসূচি নিয়ে চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখাতে অধ্যয়ন করা হয়।
  9. প্রাথমিক চিকিৎসা – পেশাদারী চিকিৎসা সেবা লভ্য হবার আগে প্রাথমিকভাবে হঠাৎ রোগে আক্রান্ত বা আঘাতপ্রাপ্ত ব্যক্তির জীবন বাঁচানো, অবস্থা গুরুতর হওয়া থামানো ও সেরে ওঠার জন্য সাহায্যমূলক কর্মকাণ্ড।
  10. পাকান্ত্রবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় পৌষ্টিকতন্ত্র বা পরিপাকতন্ত্র নিয়ে অধ্যয়ন করা হয়।
  11. সাধারণ চিকিৎসাবিজ্ঞান বা পারিবারিক চিকিৎসাবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা নিয়ে বিশেষায়িত আলোচনা করা হয়।
  12. জরাবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় বৃদ্ধ ব্যক্তিদের সাধারণ স্বাস্থ্য নিয়ে আলোচনা করা হয়।
  13. স্ত্রীরোগবিজ্ঞানস্ত্রী প্রজননতন্ত্রের রোগনির্ণয় ও চিকিৎসা সংক্রান্ত শাখা।
  14. রক্তবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় রক্তসংবহন তন্ত্র নিয়ে অধ্যয়ন করা হয়।
  15. যকৃৎবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় যকৃৎ, পিত্তথলিপিত্ত সংবহন তন্ত্র নিয়ে অধ্যয়ন করা হয়।
  16. সংক্রামক রোগবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় সংক্রামক রোগ নির্ণয় ও ব্যবস্থাপনা নিয়ে, বিশেষ করে জটিল ও অনাক্রম্যতার ঘাটতিবিশিষ্ট রোগীদেরকে, অধ্যয়ন করা হয়
  17. প্রাপ্তবয়স্কদের চিকিৎসাবিজ্ঞান বা অন্তররোগ চিকিৎসাবিজ্ঞান – প্রাপ্তবয়স্কদের বিভিন্ন রোগ অধ্যয়নকারী চিকিৎসাবিজ্ঞানের শাখা
  18. স্নায়ু-চিকিৎসাবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় মানব মস্তিষ্কস্নায়ুতন্ত্র অধ্যয়ন করা হয়।
  19. বৃক্কবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় বৃক্ক (কিডনি) নিয়ে অধ্যয়ন করা হয়।
  20. ধাত্রীবিজ্ঞান বা প্রসূতিবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় প্রসূতি মায়ের গর্ভধারণের সময়ে ও প্রসব-পরবর্তী সময়ে সেবা নিয়ে অধ্যয়ন করা হয়
  21. কর্কটিবিজ্ঞান বা ক্যানসারবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় কর্কটরোগ বা ক্যান্সার রোগ নিয়ে অধ্যয়ন করা হয়।
  22. চক্ষুবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় মানব চক্ষু অধ্যয়ন করা হয়।
  23. দৃকমিতি বা চশমাবিদ্যা – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় মানব চক্ষুর অস্বাভাবিকতা বা ঘাটতি ঠিক করার জন্য যান্ত্রিক সমাধান অধ্যয়ন করা হয়
  24. অস্থিশল্যবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় মানুষের পেশী ও কঙ্কালতন্ত্রের বিভিন্ন অবস্থা নিয়ে অধ্যয়ন করা হয়।
  25. নাক-কান-গলা বিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় মানুষের নাক, কান ও গলা ও এগুলির বিভিন্ন রোগ অধ্যয়ন করা হয়।
  26. রোগবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় রোগের কারণ ও উৎপত্তি অধ্যয়ন করা হয়।
  27. শিশুরোগবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় শিশুদের স্বাস্থ্য অধ্যয়ন করা হয়।
  28. প্রতিরোধমূলক চিকিৎসাবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় রোগের চিকিৎসার পরিবর্তে রোগ প্রতিরোধের বিভিন্ন পদ্ধতি অধ্যয়ন করা হয়
  29. মনোরোগবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় মানসিক রোগসমূহ নির্ণয়, চিকিৎসা ও প্রতিরোধ নিয়ে অধ্যয়ন করা হয়।
  30. ফুসফুসবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় শ্বসনতন্ত্র অধ্যয়ন করা হয়।
  31. রঞ্জনবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় চিকিৎসাবৈজ্ঞানিক চিত্রণ ব্যবহার করে রোগ নির্ণয় ও চিকিৎসা করা নিয়ে অধ্যয়ন করা হয়।
  32. ক্রীড়া চিকিৎসাবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় শারীরিক সক্ষমতা এবং ক্রীড়া ও ব্যায়াম সংশ্লিষ্ট আঘাতের প্রতিরোধ ও চিকিৎসা নিয়ে অধ্যয়ন করা হয়।
  33. বাতরোগবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় বাতরোগ নির্ণয় ও চিকিৎসা নিয়ে অধ্যয়ন করা হয়।
  34. শল্যবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় অধ্যয়ন করা হয় কোনও রোগ বা আঘাত বিশ্লেষণ বা নিরাময় করার জন্য অস্ত্রোপচারের কলাকৌশল অধ্যয়ন করা হয়।
  35. মূত্রবিজ্ঞান – চিকিৎসাবিজ্ঞানের যে শাখায় স্ত্রী ও পুং মূত্রতন্ত্র ও পুংজননতন্ত্র অধ্যয়ন করা হয়

