শাহরিয়ার নাজিম জয়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শাহরিয়ার নাজিম জয়
জন্ম (1978-01-08) ৮ জানুয়ারি ১৯৭৮ (বয়স ৪১)
বাসস্থানঢাকা, বাংলাদেশ
পেশাঅভিনেতা, পরিচালক, প্রযোজক
কার্যকাল২০০০–বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীনুসরাত অনন্যা
সন্তান

শাহরিয়ার নাজিম জয় (জন্ম: ৮ই জানুয়ারি, ১৯৭৮) হলেন একজন বাংলাদেশী অভিনেতা, পরিচালক ও প্রযোজক। তিনি প্রধানত টেলিভিশন নাটক ও ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেন। ১৯৯৭ সালে গোধুলী লগ্নে নাটক দিয়ে তার টেলিভিশন পর্দায় অভিষেক হয়। তিনি বিলেত বিলাসকন্যা কুমারী টেলিভিশন নাটক দিয়ে জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। তার পরিচালিত প্রথম টেলিভিশন নাটক গলির মোড়ে সিডির দোকান। ২০০৬ সালে জীবনের গল্প দিয়ে তার চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়। পরবর্তীতে তিনি এই যে দুনিয়া, গ্রাম গঞ্জের পিরীত, পাষাণের প্রেম, ও মোস্ট ওয়েলকাম ২ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। ২০১৫ সালে প্রার্থনা দিয়ে তার চলচ্চিত্র পরিচালনায় অভিষেক হয়। এছাড়া তিনি এটিএন বাংলার সেলিব্রিটি টক-শো "সেন্স অফ হিউমার", এশিয়ান টিভির "কমনসেন্স" এবং একুশে টেলিভিশনের "উইথ নাজিম জয়" অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১৯৯৭ সালে গোধুলী লগ্নে নাটকে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে জয়ের টেলিভিশন পর্দায় অভিষেক হয়।[১] একই বছর তিনি বুলবুল আহমেদ পরিচালিত অন্যমনে টেলিভিশন নাটকে তাজিন আহমেদের বিপরীতে অভিনয় করেন। একক নায়ক হিসেবে তিনি বুলবুল আহমেদের বিলেত বিলাসকন্যা কুমারী টেলিভিশন নাটক দিয়ে জনপ্রিয়তা অর্জন করেন।[২] ২০০৪ সালে তিনি পাতা ঝরে বৃক্ষ মরে না টেলিভিশন নাটকে অভিনয় করেন। সোহেল আরমান পরিচালিত এই নাটকে তার বিপরীতে ছিলেন রুমানা রশিদ ঈশিতা[৩]

গাজী মাজহারুল আনোয়ার পরিচালিত জীবনের গল্প (২০০৬) দিয়ে তার চলচ্চিত্র অভিনয়ে অভিষেক হয়। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন শাবনূর[১][২] পরের বছর তিনি মাজহারুল আনোয়ারের এই যে দুনিয়া চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।[৪] একই বছর তিনি সোহেল আরমান পরিচালিত গ্রাম গঞ্জের পিরীত চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। গলির মোড়ে সিডির দোকান দিয়ে তার টেলিভিশন নাটক পরিচালনায় অভিষেক হয়।[২]

২০১০ সালের ঈদুল ফিতরে তিনি ২৫টি নাটকে কাজ করেন।[৩] তিনি নিজে সাতটি নাটক রচনা ও পরিচালনা করেন। তার নিজের রচনা ও পরিচালনায় তিতির ও শঙ্খচিল নাটকটি দেশ টিভিতে প্রচারিত হয়। এই নাটক দিয়ে প্রায় ছয় বছর পর তিনি ঈশিতার বিপরীতে কাজ করেন। তার রচিত ও পরিচালিত স্বার্থপর নাটকটি বিটিভিতে প্রচারিত হয়। এছাড়া তিনি আলভী আহমেদ পরিচালিত কক্ষপথ। এতে তার বিপরীতে ছিলেন নুসরাত ইমরোজ তিশা[৩]

