ইমানুয়েল কান্ট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কান্টের প্রতিকৃতি

ইমানুয়েল কান্ট (জার্মান Immanuel Kant ইমানুয়েল্‌ কান্ট্‌, জন্ম এপ্রিল ২২, ১৭২৪ - মৃত্যু ফেব্রুয়ারি ১২, ১৮০৪) অষ্টাদশ শতকের একজন বিখ্যাত জার্মান দার্শনিক

কান্টের জন্ম পূর্ব প্রুসিয়ার কোনিগসবের্গে, যা বর্তমানে রাশিয়ার অন্তর্গত ও কালিনিনগ্রাদ নামে পরিচিত। কান্টকে আধুনিক ইউরোপের অন্যতম প্রভাবশালী চিন্তাবিদ হিসাবে গণ্য করা হয়, এবং ইউরোপের Enlightment বা আলোকিত যুগের শেষ গুরুত্বপূর্ণ দার্শনিক বলে অভিহিত করা হয়।

জীবনী[সম্পাদনা]

কান্ট জন্মগ্রহণ করেছিলেন এক নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারে। তার বাবা ছিলেন ঘোড়ার জিনের ব্যবসায়ী। বাবার নয় ছেলেমেয়ের মধ্যে কান্ট ছিলেন দ্বিতীয়। তার পরিবার ছিল প্রটেস্টান্ট খ্রিস্টান ধর্মমতের পাইটিস্ট শাখার অনুসারী।

বাল্যজীবন[সম্পাদনা]

কান্ট প্রথমে একটি পাইটিস্ট স্কুলে লেখাপড়া করেন। ওখান থেকে পরে ১৭৪০ খ্রিস্টাব্দে ১৬ বছর বয়সে তিনি কার্নিসবার্গ বিশবিদ্যালয়ে ভর্তি হন। স্কুলজীবনে কান্ট নিয়মানুবর্তিতা, সময়নিষ্ঠা, মিতব্যয়িতা ও কঠোর পরিশ্রমের অভ্যাস গড়ে তোলেন। তিনি ১৩ বছর বয়সে মাকে হারান। ২১ বছর বয়সে বাবাকে হারান। কারো সাহায্য ছাড়া তিনি তিন বোন এক ভাইকে কোনোরকমে কালাতিপাত করেন। এ সময় তিনি নিজ খরচে লেখাপড়া চালিয়ে যান। ১৭৪০-১৭৪৬ পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করেন। ল্যাটিন ও গ্রিক ভাষায় দখল নেয়া সহ গণিত, ভূগোল ও পদার্থবিদ্যায় ব্যাপক বিদ্যা অর্জন করেন। মার্টিন নুটজেন নামক বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণ অধ্যাপকের প্রভাব ও তিনি অধিবিদ্যা অধ্যয়নে আগ্রহী হয়ে ঊঠেন। বিশ্ববিদ্যালয় পেরিয়ে তিনি নয় বছর এক পরিবারে গ্রহশিক্ষকতা করেন।