ইতিহাস[সম্পাদনা]

চিকিৎসা জীববিজ্ঞান[সম্পাদনা]

চিকিৎসা জীববিজ্ঞানের ক্ষেত্রসমূহ[সম্পাদনা]

অসুস্থতা (রোগ ও বিকারসমূহ)[সম্পাদনা]

চিকিৎসকবৃত্তি[সম্পাদনা]

চিকিৎসকবৃত্তি

ঔষধ[সম্পাদনা]

চিকিৎসা সরঞ্জাম[সম্পাদনা]

চিকিৎসা উপকরণ

চিকিৎসা কেন্দ্র[সম্পাদনা]

চিকিৎসাবিজ্ঞান শিক্ষা[সম্পাদনা]

চিকিৎসাবিজ্ঞান শিক্ষা – চিকিৎসাবৃত্তিতে নিযুক্ত হবার জন্য প্রয়োজনীয় শিক্ষা; হয় চিকিৎসক হবার প্রাথমিক শিক্ষা, পরবর্তীতে অতিরিক্ত প্রশিক্ষণ এবং গবেষণা-বৃত্তি।

চিকিৎসাবৈজ্ঞানিক গবেষণা[সম্পাদনা]

চিকিৎসাবৈজ্ঞানিক গবেষণা

চিকিৎসাবৈজ্ঞানিক পরিভাষা[সম্পাদনা]

চিকিৎসাবৈজ্ঞানিক পরিভাষা

চিকিৎসাবৈজ্ঞানিক শব্দসংক্ষেপ ও আদ্যক্ষরাসমূহ[সম্পাদনা]

চিকিৎসাবৈজ্ঞানিক শব্দকোষ[সম্পাদনা]

চিকিৎসাবৈজ্ঞানিক সংগঠন[সম্পাদনা]

সরকারী সংস্থাসমূহ[সম্পাদনা]

চিকিৎসাবৈজ্ঞানিক প্রকাশনা[সম্পাদনা]

চিকিৎসাবিজ্ঞানের প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বসমূহ[সম্পাদনা]

চিকিৎসা পণ্ডিতগণ[সম্পাদনা]

চিকিৎসাবিজ্ঞানের অগ্রপথিকগণ[সম্পাদনা]

চিকিৎসাবিজ্ঞানের সাধারণ ধারণাসমূহ[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]