ইসহাক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
ইসহাক
Isaac a Lover of Peace.jpg
ইসহাক কূপ খনন করছেন, একটি বাইবেল দৃষ্টান্তে কাল্পনিক ছবি (c. ১৯০০)
দৈববাণীঘোষণাকারী, দ্রষ্টা, দ্বিতীয় হিব্রু কুলপতি, ইস্রায়েলের পিতা, ইহুদীদের পিতা
জন্ম প্রায় ১৭০০ BCE
কেনান
মৃত্যু প্রায় ১৫০০ BCE
কেনান
সম্মানিত ইহুদি ধর্ম
খ্রিস্ট ধর্ম
ইসলাম
যার দ্বারা প্রভাবিত হয়েছেন আব্রাহাম/ইব্রাহিম
যাকে প্রভাবিত করেছেন ইয়াকুব, ইস্রায়েলের বারো বংশ, পাশাপাশি অনেক ইহুদি, খ্রিষ্টান and মুসলিম দের

ইসহাক (/ˈzək/;[১] ইংরেজি‌‍: Isaac , হিব্রু: יִצְחָק; প্রাচীন গ্রিক: Ἰσαάκ; আরবি: إسحاق‎ বা إسحٰق) হলেন হিব্রু বাইবেলকুরআন-এর বর্ণনা অনুযায়ী, ইব্রাহীমের দ্বিতীয় পুত্র এবং  তার স্ত্রী সারাহ এর প্রথম ও একমাত্র পুত্র, এবং জ্যাকব (ইয়াকুব) ও যশুয়ার পূর্বপুরুষ । আদিপুস্তকের বর্ণনা মতে, যখন ইব্রহিমের বয়স ১০০ ও সারাহ এর ৯০ এরও বেশি, তখন ইসহাকের জন্ম হয়।

ইসহাক ছিলেন ইসরায়েলীদের তিনজন গোষ্ঠীপতির মধ্যে একজন । ইসহাক বাইবেলে বর্ণীত একমাত্র গোষ্ঠীপতি যাঁর নাম পরিবর্তন হয়নি, এবং যিনি কেনান রাজ্যের বাইরে যাননি। বাইবেলে ইব্রাহীম ও ইয়াকুব তুলনায় ইসহাকের জীবনের ঘটনা কম উল্লেখ করা হয়েছে । ১৮০ বছর বয়সে তিনি পরলোক গমন করেন ; যার কারনে তিনি এই তিনজনের মধ্যে সবচেয়ে বেশী দীর্ঘায়ুপ্রাপ্ত ছিলেন ।

 বুৎপত্তি[সম্পাদনা]

ইংরেজিতে ইসহাক নামটি এসেছে , হিব্রু Yiṣḥāq শব্দের বর্ণান্তরণ করে , যার আক্ষরিক অর্থ হল, "তিনি হাসেন" বা "হাঁসবেন"[২]। খ্রিষ্টপূর্ব ১৩ শতকে ইউগ্রেটিস ভাষার গ্রন্থে ঈশ্বর এল এর হাঁসির প্রতি নির্দেশ করা হয়েছে ।[৩] আদিপুস্তকে যদিও একে এল নয় বরং ইসহাক এর পিতানাতার হাঁসি বলে বর্ণনা করেছে । বাইবেলের আখ্যান অনুযায়ী, যখন ঈশ্বর (হিব্রুঃ এলহিম) তাকে পুত্র সন্তান দেবেন বলে জানালেন তখন তিনি মাথা নত করে হেসেসিলেন । তিনি হেঁসেছিলেন , কারণ সেসময় তারা দুজনই  অত্যান্ত বৃদ্ধ ছিলেন এবং সারাহ এর সন্তান ধারণ ক্ষমতা অনেক আগেই পার হয়ে গিয়েছিল ।[৪][৪][৫]

আদিপুস্তকের বর্ণনা[সম্পাদনা]

