আনন্দমেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আনন্দমেলা
আনন্দমেলা লোগো.jpg
আনন্দমেলা শারদীয়া ১৪১৬ সালের প্রচ্ছদ
আনন্দমেলা শারদীয়া ১৪১৬ সালের প্রচ্ছদ
সম্পাদকসিজার বাগচী
সাবেক সম্পাদকঅশোক কুমার সরকার, নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী, দেবাশীষ বন্দ্যোপাধ্যায়, পৌলমী সেনগুপ্ত
প্রকাশনা সময়-দূরত্বপাক্ষিক
প্রকাশকএবিপি লিমিটেড
প্রথম প্রকাশমার্চ ১৯৭৫
দেশ ভারত
ভিত্তিকলকাতা
ভাষাবাংলা
ওয়েবসাইটwww.anandamela.in

আনন্দমেলা ভারতের কলকাতা থেকে এবিপি লিমিটেড (আনন্দ বাজার পত্রিকা গ্রুপ) দ্বারা প্রকাশিত বাংলা ভাষায় একটি শিশু পত্রিকা। এছাড়াও, আনন্দবাজার পত্রিকার রবিবারের ইশুতে, বাংলা, দৈনিক সংবাদপত্র, একটি রঙিন পাতা বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়, যার নাম আনন্দমেলা।

ইতিহাস এবং পার্শ্বচিত্র[সম্পাদনা]

আনন্দমেলার প্রথম সংখ্যা ১৯৭৫ সালে হাজির। পত্রিকাটি একটি পাক্ষিক ভিত্তিতে প্রকাশ করা হয়।[১] কবি নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী, অশোক কুমার সরকার, এবং দেবাশিস বন্দোপাধ্যায় সহ[২]  বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ সম্পাদনা করেছেন। বর্তমান সম্পাদক পৌলমী সেনগুপ্ত। আনন্দমেলা, পুরনো বাঙালি শিশু ম্যাগাজিনগুলির মধ্যে অন্যতম এবং প্রতি মাসে দুইবার প্রকাশিত হয়।

অনেক লেখক আনন্দমেলার মাধ্যমে শিশুদের জন্য লেখা শুরু করেন। উদাহরণস্বরূপ, লেখক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায় মনোজদের অদ্ভুত বাড়ি লেখার পরে একজন শিশুসাহিত্যিক হিসাবে খ্যাত হয়ে উঠেছিলেন, যা আনন্দমেলায় একটি ধারাবাহিক উপন্যাস হিসাবে প্রকাশিত হয়েছিল। ১৯ জুন, ২০০৪ সালে, আনন্দমেলা দুটি ভিন্ন ম্যাগাজিনে বিভক্ত হয়, যথা- প্রকৃত আনন্দমেলা (৮-১৪ বছর বয়সী বাচ্চাদের জন্য) এবং উনিশ কুড়ি (১৫ থেকে ২৫ বছর বয়সী কিশোর-কিশোরীদের জন্য)। উভয় পত্রিকা একই সম্পাদক এবং সম্পাদকীয় দলের দ্বারা সম্পাদিত হয়।

জনপ্রিয় সিরিজ, উপন্যাস এবং গল্প[সম্পাদনা]

মূল লেখকগণ[সম্পাদনা]

মূল শিল্পী[সম্পাদনা]

শিল্প ও শিল্পীরা সবসময় আনন্দমেলার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ ছিল, এইভাবে কিছু স্মরণীয় শৈল্পিক প্রতিভার জন্ম দেয়। বিপুল সংখ্যক শিল্পী যারা আনন্দমেলের পৃষ্ঠাগুলি এবং কভারগুলি তুলে ধরেছেন তাদের মধ্যে রয়েছে:

