ডুরান্ড কাপ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ডুরান্ড কাপ
আয়োজকডুরান্ড ফুটবল টুর্নামেন্ট সোসাইটি (ডিএফটিএস)
প্রতিষ্ঠিত১৮৮৮; ১৩৪ বছর আগে (1888)
অঞ্চল ভারত
দলের সংখ্যা১৬
সম্পর্কিত
প্রতিযোগিতা
ইন্ডিয়ান সুপার লীগ
আই-লিগ
আই-লিগ দ্বিতীয় ডিভিশন
বর্তমান চ্যাম্পিয়নবেঙ্গালুরু
(১ম শিরোপা)
সবচেয়ে সফল দলমোহনবাগান
ইস্টবেঙ্গল
(১৬ টি শিরোপা উভয়েই)
টেলিভিশন সম্প্রচারকআড্ডাটাইমস[১] (অনলাইন প্রচার)
সনি টেন (সেমি-ফাইনাল ও ফাইনাল)
ওয়েবসাইটঅফিসিয়াল ওয়েবসাইট
২০২২ ডুরান্ড কাপ

ডুরান্ড কাপ ১৮৮৮ খ্রিস্টাব্দ থেকে সংঘটিত একটি ফুটবল প্রতিযোগিতা। এটি সিমলাতে প্রথম অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এটি এশিয়ার সবচেয়ে পুরোনো ফুটবল প্রতিযোগিতা ও বিশ্বের তৃতীয় পুরোনো ও সচল প্রতিযোগিতা।

ব্রিটিশ আধিকারিক স্যার মর্টিমার ডুরান্ডএর নামানুসারে এই প্রতিযোগিতার নাম। স্বাধীনতা লাভের পরে ভারতীয় সেনাবাহিনীএর দলগুলি প্রতিবছর অংশ নিচ্ছে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ফরম্যাট[সম্পাদনা]

এই প্রতিযোগিতায় দুটি রাউন্ডে খেলা হয়:- গ্রুপ পর্ব ও নক-আউট পর্ব।

১৬টি দলকে চারটে গ্রুপে বিভাজিত করা হয়। প্রতিটি গ্রুপে চারটি দল থাকে। প্রতিটি গ্রুপের শীর্ষস্থানীয় একটি বা দুটি দল নক-আউট পর্বে অংশগ্রহণের যোগ্যতার্জন করে।

প্রতিটি দল তাদের স্কোয়াডে ২৪-৩০ জন খেলোয়াড় রাখতে পারে। বিদেশী খেলোয়াড় সাধারণত ৪ জন প্রতিদলে থাকে।

ট্রফি[সম্পাদনা]

প্রেসিডেন্ট কাপ (বাম), ডুরান্ড কাপ (মধ্য) ও সিমলা ট্রফি (ডান)

জয়ী দল তিনটি ট্রফি লাভ করে:-[২]

  • ডুরান্ড কাপ (মাস্টারপিস কাপ) (আসল ট্রফি---১৯৬৫ থেকে)[৩]
  • প্রেসিডেন্ট কাপ (দ্য প্রাইড) (প্রথম ভারতীয় রাষ্ট্রপতি রাজেন্দ্র প্রসাদ কর্তৃক প্রথমবারের জন্য প্রদত্ত)[৪]
  • সিমলা ট্রফি (আর্টিস্ট্রি) (১৯০৩ থেকে)[৫]

ফলাফল[সম্পাদনা]

নীচে ফলাফল তালিকাভুক্ত করা হল:-[৬]