জন্ম[সম্পাদনা]

গোষ্ঠীপতি অব্রাহামকে আগেই ভবিষ্যৎবানী দেয়া হয়েছিল যে তাঁর একটি পুত্র সন্তান হবে এবং নাম রাখতে হবে ইসহাক । প্রথম স্ত্রী সারাহ এর গর্ভে ইসহাক  জন্মগ্রহণ করেন যখন ইব্রাহীম একশো বছরের বৃদ্ধ ।[৬] সে আব্রাহামের দ্বিতীয় পুত্র বরং সারাহ এর প্রথম ও একমাত্র পুত্র ।[৭]

ইসহাকের জন্মের অষ্টম দিনে, তাঁর খৎনা করানো হয়, যেমনটা ইব্রাহিমের পরিবারের সমস্ত পুরুষের জন্য নির্দেশ দেয়া ছিল ।

কুরবানি[সম্পাদনা]

আকিদাহ, বেইত আলফা সিনাগগ মোজাইক মেঝেতে

যুবক বয়সের কোন এক সময়ে ইব্রাহিম তাকে মারওয়া পাহাড়ের কাছে নিয়ে যান । ঈশ্বরের আদেশে তিনি একটি কুরবানির বেদী তৈরি করেন এবঙ্গি পুত্র ইসহাককে কুরবানি দিতে উদ্যত হন । আব্রাহাম ছুরি বের করেন এবং কুরবানি দিতে উদ্যত হন তবে একেবারে শেষ মুহূর্তে একজন ঈশ্বরের দূত তাকে বাঁধা প্রদান করেন। তার পরিবরতে কাছাকাছি ঝোপের মধ্যে আটকে থাকা একটি ভেড়াকে কুরবানি দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয় । এই ঘটনাটি আসলে অব্রাহামের বিশ্বাসের পরীক্ষা ,[৮] কোন সত্যিকার মানব বলিদান নয়।

এষৌ এবং যাকোবের জন্ম, বেঞ্জামিন ওয়েস্টের আঁকা

পারিবারিক জীবন[সম্পাদনা]

যখন ইসহাকের ৪০ বছর বয়স তখন পাত্রী সন্ধানের জন্য গৃহাধ্যক্ষ এলিজারকে মেসোপটেমিয়াতে তার ভাগ্নে বাইতুল এর পরিবারে পাঠান ।

এলিজার ইসহাকের জন্য অরামীয় (সিরীয়রা) রেবেকাকে পছন্দ করে। ইসহাকের অনেক বছর বিয়ের পরও রেবেকার কোন সন্তান হয়নি, তাই তাকে বন্ধ্যা বলে ধারণা করা হয়েছিল। ইসহাক রেবেকার জন্য প্রার্থনা করে এবং সে গর্ভবতী হয়। রেবেকার যমজ এষৌ এবং ইয়াকুবএর জন্ম দেন। ইসহাক যখন ৬০ বছর বয়সে তার দুই ছেলের জন্ম হয়।[৯]

ইসহাক গোষ্ঠীর মধ্যে অদ্বিতীয়, তাঁর কোন উপপত্নি না থাকায়।[১০][১১]

দেশান্তর[সম্পাদনা]

পিতার মৃত্যুর পর ৭৫ বছর বয়সে বীর-লাহি-রই (কূপ) এ চলে আসেন ।[১২]

যখন ওখানে দুর্ভিক্ষ শুরু হয় তখন তিনি ফিলিস্তিনে চলে যান। যেখানে তার পিতা একদা বসবাস করতেন। আব্রারাহামের সময়কার রাজা অবীমেলক ওখানে রাজত্ব করছিল।

ইসহাক তাঁর পুত্রকে আশীর্বাদ করছেন, জোত্তো দি বন্দোনে

আঁকা

উত্তরাধিকার[সম্পাদনা]

