বাঞ্জারা হিলস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বাঞ্জারা হিলস
బంజారా హిల్స్, بنجارا پہاڑیں
হায়দ্রাবাদ উপনগরীয় অঞ্চল
Taj banjarahills hyderabad.jpg
বাঞ্জারা হিলস তেলেঙ্গানা-এ অবস্থিত
বাঞ্জারা হিলস
বাঞ্জারা হিলস
বাঞ্জারা হিলস ভারত-এ অবস্থিত
বাঞ্জারা হিলস
বাঞ্জারা হিলস
স্থানাঙ্ক: ১৭°২৪′৫৪″ উত্তর ৭৮°২৬′২৪″ পূর্ব / ১৭.৪১৫° উত্তর ৭৮.৪৪০° পূর্ব / 17.415; 78.440স্থানাঙ্ক: ১৭°২৪′৫৪″ উত্তর ৭৮°২৬′২৪″ পূর্ব / ১৭.৪১৫° উত্তর ৭৮.৪৪০° পূর্ব / 17.415; 78.440
দেশ ভারত
রাজ্যতেলঙ্গানা
জেলাহায়দ্রাবাদ
মহানগরীহায়দ্রাবাদ
সরকার
 • শাসকজিএইচএমসি
জনসংখ্যা
 • মোট১,৫০,০০০
ভাষাসমূহ
 • সরকারীতেলুগুউর্দু
সময় অঞ্চলআইএসটি (ইউটিসি+৫:৩০)
পিন সংখ্যা৫০০ ০৩৪
যানবাহন নিবন্ধনTS-09
লোকসভা কেন্দ্রসিকন্দরাবাদ
বিধানসভা কেন্দ্রখৈরতাবাদ
পরিকল্পনা সংস্থাজিএইচএমসি
ওয়েবসাইটtelangana.gov.in

বাঞ্জারা হিলস হায়দ্রাবাদের একটি গুরুত্বপূর্ণ ও বৃহৎ বাণিজ্যিক কেন্দ্র। এটি বৃহত্তর হায়দ্রাবাদের অন্তর্গত ১৫০ টিরও বেশি এলাকাগুলির মধ্যে একটি। এটি জুবিলী হিলসের কাছাকাছি অবস্থিত একটি উচ্চমানের এলাকা। এই এলাকায় একটি পাহাড়ি বন ছিল এবং অতীতে এটি অত্যন্ত জনবিরল এলাকা ছিল। নিজামের রাজবংশের স্বল্পসংখ্যক রাজকীয় সদস্যরাই কেবল এখানে বসবাস করতেন তথা এই গোটা অঞ্চলটি তাদের জন্য একটি শিকারের স্থান ছিল। এই ধরণের ইতিহাস ও অতীতে এমন স্থিতি থাকা স্বত্ত্বেও, বর্তমানে এই এলাকা সম্পূর্ণরূপে হায়দ্রাবাদের একটি গুরুত্বপূর্ণ শহুরে বাণিজ্যিক কেন্দ্রে রূপান্তরিত হয়েছে। বাঞ্জারা হিলস অঞ্চলটি বিভিন্ন রাস্তার সংখ্যা দ্বারা পৃথক করা হয়েছে, এবং প্রতিটি রাস্তার নিজস্ব গুরুত্ব রয়েছে: রাস্তার সংখ্যাগুলি ১ থেকে শুরু হয়ে ১৪ এ শেষ।

ইকনমিক টাইমস পত্রিকা অনুসারে বাঞ্জারা হিলসের পিন সংখ্যা ভারতের সবচেয়ে ব্যয়বহুল পিন সংখ্যা বলে মনে করা হয়[১] এবং, জুবিলি হিলস সহ, হায়দ্রাবাদ মহানগরীর এটি সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ অঞ্চল। ইকনমিক টাইমস পত্রিকা এও মূল্যবিচার করে যে বাঞ্জারা হিলসের সম্পত্তিগুলি "একটি অস্বাভাবিক ৯৬ হাজার কোটি টাকা", ২০,৮৯৪,৯৪৪,০০০ মার্কিন ডলারের সমতুল্য (8 সেপ্টেম্বর ২০১১পর্যন্তঃ ২০.৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার) মূল্যের।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] অত্যন্ত অবহেলিত বাঞ্জারা হ্রদ ও এখানে অবস্থিত।

পরিবেশ[সম্পাদনা]

