৫১ নং ওয়ার্ড, কলকাতা পৌরসংস্থা

স্থানাঙ্ক: ২২°৩৩′৫৫″ উত্তর ৮৮°২১′৪৫″ পূর্ব / ২২.৫৬৫২৪৫° উত্তর ৮৮.৩৬২৬১১° পূর্ব / 22.565245; 88.362611
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
৫১ নং ওয়ার্ড
কলকাতা পৌরসংস্থা
৫১ নং ওয়ার্ড কলকাতা-এ অবস্থিত
৫১ নং ওয়ার্ড
৫১ নং ওয়ার্ড
কলকাতার মানচিত্রে ৫১ নং ওয়ার্ডের অবস্থান
স্থানাঙ্ক (dms): ২২°৩৩′৫৫″ উত্তর ৮৮°২১′৪৫″ পূর্ব / ২২.৫৬৫২৪৫° উত্তর ৮৮.৩৬২৬১১° পূর্ব / 22.565245; 88.362611
দেশ ভারত
রাজ্যপশ্চিমবঙ্গ
শহরকলকাতা
অঞ্চলবউবাজার, তারাতলা
লোকসভা কেন্দ্রকলকাতা উত্তর
বিধানসভা কেন্দ্রচৌরঙ্গী
বরো
সময় অঞ্চলভারতীয় প্রমাণ সময় (ইউটিসি+০৫:৩০)
পিন কোড৭০০ ০১২
এলাকা কোড+৯১ ৩৩

৫১ নং ওয়ার্ড, কলকাতা পৌরসংস্থা হল কলকাতা পৌরসংস্থার ৫ নং বরোর একটি প্রশাসনিক বিভাগ। ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের রাজধানী কলকাতা শহরের মধ্যাংশে বউবাজার ও তারাতলা অঞ্চলের কিয়দংশ নিয়ে এই ওয়ার্ডটি গঠিত। এই ওয়ার্ডটি চৌরঙ্গি বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

উনিশ শতকের মাঝামাঝি সময় কলকাতায় একটি পৌর কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠার চেষ্টা হয়। ১৮৪৭ সালে প্রথমবারের মতো নির্বাচনী ব্যবস্থা চালু করা হয় এবং ৭ জন বোর্ডের সদস্যের মধ্যে ৪ জনই রেট দাতা দ্বারা নির্বাচিত হয়ন। ১৮৫২ সালে বোর্ডটি একটি নতুন সংস্থা দ্বারা প্রতিস্থাপিত হয় এবং ১৮৬৩ সালে একটি নতুন সংস্থা গঠিত হয়। পুরানো রেকর্ড অনুসারে, ১৮৭২ সালে কলকাতায় ২৫ টি ওয়ার্ড ছিল। ওয়ার্ড গুলি হল - ১. শ্যামপুকুর, ২.কুমরটুলি, ৩. বড়তলা, ৪. সুকিয়া স্ট্রিট, ৫. জোড়বাগান, ৬. জোড়াসাঁকো, ৭. বড়বাজার, ৮. কলুটোলা, ৯. মুচিপাড়া, ১০.বউবাজার, ১১. পদ্মপুকুর, ১২. ওয়াটারলু স্ট্রিট, ১৩. ফেনউইক বাজার, ১৪. তালতলা, ১৫. কলিঙ্গ, ১৬. পার্ক স্ট্রিট, ১৭. ভিক্টোরিয়া টেরেস, ১৮. হেস্টিংস, ১৯. এন্টালি, ২০. বেনিয়াপুকুর, ২১. বালিগঞ্জ-টলিগঞ্জ, ২২. ভবানীপুর, ২৩. আলিপুর, ২৪ .একবালপুর এবং ২৫. ওয়াটগঞ্জ। ১৮৭৬ সালে একটি নতুন পৌর কর্পোরেশন তৈরি করা হয়, যার মধ্যে ৪৮ জন কমিশনার নির্বাচিত হন এবং ২৪ জন সরকার কর্তৃক নিযুক্ত হন। ১৮৮৮ সালের পৌর একীকরণ আইন কার্যকর হওয়ার সাথে সাথে পৌর কর্পোরেশনের আওতাধীন অঞ্চলটি প্রসারিত করা হয়। কিছু নির্দিষ্ট অঞ্চল ইতিমধ্যে ছিল তবে এর বেশিরভাগ অংশ যুক্ত করা হয় (বর্তমান বানান) - এন্টালি, মানিকতলা, বেলিয়াঘাটা, উল্টাডাঙ্গা, চিতপুর, কাশীপুর, বেনিয়াপুকুর, বালিয়াগঞ্জ, ওয়াটগঞ্জ ও একবালপুর এবং গার্ডেন রিচ ও টালিগঞ্জ। ১৯২৩ সালের কলকাতা পৌর আইন গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন আনে। এটি গণতান্ত্রিক পদক্ষেপে সংবিধানকে উদার করে তুলেছিল।[১][২]