ইসহাক বৃদ্ধ অবস্থায় অন্ধ হয়ে যান ।

তিনি তাঁর পুত্র এষৌকে হরিণের মাংস আনার জন্য বলেন, যখন এষৌ শিকারে বাস্ত, সেই সুযোগে জাকব পিতার আশীর্বাদ নিয়ে নেই, তাই জাকব প্রধান উত্তরাধিকারী হয়েপরে, এবং এষৌ একটি নিকৃষ্ট অবস্থানে চলে আসে।

বংশ পরিচিতি[সম্পাদনা]

তেরাহ
সারাহ[১৩] আব্রাহাম (ইব্রাহিম) হাজেরা হারুন
নাহোর
ইসমাইল মিল্কা লুত (লূত) ইস্কা
ইসমাইলগণ ৭টি ছেলে[১৪] বেথিউ ১ম কন্যা ২য় কন্যা
ইসহাক রেবেকা লাবন মোয়াবগণ আমেনগণ
এষৌ ইয়াকুব র‌্যাচেল
বিলহা
ইদোমগণ জিল্পাহ
লিয়া
১. রেউবেন
২. সিমোন
৩. লেভি
৪. জুদাহ
৯. ইসসাচার
১০. জেবুলুন
১১. দিনাহ (মেয়ে)
৭. গাদ
৮. আশের
৫. দান
৭. নাফতালি
১২. জোসেফ (ইউসুফ)
১৩. বেনিয়ামিন


সমাধি স্থান[সম্পাদনা]

ইসহাক
Isaak zegent Jakob Rijksmuseum SK-A-110.jpeg
ইসহাক যাকোবকে আশীর্বাদ করছেন
দৈববাণীঘোষণাকারী, দ্রষ্টা, দ্বিতীয় হিব্রু কুলপতি, ইস্রায়েলের পিতা, ইহুদীদের পিতা
সম্মানিত ইহুদি ধর্ম, খ্রিস্ট ধর্ম, ইসলাম

স্থানীয় প্রথা অনুযায়ী, ইসহাক, রেবেকা, অব্রাহাম, সারাহ, যাকব ও লেয়াকে  প্যাঁট্রিআরচের গুহায় কবর দেওয়া হয়।

ইহুদি দৃষ্টিভঙ্গি[সম্পাদনা]

রাব্বিদের প্রথা অনুযায়ী, বলিদানের সময়ে ইসহাকের বয়স ছিল ৩৭ , যা প্রচলিত ইসহাকের শিশু বয়সের বর্ণনার বিপরীত ।[১৫] রাব্বিরা এটাও বিশ্বাস করে যে বলিদানের ঘটনার সংবাদই সারাহ এর মৃত্যুর কারণ ।[১৬]

ইসহাকের এই বালিদান পরবর্তী এহুদি প্রতিবিধানে ঈশ্বরের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা হিসাবে উল্লেখ করা হয়।[১৭] বাইবেল পরবর্তী ব্যাখ্যা প্রায়ই বাইবেলের বর্ণনার বাইরে, ইসহাকের ভুমিকা ও আব্ম্প্ররাহামের বালিদান  মুখ্য হিসাবে বর্ণনা করা হয়েছে, যেটা আকিদা বলা হয়েছে।[১৮] এই ব্যাখ্যার একটি সংস্করণ অনুযায়ী,ইসহাক বলিদানে মারা যান এবং পুনরজীবিত হন।[৩] অনেক (কিংবদন্তী গল্প) মতে, শয়তান ঈশ্বরের প্রতিনিধি হিসাবে ইসহাককে পরীক্ষা করছিল।[১৯] ইসহাকের মৃত্যুর বিনিময়ে ঈশ্বরের আদেশ পালন করা, অনেক ইহুদির কাছে আদর্শ হয়ে গিয়েছিল।[১৬]

