তামাং

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
তামাং
Students of Janata Primary School, northern Tistung.JPG
তামাং জাতিগোষ্ঠীর শিশু
উল্লেখযোগ্য জনসংখ্যার অঞ্চলসমূহ
নেপাল, ভারত (সিকিম, দার্জিলিং, কালিম্পং)
ভাষা
তামাং, নেপালি
সংশ্লিষ্ট জনগোষ্ঠী
শেরপা, গুরুং, থকালি, হ্যোলমো

তামাং (རྟ་དམག་ ; দেবনাগরী : তামাङ; tāmāṅ) হল নেপালে বসবাসকারী একটি নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠী। ২০০১ সালের জনশুমারি অনুযায়ী নেপালের মোট জনসংখ্যার ৫.৬ শতাংশ ব্যক্তি তামাং জনগোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত, সংখ্যার হিসেবে যা ১৩ লাখেরও (১.৩ মিলিয়ন) বেশি। ২০১১ সালের জনশুমারি অনুসারে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫,৯৯,৮৩০ জনে।[১] ভারতের সিকিমরাজ্য এবং দার্জিলিংকালিম্পং জেলায়ও তামাং জনগোষ্ঠীর বসবাস রয়েছে। ভারত এবং নেপাল ছাড়াও ভুটানের দক্ষিণ পাদদেশের বিভিন্ন জেলায় উল্লেখযোগ্য সংখ্যক তামাংয়ের দেখা পাওয়া যায়। এই ধরনের জেলাগুলোর মধ্যে রয়েছে সিরাং জেলা, দাগানা জেলা, সামৎসে জেলা, চুখা জেলা, সার্পাং জেলা এবং সামদ্রূপ জঙ্গখর জেলা।[২] তামাং ভাষা নেপালের পঞ্চম সর্বাধিক কথ্য ভাষা। [৩]

ব্যুৎপত্তি[সম্পাদনা]

তামাং শব্দটি তিব্বতি ভাষার শব্দ তামাং থেকে উদ্ভূত হয়ে থাকতে পারে, যেখানে তা অর্থ "ঘোড়া" এবং মাং অর্থ যোদ্ধা। তবে ঘোড়াযোদ্ধা বা অশ্মারোহী যোদ্ধা নামকরণের কোনও লিখিত দলিল নেই বা বর্তমানেও তামাং লোকদের ঘোড়ায় চড়ার কোন সংস্কৃতি বা নজির নেই।[৪]

উল্লেখযোগ্য তামাং ব্যক্তি[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Archived copy" (PDF)। ২০১৬-০৩-০৪ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-১২-২২ 
  2. "Archived copy"। ২০১৬-০৪-২৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-১২-২৩  Emergent North-East : A Way Forward By H. C. Sadangi
  3. "Report on Socio-Economic Status of Tamang–Kavre"। Nefin.org.np। ২০১৩-০৩-১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-১২-২৩ 
  4. "Who actually are the Tamang People? An Insight into Indigenous Tribe of Nepal"Chronicles of ADVENTURE TRAVEL (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৫-০১-০৫। ২০১৮-০৩-০১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-২৮ 
  5. "Melody queen Aruna Lama"Boss Nepal (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-১১ 
  6. Kalakar, Hamro। "Gopal Yonzon Biography | Hamro Kalakar"www.hamrokalakar.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০৩-১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-১১