বছর বিজয়ী স্কোর রানার্স-আপ
ব্রিটিশ যুগ (১৮৮৮-১৯৪৭)
১৮৮৮ রয়্যাল স্কট ফুসিলিয়ার্স ২–১
(অনিশ্চিত)
হাইল্যান্ড লাইট ইনফ্যান্ট্রি
১৮৮৯ হাইল্যান্ড লাইট ইনফ্যান্ট্রি ৮–১ শিমলা রাইফেলস
১৮৯০ ০–০
৪–২
(পুনরায় খেলা)
রয়্যাল আইরিশ ফুসিলিয়ার্স
১৮৯১ কিংস ওন স্কটিশ বর্ডারার্স ২–১ ইস্ট ল্যাঙ্কাশায়ার রেজিমেন্ট
১৮৯২ ৩–০ আরগিল অ্যান্ড সুদারল্যান্ড হাইল্যান্ডার্স
১৮৯৩ হাইল্যান্ড লাইট ইনফ্যান্ট্রি ২–১
(অনিশ্চিত)
১৮৯৪ ১–০ রয়্যাল স্কট ফুসিলিয়ার্স
১৮৯৫ ৬–১ সমারসেট লাইট ইনফ্যান্ট্রি
১৮৯৬ সমারসেট লাইট ইনফ্যান্ট্রি ৬–১
(অনিশ্চিত)
দ্য ব্ল্যাক ওয়াচ
১৮৯৭ দ্য ব্ল্যাক ওয়াচ ৪–০
(পুনরায় খেলা)
সিমলা রাইফেলস
১৮৯৮ ২–০ নর্থ স্টাফোর্ডশায়ার রেজিম্যান্ট
১৮৯৯ ২–০ ইয়র্কশায়ার রেজিম্যান্ট
১৯০০ সাউথ ওয়েলস বর্ডারার্স ২–০ ইস্ট ল্যাঙ্কাশায়ার রেজিমেন্ট
১৯০১ ২–১ সাউথ স্ট্যাফোর্ডশায়ার রেজিমেন্ট
১৯০২ হ্যাম্পশায়ার রেজিমেন্ট ২–১ ইস্ট ল্যাঙ্কাশায়ার রেজিমেন্ট
১৯০৩ রয়্যাল আইরিশ রাইফেলস ১–০ কুইন্স রেজিমেন্ট
১৯০৪ নর্থ স্টাফোর্ডশায়ার রেজিম্যান্ট ২–০ দ্য ব্ল্যাক ওয়াচ
১৯০৫ রয়্যাল ড্রাগন্স ১–০ ডর্সেটশায়ার রেজিমেন্ট
১৯০৬ ক্যামেরোনিয়ান্স ৩–০ বেডফোর্ডশায়ার রেজিমেন্ট
১৯০৭ ১–০
(অ.স.প.)
রয়্যাল ওয়েলশ ফুসিলিয়ার্স
১৯০৮ ল্যাঙ্কাশায়ার ফুসিলিয়ার্স ২–০ রয়্যাল আইরিশ রাইফেলস
১৯০৯ ২–১ কিংস রেজিমেন্ট
১৯১০ রয়্যাল স্কটস ১–০ কিংস রয়্যাল রাইফেলস
১৯১১ দ্য ব্ল্যাক ওয়াচ ১–০
(পুনরায় খেলা)
ল্যাঙ্কাশায়ার ফুসিলিয়ার্স
১৯১২ রয়্যাল স্কটস ১–০
১৯১৩ ল্যাঙ্কাশায়ার ফুসিলিয়ার্স ১–০ ৩য় কিংস রয়্যাল রাইফেলস
১ম বিশ্বযুদ্ধের জন্য ১৯১৪-১৯১৯ খেলা বাতিল
১৯২০ দ্য ব্ল্যাক ওয়াচ ২–১ ক্যামেরোনিয়ান্স
১৯২১ ওয়ারসেস্টারশায়ার রেজিমেন্ট
(৩য় ব্যাটেলিয়ন)
১–০ রয়্যাল ওয়েলশ ফুসিলিয়ার্স
১৯২২ ল্যাঙ্কাশায়ার ফুসিলিয়ার্স
(২য় ব্যাটেলিয়ন)
১–০ রয়্যাল ফিল্ড আর্টিলারি
(২৩তম ব্রিগেড)
১৯২৩ চেশায়ার রেজিম্যান্ট (১ম ব্যাটেলিয়ন) ১–০ এসেক্স রেজিম্যান্ট (২য় ব্যাটেলিয়ন)
১৯২৪ ওয়ারসেস্টারশায়ার রেজিমেন্ট (১ম ব্যাটেলিয়ন) ২–০
1925 যুক্তরাজ্য Sherwood Foresters 3–1 যুক্তরাজ্য Worcestershire Regiment
1926 যুক্তরাজ্য Durham Light Infantry 1–0 যুক্তরাজ্য Sherwood Foresters
1927 যুক্তরাজ্য York and Lancaster Regiment 2–0 ব্রিটিশ ভারত Eastern Railway
1928 যুক্তরাজ্য Sherwood Foresters 4–2 যুক্তরাজ্য York and Lancaster Regiment
1929 যুক্তরাজ্য York and Lancaster Regiment 3–1 যুক্তরাজ্য East Yorkshire Regiment
1930 ইয়র্ক এবং ল্যাঙ্কাস্টার রেজিমেন্ট 2–0 রয়্যাল লিসেস্টারশায়ার রেজিমেন্ট
1931 ডেভনশায়ার রেজিমেন্ট 0–0 (অ.স.প.)

