মৌলিক জনন সংখ্যা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মৌলিক জনন সংখ্যা R0 হল একজন সংক্রামক ব্যক্তি থেকে গড়ে আরও কতজন সংক্রামিত হতে পারে, তার সংখ্যা; যেমন ইবোলা রোগের R0 হলো ২, সুতরাং ইবোলাতে আক্রান্ত একজন ব্যক্তি গড়ে ২ জন ব্যক্তির দেহে ভাইরাসটি ছড়াতে পারে।

রোগবিস্তার বিজ্ঞানের আলোচনায় কোনও রোগ সংক্রমণের মৌলিক জনন সংখ্যা বলতে রোগটি সংক্রমণের প্রাথমিক পর্যায়ে কোনও জনসমষ্টি বা সম্প্রদায়ের সব ব্যক্তি যখন সংক্রমিত হবার ঝুঁকিতে থাকে, তখন একজন সংক্রমিত ব্যক্তির থেকে সরাসরি আরও কত জন ব্যক্তি আক্রান্ত হতে পারে, সেই সংখ্যার প্রত্যাশিত গড় মানকে বোঝায়।[১]

ইংরেজিতে একে সাঙ্কেতিকভাবে R0 লেখা হয় এবং "আর নট" বা "আর জিরো" উচ্চারণ করা হয়।[২] এই সংজ্ঞাটি এমন একটি অবস্থার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য যেখানে অন্য কোনও ব্যক্তি এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়নি কিংবা টিকা গ্রহণ করে বা অন্য কোনও স্বাভাবিক উপায়ে অনাক্রম্যতা অর্জন করেনি। কিছু কিছু সংজ্ঞাতে (যেমন অস্ট্রেলিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রদত্ত সংজ্ঞানুযায়ী) মৌলিক জনন সংখ্যাটির মান তখনই গণনা করতে হয়, যখন রোগ সংবহন প্রক্রিয়া ব্যহত করতে কোনও পরিকল্পিত হস্তক্ষেপমূলক ব্যবস্থা এখনও গৃহীত হয়নি।[৩] মৌলিক জনন সংখ্যার সাথে বিদ্যমান জনন সংখ্যার (Effective Reproduction Number) পার্থক্য আছে। বিদ্যমান জনন সংখ্যা (যার সংকেত R) হল কোনও জনসমষ্টির বিদ্যমান বর্তমান অবস্থায় প্রতিটি সংক্রামক ব্যক্তি থেকে সরাসরি নতুন করে আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা; বর্তমান অবস্থাতে সবাইকে সংক্রমণমুক্ত হতে হবে না। সংজ্ঞানুযায়ী R0 টিকাদান কর্মসূচির দ্বারা পরিবর্তন করা সম্ভব নয়। আরও উল্লেখ্য যে R0 একটি মাত্রাহীন, এককহীন সংখ্যা; এটি সময়ের সাপেক্ষে কোনও কিছুর পরিবর্তনের হার (যেমন দ্বিগুণ হবার সময়[৪]) নয়।[৫]

অতি-পরিচিত কিছু সংক্রামক রোগের R0 (মৌলিক জনন সংখ্যা)[৬]
রোগ সংবহনের পদ্ধতি R0
হাম বায়ুবাহিত ১২–১৮[৭]
জলবসন্ত (ভ্যারিসেলা) বায়ুবাহিত ১০–১২[৮]
পোলিও মল-থেকে-মুখে ৫–৭
রুবেলা বায়ুবাহিত অতিক্ষুদ্র ফোঁটা ৫–৭
মাম্প্‌স বায়ুবাহিত অতিক্ষুদ্র ফোঁটা ১০–১২[৯]
হুপিং কাশি বায়ুবাহিত অতিক্ষুদ্র ফোঁটা ৫.৫[১০]
গুটিবসন্ত বায়ুবাহিত অতিক্ষুদ্র ফোঁটা ৩.৫–৬[১১]
করোনাভাইরাস রোগ ২০১৯ বায়ুবাহিত অতিক্ষুদ্র ফোঁটা ১.৪–৫.৭[১২][১৩][১৪][১৫]
এইচআইভি/এইডস দেহজ রস ২–৫
সার্স বায়ুবাহিত অতিক্ষুদ্র ফোঁটা ২–৫[১৬]
সর্দি-কাশি বায়ুবাহিত অতিক্ষুদ্র ফোঁটা ২–৩[১৭]
ডিপথেরিয়া লালারস ১.৭–৪.৩[১৮]
ইনফ্লুয়েঞ্জা
(১৯১৮ সালের বৈশ্বিক মহামারী প্রজাতি)
বায়ুবাহিত অতিক্ষুদ্র ফোঁটা ১.৪–২.৮[১৯]
ইবোলা
(২০১৪ সালের ইবোলা প্রাদুর্ভাব)
দেহজ রস ১.৫–২.৫[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]
ইনফ্লুয়েঞ্জা
(২০০৯ সালের বৈশ্বিক মহামারী প্রজাতি)
বায়ুবাহিত অতিক্ষুদ্র ফোঁটা ১.৪–১.৬[২০]
ইনফ্লুয়েঞ্জা
(মৌসুমী ভাইরাস প্রজাতিসমূহ)
বায়ুবাহিত অতিক্ষুদ্র ফোঁটা ০.৯–২.১[২০]
মার্স বায়ুবাহিত অতিক্ষুদ্র ফোঁটা ০.৩–০.৮[২১]

