অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান, ভাটিণ্ডা

স্থানাঙ্ক: ৩০°৯′৪২.১২″ উত্তর ৭৪°৫৫′৩৪.৬৮″ পূর্ব / ৩০.১৬১৭০০০° উত্তর ৭৪.৯২৬৩০০০° পূর্ব / 30.1617000; 74.9263000
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান ভাটিণ্ডা
অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান, ভাটিণ্ডা লোগো.png
নীতিবাক্যSharīramādyam khalu dharmasādhanam (সংস্কৃত)
বাংলায় নীতিবাক্য
"দেহ প্রকৃতপক্ষে ধর্ম-এর প্রাথমিক যন্ত্র।"
ধরনসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়
স্থাপিত২০১৯
সভাপতিঅধ্যাপক (ড.) সুরেশ চন্দ্র শর্মা
ডিনঅধ্যাপক (ড.) সতীশ কে. গুপ্তা
পরিচালকঅধ্যাপক (ড.) দীনেশ কুমার সিং
অবস্থান, ,
৩০°৯′৪২.১২″ উত্তর ৭৪°৫৫′৩৪.৬৮″ পূর্ব / ৩০.১৬১৭০০০° উত্তর ৭৪.৯২৬৩০০০° পূর্ব / 30.1617000; 74.9263000
শিক্ষাঙ্গনশহুরে
১৭৭ একর (০.৭২ কিমি)
ওয়েবসাইটaiimsbathinda.edu.in

অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান ভাটিণ্ডা (এইমস ভাটিণ্ডা) হল একটি মেডিকেল কলেজচিকিৎসা গবেষণার সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, যা ভারতের পাঞ্জাব রাজ্যের ভাটিণ্ডা শহরে অবস্থিত।[১] অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান বা অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সসমূহের মধ্যে একটি হিসাবে, এটি স্বায়ত্তশাসিতভাবে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের অধীনে কাজ করে। এইমস ভাটিণ্ডা প্রায় ১৭৭ একরের একটি বিশাল এলাকা জুড়ে বিস্তৃত এবং এটি সবুজ উদ্যান দ্বারা বেষ্টিত। এটি ২০১৯ সালে চালু হয়েছিল, এটি ২০১৯ সালে চালু হওয়া ছয়টি এইমস-এর মধ্যে একটি।

বিদ্যায়তন[সম্পাদনা]

বাবা ফরিদ ইউনিভার্সিটি অব হেলথ সায়েন্সেসের (বিএফইউএইচএস) ফরিদকোট বিদ্যায়তনে অস্থায়ী ভিত্তিতে এইমস ভাটিণ্ডার এমবিবিএস-এর প্রথম ব্যাচের পঠন-পাঠন শুরু হয়েছিল, কারণ ভাটিণ্ডা-ডাবওয়ালি সড়কের পাশে এইমস বিদ্যায়তনটি নির্মাণাধীন ছিল।[২] ২০২০ সালের অক্টোবর মাস থেকে শিক্ষার্থীদের এইমস ভাটিণ্ডা বিদ্যায়তনে স্থানান্তরিত করা হয়েছিল এবং দ্বিতীয় ব্যাচটিও ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাস থেকে নতুন বিদ্যায়তনেই পঠন-পাঠন শুরু করে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Bathinda AIIMS to offer 100 seats, classes from July"The Tribune। ২০১৯-০৩-১৮। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২২ 
  2. "AIIMS 1st batch of 50 from July"The Tribune। ২০১৯-০৩-২৯। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]