খোরশেদ মেহেরমজী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(Khershed Meherhomji থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
খোরশেদ মেহেরমজী
Khershed Meherhomji 1936.jpg
১৯৩৬ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে খোরশেদ মেহেরমজী
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামখোরশেদ রুস্তমজী মেহেরমজী
জন্ম৯ আগস্ট, ১৯১১
বোম্বে, ব্রিটিশ ভারত
মৃত্যু১০ ফেব্রুয়ারি, ১৯৮২
বোম্বে, ভারত
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
ভূমিকাউইকেট-রক্ষক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ২৪)
২৫ জুলাই ১৯৩৬ বনাম ইংল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৩০
রানের সংখ্যা ৬৫৬
ব্যাটিং গড় - ১৫.৬১
১০০/৫০ ০/০ ০/২
সর্বোচ্চ রান ০* ৭১
বল করেছে - -
উইকেট - -
বোলিং গড় - -
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং - -
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৬১/১০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৫ জানুয়ারি ২০২০

খোরশেদ রুস্তমজী মেহেরমজী (এই শব্দ সম্পর্কেউচ্চারণ ; মারাঠি: खुरशेद रुस्तूमजी मेहेरहोमजी; জন্ম: ৯ আগস্ট, ১৯১১ - মৃত্যু: ১০ ফেব্রুয়ারি, ১৯৮২) তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের বোম্বে এলাকায় জন্মগ্রহণকারী ভারতীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। ভারত ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৩৬ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে ভারতের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।[১][২]

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ভারতীয় ক্রিকেটে মুম্বই, পার্সিস ও পশ্চিম ভারত দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ উইকেট-রক্ষক হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে ব্যাটিংয়ে পারদর্শী ছিলেন খোরশেদ মেহেরমজী

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৩৩-৩৪ মৌসুম থেকে ১৯৪৫-৪৬ মৌসুম পর্যন্ত খোরশেদ মেহেরমজী’র প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। বোম্বে পঞ্চদলীয় প্রতিযোগিতায় পার্সিস দলের পক্ষে অংশগ্রহণ করতেন। এছাড়াও, রঞ্জী ট্রফিতে বিভিন্ন দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। খেলোয়াড়ী জীবনের অনেকগুলো বছর বোম্বে চতুর্দলীয় ও পঞ্চদলীয় প্রতিযোগিতায় খেলেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন খোরশেদ মেহেরমজী। ২৫ জুলাই, ১৯৩৬ তারিখে স্বাগতিক ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এটিই তার একমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ ছিল। এরপর আর তাকে কোন টেস্টে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়নি।

১৯৩৬ সালে ভারত দলের সদস্যরূপে ইংল্যান্ড গমন করেন। ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে অনুষ্ঠিত টেস্টে অংশগ্রহণের সুযোগ পান। ডিডি হিন্দলেকরকে সহায়তা করার লক্ষ্যে সংরক্ষিত উইকেট-রক্ষক হিসেবে ইংল্যান্ডে যান। সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে অংশগ্রহণের সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। তবে, একমাত্র টেস্টে খুব কমই সফলতার স্বাক্ষর রাখতে পেরেছিলেন। একমাত্র ইনিংসে শূন্য রানে অপরাজিত ছিলেন। এছাড়াও, অমর সিংয়ের বলে ইংরেজ অধিনায়ক গাবি অ্যালেনের ক্যাচ গ্লাভসবন্দী করেন।

তার চাচা রুস্তমজী মেহেরমজী ১৯১১ সালে নিখিল ভারত দলের সদস্যরূপে ইংল্যান্ড গমন করেছিলেন। ১০ ফেব্রুয়ারি, ১৯৮২ তারিখে ৭০ বছর বয়সে বোম্বে এলাকায় খোরশেদ মেহেরমজী’র দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. List of India Test Cricketers
  2. "India – Test Batting Averages"। ESPNCricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]