নেটবল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(Netball থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নেটবল
MalawiFijiNetball.jpg
২০০৬ সালের কমনওয়েলথ গেমস প্রতিযোগিতায় মালাউই (লাল) বনাম ফিজির (নীল)
নেটবল বিষয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার স্থিরচিত্র
ক্রীড়া পরিচালনা সংস্থাআন্তর্জাতিক নেটবল ফেডারেশন
নিবন্ধিত খেলোয়াড়৫৬১,০০০+[ন ১]
বৈশিষ্ট্যসমূহ
শারীরিক সংস্পর্শসীমিত
দলের সদস্যপ্রতি দলে সাতজন
মিশ্রিত লিঙ্গহ্যাঁ, পৃথক প্রতিযোগিতা ও মিশ্র লিঙ্গের দল
বিভাগদলগত ক্রীড়া, বল ক্রীড়া
সরঞ্জামনেটবল, বিব
মাঠনেটবল কোর্ট
অলিম্পিকআইওসি স্বীকৃত, ১৯৯৫[১১]

নেটবল (ইংরেজি: Netball) এক ধরনের বল খেলা। দলগত ক্রীড়া হিসেবে দুই দলে বিভক্ত হয়ে সাতজন করে অংশ নেয়। কমনওয়েলথভূক্ত দেশসমূহের অনেক দেশে নেটবল সর্বাধিক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। বিশেষ করে বিদ্যালয় ও মহিলাদের কাছে এ খেলা একচ্ছত্র প্রভাব পড়েছে। আইএনএফের মতে, ৮০টির অধিক দেশে দুই কোটির অধিক লোক এ খেলায় অংশ নিচ্ছে।[১২][১৩]

গ্রেট ব্রিটেনে নেটবল সুপারলীগ, অস্ট্রেলিয়ায় সানকর্প সুপার নেটবল ও নিউজিল্যান্ডে এএনজেড প্রিমিয়ারশীপের ন্যায় বড় ধরনের ঘরোয়া লীগের আয়োজন করা হয়। চার বৃহৎ আকারের প্রতিযোগিতা আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হয়। সেগুলো হলো: চার বছর পরপর বিশ্ব নেটবল চ্যাম্পিয়নশীপ, কমনওয়েলথ গেমস এবং সাংবার্ষিকভিত্তিতে কুয়াড সিরিজ ও ফাস্ট৫ সিরিজ। ১৯৯৫ সালে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি কর্তৃক স্বীকৃত ক্রীড়া হিসেবে নেটবলকে অন্তর্ভূক্ত করেছে। তাসত্ত্বেও, অলিম্পিকে এ বিষয়ে কোন খেলা অনুষ্ঠিত হয়নি।

চতুর্ভূজ আকৃতির কোর্টে এ খেলাটি খেলা হয়। প্রতি প্রান্তে গোলের বলয় রয়েছে। প্রত্যেক দলই কোর্টে বলকে একে-অপরের কাছে স্থানান্তরের মাধ্যমে ঐ বলয়ে ফেলে গোল করার চেষ্টা চালায়। খেলোয়াড়দেরকে নির্দিষ্ট এলাকায় অবস্থান করতে হয়। এ বিষয়টি নিয়মে বর্ণিত রয়েছে ও কোর্টের নির্দিষ্ট অঞ্চলে প্রবেশের উপর বিধিনিষেধ রয়েছে। খেলা চলাকালীন একজন খেলোয়াড় বল হাতে নিয়ে গোল করতে কিংবা আরেকজন খেলোয়াড়ের কাছে স্থানান্তরের জন্যে সর্বাধিক তিন সেকেন্ড অবস্থান করতে পারবেন। সর্বাধিক গোলকারী দল বিজয়ী দলরূপে আখ্যায়িত হয়। নেটবল খেলার সময়সীমা ৬০ মিনিটব্যাপী স্থায়ী হয়। খেলার গতি ও ব্যাপক দর্শক উপস্থিতির উপর নির্ভর করে এ খেলার বৈচিত্র্যতা রয়েছে।

