নবাব সিরাজউদ্দৌল্লা (চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নবাব সিরাজউদ্দৌল্লা
নবাব সিরাজউদ্দৌল্লা চলচ্চিত্রের পোস্টার.jpg
ডিভিডি কভার
পরিচালকখান আতাউর রহমান
প্রযোজকমাহবুবা রহমান
চিত্রনাট্যকারখান আতাউর রহমান
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারখান আতাউর রহমান
চিত্রগ্রাহকবেবী ইসলাম
সম্পাদকবশীর হোসেন
প্রযোজনা
কোম্পানি
সেভেন আর্টস
মুক্তি
  • ১২ জানুয়ারি ১৯৬৭ (1967-01-12)
দৈর্ঘ্য১৩৩ মিনিট
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা ভাষা

নবাব সিরাজউদ্দৌল্লা হল ১৯৬৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলাদেশী ঐতিহাসিক নাট্যধর্মী চলচ্চিত্র। এটি বাংলাদেশের পটভূমিতে নির্মিত প্রথম ঐতিহাসিক গল্পের চলচ্চিত্র। চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেন বাংলাদেশের বিখ্যাত চলচ্চিত্রকার, কাহিনীকার ও সঙ্গীত পরিচালক খান আতাউর রহমান। ছবিটিতে নবাব সিরাজউদ্দৌল্লা চরিত্রে অভিনয় করেছেন আনোয়ার হোসেন। এছাড়া অন্যান্য ভূমিকায় অভিনয় করেন আনোয়ারা, আতিয়া চৌধুরী, এবং খান আতাউর রহমান।

ছবিটি মুক্তির পর অভিনেতা আনোয়ার হোসেন বাংলাদেশের চলচ্চিত্র ভূবনে নবাব সিরাজউদ্দৌলা ও চলচ্চিত্রপ্রেমীদের বাংলার মুকুটহীন নবাব খ্যাতি লাভ করেন।[১]

কাহিনী সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

শ্রেষ্ঠাংশে[সম্পাদনা]

নির্মাণ[সম্পাদনা]

কলাকুশলীবৃন্দ[সম্পাদনা]

  • প্রযোজক - মাহবুবা রাহমান
  • পরিচালক - খান আতাউর রহমান
  • চিত্রনাট্য - খান আতাউর রহমান
  • চিত্র গ্রহণ - বেবী ইসলাম
  • চিত্র সম্পাদক - বশীর হসেন
  • শিল্প নির্দেশক - আবদুস সবুর
  • শব্দ গ্রহণ - মতিউর রাহমান
  • শব্দ সংযোজন - এম এ জহুর
  • নৃত্য পরিচালক - রাবেয়া মনসুর

সংগীত[সম্পাদনা]

ছবিটির সঙ্গীত পরিচালনা করেন খান আতাউর রহমান। গানের কথা লিখেছেন অক্ষয় মৈত্র, রমেশচন্দ্র মজুমদার, শচীন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত, মোঃ নেজামতউল্লাহ, ও সিকান্দার আবু জাফর। এই চলচ্চিত্রের মাধ্যমে ঢাকার চলচ্চিত্রে প্রথম বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের গান ব্যবহার করা হয়। খান আতাউর রহমান এই চলচ্চিত্রে নজরুলের দুটি বিখ্যাত গান ‘পথ হারা পাখি কেঁদে ফিরে একা’ ফেরদৌসী রহমানের কণ্ঠে (বাঈজী আলেয়ার ঠোঁটে) এবং আব্দুল আলীমের কণ্ঠে গাওয়া (মাঝির ঠোঁটে) ‘একূল ভাঙে ওকূল গড়ে এইতো নদীর খেলা’ব্যবহার করেছিলেন।[২]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. http://www.jjdin.com/?view=details&type=main&cat_id=1&menu_id=63 নবাবী যুগের অবসান
  2. "চলচ্চিত্রে নজরুলের গান || অনুপম হায়াৎ"Risingbd.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-১১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]