ইহুদি ঐতিহ্য অনুযায়ী, ইসহাক বিকেলে প্রার্থনা প্রবর্তন করেছিলেন। এই ঐতিহ্য জেনেসিস অধ্যায় ২৪, অনুছেদ ৬৩ উপর ভিত্তি করে।

ইসহাক একমাত্র গোষ্ঠীপতি, যিনি কেনান ছেড়ে কোথাও যাননি, যদিও তিনি একবার চেষ্টা করেছিলেন কিন্তু ঈশ্বর তাকে বলেন, তা না করার। রব্বিদের ঐতিহ্য ব্যাখ্যা দিয়েছেন যে ইসহাকে প্রায় বলি দেওয়া হয় এবং যা কিছু বলিদান করে নিবেদন করাহয় তা ইস্রায়েলের ভূমি ছাড়তে পারে না। ইসহাক তাঁর মৃত্যুর সময়ে বাইবেলের গোষ্ঠীর প্রাচীনতম ছিলেন, এবং শুধুমাত্র কুলপতি যার নাম পরিবর্তন করা হয়নি।

রব্বিদের সাহিত্যও, বাইবেলের মত ইসহাকের অন্ধত্বকে বর্ণনা করে, দূতগণের অশ্রু তাঁর বলিদানের সময় উপস্থিত ইসহাকের চোখে পড়ল ইসহাকের দৃষ্টিশক্তিহীন গেলেন।

বলিদানের পর ইসহাক তাঁর পিতাকে আলিঙ্গন করছেন, ১৯০০র শুরুতে, বাইবেল চিত্রণ

  খৃস্টিয় দৃষ্টিভঙ্গি[সম্পাদনা]

প্রথম দিককার খ্রিস্টান চার্চগুলো চালু রেখেছিল এবং নূতন নিয়মের এই থিমকে উন্নত করেছিল যে ইসহাকও এক অর্থে খ্রিষ্ট এবং চার্চ হল "দ্যা সন অন অব দ্যা প্রমিজ" এবং "ফাদার অব দ্যা ফেইথফুল" উভয়টি ।

তারতুলিয়ান , ইসহাকের বলীর জন্য কাঠ বহন এবং খ্রিষ্টের ক্রুশ বহন এর মধ্যে মিল নির্দেশ করেন ।[২০]

এবং একটি সাধারণ চুক্তি ছিল যে, যখন সব পুরাতন আইন আত্মত্যাগের ঘটনা যিশুর ক্রুশবিদ্ধ হওয়া স্থানের উপর প্রত্যাশা ছিল, তাই ইসহাকের আত্মত্যাগ একটি অগ্রগণ্য ভাবে ছিল।

ইস্টার্ন অর্থডক্স চার্চ এবং রোমান ক্যাথলিক চার্চ, বাইবেল বর্ণীত অন্যান্য গোত্রপতিদের সাথে ইসহাকেও একজন সাধু হিসাবে গণ্য করে।

 নূতন নিয়ম[সম্পাদনা]

নিউ টেস্টামেন অনুযায়ী ইসহাকের পিতা আব্রাহাম তাঁকে উৎসর্গ করেছিলেন, এবং ইসহাক তাঁর ছেলেদের আশীর্বাদ করেছিলেন (উত্তরাধিকার) ।[২১]

পল ইসমাইলকে (দাসত্বের প্রতীক) বাতিল করে ইসহাকের (খ্রিস্টান স্বাধীনতার প্রতীক) গুরুত্ব , মহত্ত্ব বিশেষভাবে তুলে ধরেন ।

হাগার সিনাই চুক্তি ঘটনার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন । এবং সারাহ যুক্ত ছিলেন

, যার মধ্যে তার ছেলে ইসহাক প্রবেশ করে। জেমস পত্রের অধ্যায় ২, শ্লোক ২১-২৪, বলা হয়েছে যে,ইসহাকের বলিদানের জন্য উভয় বিশ্বাস এবং কাজ প্রয়োজন।