বাস্কেটবলের শুরুরদিকের নিয়মকানুনের উপর ভিত্তি করে নেটবলের উৎপত্তি ঘটেছে। ১৮৯০-এর দশকে ইংল্যান্ডে এ খেলার সূচনা ঘটে। ১৯৬০ সালে এ খেলার আদর্শ মানদণ্ড নিরূপণার্থে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খেলার নিয়ম-কানুনের প্রবর্তন করা হয়। আন্তর্জাতিক নেটবল ফেডারেশন ও মহিলাদের বাস্কেটবল সংস্থা গঠন করা হয়। পরবর্তীতে এ সংস্থাটি আন্তর্জাতিক নেটবল ফেডারেশন (আইএনএফ) নামে পুণঃনামাঙ্কিত হয়। আইএনএফ পাঁচটি বৈশ্বিক অঞ্চলে বিভক্ত হয়ে ৭০টি দেশের জাতীয় দলকে নিয়ন্ত্রণ করে।

পরিচালনা সংস্থা[সম্পাদনা]

ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টারভিত্তিক আন্তর্জাতিক নেটবল ফেডারেশন অ্যাসোসিয়শেন (আইএফএনএ) নেটবলের আন্তর্জাতিক পরিচালনা সংস্থা।[১৪] ১৯৬০ সালে সংস্থাটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। শুরুতে এ সংস্থাটি আন্তর্জাতিক নেটবল ও মহিলাদের বাস্কেটবল ফেডারেশন নামে পরিচিত ছিল।[১২] জাতীয় দলসমূহে বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং নির্ধারণে আইএফএনএ দায়বদ্ধ। নেটবলের নিয়মকানুনের প্রয়োগ ও বেশ কয়েকটি বৃহৎ আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা আয়োজন করে থাকে।

জুলাই, ২০১৯ সাল অনুযায়ী আইএফএনএর পাঁচটি অঞ্চলে ৫৩টি পূর্ণাঙ্গ ও ১৯টি সহযোগী জাতীয় সদস্য রয়েছে।[১৫] প্রত্যেক অঞ্চলেই আইএফএনএ আঞ্চলিক ফেডারেশন আছে।[১৬]

আইএফএনএ অঞ্চল আঞ্চলিক ফেডারেশন
আফ্রিকা আফ্রিকান নেটবল অ্যাসোসিয়শেন কনফেডারেশন
আমেরিকাস আমেরিকাস নেটবল অ্যাসোসিয়শেন ফেডারেশন
এশিয়া নেটবল এশিয়া
ইউরোপ নেটবল ইউরোপ
প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল ওশেনিয়া নেটবল ফেডারেশন

আইএফএনএ আন্তর্জাতিক ক্রীড়া ফেডারেশন সাধারণ সংস্থা, আন্তর্জাতিক বিশ্ব ক্রীড়া সংস্থা ও আইওসি স্বীকৃতপ্রাপ্ত আন্তর্জাতিক ক্রীড়া ফেডারেশন সংস্থার সহযোগী সংস্থা।[১২] এছাড়াও, এটি বিশ্ব মাদকবিরোধী কোডে স্বাক্ষর করেছে।[১৭]

বৃহৎ চ্যাম্পিয়নশীপ[সম্পাদনা]

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে চারটি বড় ধরনের প্রতিযোগিতা রয়েছে। সেগুলো হলো: নেটবল বিশ্বকাপ, কমনওয়েলথ গেমসে নেটবল, নেটবল কুয়াড সিরিজ ও ফাস্ট৫ নেটবল বিশ্ব সিরিজ।

নেটবলের গুরুত্বপূর্ণ প্রতিযোগিতা হচ্ছে বিশ্ব নেটবল চ্যাম্পিয়নশীপ। এ প্রতিযোগিতাটি নেটবল বিশ্বকাপ নামে পরিচিত ও প্রতি চার বছর পরপর অনুষ্ঠিত হয়। ১৯৬৩ সালে ইংল্যান্ডের ইস্টবোর্নে অবস্থিত চেলসি শারীরিক শিক্ষা কলেজে প্রথম অনুষ্ঠিত হয়। এ প্রতিযোগিতায় এগারোটি দেশ অংশগ্রহণ করেছিল। এ প্রতিযোগিতা প্রবর্তনের পর থেকে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের দলগুলো একচ্ছত্র প্রভাববিস্তার করে আসছে। দলটি দুইটি যথাক্রমে দশ ও চারবার শিরোপা লাভ করেছে। অপর দল হিসেবে একমাত্র ত্রিনিদাদ ও টোবাগো চ্যাম্পিয়নশীপের শিরোপা লাভ করে। তারা ১৯৭৯ সালে নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার সাথে যৌথভাবে শিরোপা ভাগাভাগি করে নেয়। তিনটি দলই রাউন্ড রবিন পর্ব শেষে সমান পয়েন্ট লাভ করেছিল ও কোন চূড়ান্ত খেলার আয়োজন করা হয়নি।[১৮]

