সৈয়দ আনোয়ার হোসেন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সৈয়দ আনোয়ার হোসেন
জন্ম (1947-11-05) ৫ নভেম্বর ১৯৪৭ (বয়স ৭২)
জাতীয়তাবাংলাদেশি
পেশাশিক্ষাবিদ
পুরস্কারবাংলা একাডেমি ফেলো (২০১৯)

সৈয়দ আনোয়ার হোসেন (জন্ম ৫ নভেম্বর ১৯৪৭) একজন বাংলাদেশি ইতিহাসবিদ এবং বাংলা একাডেমির সবেক মহাপরিচালক। তিনি দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য এবং ডেইলি সান পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ছিলেন। শিক্ষা ও গবেষণায় বিশেষ অবদানের জন্য ২০১৯ সালে বাংলা একাডেমি তাকে সম্মানসূচক ফেলোশিপ প্রদান করে।[১]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

সৈয়দ আনোয়ার ১৯৪৭ সালের ৫ নভেম্বর বগুড়ায় জন্মগ্রহণ করেন।[২] তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগ থেকে প্রথম শ্রেণীতে প্রথম হয়ে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। পরে কমনওয়েলথ বৃত্তি নিয়ে এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আন্তর্জাতিক ইতিহাস বিষয়ে এমএ এবং লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ব্রিটিশ প্রশাসনিক ইতিহাসে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন।[৩] ১৯৮৭ থেকে ১৯৮৮ সাল পর্যন্ত তিনি ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার ফুলব্রাইট ফেলো ছিলেন।[৩]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

সৈয়দ আনোয়ার ১৯৭০ সালের ৩ আগস্ট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন।[৩] ১৯৮৫ সালে তিনি পূর্ণ অধ্যাপক হন। ১৯৯৩ থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত তিনি ইতিহাস বিভাগের চেয়ারম্যান ছিলেন। পরে ১৯৯৭ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[৩] ২০০৪ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত তিনি তৎকালীন দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ছিলেন।[৩]

২০১০ সালে ইংরেজি দৈনিক ডেইলি সান যাত্রা শুরু করলে তিনি এর প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক হিসেবে ২০১২ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন।[৩] ২০১৪ সালের ১ জুলাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক হিসেবে অবসর গ্রহণ করেন।[৩] অবসরের পর থেকে তিনি সুপারনিউমারি অধ্যাপক হিসেবে একই বিশ্ববিদ্যালয়ে যুক্ত রয়েছেন।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বাংলা একাডেমির সম্মানসূচক ফেলোশিপ পেলেন সাত গুণী"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  2. "অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন"দৈনিক জাগরণ (ইংরেজি ভাষায়)। undefinedundefinedundefined। সংগ্রহের তারিখ ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  3. "Profile of Dr. Syed Anwar Husain"du.ac.bd। সংগ্রহের তারিখ ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০