ভারত-ভুটান সম্পর্ক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
Indian PM Narendra Modi meets with Bhutanese PM Tshering Tobgay

হিমালয়ের দেশ ভূটানভারতের প্রজাতন্ত্রের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কগুলি ঐতিহ্যগতভাবে খুব ঘনিষ্ঠ এবং উভয় দেশ একটি বিশেষ সম্পর্ক ভাগ করে নিয়েছে।[১][২] ভূটানের পররাষ্ট্র নীতি, প্রতিরক্ষা এবং বাণিজ্যের উপর ভারতের প্রভাব রয়েছে। ২০১২-১৩ অর্থবছরে ভারতের রাষ্ট্রপতির বাজেটে ভূটানকে দেওয়া সাহায্যের পরিমান ৬০ কোটি মার্কিন ডলার বা প্রায় ৩০০০ কোটি টাকা ছিল। ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ভূটানকে ভারতের বৈদেশিক সাহায্যের সর্বাধিক সুবিধাভোগী হিসেবে গড়ে তোলার জন্য বছরে প্রায় ৯৮.৫ কোটি মার্কিন ডলার (₹ ৬১৬০ কোটি) ভুটানে পৌঁছায়। ভুটান এর প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবগে ২০১৩ সালের আগস্ট মাসে তাঁর নতুন দিল্লি ভ্রমণের সময় তার দেশের জন্য ₹৫৪০০ কোটির (চুক্তি সাক্ষরের সময়ে বিনিময় হার অনুযায়ী মার্কিন $১.৯ কোটি) একটি অতিরিক্ত সাহায্য প্যাকেজ পায়। ভূটানের ১১তম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনার জন্য এই পরিমাণের মধ্য থেকে ₹৪৫০০ কোটি নির্ধারিত করা হয়েছে। পূর্ব পরিকল্পনার বাকি প্রকল্পগুলির ক্ষেত্রে ব্যায়ের জন্য ₹৪০০ কোটি ছিল। অবশিষ্ট ₹৫০০ কোটি ভুটানের ধীর অর্থনীতির জন্য ভারতের অর্থনৈতিক উদ্দীপনা প্যাকেজ-এর অংশ ছিল। ভারত ভুটানে ১,৪১৬ মেগাওয়াটের ৩টি জলবিদ্যুৎ প্রকল্প পরিচালনা করে এবং ২,১২৯ মেগাওয়াটের আরও তিনটি নির্মাণ কাজ চলছে।[৩]

প্রেক্ষাপট[সম্পাদনা]

ভুটান ইতিহাসের বেশিরভাগ অংশে, বাইরের জগত থেকে নিজেকে বিচ্ছিন্নতা রক্ষা করেছে, আন্তর্জাতিক সংস্থা থেকে বেরিয়ে এসে কয়েকটি দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বজায় রেখেছে।ভুটান ১৯১০ সালে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করার পর ব্রিটিশ ভারত থেকে একটি রক্ষাকবচ হিসাবে প্রতিষ্ঠা করে, যার ফলে ব্রিটিশরা তার বৈদেশিক বিষয় এবং প্রতিরক্ষা নির্দেশ করার অনুমতি পায়।ভুটান ১৯৪৭ সালে ভারতের স্বাধীনতার স্বীকৃতি অর্জনের প্রথম এবং ভুটান ও ভারত উভয়ের সাথে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বজায় রেখে উভয় দেশই তিব্বতে চুক্তি স্বাক্ষর করে।নেপাল ও ভুটান তার হিমালয় সীমান্ত নিরাপত্তা নীতি কেন্দ্রীয় হতে উদ্ধৃতি প্রয়োজন ।ভারত ভুটানের সাথে ৬০৫ কিলোমিটার (৩৭৬ মাইল) সীমানা ভাগ করে নেয় এবং তার বৃহত্তম ব্যবসায়িক অংশীদার হয়, তার ৯৮ শতাংশ রপ্তানি এবং ৯০ শতাংশ আমদানি করে। [৪]

১৯৪৯ চুক্তি[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]