  • কুনাল বর্মণ
  • ওঙ্কারনাথ ভট্টাচার্য
  • শুভাপ্রসন্ন ভট্টাচার্য
  • কৃষ্ণেন্দু চাকী
  • অভিজিৎ চট্টোপাধ্যায়
  • সুব্রত চৌধুরী
  • বিমল দাস
  • সুমন দাস
  • দেবাশীষ দেব
  • সুব্রত গঙ্গোপাধ্যায়
  • প্রত্যয়ভাস্বর জানা
  • সুধীর মৈত্র
  • রৌদ্র মিত্র
  • অহিভূষণ মালিক
  • প্রসেনজিৎ নাথ
  • সত্যজিৎ রায়
  • অনুপ রায়
  • বৈশাখী সরকার
  • সমীর সরকার
  • নির্মলেন্দু মন্ডল
  • অমিতাভ চন্দ্র
  • সুব্রত চৌধুরী
  • শুভম দে সরকার
  • পিয়ালী বালা
  • বৈশালী সরকার
  • মহেশ্বর মন্ডল
  • সুযোগ বন্দ্যোপাধ্যায়
  • বিজন কর্মকার
  • প্রীতম দাশ

বিশেষ সংখ্যা (পূজা সংখ্যা)[সম্পাদনা]

অক্টোবরে, বাঙালির উৎসবমুখর মাস, আনন্দমেলা প্রায় ৪০০ পৃষ্ঠার একটি বিশেষ আকারে আসে, যার মধ্যে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের নতুন কাহিনী থ্রিলার সিরিজ কাকাবাবুর নতুন উপন্যাস, পাশাপাশি গল্প বা উপন্যাসের উপর ভিত্তি করে পূর্ণ দৈর্ঘ্যের ফেলুদা কমিক, যা অস্কার-বিজয়ী পরিচালক সত্যজিৎ রায় রচিত ও অভিজিৎ চট্টোপাধ্যায় দ্বারা চিত্রিত। এই বিশেষ সংখ্যাটিতে থাকে পাঁচ থেকে ছয়টি পূর্ণ দৈর্ঘ্যের সম্পূর্ণ উপন্যাস, কয়েকটি ছোট গল্প, ফিচার এবং তিনটি সম্পূর্ণ কমিক, যেগুলি প্রায় ৬০ টি পৃষ্ঠা পর্যন্ত বিস্তৃত থাকে।

যদিও আনন্দমেলার পাক্ষিক নিয়মিত সংখ্যা প্রকাশিত হওয়ার অনেক পরে শুরু হয় পূজা সংখ্যা, ১৯৭১ সালে। এর মূল্য ছিল ২.০০ টাকা এবং এর মধ্যে কোন কার্টুন অন্তর্ভুক্ত ছিল না। সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় হলেন একমাত্র লেখক, যাঁর লেখা পত্রিকার শুরু থেকেই আনন্দমেলার প্রতিটি পূজা সংখ্যাতে উপস্থিত ছিল।

অন্যান্য কাজকর্ম[সম্পাদনা]

আনন্দমেলা ক্লাব অর্থায়নের ব্যবস্থা রয়েছে যা শিশুদের জন্য সারা বছর বিভিন্ন প্রোগ্রাম, প্রতিযোগিতা এবং কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে।

সমালোচনা[সম্পাদনা]

বিদেশী কমিক্সের উপর তাদের নির্ভরশীলতার জন্য অতীতে আনন্দমেলার সমালোচনা করা হয়েছে। পরে পৌলমী সেনগুপ্ত সরকার সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন, বাংলা সাহিত্যের উপর ভিত্তি করে মূল কমেডি প্রবর্তন করা হয় এবং সমস্ত বিদেশী কমিকস সরান হয়, দ্য অ্যাডভেঞ্চারস অফ টিনটিন, যা ছিল আনন্দমেলার হলমার্ক এবং ফ্ল্যাশপ্যাশ ব্র্যান্ড।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

  • উনিশ কুড়ি, আনন্দমেলা'র ভগ্নি প্রকাশন

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "End of an era"The Hindu। ৫ অক্টোবর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২ আগস্ট ২০১৫ 
  2. Kunal Chakrabarti; Shubhra Chakrabarti (২২ আগস্ট ২০১৩)। Historical Dictionary of the Bengalis। Scarecrow Press। পৃষ্ঠা 121। আইএসবিএন 978-0-8108-8024-5 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]