3–1

বর্ডার রেজিমেন্ট
1932 কিংস শ্রপশায়ার লাইট ইনফ্যান্ট্রি 2–1 ডেভনশায়ার রেজিমেন্ট
1933 যুক্তরাজ্য King's Shropshire Light Infantry 2–1 যুক্তরাজ্য Royal Leicestershire Regiment
1934 যুক্তরাজ্য Royal Corps of Signals 3–1 যুক্তরাজ্য Argyll and Sutherland Highlanders
1935 যুক্তরাজ্য Border Regiment 1–0 যুক্তরাজ্য Royal Norfolk Regiment
1936 যুক্তরাজ্য Argyll and Sutherland Highlanders 2–1 যুক্তরাজ্য Green Howards
1937 Border Regiment 3–1 Royal Scots
1938 South Wales Borderers 1–0 Northwestern Railway Locomotive (Lahore)
1939 দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ এর কারণে টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়নি [৭]
1940 মোহামেডান 2–1 রয়্যাল ওয়ারউইকশায়ার রেজিমেন্ট [৮][৯]
1941–47 দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ এবং ভারত ভাগের কারণে টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়নি। [৭]

স্বাধীনতা-পরবর্তী যুগ (1950-বর্তমান)[সম্পাদনা]

বছর বিজয়ী স্কোর রানার্স-আপ
ভারতীয় যুগ (১৯৫০-বর্তমান)
১৯৫০ Hyderabad City Police 2–2 (অ.স.প.)

1–0 (অ.স.প.)

Mohun Bagan [১০]
১৯৫১ East Bengal 1–1 (অ.স.প.)

2–1

Rajasthan Armed Constabulary [১১]
১৯৫২ East Bengal 1–0 Hyderabad City Police [১২]
১৯৫৩ Mohun Bagan 4–0 National Defence Academy [১৩]
১৯৫৪ Hyderabad City Police 1–1 (অ.স.প.)

1–0

Hindustan Aircraft Limited [১৪]
1955 Madras Regimental Centre 0–0 (অ.স.প.)

0–0 (অ.স.প.) 3–2

Indian Air Force [১৫][১৬]
1956 East Bengal 2–0 Hyderabad City Police [১৫]
1957 Hyderabad City Police 2–1 East Bengal [১৫]
1958 Madras Regimental Centre 1–1 (অ.স.প.)

2–0

Gorkha Brigade [১৫][১৬]
1959 Mohun Bagan 1–1 (অ.স.প.)

3–1

Mohammedan [১৫]
1960 Mohun Bagan and East Bengal
1–1 (অ.স.প.)
0–0 (অ.স.প.)
[১৫][৭]
1961 Andhra Pradesh Police 1–0 Mohun Bagan
1962 চীন-ভারত যুদ্ধের কারণে টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়নি [১৭]
1963 Mohun Bagan 0–0 (অ.স.প.)