R0 কোনও রোগসৃষ্টিকারীর জীবাণুর জন্য একটি জীববৈজ্ঞানিক ধ্রুবসংখ্যা নয়, কেননা অন্যান্য অনেক নিয়ামক যেমন পরিবেশগত অবস্থা এবং সংক্রমিত জনসমষ্টির আচরণের উপরেও এটি নির্ভর করে। অধিকন্তু, R0-এর মানগুলি সচরাচর গাণিতিক প্রতিমান বা মডেল থেকে প্রাক্কলন করা হয় এবং এই প্রাক্কলিত মানগুলি ব্যবহৃত প্রতিমান ও এতে অন্তর্ভুক্ত বিভিন্ন চলরাশির (প্যারামিটার বা পরামিতি) মানের উপরে নির্ভরশীল। সুতরাং প্রকাশিত বৈজ্ঞানিক গবেষণাপত্রে R0-এর দেয়া মানগুলিকে অবশ্যই যে পারিপার্শ্বিক পরিস্থিতিতে এই মানগুলি নির্ণয় করা হয়েছে, সে ব্যাপারটিকে গণনায় নিতে হবে। প্রচলন উঠে গেছে, এমন মান ব্যবহার করা কিংবা ভিন্ন ভিন্ন প্রতিমান বা মডেলের উপর ভিত্তি করে প্রাপ্ত মান তুলনা করাকে নিরুৎসাহিত করা হয়।[২২] কোনও জনসমষ্টি বা সম্প্রদায়ে একটি রোগের সংক্রমণ কত দ্রুত ছড়িয়ে পড়বে, তা কেবল R0-এর মান দিয়ে বের করা সম্ভব নয়।

R0-এর ব্যবহার এই কারণে খুবই গুরুত্বপূর্ণ যে কোনও প্রদত্ত জনসমষ্টিতে একটি সম্প্রতি-উদ্ভূত সংক্রামক রোগ ছড়িয়ে পড়তে পারে কি না এবং রোগটিকে নির্মূল করতে জনসমষ্টির কতটুকু অংশকে টিকাদানের মাধ্যমে অনাক্রম্যতা (রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা) প্রদান করা যাবে, তা নির্ণয়ে এটি সাহায্য করতে পারে। বহুল প্রচলিত সংক্রমণ প্রতিমান বা মডেলগুলিতে যখন R0-এর মান ১ অপেক্ষা বেশী হয়, তখন সংক্রমণটি জনসমষ্টিতে ছড়িয়ে পড়ার ক্ষমতা রাখে। এর বিপরীতে যদি R0-এর মান ১-এর কম হয়, তাহলে এটি ছড়িয়ে পড়বে না। সাধারণত R0-এর মান যত বড় হবে, সেটির বিস্তার বা মহামারী নিয়ন্ত্রণ করা ততই কঠিন হবে। সরল প্রতিমানগুলিতে (মডেলগুলিতে) কোনও সংক্রমণের দীর্ঘস্থায়ী বিস্তার প্রতিরোধের লক্ষ্যে কোনও জনসমষ্টির ন্যূনতম যে অংশকে কার্যকরীভাবে অনাক্রম্যতা অর্জন করতে হয় (অর্থাৎ সংক্রমণের জন্য ঝুঁকিমুক্ত হতে হয়), সেটিকে 1 − 1/R0 অপেক্ষা বেশী হতে হয়।[২৩] এরূপ একটি স্থানীয় মহামারীর সাম্যাবস্থার (endemic equilibrium) ক্ষেত্রে জনসমষ্টির যে অংশটি সংক্রমণের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকে, তা হল 1/R0

মৌলিক জনন সংখ্যাটি বেশ কিছু নিয়ামক দ্বারা প্রভাবিত হয়, যেমন আক্রান্ত রোগীদের সংক্রমণশীলতার স্থায়িত্ব (Duration of infectivity), রোগ সৃষ্টিকারী জীবাণুর সংক্রমণ-ক্ষমতা (Infectiousness) এবং আক্রান্ত রোগীরা সম্প্রদায়ের কতজন ঝুঁকিপূর্ণ ব্যক্তির সংস্পর্শে আছে, ইত্যাদি।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Christophe Fraser; Christl A. Donnelly; Simon Cauchemez; ও অন্যান্য (১৯ জুন ২০০৯)। "Pandemic Potential of a Strain of Influenza A (H1N1): Early Findings"Science324 (5934): 1557–1561। doi:10.1126/science.1176062PMID 19433588পিএমসি 3735127অবাধে প্রবেশযোগ্যবিবকোড:2009Sci...324.1557F Free text
  2. Milligan, Gregg N.; Barrett, Alan D. T. (২০১৫)। Vaccinology : an essential guide। Chichester, West Sussex: Wiley Blackwell। পৃষ্ঠা 310। আইএসবিএন 978-1-118-63652-7ওসিএলসি 881386962 
  3. "Department of Health | 2.2 The reproduction number"www1.health.gov.au। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-০১ 