ইব্রীয় পত্রের মধ্যে, ঈশ্বরের ইচ্ছাই আবরাহামের ইসহাকে বলী দেওয়া বিশ্বাসের একটি উদাহরণ ভবিষ্যতে অব্রাহাম ঈশ্বরের দ্বারা প্রতিশ্রুত রেফারেন্স সঙ্গে এষৌ ও যাকোবকে আশীর্বাদ ইসহাকের ক্রিয়া। শ্লোক ১৯ এ লেখক যিশুর পুনরুত্থান অনুরূপ, যেমন আত্মাহুতি থেকে ইসহাকের মুক্তি দেখন। ইসহাকের আত্মাহুতি, ক্রুশের ওপর যিশুর বলিদানের পূর্বাহ্নেই কল্পনা করা হয়েছে।

 ইসলামী দৃষ্টিভঙ্গি[সম্পাদনা]

ইসহাক (আরবি: إسحاق‎‎ or إسحٰقʾIsḥāq) ছিলেন ইসলামের একজন নবী, আদি-পিতা এবং আল্লাহ প্রেরিত পয়গম্বর। ইসলামে তাকে একজন নবী হিসেবে বিবেচনা করা হয় এবং তাঁকে ইসরায়েলীদের পিতা এবং ঈশ্বরের একজন ধার্মিক দাস হিসেবে বর্ণনা করা হয়। ইসহাক ও ইসমাইল, মুসলমানের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ,কারণ পিতা ইব্রাহিমের পর একেশ্বরবাদ বার্তা প্রচারে তারা অব্যাহত ছিলেন। ইসহাকের পরবর্তী বংশের ইয়াকুবকেও ইস্লামের নবী হিসাবে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করা হয়।  কুরআনে ইসহাকের নাম ১৫ বার উল্লেখ করা হয়েছে,  তার পিতা ও পুত্র ইয়াকুবের নামের সঙ্গে।[২২]

কুরআন বর্ণনা অব্রাহাম "ইসহাকের সুসংবাদ পেয়েছে", একজন ভাববাদী, সে সৎকর্মীদের মধ্য থেকে, এবং ঈশ্বর তাদের উভয়কে আশীর্বাদ করে। একটি পূর্ণাঙ্গ বিবরণ মধ্যে, ফেরেশতা যখন ভবিষ্যতে শাস্তি সদোম ও ঘমোরা, তার স্ত্রী সারাহ উপর আরোপ করা নিয়ে তাকে জানাতে ইব্রাহীমের কাছে আগমন করল "অপহসিত, এবং আমি তাকে ইসহাকের জন্মের সুখবর দিলাম এবং ইসহাকের (নাতি) পরের ইয়াকুবেরও"; এবং এটা আরও ব্যাখ্যা করা হয় যে এই ঘটনা অব্রাহাম ও সারার বার্ধক্যে সত্ত্বেও সঞ্চালিত হবে। বেশ কিছু আয়াত অব্রাহামের কাছে একটি "উপহার" হিসাবে ইসহাকে বলে। কোরান, এটা পরে বর্ণনা করেন যে, নিশ্চয়ই ইব্রাহীম তাকে তার বৃদ্ধ বয়সে ইসমাইল ও ইসহাক দান জন্য ঈশ্বরের প্রশংসা করতে লাগলেন।

কুরআন[সম্পাদনা]

কুরআনে নবী এবং ঈশ্বরের একটি ন্যায়নিষ্ঠ মানুষ হিসেবে ইসহাক উল্লেখ করা হয়েছে। ইসহাক ও ইয়াকুব, ইব্রাহীমের উপর অর্পিত হয়েছে ঈশ্বরের উপহার হিসাবে, যিনি তখন আল্লাহর পথে শুধুমাত্র ঈশ্বরের উপাসনাই ব্যাস্ত।

আমি তাকে দান করলাম ইসহাক ও পুরস্কার স্বরূপ দিলাম ইয়াকুব এবং প্রত্যেককেই সৎকর্ম পরায়ণ করলাম।

