জিমি ওয়েলস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
জিমি ওয়েলস
Wikimania 2016 - Press conference with Jimmy Wales and Katherine Maher 01 (cropped).jpg
উইকিমিডিয়া কনফারেন্স ২০১৩ বোর্ড সভায় ওয়েলস
জন্ম জিমি ডোনাল ওয়েলস
(১৯৬৬-০৮-১০) ১০ আগস্ট ১৯৬৬ (বয়স ৫২)
হান্টসভিল, আলাবামা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
বাসস্থান লন্ডন, ইংল্যান্ড, যুক্তরাজ্য[১]
জাতীয়তা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
অন্য নাম জিম্বো
নাগরিকত্ব মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
শিক্ষা প্রতিষ্ঠান
পেশা ইন্টারনেট উদ্যোক্তা, পূর্বে আর্থিক ব্যবসায়ী
যে জন্য পরিচিত উইকিপিডিয়ার সহ-প্রতিষ্ঠাতা
উপাধি
উত্তরসূরী ফ্লোরেন্স ডেভোয়ার্ড
দাম্পত্য সঙ্গী
পুরস্কার নিচে দেখুন
ওয়েবসাইট jimmywales.com
স্বাক্ষর
Jimmy Wales signature.svg

জিমি ডোনাল "জিম্বো" ওয়েলস (ইংরেজি: Jimmy Donal "Jimbo" Wales, /ˈɪmi ˈdnəl ˈwlz/; জন্ম আগস্ট ৭, ১৯৬৬[২]) একজন আমেরিকান ইন্টারনেট উদ্যোক্তা, যিনি অনলাইন অলাভজনক বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়ার সহ-প্রতিষ্ঠাতা এবং অলাভজনক উইকিয়া ওয়েব হোস্টিং কোম্পানীর প্রবর্তক হিসাবে পরিচিত।

জিমি ওয়েলসের জন্ম মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আলবামার হান্টসভিলে। তিনি র‌্যানডলফ স্কুল নামে একটি প্রাক-বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলে পড়াশোনা করেন। পরে তিনি স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন "ফিনান্স" শাখায়। স্নাতক স্কুলে থাকাকালীন তিনি দুটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়িয়েওছিলেন। পরে তিনি ফিনান্স ক্ষেত্রে চাকরি গ্রহণ করেন এবং বেশ কয়েক বছর একটি শিকাগো ফিউচারস ও অপশনস ফার্মে রিসার্চ ডিরেক্টরের পদ অলংকৃত করেন। ১৯৯৬ সালে তিনি দু-জন সহকারীর সহায়তায় বোমিস নামে একটি পুরুষদের বিনোদন ও প্রাপ্তবয়স্ক বিষয়ভিত্তিক ওয়েবপোর্টাল প্রতিষ্ঠা করেন। এই ওয়েবসাইটটি থেকেই পরবর্তীকালে উদ্ভূত বিশ্বকোষ নুপিডিয়া (২০০০-২০০৩) এবং তার উত্তরসূরি উইকিপিডিয়ার প্রাথমিক অর্থসংস্থান হয়েছিল।

২০০১ সালে ল্যারি স্যাঙ্গার ও অন্যান্যদের সঙ্গে একযোগে তিনি উইকিপিডিয়া মুক্ত বিশ্বকোষ প্রতিষ্ঠা করেন। এই বিশ্বকোষের ব্যাপ্তি ও জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পেলে ওয়েলস হয়ে ওঠেন প্রকল্পটির পৃষ্ঠপোষক ও মুখপাত্র। তাঁকে ঐতিহাসিকভাবে উইকিপিডিয়ার সহ-প্রতিষ্ঠাতা বলা হলেও, তিনি নিজেকে উইকিপিডিয়ার একমাত্র প্রতিষ্ঠাতা ঘোষণা করে "সহ-" পদমর্যাদাটি অস্বীকার করেন।[৩][৪] ওয়েলস উইকিপিডিয়া-পরিচালনাকারী উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন নামে একটি অ-বাণিজ্যমুখী দাতব্য সংস্থার অছিপরিষদের সদস্য। তিনি পরিষদ-নিয়োজিত "সম্প্রদায়-প্রতিষ্ঠাতা" বা "কমিউনিটি ফাউন্ডার"-এর পদটিতে বৃত রয়েছেন। ২০০৪ সালে, তিনি ও অপর উইকিমিডিয়া অছি অ্যাঞ্জেলা বিজলে মিলে উইকিয়া নামে একটি বেসরকারি ওয়েব-হোস্টিং সার্ভিস প্রতিষ্ঠা করেন।

