বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ
Bangladesh Championship League
দেশ বাংলাদেশ
কনফেডারেশনএএফসি
স্থাপিত২০১২; ৭ বছর আগে (2012)
প্রথম মৌসুম২০১২
দলের সংখ্যা১০
স্তর
উন্নতিবাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ
অবনতিসিনিয়র ডিভিশন লীগ
ঘরোয়া কাপফেডারেশন কাপ
বর্তমান চ্যাম্পিয়নবসুন্ধরা কিংস (১ম শিরোপা)
(২০১৭)
সর্বাধিক শিরোপাকক্সসিটি, চট্টগ্রাম আবাহনী
রহমতগঞ্জ এমএফএস
উত্তর বারিধারা স্পোর্টিং ক্লাব
ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব
বসুন্ধরা কিংস (প্রত্যেকে ১টি করে)
ওয়েবসাইটwww.bff.com.bd
২০১৮-১৯ বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ

বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ (বিসিএল)বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত নিয়মিত পেশাদার ফুটবল লীগ এবং বাংলাদেশে পেশাদার ফুটবল লীগের দ্বিতীয় স্তর। বাংলাদেশের ফুটবল লীগসমূহের স্তরবিন্যাসে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ(বিপিএল)-এর পরে এই লীগের অবস্থান। প্রিমিয়ার লীগের মত এই লীগও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন(বাফুফে)-এর পেশাদার লীগ কমিটি দ্বারা পরিচালিত হয়[১]। বাংলাদেশে পেশাদার ফুটবলের পরিধি বৃদ্ধি, কাঠামো উন্নয়ন ও নতুন নতুন ক্লাবকে পেশাদার ফুটবল দল গঠনে আগ্রহী করার লক্ষ্যে বাফুফে ২০১২ সালে এই লীগ চালু করে[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) ২০০৭ সালে দেশের প্রথম পেশাদার ফুটবল লীগ চালু করে। ২০০৭-২০১০ পর্যন্ত দেশের একমাত্র পেশাদার লীগে অবনমনের নিয়ম না থাকায় নতুন ক্লাবের আগমন হচ্ছিল না; লীগটির মান নিম্নমুখী হচ্ছিল। এ পরিস্থিতিতে ২০১১ সালে পেশাদার ফুটবল লীগের দ্বিতীয় স্তর আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয় বাফুফে[৩]। ফলাফল সরূপ মার্চ, ২০১২ হতে প্রিমিয়ার লীগের সাথে সাত দল নিয়ে ২য় স্তরের এই পেশাদার লীগ প্রথম বারের মত চালু করা হয়। কক্স সিটি স্পোর্টিং ক্লাব প্রথম মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন হয়[৪]। বাফুফের অন্তর্ভুক্তিমুলক নীতির কারণে পরবর্তী মৌসুম গুলিতে দলের সংখ্যা বাড়তে থাকে। সর্বশেষ ২০১৮-১৯ মৌসুমে এগারোটি দল অংশগ্রহণ করে[৫]

২০১২ মৌসুমে শুধু চ্যাম্পিয়ন দলকে বিপিএল-এ উন্নীত হওয়ার সুযোগ রাখা হয়, পরবর্তী মৌসুম হতে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ দলকে বিপিএল-এ উন্নীত হওয়ার নিয়ম করা হয়[৬]। ২০১২ ও ২০১৫ মৌসুমে কোন দল অবনমিত হয়নি, বাদবাকী মৌসুমগুলিতে পয়েন্ট তালিকার সর্বশেষ এক বা দুই দলকে নিচের স্তরের লীগে অবনমনের নিয়ম চালু রয়েছে। বাফুফে-এর অন্তর্ভুক্তিমুলক নীতির কারণে অংশগ্রহণকারী দলের সংখ্যা এখনো নির্দিষ্ট নয়। মৌসুমভেদে ২০১৯ পর্যন্ত বিসিএল-এ অংশগ্রহণকারী দলের সংখ্যা, বিপিএল-এ উন্নীত দলের সংখ্যা, অবনমিত দলের সংখ্যা নিম্নরূপঃ

মৌসুম অংশগ্রহণকারী দলের সংখ্যা বিপিএল-এ উন্নীত দলের সংখ্যা অবনমিত দলের সংখ্যা মন্তব্য
২০১২ [৭]

(চ্যাম্পিয়ন)

