গোগোল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গোগোল
গোয়েন্দা গোগোল.jpg
গোগোল সমগ্র-এর প্রচ্ছদ (প্রকাশক: আনন্দ পাবলিশার্স)
প্রথম উপস্থিতিইঁদুরের খুটখুট
শেষ উপস্থিতিটেলিফোনে আড়িপাতার বিপদ
স্রষ্টাসমরেশ বসু
তথ্য
ডাকনামগোগোল
লিঙ্গপুরুষ
পদবিগোগোল
পরিবারমা, বাবা
জাতীয়তাভারতীয়
বাসস্থানকলকাতা


গোগোল একটি কাল্পনিক শিশু-বালক গোয়েন্দা চরিত্র যার স্রষ্টা সাহিত্যিক সমরেশ বসু। গোগোলের কাহিনী বাঙালী কিশোরদের নিকট অতীব জনপ্রিয়। তার ভাল নাম গোগোল চ্যাটার্জী।

চরিত্র[সম্পাদনা]

গোগোল একটি কল্পনাবিলাসী শিশু বা বালক চরিত্র যে কলকাতায় থাকে। ফ্ল্যাটবাড়িতে নি:সঙ্গ এই গোগোলের প্রধান বৈশিষ্ট্য তার দুর্লঙ্ঘ কৌতুহল। এই কৌতুহলের ফলে সে ডেকে আনে নানা বিপদ, আবার বুদ্ধিবলে সেখান থেকে বেরিয়েও আসে। রহস্যের সমাধান করে। তার বাবা সমীরেশ চ্যাটার্জী বড় চাকুরে। তিনি রাশিয়ান সাহিত্যিক নিকোলাই গোগোলের ভক্ত হওয়ায় ছেলের নাম রাখেন গোগোল। যদিও গোগোলের স্রষ্টা সমরেশ বসু ওরফে কালকূট অমৃত কুম্ভের সন্ধানে লেখার সময় নামটি পান। কুম্ভমেলায় গিয়ে যার বাড়িতে অতিথি হন লেখক তার পুত্রের নাম ছিল গোগোল। ছোট্ট গোগোলের মা সুনীতি দেবী ও বাড়ির পরিচারক বঙ্কিমদার কড়া শাসনের মধ্যেও গোগোল নিজের গোয়েন্দাগিরি চালিয়ে যায়। সে এডভেঞ্চার প্রিয়। বহু ক্ষেত্রে সে মা বাবার সাথে বাইরে বেড়াতে গিয়েও অযাচিতভাবে রহস্যে জড়িয়ে পড়েছে। অনেক সময় খুনে, অপরাধীদের হাতে বন্দী হয়ে মৃত্যুর মুখোমুখি পর্যন্ত হতে হয়েছে তাকে। রহস্যভেদের কাজে তাকে প্রায়ই সাহায্য করেন নৈহাটির বিখ্যাত গোয়েন্দা অশোক ঠাকুর। বন্ধু ও আত্মীয় মহলে সে ক্ষুদে গোয়েন্দা নামে পরিচিত।[১]

গল্প ও উপন্যাস[সম্পাদনা]

গোগোলের অনেকগুলি ছোটগল্প ও উপন্যাস প্রকাশিত হয়েছে। প্রথম গল্প 'ইঁদুরের খুটখুট'। এছাড়া চোরা হাতিশিকারী, মহিষমর্দিনী উদ্ধার, গোগোলের রায়রাজা উদ্ধার, জোনাকি ভুতের বাড়ি, সোনালী পাড়ের রহস্য, আয়না নিয়ে খেলতে খেলতে, দুর্গের গড়খাই এর ঘটনা, পশ্চিমের ব্যালকনি থেকে, হারানো বুদ্ধগুপ্তি ইত্যাদি অনেক ছোটগল্প পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। উপন্যাসগুলির মধ্যে রয়েছে গোগোল কোথায়, ভুল বাড়িতে ঢুকে, শিমুলগড়ের খুনে ভুত, সেই গাড়ির খোঁজে, বিদেশী গাড়িতে বিপদ, বন্ধ ঘরের আওয়াজ, জঙ্গলমহলে গোগোল, গোগোল চিক্কুস নাগাল্যাণ্ডে ইত্যাদি।

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

গোগোলের কয়েকটি কাহিনী নিয়ে এযাবৎ দুটি চলচ্চিত্র নির্মিত হয়েছে। গোগোলের কীর্তিগোয়েন্দা গোগোল। গোগোলের চরিত্রে শিশুশিল্পী অহিজিত ঘোষ এবং গোয়েন্দা অশোক ঠাকুরের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত[২][৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. সমরেশ বসু (১৩৯৪ বঙ্গাব্দ)। গোগোল অমনিবাস। কলকাতা: জগদ্ধাত্রী পাবলিশার্স। পৃষ্ঠা ৫।  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  2. "এ বার আসছে গোগোল"। আনন্দবাজার পত্রিকা। ৯ জুন ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মার্চ ২০১৭ 
  3. "গোয়েন্দা গোগোল নয়, এবার গোগোলের কীর্তি"। কলকাতা ২৪*৭। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মার্চ ২০১৭