ডেভিড ভিয়া

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ডেভিড ভিয়া
David Villa - 02.jpg
ডেভিড ভিয়া সালে এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ এর হয়ে খেলছেন
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম ডেভিড ভিয়া সনছেজ[১]
জন্ম (১৯৮১-১২-০৩) ৩ ডিসেম্বর ১৯৮১ (বয়স ৩৩)[২]
জন্ম স্থান ল্যাংরো, স্পেন
উচ্চতা ১.৭৫ মি (৫ ফু ৯ ইঞ্চি)[৩]
মাঠে অবস্থান স্ট্রাইকার
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান ক্লাব মেলবোর্ন সিটি (ঋণ থেকে নিউ ইয়র্ক সিটি)
জার্সি নম্বর
তারূণ্যের কর্মজীবন
১৯৯১–১৯৯৯ ল্যাংরো
বলিষ্ঠ কর্মজীবন*
বছর দল উপস্থিতি (গোল)
১৯৯৯–২০০১ স্পোর্টিং ডি গিজন বি ৬৫ (২৫)
২০০১–২০০৩ স্পোর্টিং গিজন ৮০ (৩৮)
২০০৩–২০০৫ জারাগোজা ৭৩ (৩২)
২০০৫–২০১০ ভ্যালেন্সিয়া ১৬৬ (১০৮)
২০১০–২০১৩ বার্সেলোনা ৭৭ (৩৩)
২০১৩–২০১৪ আতলেতিকো মাদ্রিদ ৩৬ (১৩)
২০১৪– নিউ ইয়র্ক সিটি (০)
২০১৪– মেলবোর্ন সিটি (loan) (০)
জাতীয় দল
২০০০–২০০৩ স্পেন অনুর্দ্ধ-২১ (০)
২০০৫– স্পেন ৯৬ (৫৮)
* পেশাদারী ক্লাবের উপস্থিতি ও গোলসংখ্যা শুধুমাত্র ঘরোয়া লিগের জন্য গণনা করা হয়েছে এবং ১৬:০৪, ২ জুন ২০১৪ (ইউটিসি) তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

† উপস্থিতি(গোল সংখ্যা)।

‡ জাতীয় দলের হয়ে খেলার সংখ্যা এবং গোল ০১:০০, ৮ জুন ২০১৪ (ইউটিসি) তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

ডেভিড ভিয়া (ইংরেজি: David Villa; স্পেনীয় উচ্চারণ: [daˈβið ˈβiʎa]; জন্মঃ ৩ ডিসেম্বর ১৯৮১) স্পেনের ফুটবল তারকা। তিনি স্পেনের লা লিগায় বার্সেলোনা ক্লাবের আক্রমনভাগে খেলেন।

ভিয়া ২০০৫ সালের স্পেন জাতীয় দলে হয়ে তার আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আত্মপ্রকাশ করেন। এরপর তিনি চারটি প্রধান প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন এবং ২০০৮ সালের ইউরো এবং ২০১০ সালে স্পেন জাতীয় দলের বিশ্বকাপ জয়ী দলের অবিচ্ছেদ্য একজন সদস্য হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন। এছাড়াও তিনি ২০০৬ সালের বিশ্বকাপে ৩টি গোল করেন, ২০০৮ সালে ইউরো কাপে সর্ব্বোচ্চ গোলদাতার মর্যাদা এবং ২০১০ সালের বিশ্বকাপে সিলভার বুট অর্জন করেন। তিনি হলেন প্রথম কোন স্প্যানিশ খেলোয়াড় যিনি ৫০টি আন্তর্জাতিক গোল করেন এবং ৯৭ ম্যাচে ৫৯টি গোল নিয়ে ২০১৪ সালের ফুটবল বিশ্বকাপে আন্তর্জাতিক খেলা থেকে অবসরগ্রহণ করেন। তিনি স্পেনের সর্বকালের সর্ব্বোচ্চ গোলদাতা এবং বিশ্বকাপে ৯টি গোল নিয়েও তিনি দেশের হয়ে সর্ব্বোচ্চ গোলদাতার মর্যাদা অর্জনকারী একমাত্র খেলোয়াড়।[৪]

বাল্যকাল ও প্রাথমিক ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

ভিয়া উত্তর স্পেনের অঞ্চল তুইল্লা, ল্যাঙ্গিরিও, আস্তুরিয়াস এর একটি ছোট গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম জোসে ম্যানুয়েল ভিয়া, যিনি একজন খনিজীবী।[৫][৬] ডেভিড ভিয়ার বাবার স্বপ্ন ছিল ছেলে বড় ফুটবলার হবে। মূলত বাবার অনুপ্রেরণাতেই ভিয়ার ফুটবল জগতে আসা। ২০০০ সালে স্পোর্টিং ডি গিজন ক্লাবের হয়ে স্প্যানিশ সেকেন্ড ডিভিশনে তিনি পেশাদার ফুটবল শুরু করেন। এরপর লা লীগায় জারগোজা ক্লাবের হয়ে অভিষেক ঘটে ভিয়ার। সেখানে ৭৩ খেলায় ৩১ গোল করেন।