2–0

Andhra Pradesh Police [১৫][৭]
1964 Mohun Bagan 2–0 East Bengal
1965 Mohun Bagan 2–0 Punjab Police
1966 Gorkha Brigade 2–0 Sikh Regimental Centre
1967 East Bengal 1–0 Bengal Nagpur Railway
1968 Border Security Force 1–0 East Bengal
1969 Gorkha Brigade 1–0 Border Security Force
1970 East Bengal 2–0 Mohun Bagan
1971 Border Security Force 0–0 (অ.স.প.)

1–0

Leaders Club
1972 East Bengal 0–0 (অ.স.প.)

1–0

Mohun Bagan
1973 Border Security Force 2–1 Rajasthan Armed Constabulary
1974 Mohun Bagan 3–2 JCT
1975 Border Security Force 1–0 JCT
1976 Border Security Force and JCT
1–1 (অ.স.প.)
0–0 (অ.স.প.)
1977 Mohun Bagan 1–1 (অ.স.প.)

2–1

JCT
1978 East Bengal 3–0 Mohun Bagan
1979 Mohun Bagan 1–0 Punjab Police
1980 Mohun Bagan 1–0 Mohammedan
1981 Border Security Force 1–0 JCT
1982 Mohun Bagan and East Bengal
0–0 (অ.স.প.)
1983 JCT 1–1 (অ.স.প.)

2–1

Mohun Bagan [১৮]
1984 Mohun Bagan 1–0 East Bengal [১৫][৭]
1985 Mohun Bagan 0–0 (অ.স.প.) (3–2 পেনাল্টি) JCT
1986 Mohun Bagan 1–0 East Bengal
1987 JCT 1–0 Mohun Bagan
1988 Border Security Force 3–2 East Bengal
1989 East Bengal 0–0 (অ.স.প.) (3–1 পেনাল্টি) Mohun Bagan
1990 East Bengal 3–2 Mahindra & Mahindra
1991 East Bengal 1–1 (অ.স.প.) (5–3 পেনাল্টি) Border Security Force
1992 JCT 1–0 Mohammedan
1993 East Bengal 1–0 Punjab State Electricity Board
1994 Mohun Bagan 1–0 East Bengal [১৯]
1995 East Bengal 0–0 (অ.স.প.) (4–3 পেনাল্টি) Tata Football Academy [১৫][৭]
1996 JCT 1–0 ইরাক Al-Naft
1997 Kochin 3–1 Mohun Bagan [২০]
1998 Mahindra & Mahindra 2–1 East Bengal [১৫][৭]
1999 Salgaocar 0–0 (অ.স.প.) (3–2 পেনাল্টি) East Bengal
2000 Mohun Bagan 1–1 (golden goal) Mahindra United [২১]
2001 Mahindra United 5–0 Churchill Brothers [২২]
2002 East Bengal 3–0 Army XI [২৩]
2003 Salgaocar 1–1 (অ.স.প.) (4–3 পেনাল্টি) East Bengal [২৪]
2004 East Bengal 2–1 Mohun Bagan [২৫]
2005 Army XI 0–0 (অ.স.প.) (5–4 পেনাল্টি) Sporting Goa [২৬]
2006 Dempo 1–0 JCT [২৭]
2007 Churchill Brothers 1–0 Mahindra United [২৮]
2008 Mahindra United 3–2 (অ.স.প.) Churchill Brothers [২৯]
2009 Churchill Brothers 3–1 (অ.স.প.) Mohun Bagan [৩০]
2010 United 1–0 JCT [১৫]
2011 Churchill Brothers 0–0 (অ.স.প.) (5–4 পেনাল্টি) Prayag United [৩১]
2012 Air India 0–0 (অ.স.প.) (3–2 পেনাল্টি) Dodsal [৩২]
2013 Mohammedan 2–1 ONGC [৩৩]
2014 Salgaocar 1–0 Pune [৩৪]
2016 Army Green 0–0 (অ.স.প.) (6–5 পেনাল্টি) NEROCA [৩৫]
2019 Gokulam Kerala 2–1 Mohun Bagan [৩৬]
২০২০ কভিড-১৯ মহামারী এর কারণে টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়নি [৩৭]
২০২১ গোয়া ১–০ (অ.স.প.) মোহামেডান [৩৮]
২০২২ বেঙ্গালুরু ২–১ মুম্বাই সিটি [৩৯]

পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

ফাইনাল[সম্পাদনা]

দলভিত্তিক[সম্পাদনা]

  • সর্বাধিক জয়: ১৬, যুগ্ম রেকর্ড:
    • মোহনবাগান (১৯৫৩, ১৯৫৯, ১৯৬০, ১৯৬৩, ১৯৬৪, ১৯৬৫, ১৯৭৪, ১৯৭৭, ১৯৭৯, ১৯৮০, ১৯৮২, ১৯৮৪, ১৯৮৫, ১৯৮৬, ১৯৯৪, ২০০০)[৪০]
    • ইস্টবেঙ্গল (১৯৫১, ১৯৫২, ১৯৫৬, ১৯৬০, ১৯৬৭, ১৯৭০, ১৯৭২,১৯৭৮, ১৯৮২, ১৯৮৯, ১৯৯০, ১৯৯১, ১৯৯৩, ১৯৯৫, ২০০২, ২০০৪)[৪০]
  • সর্বাধিক একটানা জয়: ৩, যুগ্ম রেকর্ড:
  • সর্বাধিক অংশগ্রহণ: ২৮
    • মোহনবাগান (১৯৫০, ১৯৫৩, ১৯৫৯, ১৯৬০, ১৯৬১, ১৯৬৩, ১৯৬৪, ১৯৬৫, ১৯৭০, ১৯৭২, ১৯৭৪, ১৯৭৭, ১৯৭৮, ১৯৭৯, ১৯৮০, ১৯৮২, ১৯৮৩, ১৯৮৪, ১৯৮৫, ১৯৮৬, ১৯৮৭, ১৯৮৯, ১৯৯৪, ১৯৯৭, ২০০০, ২০০৪, ২০০৯, ২০১৯)[৪০][৪৬]
  • সর্বাধিক জয়বিহীন অংশগ্রহণ:
    • ইস্ট ল্যাঙ্কাশায়ার রেজিমেন্ট (১৮৮০, ১৯০০, ১৯০২)[৪৫]
  • সর্বাধিক পরাজয়বিহীন অংশগ্রহণ: ৩, যুগ্ম রেকর্ড:
  • সবচেয়ে বড় জয়
    • হাইল্যান্ড লাইট ইনফ্যান্ট্রি ৮–১ সিমলা রাইফেলস (১৮৮৯)[৪৯]
  • সর্বাধিক স্কোরিং: ৯, যুগ্ম রেকর্ড:
  • পরাজিত দলের মধ্যে সর্বাধিক গোলদাতা: ৪:
  • সর্বাধিক হার: ১২:

