জি২০

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জি২০

গাড় নীল রঙের দেশসমূহ জি২০ এর অন্তর্ভুক্ত; হালকা নীল রঙের দেশসমূহ ইউরোপীয় ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত কিন্তু পৃথকভাবে জি২০ এর অন্তর্ভুক্ত নয়।
সংক্ষেপে জি-২০
গঠন ১৯৯৯
২০০৮(রাষ্ট্রপ্রধান সম্মেলন)
উদ্দেশ্য/ফোকাস বৈশ্বিক অর্থনীতির মূল বিষয়সমূহের উপর আলোচনার জন্য বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ শিল্পোন্নত ও উন্নয়নশীল দেশগুলোকে একত্রীকরণ করা।[১]
সদস্যপদ
বর্তমান চেয়ারম্যান  দক্ষিণ কোরিয়া (২০১০)[২]
ওয়েবসাইট http://www.g20.org/

গ্রুপ অব টোয়েনটি ফিন্যানস মিনিস্টারস অ্যান্ড সেন্ট্রাল ব্যাংক গভর্নরস (জ়ি-২০, জি২০, গ্রুপ অব টোয়েনটি) হল বিশ্বের ২০টি দেশের অর্থমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নরের সমন্বয়ে গঠিত একটি জোট বা গ্রুপ। গ্রুপের সদস্য ১৯টি দেশ এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন। ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট এবং ইউরোপিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংক ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিত্ব করেন। জি২০ দেশসমূহের রাষ্ট্রপ্রধান এবং সরকারপ্রধানও গ্রুপের সম্মেলনে তাঁদের নিজ নিজ দেশের পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করেন। সমষ্টিগতভাবে জি২০ এর অন্তর্ভুক্ত দেশসমূহ পৃথিবীর মোট জাতীয় উৎপাদনের ৮৫%, বিশ্ব বাণিজ্যের ৮০% এবং বিশ্বের প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ জনসংখ্যা গঠন করে।

কানাডার সাবেক অর্থমন্ত্রী পল মার্টিন প্রথম জি২০ গঠনের প্রস্তাব করেন। বিশ্বের প্রধান ও উদীয়মান অর্থনৈতিক পরাশক্তি সম্পন্ন দেশসমূহের মধ্যে পারস্পারিক সহযোগিতা, আর্থিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখা ইত্যাদি ছিল জি২০ গঠনের উদ্দেশ্য। ২০০৯ এর ২৫ সেপ্টেম্বরে জি২০ এর নেতারা ঘোষণা দেন যে, জি৮ কে জি২০ অদূর ভবিষ্যতে প্রতিস্থাপন করবে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. FAQ #5: What are the criteria for G-20 membership? from the official G-20 website
  2. [১] The Republic of Korea is honored to chair the Group of Twenty in 2010.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]