ফুটবল বুট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
১৯৩০ থেকে ২০০২ পর্যন্ত ফুটবল বুটের বিবর্তন।

ফুটবল বুট উত্তর আমেরিকাতে ক্লিটিস বা সকার জুতা নামে পরিচিত। [১]অ্যাসোসিয়েশন ফুটবল খেলার সময় এগুলি পায়ে পরিধানযোগ্য এক প্রকার জুতো বিশেষ। এগুলি ঘাস এর খেলার পিচ বা মাঠের জন্য বিশেষ নকশায় তৈরী করা জুতো যার নীচে বাইরের সোলের উপর অসংখ্য স্টাড বা স্থূল পেরেক বিশেষ বসানো থাকে। এগুলি জুতোকে পিচে গ্রিপ করতে বা খামচে ধরে রাখতে সহায়তা করে। সহজ এবং নম্র থেকে শুরু ফুটবল বুটগুলি একটি দীর্ঘ পথ অতিক্রম করে আজ তারা একটি বহু-জাতিক বিশ্ব শিল্পের কেন্দ্রবিন্দুতে অবস্থান করছে। একে নিয়ে অনেক গবেষণা, বিকাশ, স্পনসরশিপ এবং বিপণনের বিষয় আবিষ্কৃত হয়েছে। আধুনিক "বুট" আর সত্যিকারের বুট এর মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। সেগুলি আর গোড়ালি আবৃত করে না - অন্যান্য প্রকার বিশেষজ্ঞ স্পোর্টসের জুতোর মতো সেগুলির প্রাথমিক নকশা এবং চেহারা পাল্টে ১৯৬০ এর দশক থেকে তা স্নিকার্স এ রূপান্তরিত হয়েছে।

ফুটবল বাজার এবং ব্র্যান্ড [সম্পাদনা]

কৃত্রিম ঘাস বা বালির জন্য নাইকি জুম এয়ার ফুটবল বুটের এক জোড়া।

মূলত ফুটবল বুটগুলি কেবল কালো রঙে পাওয়া যেত। তবে সম্প্রতি সেগুলি নীল, সবুজ, লাল, সাদা, হলুদ, রৌপ্য, সোনালী এবং এমনকি গোলাপী প্রভৃতি বিভিন্ন রঙ এ পাওয়া যায়। নাইকি, আডিডাস, পুমা এবং এই জাতীয় বড় বড় সংস্থাগুলি রেকর্ড পরিমাণ বিক্রয় নিয়ে বাজারে প্রভাব ফেলেছে। নাইকির ফ্ল্যাগশিপ জুতা হ'ল ফ্যান্টম ভিএনএম, ফ্যান্টম ভিএসএন, টাইএমপোস এবং দ্য নাইক মার্কুরিয়াল ভেপার ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো এবং আরও অনেকে পরেন। জার্মান সংস্থা অ্যাডিডাসের প্রিডেটর পরেন ডেভিড বেকহ্যাম, গ্যারি নেভিল এবং স্টিভেন জেরার্ড। পুরো জার্মান জাতীয় দল অ্যাডিডাস বুট ব্যবহার করেছিল ২০০৬ ফিফা বিশ্বকাপ এর সময়। আরেকটি জার্মান সংস্থা পুমার ফ্ল্যাগশিপ জুতো হ'ল পুমা কিং প্লাটিনাম, পুমা ফিউচার এবং পুমা ওয়ান ব্যবহার করে থাকেন সার্হিও আগুয়েরো, মার্কো রয়েস, সেস্‌ ফাব্রিগাস এবং অঁতোয়ান গ্রিয়েজমান

ফুটবলার জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ অ্যাডিডাস লাল বুট পরেছেন

পুমা কিং সকার ক্লিটস পরতেন কিংবদন্তি খেলোয়াড় পেলে, ইউসেবিও, ইয়োহান ক্রুইফ এবং দিয়েগো মারাদোনা[২]

সাম্প্রতিক কালে সর্বাধিক সফল সংস্থাগুলি হল নাইকি এবং অ্যাডিডাস।[৩] তাদের পণ্যগুলিও পেশাদার ফুটবলারদের মধ্যে দুর্দান্ত জনপ্রিয়তা লাভ করেছে; নাইকের সমর্থনকারীদের মধ্যে আছেন দু-বারের ফিফা বর্ষসেরা খেলোয়াড় রোনালদিনহো, পূর্বোক্ত যুগল ওয়েইন রুনি এবং ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো, ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার রোনালদো, ওয়েসলি স্নাইডার, জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ এবং আরও অন্যান্য জনপ্রিয় খেলোয়াড়। অ্যাডিডাস ১৯৫৪ ফিফা বিশ্বকাপ এর পর থেকে জার্মান জাতীয় দলে স্ক্রু-ইন স্টাড সহ ফুটবল জুতো সরবরাহ করে যাচ্ছে। অ্যাডিডাস অনুমোদনকারী হিসাবে বড় বড় খেলোয়াড়দেরকে স্বাক্ষর করিয়ে আধুনিক বাজারে তাদের প্রভাব বৃদ্ধি করেছে: যেমন ডেভিড বেকহ্যাম, প্রাক্তন ফ্রান্স অধিনায়ক জিনেদিন জিদান, ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ড, ছয় বারের বিশ্ব খেলোয়াড় লিওনেল মেসি, ডেভিড ভিল্লা, এবং স্টিভেন জেরার্ড। বড় বড় ব্যক্তিকে স্বাক্ষর করিয়ে পুমাও এই শিল্পে উল্লেখযোগ্য প্রভাব ফেলেছে। যেমন বিশ্বকাপজয়ী অঁতোয়ান গ্রিয়েজমান, মার্কো রয়েস, এবং জিয়ানলুইজি বুফন, ডেভিড সিলভা, সেস্‌ ফাব্রিগাস, রোমেলু লুকাকু, মারিও বালোতেল্লি এবং চ্যাম্পিয়ন্স লিগ বিজয়ী লুইস সুয়ারেজ[৪]

গ্রন্থপঞ্জি[সম্পাদনা]

ম্যাকআর্থার, ইয়ান; কেম্প, ডেভ (১৯৯৫)। এলিগেন্স বোর্ন অফ ব্রুটালিটি: এ্যাল ইলেকট্রিক হিস্ট্রি অফ দ্য ফুটবল বুট। লন্ডন: টু হেডস পাবলিশিং। আইএসবিএন 1-897850-76-X 

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "soccer player"Visual Dictionary OnlineMerriam-Webster। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৪-২৮ 
  2. "Archived copy"। ২০১৫-০৪-২৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৬-০৯ 
  3. "Soccer Shoe Guide"Soccer.com। জুলাই ২৯, ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ মে ১৫, ২০২০ 
  4. "Luis Suarez Officially Signs for Puma"SoccerBible। ১৬ আগস্ট ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১১-০৪