সাবের হোসেন চৌধুরী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সাবের হোসেন চৌধুরী
215px
সাবের হোসেন চৌধুরী
জাতীয়তা বাংলাদেশী
রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
ধর্ম ইসলাম

সাবের হোসেন চৌধুরী একজন বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ। তিনি সাবেক প্রধানমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক সচিব। তিনি আওয়ামী লীগ শাসনামলে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি ছিলেন।

শৈশব ও কৈশোর[সম্পাদনা]

তার পিতৃ-ভিটা ফেনী জেলার দাগনভূঁইয়া উপজেলায়।ফেনী জেলার দাগনভূঁইয়া উপজেলার ছেলে ,সাবের হোসেন চৌধুরীর শৈশব ও কৈশোর কাটে তার পিতৃ-ভিটা ফেনী জেলার দাগনভূঁইয়া উপজেলার রামনগর গ্রামের চৌধুরী বাড়ীতে ( সেনবাগ থানার সেবারহাট বাজারের নিকটে )

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভানেত্রী মাননীয় শেখ হাসিনার সাবেক রাজনৈতিক সচিব ছিলেন । ২০০১ সালের ডিসেম্বর মাসে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যকরী সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক মনোনীত হন।

মানুষের মুক্তি, মৌলিক অধিকার এবং ব্যক্তি স্বাধীনতার দৃঢ়ভাবে বিশ্বাসী এবং অঙ্গীকারাবদ্ধ জনাব চৌধুরীর উপর বিভিন্ন নেমে আসে নির্যাতনের খড়গ। মানুষের অধিকারের কথা বলতে গিয়ে ২০০৩ সালের জানুয়ারি এবং অক্টোবর মাসে কারান্তরীণ থাকতে হয়। ২০০৩ সালের জানুয়ারিতে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা তাঁকে আখ্যায়িত করে ‘বিবেকর বন্দী’ হিসেবে। সে সময় এই সংস্থাটি তাঁর মুক্তির দাবীতে ‘আর্জেন্ট অ্যাকশন’ শীর্ষক ধারাবাহিক প্রচারণা চালিয়েছিল।

১৯৯৬ সালে ঢাকা-৬ নির্বাচনী আসন থেকে তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আওয়ামী লীগ গঠিত সরকারের মন্ত্রীসভার তিনি ছিলেন কনিষ্ঠ সদস্য। প্রথমে তাঁকে নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রীর দায়িত্ব প্রদান করা হয়। পরবর্তীতে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব প্রদান করা হয়।

একজন সংসদ সদস্য হিসেবে স্বাস্থ্যসেবা, চিকিৎসা বীমা, পরিবেশ, যুব প্রশিক্ষণ, আত্ম-কর্মসংস্থান কর্মসূচির মতো একাধিক জনকল্যাণকর উদ্যোগ নিয়েছেন।

১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি ছিলেন তিনি। তাঁর দূরদর্শী নেতৃত্বে ২০০০ সালের জুন মাসে আইসিসি’র পূর্ণ সদস্য পদ এবং টেস্ট স্ট্যাটাস প্রাপ্তির মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেট পৌছেছিল তার সর্বোচ্চ শিখরে।

বাংলাদেশের ক্রিকেটের উন্নয়ন এবং বিশ্ব ক্রিকেটে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ২০০২ সালের অক্টোবর মাসে লন্ডনে মেরিলিবোর্ন ক্রিকেট ক্লাব তাঁকে আজীবন সদস্যপদ প্রদান করে।

বর্তমান জাতীয় সংসদের সরকারদলীয় সাংসদ( Dhaka-9 ) সাবের হোসেন চৌধুরী ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়নের (আইপিইউ) প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন।সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় অনুষ্ঠিত ভোটে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বী তিন প্রার্থীকে পরাজিত করে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন।সাবের হোসেন চৌধুরী পেয়েছেন ১৬৯ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অস্ট্রেলিয়ার আইনসভার স্পিকার ব্রনউইন বিশপ পেয়েছেন ৯৫ ভোট। পরবর্তী তিন বছরের জন্য সাবের হোসেন চৌধুরী আইপিইউর প্রেসিডেন্ট হলেন।নির্বাচনে সাবের হোসেন চৌধুরীর পর প্রতিদ্বন্দীরা হলেন ইন্দোনেশিয়ার সাংসদ নুরহায়াতি আলী আসিগাফ ও মালদ্বীপের আইনসভার সাবেক স্পিকার আবদুল্লাহ শহীদ। বর্তমানে এই সংস্থার প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করছেন মরক্কোর আইনসভার স্পিকার আবদেল ওয়াহাদ রাদি।

আইপিইউর ওয়েবসাইট অনুযায়ী, সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় ১২ অক্টোবর আইপিইউর ১৩১তম সম্মেলন শুরু হয়েছে। আইপিইউ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পার্লামেন্টের আন্তর্জাতিক সংগঠন। ১৮৮৯ সালে এটি যাত্রা শুরু করে।

রাজনীতি[সম্পাদনা]

প্রকাশক[সম্পাদনা]

দৈনিক ভোরের কাগজ, দৈনিক দিনের শেষে, দেশ টিভি