  4. Siegel, Ethan। "Why 'Exponential Growth' Is So Scary For The COVID-19 Coronavirus"Forbes (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৯ 
  5. Jones, James। "Notes On R0" (PDF)Stanford University 
  6. অন্য কোনও উৎসের নির্দেশনা দেওয়া না থাকলে ধরে নিতে হবে যে নিচের অতিপরিচিত রোগগুলির R0-এর মানগুলি History and Epidemiology of Global Smallpox Eradication( ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১০ মে ২০১৬ তারিখে) থেকে নেওয়া হয়েছে।, যা কি না "Smallpox: Disease, Prevention, and Intervention" নামক একটি পাঠ্যক্রমের অংশবিশেষ (মডিউল)। The CDC and the World Health Organization, 2001. Slide 17. This gives sources as "Modified from Epid Rev 1993;15: 265-302, Am J Prev Med 2001; 20 (4S): 88-153, MMWR 2000; 49 (SS-9); 27-38"
  7. Guerra, Fiona M.; Bolotin, Shelly; Lim, Gillian; Heffernan, Jane; Deeks, Shelley L.; Li, Ye; Crowcroft, Natasha S. (১ ডিসেম্বর ২০১৭)। "The basic reproduction number (R0) of measles: a systematic review"The Lancet Infectious Diseases (English ভাষায়)। 17 (12): e420–e428। doi:10.1016/S1473-3099(17)30307-9আইএসএসএন 1473-3099। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মার্চ ২০২০ 
  8. Ireland's Health Services। Health Care Worker Information (PDF)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৭ 
  9. Australian government Department of Health Mumps Laboratory Case Definition (LCD)
  10. Kretzschmar M, Teunis PF, Pebody RG (২০১০)। "Incidence and reproduction numbers of pertussis: estimates from serological and social contact data in five European countries."PLOS Med.7 (6): e1000291। doi:10.1371/journal.pmed.1000291PMID 20585374পিএমসি 2889930অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  11. Gani, Raymond; Leach, Steve (ডিসেম্বর ২০০১)। "Transmission potential of smallpox in contemporary populations"Nature (ইংরেজি ভাষায়)। 414 (6865): 748–751। doi:10.1038/414748aআইএসএসএন 1476-4687। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মার্চ ২০২০ 
  12. Li Q, Guan X, Wu P, Wang X, Zhou L, Tong Y, ও অন্যান্য (জানুয়ারি ২০২০)। "Early Transmission Dynamics in Wuhan, China, of Novel Coronavirus-Infected Pneumonia"। The New England Journal of Medicinedoi:10.1056/NEJMoa2001316অবাধে প্রবেশযোগ্যPMID 31995857 
  13. Riou, Julien and Althaus, Christian L. (২০২০)। "Pattern of early human-to-human transmission of Wuhan 2019 novel coronavirus (2019-nCoV), December 2019 to January 2020"Eurosurveillance25 (4)। doi:10.2807/1560-7917.ES.2020.25.4.2000058PMID 32019669 |pmid= এর মান পরীক্ষা করুন (সাহায্য)পিএমসি 7001239অবাধে প্রবেশযোগ্য |pmc= এর মান পরীক্ষা করুন (সাহায্য) 