সম্প্রচারক[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Durand Cup 2021 | Live & Exclusive on Addatimes | Streaming September 5th (ইংরেজি ভাষায়), সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-২৫ 
  2. "Football: Durand Cup makes a comeback, after 3 years"The Week (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৭-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৩ 
  3. "𝙏𝙝𝙚 𝘿𝙪𝙧𝙖𝙣𝙙 𝘾𝙪𝙥 - 𝐀 𝐧𝐚𝐦𝐞 𝐭𝐡𝐚𝐭 𝐡𝐚𝐬 𝐨𝐯𝐞𝐫 𝐭𝐡𝐞 𝐠𝐞𝐧𝐞𝐫𝐚𝐭𝐢𝐨𝐧𝐬 𝐩𝐞𝐫𝐬𝐨𝐧𝐢𝐟𝐢𝐞𝐝 𝐯𝐢𝐜𝐭𝐨𝐫𝐢𝐞𝐬 𝐞𝐭𝐜𝐡𝐞𝐝 𝐢𝐧 𝐢𝐧𝐝𝐞𝐥𝐢𝐛𝐥𝐞 𝐢𝐧𝐤."Twitter। ১৪ আগস্ট ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০২২ 
  4. "𝙋𝙧𝙚𝙨𝙞𝙙𝙚𝙣𝙩'𝙨 𝘾𝙪𝙥 : 𝑻𝒊𝒎𝒆 𝒕𝒐 𝒉𝒐𝒍𝒅 𝒚𝒐𝒖𝒓 𝒃𝒓𝒆𝒂𝒕𝒉 𝒂𝒔 𝒘𝒆 𝒖𝒏𝒗𝒆𝒊𝒍 𝒕𝒉𝒊𝒔 𝒕𝒊𝒎𝒆𝒍𝒆𝒔𝒔 𝑻𝒓𝒐𝒑𝒉𝒚 𝒘𝒉𝒊𝒄𝒉 𝒊𝒔 𝒂𝒏 𝒆𝒑𝒊𝒕𝒐𝒎𝒆 𝒐𝒇 𝒃𝒆𝒂𝒖𝒕𝒚."Twitter। ১৪ আগস্ট ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০২২ 
  5. "𝐓𝐡𝐞 𝐒𝐢𝐦𝐥𝐚 𝐓𝐫𝐨𝐩𝐡𝐲 : 𝑨 𝑻𝒓𝒐𝒑𝒉𝒚 𝒕𝒉𝒂𝒕 𝒅𝒆𝒇𝒊𝒏𝒆𝒔 𝒕𝒉𝒆 𝒔𝒐𝒍𝒊𝒅𝒂𝒓𝒊𝒕𝒚 & 𝒖𝒏𝒊𝒕𝒚 𝒐𝒇 𝒕𝒉𝒆 𝒑𝒆𝒐𝒑𝒍𝒆 𝒐𝒇 𝑺𝒊𝒎𝒍𝒂 𝒇𝒐𝒓 𝒕𝒉𝒆 𝒍𝒐𝒗𝒆 𝒐𝒇 𝒕𝒉𝒆 𝒐𝒍𝒅𝒆𝒔𝒕 𝒇𝒐𝒐𝒕𝒃𝒂𝒍𝒍 𝒕𝒐𝒖𝒓𝒏𝒂𝒎𝒆𝒏𝒕 𝒊𝒏 𝑨𝒔𝒊𝒂."Twitter। ১৪ আগস্ট ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০২২ 
  6. ব্রিটিশ যুগ (১৮৮৮-১৯৪৭)[সম্পাদনা]

    "ডুরান্ড কাপ ফুটবল প্রতিযোগিতার ফলাফল" 