ক্লাব ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

ভ্যালেন্সিয়া[সম্পাদনা]

২০০৫ সালে তিনি ভ্যালেন্সিয়ার সাথে চুক্তিবদ্ধ হন। সেবার ২০০৫-২০০৬ মৌসুমে ২৫টি গোল করে ভিয়া লা লীগার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা হন। ২০০৬-২০০৭ মৌসুমে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগে তার অভিষেক ঘটে।

বার্সেলোনা[সম্পাদনা]

২০১০ সালের ১৯ মে তিনি ৪০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে তিনি বার্সেলোনার সঙ্গে ৪ বছরের জন্য চুক্তিবদ্ধ হন[৭][৮]। ক্লাবে তাকে তার প্রিয় ৭ নম্বর জার্সি দাওয়া হয়। ডেভিড ভিয়া বার্সেলোনার হয়ে নিয়মিত গোল করে ও গোল করিয়ে যাচ্ছেন। তিনি ২৯ নভেম্বর ২০১০-এর এল ক্লাসিকোতে দলের ৫-০ জয়ের প্রথম ২টি গুরুত্বপূর্ণ গোল করেন[৯]

আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

২০০৬ সালের শেষের দিক থেকেই ভিয়া স্পেন জাতীয় ফুটবল দলের একজন গুরুতবপূর্ণ খেলোয়াড় হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করে নেন । ২০০৮ সালের ইউরো কাপে তিনি গোল্ডেন বুট লাভ করেন[১০]। ২০১০ সালের বিশ্বকাপে ভিয়া অসাধারণ দক্ষতার পরিচয় দেন। তিনি এ আসরে ৫টি গোল করে সিলভার শু অর্জন করেন। ২০১১ সালের ২৫ মার্চ মাসে তিনি রাউলকে অতিক্রম করে স্পেন জাতীয় দলের হয়ে সর্বকালের সর্বোচ্চ গোল করেন।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ব্যক্তিগত জীবনে ভিয়া বিবাহিত। ২০০৩ সালে তিনি বাল্যবান্ধবী প্যাট্রিসিয়া গঞ্জালেজকে বিয়ে করেন। তিনি তিন সন্তানের জনক।

কর্মজীবনের পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

ক্লাব[সম্পাদনা]

২০১৪ সালের মে মাসের হিসাব অনুযায়ী[১১][১২][১৩]

ক্লাব মৌসুম লীগ কাপ[nb ১] মহাদেশ[nb ২] সর্বমোট
এপস গোল সহযোগী এপস গোল সহযোগী এপস গোল সহযোগী এপস গোল সহযোগী
স্পোর্টিং গিজন বি ১৯৯৯–২০০০ ৩০ ১২ ৩০ ১২
২০০০–০১ ৩৫ ১৩ ৩৫ ১৩
মোট ৬৫ ২৫ ৬৫ ২৫
স্পোর্টিং গিজন ২০০০–০১
২০০১–০২ ৪০ ১৮ ৪৪ ২০
২০০২–০৩ ৩৯ ২০ ৪০ ২০
মোট ৮০ ৩৮ ৮৫ ৪০
জারাগোজা ২০০৩–০৪ ৩৮ ১৭ 1 ৪৬ ২১
২০০৪–০৫ ৩৫ ১৫ ১০ ৪৬ ২০
মোট ৭৩ ৩২ ১১ ১০ ৯২ ৪১ ১৪
ভ্যালেন্সিয়া ২০০৫–০৬ ৩৫ ২৫ ৪০ ২৮
২০০৬–০৭ ৩৬ ১৫ ১২ ১১ ৪৯ ২০ ১৭
২০০৭–০৮ ৩০ ১৮ ৪৩ ২২ ১১
২০০৮–০৯ ৩৩ ২৮ ৪০ ৩০
২০০৯–১০ ৩২ ২১ ১১ ৪৫ ২৮ ১০
মোট ১৬৬ ১০৭ ৩৮ ১৬ ৩৫ ১৭ ১০ ২১৭ ১২৮ ৫৩
বার্সেলোনা ২০১০–১১ ৩৪ ১৮ ১২ ৫২ ২৩
২০১১–১২ ১৫ ২৪
২০১২–১৩ ২৮ ১০ ৪০ ১৬
মোট ৭৭ ৩৩ ১৩ ১৪ ২৫ ১১৬ ৪৮ ১৭
আতলেতিকো মাদ্রিদ ২০১৩–১৪ ৩৬ ১৩ ৪৭ ১৫
মোট ৩৬ ১৩ ৪৭ ১৫
নিউ ইয়র্ক সিটি এফসি ২০১৫ - - -
মোট
কর্মজীবনের সর্বমোট ৪৯৭ ২৪৮ ৬৫ ৪৮ ২১ ৭৭ ২৮ ১৬ ৬২২ ২৯৭ ৮৮

আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

ভিয়া (৭ নাম্বার) অস্ট্রিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচে নামার আগে স্পেন জাতীয় দলের সঙ্গে তোলা ছবির দৃশ্য

আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

২০১৩ সালের ২০ জুন এর হিসাব মোতাবেক

জাতীয় দল ক্লাব বছর বন্ধুত্বপূর্ণ প্রতিযোগিতা মোট
এপস গোল এপস গোল এপস গোল অনুপাত
স্পেন জারাগোজা ২০০৪–০৫[১৪] 0
ভ্যালেন্সিয়া ২০০৫–০৬[১৪] ১২ 0.42
২০০৬–০৭[১৫] ১১ 0.64
২০০৭–০৮[১৬] ১২ 0.5
২০০৮–০৯[১৭] ১০ ১৪ ১৩ 0.93
২০০৯–১০[১৮] ১৫ ১১ 0.73
বার্সেলোনা ২০১০–১১[১৯] ১১ 0.42
২০১১–১২[২০] 0.67
২০১২–১৩[২১] 0.63
কর্মজীবনের মোট[২২][২৩] ৩৬ ১৭ ৫৫ ৩৯ ৯১ ৫৬ 0.62

মন্তব্য: প্রতিটি মৌসুম সেপ্টেম্বর - আগস্ট

অর্জন[সম্পাদনা]

ক্লাব[সম্পাদনা]

রিয়াল জারাগোজা
ভ্যালেন্সিয়া
বার্সেলোনা
এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ

দেশ[সম্পাদনা]

স্পেন

নোট[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "FIFA World Cup South Africa 2010: List of Players" (PDF)। Fédération Internationale de Football Association (FIFA)। ৪ জুন ২০১০। পৃ: ২৯। সংগৃহীত ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৩ 
  2. "David Villa"। UEFA। সংগৃহীত ১৯ জুন ২০১০ 
  3. "Biography for David Villa" 
  4. "David Villa breaks Spain's scoring record"। Stamford Advocate। ১২ অক্টোবর ২০১০। সংগৃহীত ১২ অক্টোবর ২০১০ [অকার্যকর সংযোগ]
  5. "Villa, a thriller"Sportstar। ৩ নভেম্বর ২০০৭। সংগৃহীত ৭ সেপ্টেম্বর ২০০৯ 
  6. Ronay, Barney (১৮ সেপ্টেম্বর ২০১০)। "David Villa thrives on playing under pressure for Barcelona and Spain"। London: The Guardian। সংগৃহীত ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১০ 
  7. "Barca agree Villa move with Valencia"FC Barcelona official site। ২০১০-০৫-১৯। সংগৃহীত ২০১০-০৫-২০ 
  8. "Striker David Villa moves to Barcelona from Valencia"BBC Sport। ১৯ মে ২০১০। সংগৃহীত ১৯ মে ২০১০ 
  9. "Barcelona 5-0 Real Madrid - Exquisite Barca crush Real"। ESPN। ২০১০-১১-২৯। সংগৃহীত ২০১০-১১-২৯ 
  10. "adidas Golden Boot goes to Villa"। UEFA। ২০০৮-০৯-০৯। সংগৃহীত ২০০৯-০৯-১৩ [অকার্যকর সংযোগ]
  11. "David Villa"। Soccernet। সংগৃহীত ২৪ এপ্রিল ২০১০ 
  12. "David Villa – Statistics 2010–11"। FC Barcelona। সংগৃহীত ১৬ অক্টোবর ২০১১ 
  13. "David Villa – Statistics 2011–12"। FC Barcelona। সংগৃহীত ১৬ অক্টোবর ২০১১ 
  14. ১৪.০ ১৪.১ "2005/06 Game Log"। ESPN Soccernet। সংগৃহীত ১৩ সেপ্টেম্বর ২০০৯ 
  15. "2006/07 Game Log"। ESPN Soccernet। সংগৃহীত ১৩ সেপ্টেম্বর ২০০৯ 
  16. "2007/08 Game Log"। ESPN Soccernet। সংগৃহীত ১৩ সেপ্টেম্বর ২০০৯ 
  17. "2008/09 Game Log"। ESPN Soccernet। সংগৃহীত ১৩ সেপ্টেম্বর ২০০৯ 
  18. "2009/10 Game Log"। ESPN Soccernet। সংগৃহীত ১৩ সেপ্টেম্বর ২০০৯ 
  19. "David Villa 2010/11"। Soccernet.espn.go.com। ৩ ডিসেম্বর ১৯৮১। সংগৃহীত ২৩ জুন ২০১২ 
  20. "David Villa 2011/12"। Soccernet.espn.go.com। সংগৃহীত ২৩ জুন ২০১২ 
  21. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; David_Villa_2012.2F13 নামের ref গুলির জন্য কোন টেক্সট প্রদান করা হয়নি
  22. "Jugadores – Real Federación Española de Fútbol" (Spanish ভাষায়)। RFEF। সংগৃহীত ১৩ সেপ্টেম্বর ২০০৯ 
  23. HISTORIA DEL FÚTBOL ESPAÑOL, SELECCIONES ESPAÑOLAS (স্পেনীয়) ISBN 978-84-8229-123-9

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]