উদ্বোধনী মৌসুমে কক্স সিটি এফসি চ্যাম্পিয়ন[৪][৮] ও উত্তর বারিধারা ক্লাব রানার্স-আপ হয়। শুধু চ্যাম্পিয়ন দলকে বিপিএল-এ উন্নীত করা হয়। কক্স সিটি ফুটবল ক্লাব চ্যাম্পিয়ন হলে পরের মৌসুমে অর্থ সংকটের কারণে দল গঠন করে না পারায় বিপিএল খেলতে না চাইলে বাফুফে দলটিকে সব ধরনের প্রতিযোগিতা থেকে ৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে [৯] [১০]। এই মৌসুমে কোন দলকে অবনমিত করা করা হয়নি।
২০১৩

(চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ)[৬]

চট্টগ্রাম আবাহনী চ্যাম্পিয়ন ও উত্তর বারিধারা রানার্স-আপ হয়ে বিপিএল-এ উন্নীত হয়[১১]

ঢাকা ইউনাইটেড ঢাকা সিনিয়র ডিভিশন লীগ-এ অবনমিত হয়।

২০১৪ রহমতগঞ্জ এমএফএস চ্যাম্পিয়ন[১২] ও ফরাসগঞ্জ এসসি রানার্স-আপ হয়ে বিপিএল-এ উন্নীত হয়।

বাড্ডা জাগরণী ঢাকা সিনিয়র ডিভিশন লীগে অবনমিত হয়।

২০১৫* [১৩][১৪][১৫] উত্তর বারিধারা চ্যাম্পিয়ন[১৬] ও আরামবাগ এসসি রানার্স-আপ হয়ে বিপিএল-এ উন্নীত হয়।

ওয়ারী ক্লাবকে ঢাকা সিনিয়র ডিভিশন লীগে অবনমিত হয়[১৭]

২০১৬ ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব চ্যাম্পিয়ন ও সাইফ এসসি রানার্স-আপ হয়ে বিপিএল-এ উন্নীত হয়[১৮]। আর্থিক সংকটের কারণে দল গঠনে অপারগতা থাকায় ফকিরেরপুল বিপিএল খেলেনি[১৯][২০], ২০১৭ মৌসুমে দলটি পুনরায় বিসিএল-এ অংশ নেয়। সাইফ এস সি পরের মৌসুমে বিপিএল-এ অংশ নেয়।

চট্টগ্রাম মোহামেডান, চট্টগ্রাম প্রিমিয়ার লীগে অবনমিত হয়।

২০১৭ ১০ বসুন্ধরা কিংস চ্যাম্পিয়ন[২১] ও নোফেল এসসি রানার্স-আপ হয়ে বিপিএল-এ উন্নীত হয়[২২]

কারওয়ান বাজার প্রগতি সংঘ ঢাকা সিনিয়র ডিভিশন লীগে অবনমিত হয়।

২০১৮-১৯ ১১[৫]

(লীগ টেবিলের সর্বনিম্ন দুই দল)

বাংলাদেশ পুলিশ এফসি চ্যাম্পিয়ন ও উত্তর বারিধারা রানার্স-আপ হয়ে বিপিএল-এ উন্নীত হয়[২৩][২৪]

প্রথম বারের মত পয়েন্ট তালিকার সর্ব নিম্নের দুই দল- ফেনী সকার ক্লাব ও স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘ ঢাকা সিনিয়র ডিভিশন লীগে অবনমিত হয়।

*২০১৫ মৌসুমে দশটি দল অংশ নেয়ার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত আটটি দল অংশ নেয়[২৫]। যাত্রাবাড়ী ও বাসাবো তরুণ সংঘ লীগ থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেয়[১৩]

বিজয়ীদের তালিকা[সম্পাদনা]

এখন পর্যন্ত চ্যাম্পিয়নরা হল:[২৬][২৭][২৮]

মৌসুম ক্লাব খে ড্র হা গপ গবি গপা
২০১২ কক্সসিটি ১২ ১৪ ১১ ২০
২০১৩ চট্টগ্রাম আবাহনী ১৪ ২৮ ১১ ১৭ ৩০
২০১৪ রহমতগঞ্জ এমএফএস ১৮ ১৩ ৩৬ ২৮ ৪৪
২০১৫ উত্তর বারিধারা স্পোর্টিং ক্লাব ১৪ ১৮ ২৭
২০১৬ ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব ১৪ ১৫ ২৭
২০১৭ বসুন্ধরা কিংস ১৮ ১০ ২৩ ১৭ ৩৫
২০১৮-১৯ বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল ক্লাব ২০ ১১ ৩১ ১৩ ১৮ ৩৯