  7. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; :12 নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  8. Mishra, Aniket (২০১৫-০৮-২৯)। "Looking back at Mohammedan Sporting's historic Durand Cup triumph"www.sportskeeda.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৭-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  9. "Durand Cup: 'জান জান মহামেডান', ফুটবল মক্কা চাইছে রেশমি কাবাবের সৌরভ"ekolkata24.com। ২ অক্টোবর ২০২১। ২ মার্চ ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ মার্চ ২০২২ 
  10. Shreekumar, S. S. (২০২০-০৮-১৫)। For India's Football, The Best Way Forward (ইংরেজি ভাষায়)। Hsra Publications। আইএসবিএন 978-81-947216-9-7। ২০২১-০৮-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  11. "Top 10 moments in Durand Cup history | East Bengal won their first-ever Durand Cup in 1951"Khel Now (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৯-০৭-২৭। ২০২১-০২-২৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  12. Lokapally, Vijay। "East Bengal: A long history with Delhi"Sportstar (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৪-১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  13. "Mohun Bagan's Historic Maiden Durand Win in 1953"Mohun Bagan Athletic Club (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৪-১৬। ২০২১-০৭-১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  14. "Down the memory lane - The fascinating story of Hyderabad City Police club"www.goal.com। ২০২১-০৮-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  15. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; :02 নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  16. "The Football Team of the Madras Regiment"www.indianarmy.nic.in। ২০১৭-০৬-২৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  17. "On track to reclaim lost legacy, Durand Cup 2021 promises a grand football revival"Olympics.com। ৩০ আগস্ট ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৯-১৫ 
  18. "JCT Football Club at Durand Cup"www.jctfootball.com। ২০২১-০৩-০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  19. "History Beckons Mohun Bagan"www.telegraphindia.com। ২০২১-০৮-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  20. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; shift নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  21. "113th "Allwyn" Durand Cup 2000"www.indianfootball.de। ২০১৯-০৯-১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  22. "rediff.com sports: Mahindra United win Durand Cup"www.rediff.com। ২০০৫-০২-২৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  23. "East Bengal win Durand Cup for 15th time"Rediff (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৮-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  24. "Salgaocar win Durand Cup"www.rediff.com। ২০০৫-০৫-২৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  25. "Chandan brace seals victory over Bagan - DURAND CUP - East Bengal claim title for 16th time"www.telegraphindia.com। ২০২১-০১-১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  26. "Army XI lift Durand Cup for first time"Outlook India। ২০২১-০৮-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  27. "Dempo win Durand Cup"DNA India (ইংরেজি ভাষায়)। ২০০৬-১১-২৭। ২০২১-০৮-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  28. "Churchill beat Mahindra, lift Durand Cup"NDTVSports.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৭-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  29. "Mahindra wins Durand Cup title"www.rediff.com। ২০১৫-০৯-২৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  30. "Churchill regains Durand Cup"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। Special Correspondent। ২০০৯-০৯-২৩। আইএসএসএন 0971-751X। ২০২১-০৭-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  31. "Franco breaks tie as Churchill Brothers win Durand Cup"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। ১৬ অক্টোবর ২০১১। ২০২১-০৮-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  32. "Air India win Durand Cup"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। ২ সেপ্টেম্বর ২০১২। ২০২১-০৮-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  33. "After 73 years, Mohammedan Sporting win Durand Cup again"Firstpost। ২০১৩-০৯-২০। ২০২০-১১-২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  34. "Salgaocar beat Pune FC to win Durand Cup"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। ৮ নভেম্বর ২০১৪। ২০১৬-১১-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৩ 
  35. "neroca fc: Army Green beat Neroca FC to win Durand Cup"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ২০১৬-১২-২৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৪ 
  36. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; :3 নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  37. Roy, Suryagni (১০ আগস্ট ২০২১)। "Durand Cup back on Indian football calendar, 130th edition to be held in September-October"India Today (ইংরেজি ভাষায়)। ১২ ডিসেম্বর ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৯-১৫ 
  38. "Bedia's spectacular finish helps FC Goa win its maiden Durand Cup"Sportstar। ৩ অক্টোবর ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ অক্টোবর ২০২১ 
  39. "Durand Cup 2022 Final Live Updates: Bengaluru beat Mumbai City 2–1 to become Champions"IndianExpress.com (ইংরেজি ভাষায়)। Indian Express Limited। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২। Archived from the original on ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ 
  40. LBR, Team (২০১৮-০৫-০৫)। Limca Book of Records: India at Her Best (ইংরেজি ভাষায়)। Hachette India। আইএসবিএন 978-93-5195-240-4। ২০২১-০৮-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৩ 
  41. "Trophy Room"Mohun Bagan Athletic Club (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৯-০৬-১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৩ 
  42. "The oldest football tournament in India: Durand Cup"SportsAdda (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০২-১৪। ২০২১-০৭-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৩ 
  43. "East Bengal Club Archive"eastbengalclub.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৯-১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৩ 
  44. "Highland Light Infantry Football Team with the Durand Cup in Simla, 1893"National Galleries of Scotland (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৮-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৩ 
  45. "India - List of Durand Cup Finals"www.rsssf.com। ২০১৪-০৭-২৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৩ 
  46. Salati, Aamir (২০১৬-০৮-২৯)। "Durand Cup 2016: All you need to know about Asia's oldest football tournament"india.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৮-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৩ 
  47. "Salgaocar take on Bengaluru FC in Durand Cup semis"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। নভেম্বর ৫, ২০১৪। ২০২১-০৮-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৩ 
  48. "List of Winners/Runners-Up of the Durand Cup"www.indianfootball.de। ২০২০-০৬-২৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৩ 
  49. "Durand Cup Final's Results"www.durandfootball.in। ২০২১-০৭-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৩ 
  50. Lokapally, Vijay (২০১১-১০-১৫)। "Churchill Brothers lifts Durand Cup"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0971-751X। ২০২১-০৭-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-০৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]