আমি তাঁদেরকে নেতা করলাম। তাঁরা আমার নির্দেশ অনুসারে পথ প্রদর্শন করতেন। আমি তাঁদের প্রতি ওহী নাযিল করলাম সৎকর্ম করার, নামায কায়েম করার এবং যাকাত দান করার। তাঁরা আমার এবাদতে ব্যাপৃত ছিল।
- সূরা আল-আম্বিয়া, ৭২ - ৭৩।

আমি তাকে সুসংবাদ দিয়েছি ইসহাকের, সে সৎকর্মীদের মধ্য থেকে একজন নবী।  
-সূরা আস-ছাফফাত, ১১২

 প্রাতিষ্ঠানিক পণ্ডিতরা[সম্পাদনা]

কিছু পণ্ডিত ইসহাককে "একটি কাল্পনিক চরিত্র" বলে বর্ণনা করেন, যদিত্ত অনেকে তাকে "উপজাতীয় ইতিহাসে বর্ণীত ব্যক্তি" বা "যাযাবর জাতির প্রধান" হিসাবে বর্ণনা করেন।[২৩]

ইসহাকের গল্প, আদিপুস্তকের অন্যান্য পিতৃতান্ত্রিক গল্প মত, সাধারণত "লোক স্মৃতি এবং গোড়ার দিকে হিব্রু মেষপালকের চরিত্র বা ধরণের অনুরাগী ব্যক্তি অভিজ্ঞতার মৌখিক ঐতিহ্য তাদের উৎপত্তি আছে বলে বিশ্বাস করা হয়।
কেমব্রিজ কম্প্যানিয়ন বাইবেলের গল্প উপর নিম্নলিখিত মন্তব্য করেন:

এখনো  এই সব গল্প তাদের দুনিয়া ও   সাহিত্যের , রচনার উন্নতির সে সময়ের মধ্যে দূরত্ব বজায় রাখে ; এগুলো তাদের পরবর্তী সময়ের রাজনৈতিক সম্পর্কের প্রতিফলন ঘটায় ।

, তারা পরবর্তী কালের রাজনৈতিক বাস্তবতার প্রতিফলিত. বাণীসমূহের অনেক পূর্বপুরুষ এবং জাতি সময়ে ইসরাইলের রাজনৈতিক জগতের হইত মধ্যে সম্পর্ক সঙ্গে মোকাবেলা গল্প লিপিবদ্ধ করা (অষ্টম শতাব্দীর B.C.E.) শুরু হয়. অনেক অম্মোন ও মোয়াবের Transjordanian জাতির পূর্বপুরুষ, এবং যদিও নেগেভে ওল্ড টেস্টামেন্ট অবস্থিত ইসমাঈল যাযাবর অধ্যুষিত উত্তর আরবের আছে পরিচিত লোকদের personifies. এষৌ personifies ইদোম (36: 1), লাবন ইসরায়েলের উত্তরে অরামীয় রাজ্যের প্রতিনিধিত্ব করে. ক্রমাগত থিম যে পূর্বপুরুষ এবং আদিবাসী কনানীয়দের মধ্যে পার্থক্য ... আসলে, যিহূদা ও ইস্রায়েলের মধ্যে পার্থক্য থিম, যেমন পূর্বপুরুষ এবং রাজতন্ত্রের সময় প্রতিবেশী জাতিদের দ্বারা মূর্ত কার্যকরভাবে পারমার্থিক সেবা মধ্যে চাপা হয় যিহূদা ও ইস্রায়েলের ঈশ্বর দ্বারা পছন্দসই গ্রন্থিবদ্ধ লোকদের আশীর্বাদ আনতে

 শিল্পকলাতে[সম্পাদনা]