মোট চ্যাম্পিয়নশিপ[সম্পাদনা]

ক্লাব চ্যাম্পিয়নশিপের সংখ্যা
চট্টগ্রাম আবাহনী
কক্সসিটি
রহমতগঞ্জ এমএফএস
উত্তর বারিধারা এস সি
ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব
বসুন্ধরা কিংস
বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল ক্লাব

ক্লাব ও ভেন্যু[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
ঢাকা
ঢাকা
২০১৭ বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগের দলগুলোর অবস্থান

নিম্নলিখিত ১০টি ক্লাব ২০১৭ মৌসুমের সময় বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগে অংশ নেন।

এই মৌসুমে মোট ২টি মাঠে খেলা হয়। মাঠগুলি হল-

পৃষ্ঠপোষক[সম্পাদনা]

প্রথম মৌসুম হতে বর্তমান(২০১৯)অবধি বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশীপ লীগের পৃষ্ঠপোষকতা সংক্রান্ত তথ্যবলী নিম্নে দেয়া হলোঃ

সময় কাল স্পন্সরের নাম প্রতিষ্ঠানের ধরন মন্তব্য তথ্যসুত্র
২০১২-২০১৪ প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড ব্যাংক প্রথম তিন মৌসুমেই ব্যাংকটি পৃষ্ঠপোষকতা করে। প্রথম মৌসুমে প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড 'টাইটেল স্পন্সর' হিসেবে বাফুফেকে ২০ লাখ টাকা দেয়। ডেসটিনি গ্রুপ 'কো-স্পন্সর' হিসেবে ১২ লাখ টাকা দেয়। [৭][২৯]
২০১৪-২০১৫ মিনিস্টার ফ্রিজ ইলেক্ট্রনিক্স ব্র্যান্ড প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড এই মৌসুমে 'প্রেজেন্টিং স্পন্সর' ছিল। এছাড়া প্রগতি ইন্স্যুরেন্স, ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড, নভো এয়ার ও ট্রেজার সিকিউরিটিজ 'কো-স্পন্সর' ছিল। [৩০]
২০১৫-২০১৭ আর বি-মারসেল গ্রুপ মারসেল ইলেক্ট্রনিক্স ২০১৫-২০১৬ ও ২০১৭ মৌসুম পৃষ্ঠপোষকতা করে। [৩১][৩২][৩৩]
২০১৯-বর্তমান ইন্টারন্যাশনাল স্পোর্টস পার্টনার(আইএসপি) বিপণন সংস্থা মে, ২০১৯-এ প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে বাফুফে'র পাঁচ বছরের 'স্পন্সরশীপ' চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ী, প্রিমিয়ার লীগ এবং ঘরোয়া ফুটবলের অন্য প্রতিযোগিতাগুলোর সঙ্গে বিসিএল-এর স্বত্ব আইএসপি-কে দেয়া হয়। [৩৪][৩৫][৩৬]

সম্প্রচার ও টেলিভিশন স্বত্ব[সম্পাদনা]