  14. Wu, Joseph T.; Leung, Kathy; Bushman, Mary; Kishore, Nishant; Niehus, Rene; de Salazar, Pablo M.; Cowling, Benjamin J.; Lipsitch, Marc; Leung, Gabriel M. (১৯ মার্চ ২০২০)। "Estimating clinical severity of COVID-19 from the transmission dynamics in Wuhan, China"Nature Medicine (ইংরেজি ভাষায়): 1–5। doi:10.1038/s41591-020-0822-7অবাধে প্রবেশযোগ্যআইএসএসএন 1546-170X 
  15. Sanche, Steven; Lin, Yen Ting; Xu, Chonggang; Romero-Severson, Ethan; Hengartner, Nick; Ke, Ruian (৭ এপ্রিল ২০২০)। "High Contagiousness and Rapid Spread of Severe Acute Respiratory Syndrome Coronavirus 2"Emerging Infectious Diseases26 (7)। doi:10.3201/eid2607.200282। সংগ্রহের তারিখ ৯ এপ্রিল ২০২০ 
  16. Wallinga J, Teunis P (২০০৪)। "Different epidemic curves for severe acute respiratory syndrome reveal similar impacts of control measures"Am. J. Epidemiol.160 (6): 509–16। doi:10.1093/aje/kwh255অবাধে প্রবেশযোগ্যPMID 15353409। ২০০৭-১০-০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  17. Freeman, Colin। "Magic formula that will determine whether Ebola is beaten"The Telegraph। Telegraph.Co.Uk। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০২০ 
  18. Truelove, Shaun A.; Keegan, Lindsay T.; Moss, William J.; Chaisson, Lelia H.; Macher, Emilie; Azman, Andrew S.; Lessler, Justin। "Clinical and Epidemiological Aspects of Diphtheria: A Systematic Review and Pooled Analysis"Clinical Infectious Diseases (ইংরেজি ভাষায়)। doi:10.1093/cid/ciz808। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মার্চ ২০২০ 
  19. Ferguson NM; Cummings DA; Fraser C; Cajka JC; Cooley PC; Burke DS (২০০৬)। "Strategies for mitigating an influenza pandemic"Nature442 (7101): 448–452। doi:10.1038/nature04795PMID 16642006পিএমসি 7095311অবাধে প্রবেশযোগ্য |pmc= এর মান পরীক্ষা করুন (সাহায্য) 
  20. Coburn BJ; Wagner BG; Blower S (২০০৯)। "Modeling influenza epidemics and pandemics: insights into the future of swine flu (H1N1)"। BMC Medicine7। Article 30। doi:10.1186/1741-7015-7-30অবাধে প্রবেশযোগ্যPMID 19545404 
  21. Kucharski, Adam and Althaus, Christian L. (২০১৫)। "The role of superspreading in Middle East respiratory syndrome coronavirus (MERS-CoV) transmission"। Eurosurveillance20 (26): 14–8। doi:10.2807/1560-7917.ES2015.20.25.21167অবাধে প্রবেশযোগ্যPMID 26132768 
  22. Delamater, Paul L.; Street, Erica J.; Leslie, Timothy F.; Yang, Y. Tony; Jacobsen, Kathryn H. (জানুয়ারি ২০১৯)। "Complexity of the Basic Reproduction Number (R 0 )"Emerging Infectious Diseases25 (1): 1–4। doi:10.3201/eid2501.171901PMID 30560777আইএসএসএন 1080-6040পিএমসি 6302597অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  23. Fine, Paul; Eames, Ken; Heymann, David L. (২০১১-০৪-০১)। ""Herd Immunity": A Rough Guide"Clinical Infectious Diseases (ইংরেজি ভাষায়)। 52 (7): 911–916। doi:10.1093/cid/cir007অবাধে প্রবেশযোগ্যPMID 21427399আইএসএসএন 1058-4838