অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান, যোধপুর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান, যোধপুর
AIIMS Jodhpur.png
নীতিবাক্য
Sarve Santu Nirāmayāḥ
বাংলায় নীতিবাক্য
সবাই সুস্থ থাকুক
ধরনসরকারি
স্থাপিত৩১ জানুয়ারি ২০০৪
সভাপতিএস.সি. শর্মা[১]
পরিচালকসঞ্জীব মিশ্রা[২]
স্নাতক১৬০ (প্রতি বছর)
স্নাতকোত্তর৫৬ (প্রতি বছর)
অবস্থান, ,
৩৪২০০৫
,
স্থানাঙ্ক: ২৬°১৭′ উত্তর ৭৩°০১′ পূর্ব / ২৬.২৮° উত্তর ৭৩.০২° পূর্ব / 26.28; 73.02
ওয়েবসাইটaiimsjodpur.edu.in
এইমস যোধপুরের লোগো.png

অল ইন্ডিয়া মেডিকেল সায়েন্সেস ইনস্টিটিউট, যোধপুর (এইমস যোধপুর; আইএএসটি: Akhil Bhāratiya Āyurvignan Samsthān Jodhpur (বাংলা:অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান যোধপুর)) ভারতের যোধপুরে অবস্থিত একটি মেডিকেল কলেজ এবং চিকিৎসা গবেষণার সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। অন্যান্য পাঁচটি অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান (এআইআইএমএস) এর মতো এটিও ২০১২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং এটি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের অধীনে স্বায়ত্তশাসিতভাবে পরিচালিত হয়।

প্রতিষ্ঠা[সম্পাদনা]

সর্বভারতীয় মেডিকেল সায়েন্সেস ইনস্টিটিউট (সংশোধন) বিল, ২০১২ লোকসভায় ২৭ আগস্ট ২০১২ প্রবর্তিত হয়। এই বিলটি একটি অধ্যাদেশকে প্রতিস্থাপন করে, যা ছয়টি এইমস প্রতিষ্ঠানকে সেপ্টেম্বর ২০১২ সাল থেকে কার্যকর করার অনুমতি দেয়।[৩] লোকসভা ৩০ আগস্ট ২০১২ সালে এইমস (সংশোধন) বিল, ২০১২ পাস করে।[৪] তার আগে, ছয়টি নতুন এইমস ভারতীয় সমিতি নিবন্ধকরণ আইনের অধীনে নিবন্ধিত হয় এবং বিল তাদের দিল্লির বিদ্যমান এইমস দিল্লির আদলে স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা হয়ে উঠতে সাহায্য করে। এইমস (সংশোধনী) বিল, ২০১২ ৩ সেপ্টেম্বর ২০১২ সালে রাজ্যসভায় পেশ করা হয়।[৫][৬] রাজ্যসভা ৪ সেপ্টেম্বর ২০১২ সালে এইমস (সংশোধন) বিল, ২০১২ পাস করে[৭] এবং ছয়টি এইমস সেপ্টেম্বর ২০১২ সালে কার্যক্রম শুরু করে।[৮]

অবস্থান[সম্পাদনা]

এইমস যোধপুর যোধপুরের শিল্প অঞ্চল বাসনী শহরের উপকণ্ঠে অবস্থিত।[৯] ২০০৪ সালের ৩১ জানুয়ারি তৎকালীন অর্থমন্ত্রী যশবন্ত সিং এইমস যোধপুরের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন এবং অনুষ্ঠানে তৎকালীন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ এবং তৎকালীন কৃষিমন্ত্রী রাজনাথ সিং উপস্থিত ছিলেন।[১০]

শিক্ষার্থী[সম্পাদনা]

২০১৩ সাল থেকে এইমস ১০০ এমবিবিএস এবং বি.এসসি নার্সিং (অনার্স) শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা শুরু করে।[১১] ২৭শে জুলাই, ২০১৩ সাল থেকে বহির্বিভাগ রোগী (ওপিডি) পরিষেবাগুলি এইমস যোধপুরে শুরু হয়।[১২] এইমস ২০১৬ সাল থেকে অ্যানাটমি, বায়োকেমিস্ট্রি, ফিজিওলজি এবং কমিউনিটি মেডিসিন এবং ফ্যামিলি মেডিসিন বিভাগগুলিতে এমডি কোর্স শুরু হয়। এইমস যোধপুরে ২০ টি বিভাগে স্নাতকোত্তর কোর্স শুরু হয়েছে ২০১৭ সাল থেকে ৫৬ টি আসন নিয়ে।[১৩]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Notification of president nomination" (PDF)PMSSY। ৩১ অক্টোবর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জানুয়ারি ২০২০ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  2. "The Director"। ২৩ এপ্রিল ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০২০ 
  3. Raj, Anand (২৭ আগস্ট ২০১২)। "Bill on AIIMS-like institutes introduced in Lok Sabha"The Hindu। New Delhi, India। 
  4. Raj, Anand (৩০ আগস্ট ২০১২)। "Lok Sabha nod to AIIMS bill"The Economic times। New Delhi, India। 
  5. "AIIMS bill moved in Rajya Sabha amid uproar"Business Standard। ৩ সেপ্টেম্বর ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ৩ সেপ্টেম্বর ২০১২ 
  6. "Govt fails to get AIIMS Bill passed in Par amid din"। IBNLive.com। ৩ সেপ্টেম্বর ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ৩ সেপ্টেম্বর ২০১২ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  7. "Gov Bill passed in Par amid din"The Indian Express। ৪ সেপ্টেম্বর ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ৪ সেপ্টেম্বর ২০১২ 
  8. Six AIIMS-like institutes to start operation by mid-Sept (৪ সেপ্টেম্বর ২০১২)। "Six AIIMS-like institutes to start operation by mid-Sept"The Pioneer। India। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১০-০৪ 
  9. "Now get medical education for Rs 1000 a month – Rediff Getahead"। Rediff.com। ২২ আগস্ট ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১০-০৪ 
  10. Demand for Mira Bai's name to be readded to AIIMS gets stronger - Times Of India. Timesofindia.indiatimes.com. Retrieved on 2013-10-09.
  11. "300 more MBBS seats to be added at 6 new AIIMS"The Times of India। জানু ৭, ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৭ 
  12. OPD services at AIIMS Jodhpur to start on Saturday - Times Of India. Timesofindia.indiatimes.com (2013-07-27). Retrieved on 2013-10-09.
  13. "More PG seats for 20 departments in AIIMS Jodhpur"The Times of India। Times News Network। ১ মে ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুলাই ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]