বিষয়বস্তুতে চলুন

ছাগলাদহ ইউনিয়ন

স্থানাঙ্ক: ২২°৫৩′২.০″ উত্তর ৮৯°৪০′৪৩.০″ পূর্ব / ২২.৮৮৩৮৮৯° উত্তর ৮৯.৬৭৮৬১১° পূর্ব / 22.883889; 89.678611
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ছাগলাদহ ইউনিয়ন
ইউনিয়ন
ছাগলাদহ ইউনিয়ন খুলনা বিভাগ-এ অবস্থিত
ছাগলাদহ ইউনিয়ন
ছাগলাদহ ইউনিয়ন
ছাগলাদহ ইউনিয়ন বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
ছাগলাদহ ইউনিয়ন
ছাগলাদহ ইউনিয়ন
বাংলাদেশে ছাগলাদহ ইউনিয়নের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২২°৫৩′২.০″ উত্তর ৮৯°৪০′৪৩.০″ পূর্ব / ২২.৮৮৩৮৮৯° উত্তর ৮৯.৬৭৮৬১১° পূর্ব / 22.883889; 89.678611 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশবাংলাদেশ
বিভাগখুলনা বিভাগ
জেলাখুলনা জেলা
উপজেলাতেরখাদা উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
ওয়েবসাইটদাপ্তরিক ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
মানচিত্র
মানচিত্র

ছাগলাদহ ইউনিয়ন বাংলাদেশের খুলনা জেলার তেরখাদা উপজেলার অন্তর্গত একটি ইউনিয়ন[১]

অবস্থান ও আয়তন[সম্পাদনা]

৩নং ছাগলাদহ ইউনিয়নের আয়তন ২৪.৭০ (বর্গ কিঃ মিঃ) এবং লোকসংখ্যা ৩৭,০০০ জন (প্রায়)। ইউনিয়নে গ্রামের সংখ্যা ২২ টি এবং মৌজার সংখ্যা ১১ টি।

নামকরণ[সম্পাদনা]

আঠারো বাকী নদী তীরের ছাগলাদহ বাজারের পাশে বুড়ি মায়ের গাছতলায় এক ব্যবসায়ী মানত করে যে তার ব্যবসায় লাভ হলে একটি ছাগল দান করবেন। কিন্ত তিনি সেই ছাগল দান করেন নাই যার পরিপ্রেক্ষিতে তার নৌকা ছাগল নিয়ে হাটে যাওয়ার সময় এই বাজারের সন্নিকটে আসা মাত্র নৌকাটি ডুবে যায় এবং সমস্ত ছাগল মারা যায় বা দহন হয়ে যায় যাহার কারণে এই বাজারের নাম রাখা হয় ছাগলাদহ বাজার আর এই বাজার ছিল এই এলাকার সর্ববৃহৎ বাজার। এই বাজারের নাম অনুসারে ইউনিয়নের নাম করন করা হয় ছাগলাদহ ইউনিয়ন।

নদনদী[সম্পাদনা]

ভরাট হয়ে যাওয়া আঠারোোবাকি নদী ও চিত্রা নদী।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয়
  • ছাগলাদাহ আদিল উদ্দিন স্মরনীক বহুমূখী মাধ্যমিক বিদ্যালয়[২]
মাদ্রাসা

ছাগলাদহ ইউনিয়ন পরিষদে ১টি আলিয়া, ৬টি কওয়ামী, ২টি মহিলা মাদ্রসা আছে।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ইউনিয়ন সমূহ - তেরখাদা উপজেলা - জাতীয় তথ্য বাতায়ন"। ১৮ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০২১ 
  2. "উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয়"জাতীয় তথ্য বাতায়ন। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ৩ অক্টোবর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ অক্টোবর ২০১৮ 
  3. "মাদ্রাসা"জাতীয় তথ্য বাতায়ন। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ৩ অক্টোবর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ অক্টোবর ২০১৮