ওয়েলস দু-বার বিবাহ করেছেন। তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রী ক্রিস্টিনার গর্ভে তাঁর এক কন্যা আছে। ওয়েলস নিজেকে অবজেক্টিভিস্ট এবং কিছু পরিমাণে উদারনীতিবাদী মনে করেন। তাঁর সৃষ্ট উইকিপিডিয়া বিশ্বের বৃহত্তম বিশ্বকোষে পরিণত হলে টাইম পত্রিকা তাদের ২০০৬ সালের বিশ্বের সর্বাপেক্ষা প্রভাবশালী ব্যক্তিবর্গের নামের তালিকায় তাঁর নাম অন্তর্ভুক্ত করে।[৫]

জীবনী[সম্পাদনা]

বাল্যকাল ও শিক্ষা[সম্পাদনা]

ওয়েলস ৭ আগস্ট, ১৯৬৬ সালে হান্টসভেল, আলাবামাতে জন্মগ্রহণ করেন।[২][৬]তার বাবা, জিমি,[৭] পেশায় ছিলেন মুদি দোকানের পরিচালক, মা ডরিস অ্যান এবং তার নানী এর্মা একটি এক কক্ষ-বিশিষ্ট ঐতিহ্যবাহী ছোট প্রাইভেট স্কুল পরিচালনা করতেন,[৮][৯] যেখানে জিমি এবং তার তিন ভাইবোন তাদের প্রাথমিক শিক্ষা সম্পন্ন করেছিলেন।[৮][১০] শিশু হিসেবে জিমি ছিলেন বুদ্ধিমান, কৌতূহলী এবং অধ্যবসায়ী।[৫]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

মিডিয়ায় প্রকাশ ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

বাংলাদেশে জিমি ওয়েলস[সম্পাদনা]

২০১৫ সালের ২৬শে ফেব্রুয়ারি উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ ও গ্রামীনফোনের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রিত হয়ে ১২ ঘন্টার ঝটিকা সফরে বাংলাদেশ ভ্রমণ করেন জিমি ওয়েলস। রাজধানী ঢাকাস্থ হোটেল রেডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে তিনি উইকিপিডিপয়ার গুরুত্ব তুলে ধরে বক্তৃতা করেন, উইকিপিডিয়া গ্রামীনফোন আয়োজিত সম্পাদনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ী দশজন উইকিপিডিয়ানের হাতে পুরষ্কার তুলে দেন এবং সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে আয়োজিত বিষয়ভিত্তিক আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

বিতর্ক ও সমালোচনা[সম্পাদনা]

ব্যক্তিগত দর্শন[সম্পাদনা]

চিত্রসমূহ[সম্পাদনা]

প্রকাশিত কাজ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Hough, Stephen (মার্চ ১১, ২০১২)। "Jimmy Wales: Wikipedia chief to advise Whitehall on policy"The Daily Telegraph। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০১২ 
  2. * "Jimmy Wales"। Monroe, Florida's County Clerk website (Marriage License Database)। সংগ্রহের তারিখ মে ২১, ২০০৮ 
    • editor, Clifford Thompson... (February 28, 2007)। Current Biography Yearbook। H. W. Wilson। আইএসবিএন 978-0-8242-1074-8  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |year= / |date= mismatch (সাহায্য)
    • Who's Who In America: Diamond Edition (60 সংস্করণ)। Marquis Who's Who। অক্টোবর ১২, ২০০৫। আইএসবিএন 978-0-8379-6990-9 
  3. Bergstein, Brian (মার্চ ২৫, ২০০৭)। "Sanger says he co-started Wikipedia"MSNBC। Associated Press। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২৬, ২০০৭The nascent Web encyclopedia Citizendium springs from Larry Sanger, a philosophy PhD who counts himself as a co-founder of Wikipedia, the site he now hopes to usurp. The claim does not seem particularly controversial—Sanger has long been cited as a co-founder. Yet the other founder, Jimmy Wales, is not happy about it. 
  4. Olson, Parmy (অক্টোবর ১৮, ২০০৬)। "A New Kid On The Wiki Block"Forbes। ডিসেম্বর ৬, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২৮, ২০০৯ 
  5. "Brain scan: The free-knowledge fundamentalist"The Economist। জুন ৫, ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ জুন ৯, ২০০৮ 
  6. Rogoway, Mike (জুলাই ২৭, ২০০৭)। "Wikipedia & its founder disagree on his birth date"Silicon Forest। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ৩১, ২০০৮ 
  7. Kazek, Kelly (আগস্ট ১১, ২০০৬)। "Geek to chic: Wikipedia founder a celebrity"The News CourierDoris Wales's husband, Jimmy, wasn't sure what she was thinking when she bought a World Book Encyclopedia set from a traveling salesman in 1968. 
  8. Pink, Daniel H. (মার্চ ১৩, ২০০৫)। "The Book Stops Here"Wired13 (3)। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ৩১, ২০০৮ 
  9. "Jimmy Wales"Encyclopedia of Alabama। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৮, ২০১৫ 
  10. Mangu-Ward, Katherine (জুন ২০০৭)। "Wikipedia and beyond: Jimmy Wales's sprawling vision"Reason39 (2)। পৃষ্ঠা 21। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ৩১, ২০০৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]