আইএনএফ বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ ছয়টি জাতীয় নেটবল দলকে নিয়ে ফাস্ট৫ সিরিজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।[১৯] আইএনএফের ব্যবস্থাপনায় ছয়টি প্রতিযোগী দেশের পরিচালনা পরিষদ, ইউকে স্পোর্ট ও আয়োজক শহরের স্থানীয় সংস্থা এ প্রতিযোগিতায় যুক্ত থাকে।[২০] অল ইংল্যান্ড নেটবল অ্যাসোসিয়শেন দলগুলোর বিমান ভ্রমণ, অবস্থান, খাদ্য ও স্থানীয় পর্যায়ে ভ্রমণের যাবতীয় ব্যয়ভার বহন করে। অন্যদিকে, সম্পৃক্ত নেটবল পরিচালনা পরিষদ খেলোয়াড়দের সম্মানী প্রদানের দায়িত্বে থাকে।[২১] প্রতিযোগিতাটি তিনদিনব্যাপী চলে। প্রথম দুইদিনে রাউন্ড রবিন পদ্ধতিতে প্রত্যেক দল একে-অপরের বিপক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হয়। চারটি সর্বোচ্চ গোলকারী দল সেমি-ফাইনালে অগ্রসর হয়। বিজয়ী দলগুলো গ্র্যান্ড ফাইনালে মুখোমুখি হয়।[২২] প্রতিযোগিতাটি ফাস্টনেট নিয়মকে পরিমার্জিত করে প্রয়োগ করা হয়। টুয়েন্টি২০ ক্রিকেটরাগবি সেভেন্সের সাথে এর যোগসূত্র রয়েছে।[২৩][২৪] ক্ষুদ্রতর ঘরানার খেলাগুলোকে দর্শক ও টেলিভিশনে প্রচারের জন্যে পরিমার্জিত করে নতুন ধরনের নিয়ম প্রবর্তন করা হয়েছে।[২৩] ২০০৯ থেকে ২০১১ সালে ইংল্যান্ডে বিশ্ব নেটবল সিরিজ বার্ষিকভিত্তিতে অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

২০ বছর ধরে আলোচনা চলার পর ১৯৯৫ সালে অলিম্পিক সংস্থা কর্তৃক নেটবল স্বীকৃতি লাভ করে।[১১][২৫] তবে, অদ্যাবধি গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে এ বিষয়টি অন্তর্ভূক্ত করা হয়নি। তবে, রাজনীতিবিদ ও প্রশাসকগণ অদূর ভবিষ্যতে এর অন্তর্ভূক্তির প্রশ্নে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।[২৬][২৭] অলিম্পিকে এ খেলার অনুপস্থিত থাকায় নেটবল সম্প্রদায় বৈশ্বিক পর্যায়ে এ খেলার বিস্তারের অন্তরায়সহ প্রচারমাধ্যমের মনোযোগ ও আর্থিক দূর্বলতার বিষয়টি তুলে ধরে।[২৮][২৯][৩০] ১৯৯৫ সালে কিছু আর্থিক অনুদানের মাধ্যমে এ খেলার স্বীকৃতি ঘটে।[৩১] তন্মধ্যে, আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি, জাতীয় অলিম্পিক কমিটি, জাতীয় ক্রীড়া সংস্থা এবং রাজ্য ও ফেডারেল সরকার অন্যতম।[৩১][৩২]

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. Numbers are taken where available from the 48 member nations of the International Federation of Netball Associations.[১] (Cook Islands 1,000,[২] Fiji 5,000,[৩] New Zealand 135,000,[৪] Papua New Guinea 10,000,[৫] Samoa 2,000,[৬] England 75,000,[৭] Scotland 1,800,[৮] Australia 330,000,[৯] Hong Kong 1,200,[১০]). No current numbers are available for Vanuatu, Botswana, Ghana, Kenya, Lesotho, Malawi, Namibia, South Africa, Swaziland, Tanzania, Uganda, Zimbabwe, Zambia, Gibraltar, Malta, Northern Ireland, Ireland, Wales, Switzerland, China, India, Malaysia, Republic of the Maldives, Pakistan, Sri Lanka, Thailand, Argentina, Antigua & Barbuda, Barbados, Bermuda, Canada, Cayman Islands, Grenada, Jamaica, Trinidad & Tobago, St. Lucia, St Vincent and the Grenadines and the United States.

