অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান, দিল্লি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সেস, দিল্লি
অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান, দিল্লি.png
এআইআইএমএস দিল্লির অফিসিয়াল সীল
নীতিবাক্যSharīramādyam khalu dharmasādhanam
(from the Kumārasambhava of Kālidāsa, [5.33])
বাংলায় নীতিবাক্য
"শরীর প্রকৃতপক্ষে ধর্ম-এর প্রাথমিক যন্ত্র।."
ধরনপাবলিক
স্থাপিত১৯৫৬
সভাপতিস্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী
ডিনওয়াই কে গুপ্ত
পরিচালকরণদীপ গোলেরিয়া
অবস্থান, ,
শিক্ষাঙ্গনশহুরে
ভাষাইংরেজী
ওয়েবসাইটwww.aiims.edu

অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সেস, দিল্লি (এআইআইএমএস দিল্লি: অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান, দিল্লি) ভারতের দিল্লিতে অবস্থিত একটি মেডিকেল কলেজ এবং মেডিকেল গবেষণার জন্য সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। "এইমস দিল্লি"র (এআইআইএমএস, দিল্লি) প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৫৬ সালে এবং এটি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে স্বায়ত্তশাসনের মাধ্যমে পরিচালনা করা হয়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

এআইআইএমএস দিল্লি অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিকেল সায়েন্সেস এ্যাক্ট, ১৯৫৬ দ্বারা পরিচালিত হয়। [১] ১৯৫৬ সালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরু কলকাতায় এআইআইএমএস প্রতিষ্ঠিত করার প্রাথমিক প্রস্তাব করেন, কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বিধান চন্দ্র রায়ের সেই প্রস্তাব প্রতাক্ষ্যান করেন, শেষে এইমস নতুন দিল্লিতে স্থাপিত হয়।[২] ভারতে এই ধরনের চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠার জন্য ভারতের প্রথম স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজকুমারী অমৃত কৌরয়ের পরিকল্পা ছিল।

ক্রমতালিকা[সম্পাদনা]

বিশ্ববিদ্যালয় এবং কলেজ র‍্যাংকিং
মেডিকেল - ভারত
ইন্ডিয়া টুডে (২০১৭)[৩]
আউটলুক ভারত (২০১৭)[৪]
দ্য উইক (২০১৭)[৫]

এআইআইআইএস দিল্লি ২০১৭ সালে ভারতের মেডিক্যাল কলেজের মধ্যে প্রথম স্থান অধিকার করে,[৩] ইন্ডিয়া টুডে, আউটলুক ইন্ডিয়া [৪] এবং দ্য উইক প্রত্রিকার সমীক্ষায়। [৫]

অর্জন[সম্পাদনা]

  • এআইআইএসএম, দিল্লি হল একটি সফল কার্ডিয়াক ট্রান্সপ্ল্যান্ট সঞ্চালনের প্রথম ভারতীয় কেন্দ্র। অস্ত্রোপচারটি ১৯৯৪ সালে এআইআইএসএম-এর প্রাক্তন পরিচালক পি ভেনুগোপাল দ্বারা সম্পাদিত হয়। [৬]
  • এআইআইএমএস স্টেম সেল থেরাপি, বিশেষত কার্ডিয়াক এবং স্নায়ুসংক্রান্ত বিষয়ে অগ্রগন্য প্রতিষ্ঠান। [৭][৮][৯]
  • জার্মানির সহযোগিতায় এআইআইএমএস দিল্লিতে ভারতের প্রথম এবং একমাত্র ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র অস্ত্রোপচারের প্রশিক্ষণ কেন্দ্র রয়েছে। [১০]
  • এটি ভারতে রোবোটিক সার্জারি বা অস্ত্রোপচারে অগ্রণী প্রতিষ্ঠান, বিশেষত দ্য ভিঞ্চি প্রস্রাব ফর ইউরোলজি এবং রোবোটিক সিটিভিএস।[১১][১২]
  • ফেব্রুয়ারী ২০০৮ সালে অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স, দিল্লি প্রথম প্রতিষ্ঠিত পাবলিক সেক্টর-এর মধ্যে ইনট্রো সার প্রয়োগ করে। [১৩]
  • দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের একমাত্র ডব্লুএইচও সিসি দ্বারা পরিকল্পিত ডেন্টাল এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার রয়েছে এআইআইএমএস দিল্লিতে । বিশ্বে মোট এমন ১৫ টি কেন্দ্র রয়েছে। দেশের জাতীয় স্বতন্ত্র স্বাস্থ্য কর্মসূচির বাস্তবায়নের জন্য এটিকে এক্সেলেন্স ন্যাশনাল সেন্টার হিসেবেও মনোনীত করা হয়।
  • ভারতের মধ্যে প্রথম ডিএনএ প্রোফাইলিং ল্যাব (১৯৯০) এবং একটি মেডিকেল টক্সিকোলজি ল্যাব গড়ে তোলা একটি মেডিকেল কলেজ (১৯৮৬)।

বিদ্যায়তন[সম্পাদনা]

এআইএমএস দিল্লি প্রধান বিদ্যায়তন[সম্পাদনা]

