ডেভিড স্টিল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ডেভিড স্টিল
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামডেভিড স্ট্যানলি স্টিল
জন্ম (1941-09-29) ২৯ সেপ্টেম্বর ১৯৪১ (বয়স ৭৮)
ব্রাডলি, স্টক-অন-ট্রেন্ট, ইংল্যান্ড
ডাকনামক্রাইম
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনস্লো লেফট-আর্ম অর্থোডক্স
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৪৬২)
৩১ জুলাই ১৯৭৫ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টেস্ট১৭ আগস্ট ১৯৭৬ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
একমাত্র ওডিআই
(ক্যাপ ৩৬)
২৬ আগস্ট ১৯৭৬ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৬৩–৭৮নর্দাম্পটনশায়ার
১৯৭৯–৮১ডার্বিশায়ার
১৯৮২–৮৪নর্দাম্পটনশায়ার
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৫০০ ২৬০
রানের সংখ্যা ৬৭৩ ২২,৩৪৬ ৪,৩৮১
ব্যাটিং গড় ৪২.০৬ ৮.০০ ৩২.৪৭ ২৩.০৫
১০০/৫০ ১/৫ ০/০ ৩০/১১৭ ১/২০
সর্বোচ্চ রান ১০৬ ১৪০* ১০৯
বল করেছে ৮৮ ৩৬,৬৯৩ ৩,৩২৩
উইকেট ৬২৩ ৮১
বোলিং গড় ১৯.৫০ ২৪.৮৯ ২৮.২৭
ইনিংসে ৫ উইকেট ২৬
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ১/১ ০/৯ ৮/২৯ ৪/২১
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৭/– ০/– ৫৪৬/– ৯১/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো, ২১ জানুয়ারি ২০১৮

ডেভিড স্ট্যানলি স্টিল (ইংরেজি: David Steele; জন্ম: ২৯ সেপ্টেম্বর, ১৯৪১) ব্রাডলির স্টক-অন-ট্রেন্ট এলাকায় জন্মগ্রহণকারী বিখ্যাত ও সাবেক ইংরেজ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তারকা।[১] ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন। দলে তিনি মূলতঃ মাঝারীসারির ব্যাটসম্যানের দায়িত্ব পালন করতেন। এছাড়াও স্লো লেফট-আর্ম অর্থোডক্স বোলিংয়ে পারদর্শিতা দেখিয়েছেন 'ক্রাইম' ডাকনামে পরিচিত ডেভিড স্টিল

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে আট টেস্টে অংশগ্রহণের সুযোগ হয় তার। অস্ট্রেলীয় ডেনিস লিলিজেফ থমসন, ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান অ্যান্ডি রবার্টস, মাইকেল হোল্ডিং, ওয়েন ড্যানিয়েলভ্যানবার্ন হোল্ডারের ন্যায় প্রথিতযশা ফাস্ট বোলারদের বোলিং আক্রমণের মুখোমুখি হয়েছেন। দীর্ঘদিন কাউন্টি ক্রিকেটে নর্দাম্পটনশায়ারের পক্ষে অংশ নিয়ে অবসরের প্রস্তুতিকালে ১৯৭৫ সালে টনি গ্রেগ ইংল্যান্ড দলের সদস্যরূপে অন্তর্ভুক্ত করেন। তিনি যখন ইংল্যান্ড দলে প্রবেশ করেন, তখন ইংরেজ ক্রিকেট দল গভীর সঙ্কটে নিপতিত ছিল। ১৯৭৫ সালের অ্যাশেজ সিরিজে এর প্রভাব দেখা যায়। মাঠে নামার সময় তাকে যুদ্ধে অংশগ্রহণকারী ব্যাংক কেরানী হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছিল।[২]

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

১৯৭৯ থেকে ১৯৮১ সময়কালে ডার্বিশায়ারের প্রতিনিধিত্ব করেন। ১৯৭৯ সালে ক্লাবটির অধিনায়কের দায়িত্ব পান। তবে, স্বল্পকাল পরই ছয় সপ্তাহ পর অধিনায়কত্ব করা থেকে নিজ নামকে প্রত্যাহার করে নেন তিনি।

১৯৭৫ সালে লর্ডসে সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক ঘটে ডেভিড স্টিলের। প্যাভিলিয়ন থেকে তার ব্যাট হারিয়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজির পর অবশেষে টয়লেটে ব্যাটটিকে দেখতে পাওয়া যায়। তবে মাঠে নামলেও প্রথম টেস্ট ব্যাটসম্যান হিসেবে টাইমড আউট হন।[২]

একবার ব্যাটিং করার জন্য ক্রিজে আসার পর ফাস্ট বোলার জেফ থমসন তাকে অস্ট্রেলীয় সংস্কৃতিতে অভ্যর্থনা জানান। থমসন তাকে বলেন, আমরা কেন এখানে এসেছি?[৩] ঐ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৫০, ৪৫, ৭৩, ৯২, ৩৯ ও ৬৬ রান তুলে স্বীয় শক্তিমত্তা, সাহস ও ধৈর্য্যের পরিচয় দেন। তার টেস্ট অভিষেক হবার পূর্বে ক্যাপ পরিধান অনুষ্ঠানে অধিনায়ক টনি গ্রেগ তার হাতে অশ্রুকণা ফেলে বলেন, এই ব্যক্তি আমৃত্যু আমার জন্য লড়াই করে যাবে।[৪]

পরের বছর ট্রেন্ট ব্রিজে সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের ভীতিপ্রদ ফাস্ট-বোলিং আক্রমণ মোকাবেলা করে দূর্দান্ত সেঞ্চুরি করেন। ঐ মৌসুমের শীতকালে স্পিন বোলিংয়ে দূর্বলতা থাকার কারণে তাকে ভারত সফরের বাইরে রাখা হয়েছিল। এরপর তিনি কাউন্টি ক্রিকেটে ফিরে যান। ১৯৮৪ সালে নর্দাম্পটনে খেলা শেষে বাইশ সহস্রাধিক রান তুলেন।

সম্মাননা[সম্পাদনা]

১৯৭৫ সালে ভোটের মাধ্যমে বিবিসি বর্ষসেরা ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব মনোনীত হন। পরের বছর ১৯৭৬ সালে উইজডেন কর্তৃক অন্যতম বর্ষসেরা ক্রিকেটার মনোনীত হন ডেভিড স্টিল।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Bateman, Colin (১৯৯৩)। If The Cap Fits। Tony Williams Publications। পৃষ্ঠা 155। আইএসবিএন 1-869833-21-X 
  2. "Player Profile: David Steele"। CricInfo। সংগ্রহের তারিখ ১৮ এপ্রিল ২০১০ 
  3. Stephen Fay (১৯৯৯-০৮-০৮)। "Cricket: The art of talking a good game - Sport"। The Independent। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৮-০৮ 
  4. Plomley, Roy (মে ২২, ১৯৭৬)। "Tony Greig 'I really thought I was a star then!'"Desert Island DiscsBBC Radio 4। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৫  (at 15:00)

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

ক্রীড়া অবস্থান
পূর্বসূরী
এডি বার্লো
ডার্বিশায়ার ক্রিকেট অধিনায়ক
১৯৭৯
উত্তরসূরী
জিওফ মিলার
পূর্বসূরী
ব্রেন্ডন ফস্টার
বিবিসি বর্ষসেরা ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব
১৯৭৫
উত্তরসূরী
জন কারি