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Member Associations"। International Federation of Netball Associations। ৫ মে ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ মে ২০১১ 
  2. "About Us"। Cook Island Netball Association। সংগ্রহের তারিখ ১০ মে ২০১১ 
  3. "Members: Fiji"। International Federation of Netball Associations। ২৬ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ মে ২০১১ 
  4. "Netball New Zealand Organisation and Staff"। Netball New Zealand। সংগ্রহের তারিখ ১০ মে ২০১১ 
  5. "Netball PNG Profile"। Papua New Guinea Netball Association। সংগ্রহের তারিখ ১০ মে ২০১১ 
  6. "Netball History"। Samoa Netball Association। সংগ্রহের তারিখ ১০ মে ২০১১ 
  7. "Membership Statistics"। England Netball। ২ অক্টোবর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ মে ২০১১ 
  8. "About Us"। Netball Scotland। ১৪ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ মে ২০১১ 
  9. "Netball Australia joins forces with DealsDirect.com.au"। Netball Australia। ৯ মার্চ ২০১০। ১০ মার্চ ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ মে ২০১১ 
  10. "About the association"। Hong Kong Netball Association। সংগ্রহের তারিখ ১০ মে ২০১১ 
  11. Taylor, Tracy (নভেম্বর ২০০১)। "Gendering Sport: The Development of Netball in Australia" (PDF)Sporting Traditions, Journal of the Australian Society for Sports History18 (1): 57–74। 
  12. International Federation of Netball Associations। "About IFNA"। ৮ মার্চ ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ আগস্ট ২০১১ 
  13. Thompson 2002, পৃ. 258
  14. Summers 2007, পৃ. 165
  15. "Regions & Members"। International Netball Federation। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুলাই ২০১৯ 
  16. "IFNA Regional Federations"। International Federation of Netball Associations। ২৬ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০১১ 
  17. International Federation of Netball Associations। "IFNA: Anti-doping"। ১৬ মার্চ ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১১ 
  18. World Netball Championships 2011 Singapore (২০১১)। "History"। ১৪ মার্চ ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১১ 
  19. "Samoa prepares for World netball series"Samoa Observer। ১৮ ডিসেম্বর ২০০৮। ৭ জুন ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ 
  20. International Federation of Netball Associations (১৪ জানুয়ারি ২০০৯c)। "Netball as never seen before"। International Federation of Netball Associations। ২ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ 
  21. Kaminjolo, Singayazi (১২ নভেম্বর ২০১০)। "Queens leave for Liverpool on Sunday"The Nation (Malawi)। ২৪ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১০ 
  22. International Federation of Netball Associations (৩ এপ্রিল ২০০৯d)। "Calling All Netball Fans!"। International Federation of Netball Associations। ১৪ মার্চ ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০০৯ 
  23. Newstalk ZB (২ ডিসেম্বর ২০০৮)। "Innovative World Series planned for next year"The New Zealand Herald। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ 
  24. Marshall, Jane (৫ ফেব্রুয়ারি ২০০৯)। "Kiwis keen on novel netball variant"The Press। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ 
  25. Smartt, Pam; Chalmers, David (২৯ জানুয়ারি ২০০৯)। "Obstructing the goal? Hospitalisation for netball injury in New Zealand 2000–2005"The New Zealand Medical Journal122 (1288)। ১ সেপ্টেম্বর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  26. Emily Benammar (১৩ অক্টোবর ২০০৯)। "'Fast' version of netball introduced in an effort to secure Olympic Games inclusion"Telegraph। London। 
  27. "Inclusion of Netball in the Olympic Games"। Parliament of New South Wales। ২১ সেপ্টেম্বর ২০০৪। ২৯ আগস্ট ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুন ২০১১ 
  28. Massoa ও Fasting 2002, পৃ. 120
  29. Jones, Diane (ফেব্রুয়ারি ২০০৪)। "Half the Story? Olympic Women on the ABC News Online" (PDF)Media International Australia Incorporating Culture and Policy (110): 132–146। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মার্চ ২০১১ 
  30. Crocombe 1992, পৃ. 156
  31. Shooting for Success (জুলাই ২০০৪)। "IFNA Recognition Confirmed" (PDF)। International Federation of Netball Associations। ৯ এপ্রিল ২০১১ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১১ 
  32. Australian Sport Commission ও Office of the Status of Women 1985, পৃ. 92

গ্রন্থপঞ্জী[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]