করণ কারক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

'করণ' শব্দের অর্থ: যন্ত্র, সহায়ক বা উপায়। ক্রিয়া সম্পাদনের যন্ত্র, উপকরণ বা সহায়ককেই করণ কারক বলা হয়।[১]

বাক্যস্থিত ক্রিয়াপদের সঙ্গে 'কিসের দ্বারা' বা 'কী উপায়ে' প্রশ্ন করলে যে উত্তরটি পাওয়া যায়, তা-ই করণ কারক। যেমন-
নীরা কলম দিয়ে লেখে। (উপকরণ - কলম)
'জগতে কীর্তিমান হয় সাধনায়।' (উপায় - সাধনা)

করণ কারকে বিভিন্ন বিভক্তির ব্যবহার[সম্পাদনা]

(ক) প্রথমা বা শূণ্য বা অ বিভক্তি ছাত্ররা বল খেলে। (অকর্মক ক্রিয়া)
ডাকাতেরা গৃহস্বামীর মাথায় লাঠি মেরেছে।
কৃষক লাঙ্গল চষছে।
(খ) তৃতীয়া বা দ্বারা বিভক্তি লাঙল দ্বারা জমি চাষ করা হয়।
আমরা কান দ্বারা শুনি।
দিয়া বিভক্তি মন দিয়া কর সবে বিদ্যা উপার্জন।
(গ) পঞ্চমী বা থেকে বিভক্তি এ সন্তান হতে দেশের মুখ উজ্জ্বল হবে।
(ঘ) ষষ্ঠী বা র বিভক্তি তার মাথায় লাঠির আঘাত করো না।
ইট-পাথরের বাড়ি বেশ শক্ত।
ইটের বাড়ি সহজে ভাঙে না।
কাচের জিনিস সহজে ভাঙে।
জলের লিখন থাকে না।
(ঙ) সপ্তমী বা এ বিভক্তি ফুলে ফুলে ঘর ভরেছে।
আকাশ মেঘে ঢাকা।
শিকারী বিড়াল গোঁফে চেনা যায়।
জ্ঞানে বিমল আনন্দ লাভ হয়।
কলমে ভালো লেখা হয়/ বেশ লেখা যায়।
নতুন ধান্যে হবে নবান্ন।
হাতে কাজ কর।
তে বিভক্তি 'এত শঠতা, এত যে ব্যথা,
তবু যেন তা মধুতে মাখা।' - নজরুল
লোকটা জাতিতে বৈষ্ণব।
য় বিভক্তি চেষ্টায় সব হয়।
সুতায় কাপড় হয় না।
নিজের চেষ্টায় বড় হও।
জগতে কীর্তিমান হয় সাধনায়
বন্যায় দেশ প্লাবিত হলো।
কলমটি সোনায় মোড়া।[২]
টাকায় কি না হয়।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. বাংলা ভাষার ব্যাকরণ, নবম-দশম শ্রেণি, শিক্ষাবর্ষ ২০১৬, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড, ঢাকা, বাংলাদেশ
  2. বাংলা ব্যাকরণ ও নির্মিতি, সপ্তম শ্রেণি, ২০১৬ শিক্ষাবর্ষ, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড, ঢাকা, বাংলাদেশ