সিঙ্গের ডাবরি হাট রেলওয়ে স্টেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সিঙ্গের ডাবরি হাট রেলওয়ে স্টেশন
বাংলাদেশের রেলওয়ে স্টেশন
অবস্থানকুড়িগ্রাম জেলা রংপুর বিভাগ
 বাংলাদেশ
মালিকানাধীনবাংলাদেশ রেলওয়ে
পরিচালিতপশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে
লাইনতিস্তা জংশন-কুড়িগ্রাম-চিলমারী লাইন
প্ল্যাটফর্ম১টি
ট্রেন পরিচালকবাংলাদেশ রেলওয়ে
নির্মাণ
গঠনের ধরনমানক
পার্কিংআছে
সাইকেলের সুবিধাআছে
প্রতিবন্ধী প্রবেশাধিকারনাই
অন্য তথ্য
অবস্থাসক্রিয়
ইতিহাস
চালু?
পরিষেবা
আছে
অবস্থান
বুড়ীমারি-লালমনিরহাট-পার্বতীপুর লাইন
চ্যাংড়াবান্ধা
ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত
বুড়িমারী
পাটগ্রাম
আলাউদ্দিন নগর
বাউরা
বড়খাতা
হাতীবান্ধা
শহীদ বোরহান নগর
ভোটমারি
তুষভাণ্ডার
কাকিনা
নামুরিরহাট
আদিতমারী
থেকে গীতলদহ
ভাঙ্গা ব্রিজ সহ ধরলা নদী
ভারতবাংলাদেশ সীমান্ত
মোগলহাট
লালমনিরহাট
মহেন্দ্রনগর
সিঙ্গের ডাবরি হাট
রাজারহাট
কুড়িগ্রাম
পুরাতন কুড়িগ্রাম
পাঁচপীর
উলিপুর
বালাবাড়ী
রমনা বাজার
তিস্তা জংশন
তিস্তা নদী
কাউনিয়া জংশন
থেকে সান্তাহার-কাউনিয়া রেলপথ
মীরবাগ
রংপুর
শ্যামপুর
আওলিয়াগঞ্জ
বদরগঞ্জ
খোলাহাটি
পার্বতীপুর জংশন

সূত্র: বাংলাদেশ রেলওয়ে মানচিত্র

সিঙ্গের ডাবরি হাট রেলওয়ে স্টেশন বাংলাদেশের রংপুর বিভাগের কুড়িগ্রাম জেলার একটি রেলওয়ে স্টেশন

অবস্থান[সম্পাদনা]

সিঙ্গের ডাবরি হাট রেলওয়ে স্টেশন তিস্তা জংশন-কুড়িগ্রাম-চিলমারী লাইনের তিস্তা জংশন-কুড়িগ্রাম অংশে অবস্থিত।[১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৮৭৯ সালে তৈরি পার্বতীপুর-লালমনিরহাট-বুড়িমারী লাইনের একটি শাখা তিস্তা জংশন থেকে বের হয়ে কুড়িগ্রাম পর্যন্ত যায়। এ সময় সিঙ্গের ডাবরি হাট রেলওয়ে স্টেশন তৈরি করা হয়। এ লাইনটি প্রথমে ন্যারোগেজ লাইন ছিল। তিস্তা জংশন থেকে কুড়িগ্রাম পর্যন্ত লাইনটিকে ১৯২৮-১৯২৯ সালে মিটারগেজে রুপান্তর করা হয়।

পরিষেবা[সম্পাদনা]

সিঙ্গের ডাবরি হাট রেলওয়ে স্টেশন দিয়ে চলাচল কারী ট্রেনের নাম নিম্নে উল্লেখ করা হলো:

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ঢাকা-কুড়িগ্রাম আন্তঃনগর ট্রেন ছুটবেই | Ulipur.com"শিক্ষা, প্রগতি ও তারুণ্যের উলিপুর। ২০১৬-১২-২১। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-৩০ 
  2. "কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেসের উদ্বোধন, ঢাকার দিকে ছুটবে কাল"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-৩০ 
  3. "প্রথম আন্তঃনগর ট্রেন পেতে যাচ্ছে কুড়িগ্রামবাসী"Dhaka Tribune Bangla। ২০১৯-১০-১৫। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-৩০