কেন্দ্রীয় লন, পেক্ষাপটে এআইআইএসএম-এর শিক্ষণ ব্লক সহ

এআইআইএমএস দিল্লি মধ্যে আনসারী নগরে অবস্থিত। এআইএমএস-এর পশ্চিমে শ্রী অরবিন্দু মার্গের অপর পাশে রয়েছে সফদারজং হাসপাতাল এবং মহাবীর মেডিকেল কলেজ (গুরু গোবিন্দ সিং ইন্দেরপ্রস্থ বিশ্ববিদ্যালয়)। পাশাপাশি, ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ -এর সদর দপ্তরটিও রয়েছে, যা ভারতে স্থানাঙ্ক ও তহবিল চিকিৎসা গবেষণা করে। ভারতবর্ষের স্বাস্থ্যসেবা অধিদফতরের পরিচালিত ন্যাশনাল মেডিকেল লাইব্রেরি এআইআইএসএম-এর পাশেই রয়েছে। এখানে বৈজ্ঞানিক ও মেডিকেল জার্নালগুলির একটি বিশাল সংগ্রহ রয়েছে যা গবেষকদের দ্বারা প্রকাশ করা হয়।

এআইএমএস বাদসা ক্যাম্পাস[সম্পাদনা]

এআইআইএমএস, বদসা

২৪ নভেম্বর, ২০১২ সালে প্রতিষ্ঠিত এআইআইএমএস বাদসা বা এআইআইআইএস ঝাজ্জার, ৩৩০ একর (১.৩৩৫ বর্গ কিলোমিটার) জমি নিয়ে গঠিত এবং এটি এসএমসিএইচআরআই-এর নিকটবর্তী (শ্রীমুখ গোবিন্দ সিং ট্রাইকস-এর)[১৪] । এটি অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্সেস, দিল্লির (এআইআইএমএস-২) দ্বিতীয় ক্যাম্পাস। প্রাথমিক ভাবে এটি ₹১০ বিলিয়ন (মার্কিন $১৫০ মিলিয়ন) টাকা খরচে নির্মিত,[১৫][১৬][১৭][১৮] এর মধ্যে অন্তর্ভূক্ত রয়েছে "ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউট"। [১৯]

এআইআইএমএস গাজিয়াবাদ ক্যাম্পাস[সম্পাদনা]

এআইআইএমএস গাজিয়াবাদ, হল একটি "নিবিড় ক্ষেত্র অনুশীলন এলাকা"। এটি উত্তর প্রদেশের রাজ্যে গাজিয়াবাদ শহরের গড়ে ওঠা এই ক্যাম্পাসটি এআইআইএম দিল্লির জাতীয় ঔষধ নির্ভরতা চিকিত্সা কেন্দ্র (ন্যাশনাল ড্রাগ অব্যাভমেন্ট ট্রিটমেন্ট সেন্টার) হিসাবে কাজ করে। [২০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "The All India Institute of Medical Sciences Act, 1956" (PDF)। ২ জুন ১৯৫৬। 
  2. "The Telegraph - Calcutta : Frontpage"www.telegraphindia.com। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০১৭ 
  3. "India's Best Colleges 2017: Medical"India Today (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০১৭ 
  4. "Top 25 Medical Colleges In 2017"Outlook India (ইংরেজি ভাষায়)। ৫ জুন ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০১৭ 
  5. Singh, Abhinav (১৮ জুন ২০১৭)। "The Week - Hansa Research Best Colleges Survey 2017: Top Medical Colleges - All India"The Week (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  6. Venugopal, P. (১ সেপ্টেম্বর ১৯৯৪)। "The first successful heart transplant in India"The National Medical Journal of India7 (5): 213–215। PMID 7827600। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০১৭ – PubMed-এর মাধ্যমে। 
  7. "AIIMS claims cutting edge stem cell study"The Times of India। ২৩ মার্চ ২০০৫। 
  8. "Stem cell therapy – Hope and scope in pediatric surgery Gupta DK, Sharma S, – J Indian Assoc Pediatr Surg"। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০১৭ 
  9. Kaul, Vividha (২৪ ফেব্রুয়ারি ২০০৫)। "AIIMS pioneers stem cell injection"The Times of India 
  10. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ৪ জুলাই ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১৮  "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ৪ জুলাই ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১৮ 
  11. Mitra, Prithvijit (৭ জুলাই ২০০৮)। "City hospitals plan robotic surgery"The Times of India 
  12. "AIIMS Creates Record by Completing 100 Four-arm Robotic Surgeries ( New Delhi: The All India Institute of M...)"www.bio-medicine.org। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০১৭ 
  13. "Archive News - The Hindu"The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০১৭ 
  14. "Haryana offers free land for 2nd AIIMS campus"The Times of India। ১১ ফেব্রু ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১৯ মার্চ ২০১৩ 
  15. "AIIMS-II launched in Haryana village"The Times of India। ২৫ মে ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মে ২০১২ 
  16. "Work on AIIMS II project likely to begin on May 30"The Times of India। ২৫ মে ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মে ২০১২ 
  17. "AIIMS begins OOPD at Jhajjar"The Times of India। ২৫ নভেম্বর ২০১২। 
  18. Azad inaugurates Outreach OPD of AIIMS in Haryana. Business Standard (24 November 2012). Retrieved on 9 October 2013.
  19. "AIIMS cancer centre in Jhajjar - Times of India"। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০১৭ 
  20. "AIIMS: Ailing Institute.", The Tribune, 6 Oct 2007.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]