২০১৫ সালে জয়ের চলচ্চিত্র পরিচালনায় অভিষেক হয়। তার নিজের রচিত ও পরিচালিত প্রার্থনা চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম। শুরুতে এর নাম রাখা হয়েছিল আমরা যারা বাবা-মা, পরে তা পরিবর্তন করে প্রার্থনা রাখা হয়।[১] এটি শহুরে জীবনে পিতামাতার কাছ থেকে সন্তানের দুরত্ব সৃষ্টির গল্প। চলচ্চিত্রটি ঈদুল আযহায় চ্যানেল আইয়ে মুক্তি দেওয়া হয়।[৫] ২০১৬ সালে জয় এটিএন বাংলার সেলিব্রিটি টক-শো সেন্স অফ হিউমার উপস্থাপনা করেন। তিনি নিজেই অনুষ্ঠানটির পরিকল্পনা, উপস্থাপনা ও পরিচালনা করেন।[৬] এছাড়া তিনি ২০১৭ সালে এশিয়ান টিভির "কমনসেন্স" এবং একুশে টেলিভিশনের "উইথ নাজিম জয়" অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন। উপস্থাপনার পাশাপাশি তিনি জিনাত হাকিম রচিত তাহাদের কথা টেলিভিশন নাটকে অভিনয় করেন। এই নাটকের মাধ্যমে তিনি প্রায় এক যুগ পর ফারজানা চুমকির বিপরীতে অভিনয় করেন। নাটকটি সেপ্টেম্বর মাসে বিটিভিতে প্রচারিত হয়।[৪] এছাড়া তার পরিচালিত দ্বিতীয় চলচ্চিত্র অর্পিতার নির্মাণ-উত্তর কাজ চলছে।[৪]

বিতর্ক[সম্পাদনা]

২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে টেলিভিশন নির্মাতা ও অভিনেতা হাসান জাহাঙ্গীর জয়, হাসান মাসুদ ও সিদ্দিকের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন। এশিয়ান টিভিতে জয়ের উপস্থাপনায় কমনসেন্স অনুষ্ঠানে হাসান মাসুদ জাহাঙ্গীরকে নিয়ে অশালীন কথা বলা ও তার শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে মন্তব্য করলে ও সিদ্দিক সমর্থন দেন। এই মন্তব্যের কারণে জাহাঙ্গীর তাদের তিনজনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন।[৭]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

বছর চলচ্চিত্র পরিচালক টীকা
২০০৬ জীবনের গল্প গাজী মাজহারুল আনোয়ার অভিষেক চলচ্চিত্র
২০০৭ এই যে দুনিয়া
গ্রাম গঞ্জের পিরীত
২০১১ পাষাণের প্রেম
২০১৪ মোস্ট ওয়েলকাম ২ অনন্য মামুন, অনন্ত জলিল
২০১৫ প্রার্থনা হ্যাঁ পরিচালনায় অভিষেক
২০১৫ অর্পিতা হ্যাঁ নির্মাণ-উত্তর

গ্রন্থতালিকা[সম্পাদনা]

  • সাদা ও হলুদ
  • হ্যালো ভাইয়া অভিনয় করতে চাই
  • হিমু কাউন্টার

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ঈদে জয়ের অভিষেক!"দৈনিক প্রথম আলো। ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  2. "Two friends in face-to-face"দ্য ডেইলি নিউ নেশন। ৮ জানুয়ারি ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  3. "Shahriar Nazim Joy in 25 Eid-special plays"দ্য ডেইলি স্টার (ইংরেজি ভাষায়)। ১৪ আগস্ট ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  4. "একযুগ পর একসঙ্গে জয়-চুমকি"দৈনিক নয়া দিগন্ত। ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  5. "Four films to be released on Eid day"নিউ এজ (ইংরেজি ভাষায়)। ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  6. "এবার উপস্থাপনায় শাহরিয়ার নাজিম জয়"দৈনিক ইনকিলাব। ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  7. "জয়, হাসান মাসুদ ও সিদ্দিকের বিরুদ্ধে মামলা"দৈনিক কালের কণ্ঠ। ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]