মে, ২০১৯ হতে আইএসপি-কে বাফুফে বিপিএল, বিসিএল সহ ঘরোয়া প্রতিযোগিতার স্বত্ব প্রদান করে, সে অনুযায়ী আইএসপি-এর সম্প্রচার সহযোগী বাংলা টিভি বিপিএল-এর খেলা সম্প্রচার[৩৬] শুরু করলেও অদ্যাবধি বিসিএল-এর খেলা সম্প্রচার করেনি। ২০১৯ সালের পূর্ব মৌসুমের খেলাও অদ্যাবধি কোন টেলিভিশন চ্যানেল অথবা ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া প্রতিষ্ঠান সরাসরি সম্প্রচার করেনি। ২০১৯ সাল[৩৭] হতে বিসিএল-এর সকল ম্যাচ 'মাইকুজু' নামক একটি 'অনলাইন স্ট্রিমিং' সেবা প্রদানকারী প্লাটফর্মে সরাসরি সম্প্রচার করা হচ্ছে[৩৮]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Premier Bank BCL 2012-13 Bylaws"archive.bff.com.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩১ 
  2. "Bangladesh Championship League (BCL) | BFF"www.bff.com.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  3. "বি লীগের দ্বিতীয় স্তর চালু হচ্ছে"The Daily Sangram। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  4. "কক্স সিটির স্বপ্নযাত্রা"www.prothom-alo.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  5. "11 teams to participate in Bangladesh Championship League 2018-19"BFF (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  6. "বাফুফে-কে এএফসির পরামর্শ"Risingbd.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  7. "সোমবার থেকে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ"bangla.bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  8. "শীর্ষে কক্সসিটি"oldsite.dailyjanakantha.com। ২০১২-০৪-২০। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-১৬ 
  9. "একটি স্বপ্নের মৃত্যু"www.prothom-alo.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  10. BanglaNews24.com। "কক্স সিটি পাঁচ বছর ফুটবলে নিষিদ্ধ :: BanglaNews24.com mobile"banglanews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  11. "চ্যাম্পিয়ন চট্টগ্রাম আবাহনী"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  12. "রহমতগঞ্জ চ্যাম্পিয়ন"সমকাল। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  13. "পেশাদার ফুটবল লীগে পুলিশ"www.jugantor.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  14. "বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নস লিগের লোগো উন্মোচন | খেলাধুলা | The Daily Ittefaq"archive1.ittefaq.com.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  15. "শুরু হলো বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ | খেলাধুলা | The Daily Ittefaq"archive1.ittefaq.com.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১২ 
  16. jugantor.com। "উত্তর বারিধারা চ্যাম্পিয়ন | খেলা | Jugantor"jugantor.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  17. "বারিধারা-আরামবাগ প্রিমিয়ারে, ওয়ারী রেলিগেশনে"DailyInqilabOnline। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৩ 
  18. "ইয়ংমেন্স ক্লাব চ্যাম্পিয়ন | খেলার খবর | The Daily Ittefaq"archive1.ittefaq.com.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  19. "প্রিমিয়ারে খেলতে চায় না ফকিরেরপুল | কালের কণ্ঠ"Kalerkantho। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  20. "আর্থিক জটিলতায় বিপিএল খেলছে না ফকিরাপুল ইয়ংমেন্স"somoynews.tv। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  21. "চ্যাম্পিয়ন হয়েই প্রিমিয়ার লিগে বসুন্ধরা কিংস | banglatribune.com"Bangla Tribune। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  22. SOMOY TV (২০১৭-১১-১২)। "প্রিমিয়ার লিগ নিশ্চিত করা বসুন্ধরা কিংস এবং নোফেল স্পোর্টিং ক্লাবের" 
  23. "আবারও প্রিমিয়ার ফুটবলে পুলিশ || খেলা"জনকন্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  24. "Bangladesh Police lift BCL trophy, Uttar Baridhara runners up"BFF (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩০ 
  25. webdesk@somoynews.tv। "শুরু হচ্ছে মিনিস্টার ফ্রিজ বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ"somoynews.tv। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৩ 
  26. "BCL 2013 points table"। BFF। ৩০ মে ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুন ২০১৩ 
  27. "BCL 2014 points table"। BFF। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুন ২০১৪ 
  28. "BCL 2018-19 Points Table"BFF (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩১ 
  29. "Premier Bank remain with BCL"Dhaka Tribune। ২০১৪-০২-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১২ 
  30. News, United। "Bangladesh Championship League logo unveiled"unb.com.bd (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১২ 
  31. Reporter, Sports (২০১৬-১০-১০)। "চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের টাইটেল স্পন্সর মার্সেল"Best Bioscope। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১২ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  32. "বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নস লিগের লোগো উন্মোচন | খেলাধুলা | The Daily Ittefaq"archive1.ittefaq.com.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১২ 
  33. "MARCEL becomes title sponsor of BCL 2017"BFF (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১২ 
  34. "BFF inks deal with ISP"Dhaka Tribune। ২০১৯-০৫-০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১২ 
  35. "প্রিমিয়ার ফুটবলের টাইটেল স্পন্সর টিভিএস"মানবজমিন। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১২ 
  36. "Deal inked with ISP, new BPL title sponsor TVS"BFF (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১২ 
  37. mycujoo.tv। "Bangladesh Championship League 2018-19"mycujoo.tv (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩১ 
  38. "Live Streaming: BFF"BFF (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]