রাজ্য সরকার ১৯৪৮ সালে কর্পোরেশনকে বরখাস্ত করে এবং ১৯৫১ সালের কলকাতা পৌর আইন কার্যকর হয়। ১৯৬২ সালে পৌরসভা নির্বাচনে প্রাপ্তবয়স্কদের ভোটাধিকার চালু হয়। নগরীর দক্ষিণাঞ্চলে কিছু অঞ্চল যুক্ত হওয়ার সাথে সাথে ওয়ার্ডের সংখ্যা ৭৫ থেকে ১৪৪-এ উন্নীত হয়।[৩]

ভূগোল[সম্পাদনা]

৫১ নং ওয়ার্ডের সীমানাঃ উত্তরে হৃদারাম ব্যানার্জি লেন; পূর্বে শশী ভূষণ দে স্ট্রিট এবং গোকুল বড়াল স্ট্রিট; দক্ষিণে সুরেন্দ্র নাথ ব্যানার্জি রোড; এবং পশ্চিমে নির্মল চন্দ্র স্ট্রিট ও রফি আহমেদ কিদওয়াই রোড ।[৪]

ওয়ার্ডটি কলকাতা পুলিশের মুচিপাড়া এবং তালতলা থানা দ্বারা প্রশাসনিক পরিষেবা করা হয়।[৫][৬][৭]

তালতলা মহিলা থানা কলকাতা পুলিশের কেন্দ্রীয় বিভাগের সমস্ত পুলিশ থানার এখতিয়ার আছে, অর্থাৎ বউবাজার, বড় বাজার, গিরিশ পার্ক, হেয়ার স্ট্রিট, জোড়াসাঁকো, মুচিপাড়া, নিউমার্কেট, তালতলা এবং পোস্তা।[৫]


জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

ভারতের ২০১১ সালের আদম শুমারি অনুসারে, কলকাতা পৌর কর্পোরেশনের ৫১ নং ওয়ার্ডের জনসংখ্যা ছিল ১৩,৫৫৬ জন, যার মধ্যে ৭,১৬৪ (৫৩%) পুরুষ এবং ৬,৯৯২ (৪৭%) জন মহিলা ছিলেন। ৬ বছরের কম বয়স্ক জনসংখ্যা ছিল ৭১৮ জন। ৫১ নং ওয়ার্ডে মোট সাক্ষরতার সংখ্যা ছিল ১১,৯৪১ জন (৬ বছরের বেশি বয়সের জনসংখ্যার ৯৩.০১%)।[৮]

কলকাতা পশ্চিমবঙ্গের দ্বিতীয় সর্বাধিক শিক্ষিত জেলা।[৯] কলকাতা জেলার সাক্ষরতার হার ১৯৫১ সালে ৫৩.০% থেকে বেড়ে ২০১১ সালের আদমশুমারিতে ৮৬.৩% হয়েছে।[১০]

ওয়ার্ড পর্যায়ে মাতৃভাষা ও ধর্ম সম্পর্কে আদমশুমারির তথ্য পাওয়া যায় না। জেলা পর্যায়ের তথ্যের জন্য কলকাতা জেলা নিবন্ধটি দেখুন।

