শিলিগুড়ি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
শিলিগুড়ি
শিলিগুড়ি image_map=WikiprojectIndiacities_siliguri.png
শিলিগুড়ি
West Bengal এবং ভারততে শিলিগুড়ি এর অবস্থান
স্থানাঙ্ক ২৬°৪৩′ উত্তর ৮৮°২৬′ পূর্ব / ২৬.৭১° উত্তর ৮৮.৪৩° পূর্ব / 26.71; 88.43স্থানাঙ্ক: ২৬°৪৩′ উত্তর ৮৮°২৬′ পূর্ব / ২৬.৭১° উত্তর ৮৮.৪৩° পূর্ব / 26.71; 88.43
দেশ ভারত
State West Bengal
জেলাসমূহ দার্জিলিং
Mayor গংগোত্রি দত্ত
জনসংখ্যা

ঘনত্ব

৪,৭০,২৭৫ (2001)

১১,২২৪ /কিমি (২৯,০৭০ /বর্গমাইল)

সময় অঞ্চল আইএসটি (ইউটিসি+৫:৩০)
আয়তন

উচ্চতা

৪১.৯০ বর্গকিলোমিটার (১৬.১৮ মা)

১২২ মিটার (৪০০ ফু)

ওয়েবসাইট www.siliguri.com

শিলিগুড়ি (ইংরেজি:Siliguri), ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তরভাগে দার্জিলিং এর একটি শহর ও পৌর কর্পোরেশনাধীন এলাকা। শহরটি দক্ষিণ হিমালয়ের তরাই অঞ্চলে, মহানন্দা নদীর পশ্চিমে অবস্থিত। এখানে করাতকল ও প্লাইউডের কারখানা আছে। কাছের তরাই অরণ্য থেকে কাঠের যোগান আসে। বাণিজ্য ও পরিবহন এখানকার প্রধানতম অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড। শহরটি ভারতের বাকী অংশের সাথে উত্তর-পূর্ব ভারতের কৌশলগত যোগাযোগ কেন্দ্র হিসেবে কাজ করে। দক্ষিণের সমভূমিগুলি ও উত্তরের পাহাড়ি অঞ্চলগুলির মধ্যে একটি পরিবহন কেন্দ্র হিসেবেও শিলিগুড়ি ভূমিকা রাখে। এদের মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা দক্ষিণে জলপাইগুড়ি শহর থেকে উত্তরে দার্জিলিং শহর পর্যন্ত বিস্তৃত। শিলিগুড়ি দিয়ে অনেকগুলি প্রধান প্রধান রেলপথ ও মহাসড়ক চলে গেছে।

শিলিগুড়ি থেকে দার্জিলিং পর্যন্ত প্রাচীন বাষ্পীয় ইঞ্জিনে টানা একটি খেলনা ট্রেনগাড়ি বা টয় ট্রেন পাহাড় দিয়ে খাড়া পথ ধরে চলাচল করে এবং পর্যটকদের বহু বিখ্যাত দৃশ্য দেখার সুযোগ করে দেয়। কাছেই বাঘদোগরা শহরে একটি অভ্যন্তরীণ বিমানবন্দর আছে।

১৯৩১ সালে শিলিগুড়ি প্রথম একটি শহরের মর্যাদা লাভ করে। ১৯৪৭ সালে পাক-ভারত বিভাগের সময় এবং ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় এখানে প্রচুর শরনার্থীর সমাগম হয়।

অর্থব্যবস্থা[সম্পাদনা]

শিলিগুড়িকে ভারতের উত্তর পূর্বে গেটওয়ে হিসেবে বর্ণনা করা হয়। শিলিগুড়ি ব্যবসার জন্য একটি লাভজনক কেন্দ্র হিসেবে ধীরে ধীরে বিকশিত হয়েছে। হং কং বাজার অল্প মূল্য চীনা সামগ্রী ক্রয় করার জন্য একটি মুখ্য বাজার। শিলিগুড়ি একটি গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র হওয়াতে, অনেক জাতীয় কোম্পানি এবং সংগঠন তাদের দপ্তব় এখানে তৈরি করেছে।

পরিবহন[সম্পাদনা]

জনগণের পরিবহন ব্যবস্থা রিক্সা, স্থানীয় বাস এবং টেম্পো অন্তর্ভুক্ত করে। কোনও মিটার যুক্ত যানবাহন নেই। ৬-seater ডিজেল চালিত টেম্পো প্রায় সময় ১০–১৫ কিমির দুই গন্তব্যের মধ্যে নিয়মিতভাবে চলাচল করে পৌরসভা কর্তৃপক্ষের দ্বারা নিরদিশ্ট ভাড়াতে। পেট্রোল চালিত অটোরিক্সাও ভাড়া করা যেতে পারে। মোট, ১৬,০০০ রিক্সা পৌরসভা সম্বন্ধীয় কর্পোরেশন দ্বারা লাইসেন্স দিয়েছিল এবং আরও অতিরিক্ত ৫৫,০০০ বেআইনি রিক্সা এই ক্রমবর্ধমানভাবে ঘিঞ্জি শহরটিতে নিয়মিতভাবে চলাচল করে।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

ভারতের ২০০১ সালের আদম শুমারি অনুসারে শিলিগুড়ি শহরের জনসংখ্যা ছিল ৪,৭০,২৭৫ জন।[১] এর মধ্যে পুরুষ ৫৩%, এবং নারী ৪৭%।

২০১১ সালের আদম শুমারি অনুসারে শিলিগুড়ি শহর সমাগমের জনসংখ্যা হল ৭০১, ৪৮৯ জন ।

এখানে সাক্ষরতার হার ৭০%, । পুরুষদের মধ্যে সাক্ষরতার হার ৭৫%, এবং নারীদের মধ্যে এই হার ৬৫%। সারা ভারতের সাক্ষরতার হার ৫৯.৫%, তার চাইতে শিলিগুড়ি এর সাক্ষরতার হার বেশি।

এই শহরের জনসংখ্যার ১০% হল ৬ বছর বা তার কম বয়সী।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ভারতের ২০০১ সালের আদম শুমারি"। সংগৃহীত অক্টোবর ১৫  |accessyear= প্যারামিটার অজানা, উপেক্ষা করুন (সাহায্য)