ইসহাকের প্রাচীনতম প্রতিকৃতি পাওয়া গেছে রোমান ভুগর্ভস্থ সমাধিক্ষেত্রের দেয়ালচিত্রে ।[২৪]

এই চিত্রকে অ্যালিসন মুর স্মিথ তিনটি ক্যাটাগরিতে ভাগ করেনঃ

"আব্রাহাম বেদীর দিকে ইসহাকে নিয়ে আগে যান, অথবা ইসহাক লাঠি বান্ডিল সঙ্গে অভিগমন করেন, অব্রাহাম তাকে নৈবেদ্য স্থানে পূর্বে রাখার...অব্রাহাম পাদবেদী উপর এবং ইসহাকের হাতের কাছে,দুটোই গহনার উপর, .... অব্রাহাম ইস্হাককে উৎসর্গ করতে পরেরটির ব্রিদিং দেখানো বা বেদীর পাশে মাটিতে মোহন হয়। কখনো কখনো অব্রাহাম ইসহাকের চুলে হাত বলাছেন, মাঝেমধ্যে গড্ডল ঘটনাস্থলে এবং পরে পেইন্টিং ঈশ্বরের হাত উপরে থেকে সংযোজন করা হয়েছে। [২৪]

নোট[সম্পাদনা]

তথ্যসুত্র[সম্পাদনা]

  1. Wells, John C. (১৯৯০)। Longman pronunciation dictionary। Harlow, England: Longman। পৃষ্ঠা 378। আইএসবিএন 0-582-05383-8  entry "Isaac"
  2. "Genesis Chapter 1 (KJV)"Blue Letter Bible (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০২-০৬ 
  3. Encyclopedia of Religion, Isaac.
  4. (ইংরেজি)Genesis 17:15–19 টেমপ্লেট:Bibleverse-nb
  5. Hirsch, Emil G.; Bacher, Wilhelm; Lauterbach, Jacob Zallel; Jacobs, Joseph; Montgomery, Mary W. (১৯০১–১৯০৬)। "Sarah (Sarai)"। in Singer, Isidore; Adler, Cyrus; ও অন্যান্য। Jewish Encyclopedia (ইংরেজি ভাষায়)। New York: Funk & Wagnalls। (ইংরেজি)
  6. Genesis 16:15
  7. "Genesis ১৮ঃ১০-১২ /" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০২-০৬ 
  8. Hebrews 11:17
  9. Genesis 25:26(ইংরেজি)
  10. Title= Encyclopaedia Judaica | Volume 10 pg=34
  11. Genesis 35:22(ইংরেজি)
  12. Genesis 25:11(ইংরেজি)
  13. Genesis 20:12: সারাহ ইব্রাহীমের অর্ধ-বোন ছিল।
  14. Genesis 22:21-22: Uz, Buz, Kemuel, Chesed, Hazo, Pildash, and Jidlaph
  15. The New Encyclopedia of Judaism, Isaac.
  16. The New Encyclopedia of Judaism, Isaac.(ইংরেজি)
  17. Encyclopædia Britannica, Isaac.(ইংরেজি)
  18. Encyclopedia of Religion, Isaac.(ইংরেজি)
  19. Brock, Sebastian P., Brill's New Pauly, Isaac.(ইংরেজি)
  20. Cross and Livingstone, Oxford Dictionary of the Christian Church, 1974, art Isaac(ইংরেজি)
  21. Easton, M. G., Illustrated Bible Dictionary, 3rd ed., Isaac.(ইংরেজি)
  22. Encyclopedia of Islam, W. Montgomery Watt, Isaac(ইংরেজি)
  23. Eerdmans Encyclopedia of Christianity, Isaac, p. 744.(ইংরেজি)
  24. Smith, Alison Moore (১৯২২)। "The Iconography of the Sacrifice of Isaac in Early Christian Art"। American Journal of Archaeology (ইংরেজি ভাষায়)। 26 (2): 159–173। doi:10.2307/497708জেস্টোর 497708