গোয়া

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
গোয়া

गोंय

—  অঙ্গরাজ্য  —
তে গোয়া এর অবস্থান
স্থানাঙ্ক ১৫°২৯′৩৫″ উত্তর ৭৩°৪৯′০৫″ পূর্ব / ১৫.৪৯৩° উত্তর ৭৩.৮১৮° পূর্ব / 15.493; 73.818স্থানাঙ্ক: ১৫°২৯′৩৫″ উত্তর ৭৩°৪৯′০৫″ পূর্ব / ১৫.৪৯৩° উত্তর ৭৩.৮১৮° পূর্ব / 15.493; 73.818
দেশ ভারত
State গোয়া
জেলাসমূহ
Established ৩০শে মে, ১৯৮৭
রাজধানী পণজী
বৃহত্তম নগরী ভাস্কো দা গামা
গভর্নর শিবিন্দার সিং সিধু
মুখ্যমন্ত্রী দিগম্বর কামাত
আইন - সভা (আসন) এককক্ষবিশিষ্ট (৪০)
জনসংখ্যা

ঘনত্ব

১৪,০০,০০০ (২৫তম)

৩৬৩ /কিমি (৯৪০ /বর্গমাইল)

অফিসিয়াল ভাষাসমূহ কোঙ্কণী
সময় অঞ্চল আইএসটি (ইউটিসি+৫:৩০)
আয়তন ৩,৭০২ বর্গকিলোমিটার (১,৪২৯ মা) (২৮তম)
আইএসও ৩১৬৬-২ IN-GA
ওয়েবসাইট goagovt.nic.in
Seal of গোয়া

গোয়া (কোঙ্কণী ভাষায়: এই শব্দ সম্পর্কে गोंय  গঁয়্‌ আ-ধ্ব-ব: [ɡɔ̃j]) আয়তনের হিসাবে ভারতের ক্ষুদ্রতম এবং জনসংখ্যার হিসেবে ভারতের চতুর্থ ক্ষুদ্রতম অঙ্গরাজ্য। এটি ভারতের পশ্চিম উপকূলে কোঙ্কণ (মারাঠি कोकण) নামের অঞ্চলে অবস্থিত। গোয়ার উত্তরে মহারাষ্ট্র, পূর্বে ও দক্ষিণে কর্ণাটক এবং পশ্চিমে আরব সাগর

গোয়ার রাজধানীর নাম পণজীভাস্কো দা গামা এর বৃহত্তম শহর। ঐতিহাসিক মারগাউ শহরে আজও পর্তুগিজ সংস্কৃতির প্রভাব দেখতে পাওয়া যায়। ১৬শ শতকের শুরুতে পর্তুগিজ নাবিকেরা প্রথমে গোয়াতে অবতরণ করে এবং দ্রুত এলাকাটির নিয়ন্ত্রণ নেয়। পর্তুগিজদের এই বহিঃসামুদ্রিক অঞ্চলটি প্রায় ৪৫০ বছর টিকে ছিল। ১৯৬১ সালে ভারত সরকার এটিকে ভারতের অংশ করে নেয়।[৩][৪]

গোয়ার সমুদ্রসৈকত, উপাসনালয় এবং বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থাপত্যগুলি বিখ্যাত। প্রতি বছর এখানে লক্ষ লক্ষ আন্তর্জাতিক ও আভ্যন্তরীণ পর্যটক বেড়াতে আসে। পশ্চিম ঘাটের উপর অবস্থিত বলে গোয়াতে প্রাণী ও উদ্ভিদের এক সমৃদ্ধ সমাহার ঘটেছে এবং এটিকে জীববৈচত্র্যের একটি "হটস্পট" হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Goa"Commissioner Linguistic Minorities, 42nd Report, July 2003 to June 2004। National Commissioner Linguistic Minorities। সংগৃহীত 2007-07-17। "Konkani is the official language of the state. There is no second official language. However, as per notification, Marathi will be used for the purpose of reply by the Government whenever communications are received in that language. In the Official Language Act, it is provided that "the Marathi language, shall also be used for all or any of the official purposes". Further it is provided that "nothing contained in this sub section shall be deemed to affect the use of the Marathi language in educational, social or cultural fields"." 
  2. UNI (30 May 2007)। "Marathi vs Konkani debate continues in Goa"rediff.com (Rediff.com India Limited)। সংগৃহীত 2007-07-17 
  3. "Liberation of Goa"। Government Polytechnic, Panaji। সংগৃহীত 2007-07-17 
  4. Pillarisetti, Jagan। "The Liberation of Goa: an Overview"The Liberation of Goa:1961। bharat-rakshak.com। সংগৃহীত 2007-07-17