মারলন ভনহাট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মারলন ভনহাট
මාලන් වොන්ගාට්
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামডাডলি মারলন ভনহাট
জন্ম৩১ মার্চ, ১৯৬৫
কালুতারা, শ্রীলঙ্কা
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম
ভূমিকাব্যাটসম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র ওডিআই
(ক্যাপ ৪০)
৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৮৫ বনাম অস্ট্রেলিয়া
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই
ম্যাচ সংখ্যা
রানের সংখ্যা
ব্যাটিং গড় ৮.০০
১০০/৫০ -/-
সর্বোচ্চ রান
বল করেছে -
উইকেট -
বোলিং গড় -
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং -
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং -/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৩ জুন ২০২০

ডাডলি মারলন ভনহাট (সিংহলি: මාලන් වොන්ගාට්; জন্ম: ৩১ মার্চ, ১৯৬৫) কালুতারা এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক শ্রীলঙ্কান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৮০-এর দশকের মাঝামাঝি সময়কালে অত্যন্ত সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে শ্রীলঙ্কার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটে মুরস স্পোর্টস ক্লাবের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে মিডিয়াম বোলিংয়ে পারদর্শী ছিলেন মারলন ভনহাট

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ছিলেন মারলন ভনহাট। ১৯৮৩-৮৪ মৌসুম থেকে ১৯৮৮-৮৯ মৌসুম পর্যন্ত মারলন ভনহাটের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল।

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র ওডিআইয়ে অংশগ্রহণ করেছেন মারলন ভনহাট। ৩ ফেব্রুয়ারি, ১৯৮৫ তারিখে পার্থে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া দলের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে তার। এটিই তার একমাত্র ওডিআইয়ে অংশগ্রহণ ছিল। তাকে কোন টেস্টে অংশগ্রহণ করার সুযোগ দেয়া হয়নি।

১৯৮৪ সালে ইংল্যান্ডে চমৎকার ক্রীড়াশৈলী প্রদর্শন শেষে উজ্জ্বীবিত শ্রীলঙ্কা দলের সদস্যরূপে ১৯৮৪-৮৫ মৌসুমে ১৯ বছর বয়সে একদিনের দলের অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম খেলেন। তবে, এর পরপরই তার খেলার সুযোগ স্তিমিত হয়ে আসে। ১৯৮৬ সালের পর খেলা থেকে বিরত থাকেন। তবে, ১৯৮৮-৮৯ মৌসুমে মুরস স্পোর্টস ক্লাবের পক্ষে তিনটি খেলায় অংশ নিয়ে কিছুটা সফলতার স্বাক্ষর রেখেছিলেন।

অবসর[সম্পাদনা]

ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত পঞ্চাশোর্ধ্ব ক্রিকেট বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কা দলের সদস্যরূপে মনোনীত হন।[১][২] তবে, প্রতিযোগিতার তৃতীয় রাউন্ডের খেলা চলাকালে করোনভাইরাসের বৈশ্বিক মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ায় পরিত্যক্ত ঘোষিত হয়।[৩]

বর্তমানে তিনি অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া এলাকায় বসবাস করছেন।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "2020 over-50s world cup squads"Over-50s Cricket World Cup। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মার্চ ২০২০ 
  2. "Over-50s Cricket World Cup, 2019/20 - Sri Lanka Over-50s: Batting and bowling averages"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মার্চ ২০২০ 
  3. "Over-50s World Cup in South Africa cancelled due to COVID-19 outbreak"Cricket World। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মার্চ ২০২০ 
  4. http://www.espncricinfo.com/magazine/content/story/598345.html

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]