বাঞ্জারা হিলস তার হোটেল, উচ্চমানের রেস্তোরা এবং বৃহৎ শপিং মলের জন্য বিখ্যাত। তাজ কৃষ্ণা, তাজ ডেকান এবং তাজ বাঞ্জারা এই এলাকার সুপরিচিত কিছু স্টার হোটেল। বেশিরভাগ রেস্তোরা সারা বিশ্বের বিভিন্ন রান্না পরিবেশন করে থাকে। জনপ্রিয় কিছু রেস্তোরার নাম হলো চায়না প্যাভিলিয়ন, ওহ্রিস বাঞ্জারা, বারবেকিউ নেশান এবং ফিউশন ৯। বিপুলসংখ্যক খুচরো ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান সহ জি.ভি.কে ওয়ান মল, সিটি সেন্টার মল, মিডটাউন, ওহ্রিস , আলকাজার প্লাজা, জিং ডিজাইন্স এর মতো বিশাল ভবন বাঞ্জারা হিলসের দিগন্ত সুন্দর করে তোলে। বাঞ্জারা হিলস এলাকার সর্বোচ্চ ভবনটি হলো লক্ষ্মী সাইবার সেন্টার।

মহানগরীর একটি বৃহৎ পার্ক জলাগাম ভেঙ্গল রাও পার্ক বাঞ্জারা হিলসে অবস্থিত। এটি প্রাকৃতিক সৌন্দর্যতায় ভরপুর একটি পার্ক, যেটির নিজস্ব একটি বিশেষত্ব আছে, প্রচুর সংখ্যায় স্থানীয়রা এখানে জগিং এবং শিথিল করার জন্য নিয়মিত যান। বেশিরভাগ ব্যবসায়ই মূলত রোড নং ১ ও ৩ এ সন্নিবেশিত। মুফাক্ষাম জাহ্ কলেজ অব ইঞ্জিনিয়ারিং ও টেকনোলজি রোড নং ৩ এ অবস্থিত। ভৌগলিক আয়তনে, এই কলেজটি মহানগরীর বৃহত্তম ক্যাম্পাসগুলির মধ্যে একটি। এটি সুলতান-উল উলুম এডুকেশন সোসাইটির পরিচালনা ও মালিকানা অধীনে কাজ করে, যারা একই প্রাঙ্গনে, সুলতান-উল-উলুম আইন কলেজ, জুনিয়র কলেজ এবং স্কুল পরিচালনা করে। কাসু ব্রাহ্মণ রেড্ডির নামকরণ করে কে.বি.আর পার্কটি রোড নং ৩ এর কাছাকাছি অবস্থিত। ২০১০ সালে লামাকান নামক একটি সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, রোড নং ১ এ খোলে। রোড নং ১২-র উপর অবস্থিত ৪০০ বছরের প্রাচীন স্বয়াম্ভু শ্রী লক্ষ্মী নরসিংহ স্বামী মন্দির, হরিনাম সংকীর্তনের জন্য বিখ্যাত। গিটার মঙ্ক বিদ্যালয় এখানে অবস্থিত।

হাসপাতালসমূহ[সম্পাদনা]

  • বাসভাতারকম ইন্ডো-মার্কিন ক্যান্সার হাসপাতাল
  • ওমেগা হাসপাতাল
  • কেয়ার হাসপাতাল
  • স্টার হাসপাতাল[২]
  • এলবিট ডায়গ্নস্টিকস
  • সূর্য্য ফার্টিলিটি সেন্টার[৩]
  • সেঞ্চুরি হাসপাতাল
  • ভিরিঞ্চি হাসপাতাল
  • রেনবো হাসপাতাল
  • এল ভি প্রসাদ চক্ষু ইনস্টিটিউট

পরিবহণ[সম্পাদনা]

বাঞ্জারা হিলস, টিএসআরটিসি-র বাসগুলি দ্বারা ঘটকেসর, কোটি, দিলসুখনগর এবং শহরের অন্যান্য প্রান্তগুলির সাথে ভালোভাবে সংযুক্ত। বেশ কয়েকটি নতুন ফ্লাইওভার এই শহরতলির দিশায় ট্র্যাফিক কনজেশন হ্রাস করেছে। নিকটতম এমএমটিএস ট্রেন স্টেশন খৈরতবাদে অবস্থিত। এই অঞ্চলে সড়ক সংযোগ ব্যবস্থা অত্যুত্তম। সারা মহানগরী জুড়ে ও বিশেষত বাঞ্জারা হিলস অঞ্চলে, ক্রমাগত বাড়ন্ত যানবাহনের সংখ্যার কারণে প্রতিনিয়ত রাস্তা উন্নতির কাজ চলে থাকে।

বসতিস্থলসমূহ[সম্পাদনা]

সোমাজিগুড়া, এরামঞ্জিল কলোনি, ভেঙ্কট রমনা কলোনি, আনন্দ নগর, শ্রীনগর কলোনি, নবীন নগর, মাসব ট্যাঙ্ক, টোলিচৌকি, পাঞ্জাগুট্টা এবং মেহ্দিপট্টনাম, হলো বাঞ্জারা হিলস এর নিকটবর্তী অঞ্চলগুলি।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]