জেলা সেন্সাস হ্যান্ডবুক কলকাতা ২০১১ অনুসারে, কলকাতা পৌর কর্পোরেশনের ১৪১ টি ওয়ার্ড কলকাতা জেলা গঠন করেছে। (৩ টি ওয়ার্ড পরে যুক্ত করা হয়েছে)।[১১]

নির্বাচন[সম্পাদনা]

ওয়ার্ডটি একটি সিটি মিউনিসিপাল কর্পোরেশন কাউন্সিল এবং চৌরঙ্গী নির্বাচনী অঞ্চলের একটি অংশ গঠন করে।[১২]

নির্বাচন
বছর
নির্বাচনক্ষেত্র কাউন্সিলারেড় নাম দলের অধিভুক্তি
২০০৫ ৫১ নং ওয়ার্ড সঞ্চিতা মণ্ডল সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস [১৩]
২০১০ সঞ্চিতা মণ্ডল সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস [১৪]
২০১৫ সঞ্চিতা মণ্ডল সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস [১৫]
 •  ২০১৫ কলকাতা পৌরসংস্থা নির্বাচনের ফলাফল
দল আসন জয় আসন পরিবর্তন
সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস ১১৪ বৃদ্ধি১৯
বামফ্রন্ট ১৫ হ্রাস১৮
ভারতীয় জনতা পার্টি বৃদ্ধি
ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস হ্রাস
নির্দল বৃদ্ধি

উৎস: ডিএনএ পশ্চিমবঙ্গের পৌর নির্বাচনের ফলাফল, ২৮ এপ্রিল ২০১৫


তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Bagchi, Amiya Kumar, Wealth and Work in Calcutta, 1860-1921, in Calcutta, the Living City, Vol. I, edited by Sukanta Chaudhuri, p. 213-215, Oxford University Press, আইএসবিএন ৯৭৮-০-১৯-৫৬৩৬৯৬-৩.
  2. "A walk down memory lane"About Kolkata। KMC। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  3. "Kolkata Municipal Corporation"Kolkata - a municipal history। KMC। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  4. Kolkata: Detail Maps of 141 Wards with Street Directory. D.P.Publications & Sales Concern, 66 Colarelege Street, Kolkata-700073, 4th edition 2003.
  5. "Kolkata Police"Central Division। KP। ৩০ মার্চ ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ মার্চ ২০১৮ 
  6. Kolkata: Detail Maps of 141 Wards with Street Directory, Fourth Impression 2003, Map No. 32, D.P.publication and Sales Concern, 66 College Street, Kolkata - 700 073.
  7. "Table 3 District Wise List of Statutory Towns (Municipal Corporation, Municipality, Notified Area and Cantonment Board), Census Towns and Outgrowths, West Bengal, 2001"Census of India 2001। Census Commission of India। ২১ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  8. "2011 Census – Primary Census Abstract Data Tables"West Bengal – District-wise। Registrar General and Census Commissioner, India। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮l 
  9. "District Census Handbook Kolkata, Census of India 2011, Series 20, Part XII B" (PDF)Page 25: District Highlights, 2011 Census। Directorate of Census Operations, West Bengal। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  10. "District Census Handbook Kolkata, Census of India 2011, Series 20, Part XII A" (PDF)Pages 63-64: Literacy Rate। Directorate of Census Operations, West Bengal। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  11. "District Census Handbook Kolkata, Census of India 2011, Series 20, Part XII A" (PDF)Map on third page plus demographic data about all the wards in the handbook। Directorate of Census Operations, West Bengal। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  12. "Delimitation Commission Order No. 18 dated 15 February 2006" (PDF)West Bengal। Election Commission। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১০ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ এপ্রিল ২০১৫ 
  13. Search the web for COUNCILLORS OF KOLKATA MUNICITIPAL CORPORATION. In the search list click on this. On clicking one gets an option for "List of KMC Councillors" at the bottom of the page. Press <Open> to get to Adobe Acrobat file.
  14. "Kolkata Municipal Corporation General Election Results 2010"। Government of West Bengal। সংগ্রহের তারিখ ৮ এপ্রিল ২০১৫ 
  15. Prabahat Khabar, Hindi newspaper, print edition, 29 April 2015


বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]