জর্জ উড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জর্জ উড
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামজর্জ এডওয়ার্ড চার্লস উড
জন্ম(১৮৯৩-০৮-২২)২২ আগস্ট ১৮৯৩
ব্ল্যাকহিদ, কেন্ট, ইংল্যান্ড
মৃত্যু১৮ মার্চ ১৯৭১(1971-03-18) (বয়স ৭৭)
ক্রাইস্টচার্চ, হ্যাম্পশায়ার, ইংল্যান্ড
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনমাঝে-মধ্যে ডানহাতি মিডিয়াম
ভূমিকাউইকেট-রক্ষক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২১৭)
১৪ জুন ১৯২৪ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
শেষ টেস্ট১৫ জুলাই ১৯২৪ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯১৩–১৯২০কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়
১৯১৯–১৯২৭কেন্ট
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১০১
রানের সংখ্যা ২,৭৭৩
ব্যাটিং গড় ৩.৫০ ১৯.৯৪
১০০/৫০ ০/০ ১/১০
সর্বোচ্চ রান ১২৮
বল করেছে ১৮
উইকেট
বোলিং গড়
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৫/১ ১১৯/৫৩
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯

জর্জ এডওয়ার্ড চার্লস উড (ইংরেজি: George Wood; জন্ম: ২২ আগস্ট, ১৮৯৩ - মৃত্যু: ১৮ মার্চ, ১৯৭১) লন্ডনের ব্ল্যাকহিদ এলাকায় জন্মগ্রহণকারী ইংরেজ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন।[১] ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯২৪ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে ইংল্যান্ডের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে কেন্টগ্লুচেস্টারশায়ার দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ উইকেট-রক্ষণে অগ্রসর হতেন। এছাড়াও, ডানহাতে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি মাঝে-মধ্যে ডানহাতে মিডিয়াম বোলিংয়ে পারদর্শী ছিলেন জর্জ উড

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯১৩ সাল থেকে ১৯৩৬ সাল পর্যন্ত জর্জ উডের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। সকল ধরনের বোলিংয়ের ক্ষেত্রেই উইকেটের পিছনে দণ্ডায়মান থাকতেন। চেল্টেনহাম কলেজ ও কেমব্রিজের পেমব্রোক কলেজে অধ্যয়ন করেছেন। ১৯১৩ থেকে ১৯২০ সময়কালে কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশ নিয়েছেন। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের আগে-পাছে ব্লুধারী হয়েছিলেন। সর্বক্রীড়ায় সফলতার স্বাক্ষর রাখেন। হকি ও রাগবি খেলায় অবদানের প্রেক্ষিতে ব্লু লাভ করেন।

১৯১৯ সালে কেন্টের পক্ষে অভিষেক ঘটে তার। ১৯২০ সালে ক্যাপ লাভ করেন। ১৯২৭ সালের পূর্ব-পর্যন্ত দলের পক্ষে খেলেন। ১৯২০-২১ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়া গমনের জন্য ইংরেজ দলে অন্তর্ভুক্ত হলেও তিনি এ আমন্ত্রণ বার্তা প্রত্যাখ্যান করেন। পরবর্তীতে ১৯২১ সালে আর্চি ম্যাকলারেনের অধিনায়কত্বে শৌখিন দলে খেলেন ও ওয়ারউইক আর্মস্ট্রংয়ের নেতৃত্বাধীন অস্ট্রেলীয় একাদশকে পরাভূত করেছিল তার দল।

১৯২৪ থেকে ১৯৩২ সাল পর্যন্ত মেরিলেবোন ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসি) পক্ষে খেলায় অংশ নিতেন। এছাড়াও ১৯১৩ থেকে ১৯২১ সাল পর্যন্ত এল. রবিনসন একাদশ, ১৯২০ থেকে ১৯৩২ সাল পর্যন্ত জেন্টলম্যান, ১৯২০ সালে ইংল্যান্ড সাউথ, ১৯২১ থেকে ১৯২৮ সাল পর্যন্ত ফ্রি ফরেস্টার্স, ১৯২১ সালে ইংরেজ একাদশ ও সি. আই. থর্নটন একাদশ, ১৯২৩ সালে ইংরেজ বাদ-বাকি একাদশ এবং ১৯৩৬ সালে এইচ. ডি. জি. লেভেসন গাওয়ার একাদশের পক্ষে সর্বমোট ১০১টি প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অংশ নিয়েছিলেন।

নিচেরসারিতে ডানহাতে ব্যাটিংয়ে নামলেও মাঝেমধ্যেই ব্যাটিং উদ্বোধনে নামতেন। ফ্রি ফরেস্টার্সের বিপক্ষে ১২৮ রানের ব্যক্তিগত একমাত্র প্রথম-শ্রেণীর সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে তিনটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন জর্জ উড। ১৪ জুন, ১৯২৪ তারিখে বার্মিংহামে সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ১২ জুলাই, ১৯২৪ তারিখে লিডসে একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

১৯২৪ সালে সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা দলের বিপক্ষে অংশগ্রহণকৃত তিন টেস্টের সবকটিতে অংশ নিয়েছিলেন। জুনে এজবাস্টনে স্মরণীয় খেলায় সফরকারীদেরকে মাত্র ৩০ রানে গুটিয়ে গেলে ইংল্যান্ড দল ৪৩৮ রান তুলে। এরপর সফরকারীরা দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৯০ রান সংগ্রহ করলে তিনদিনের খেলায় ইনিংস ও ১৮ রানে স্বাগতিক ইংল্যান্ড দল জয়লাভ করে। দশ নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে অভিষেক ইনিংসে মাত্র এক রান তুলতে সক্ষম হয়েছিলেন। জর্জ পার্কারের বলে বোল্ড হন। এরপর ফলো-অনে থাকা অবস্থায় আর্থার জিলিগানের বলে ডেভ নোর্সকে তালুবন্দী করে বিদেয় করেন।

দ্বিতীয় টেস্টেও ইংল্যান্ড দল একই ব্যবধানে জয় পেয়েছিল। খেলায় জ্যাক হবসের দ্বি-শতক, হার্বার্ট সাটক্লিফফ্রাঙ্ক ওলি শতরান করেছিলেন। ৪ রানে দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক হার্বি টেলরের ক্যাচ তালুবন্দী করেন। এবারও বোলার ছিলেন আর্থার জিলিগান। সিরিজের তৃতীয় টেস্টই জর্জ উডের সর্বশেষ খেলায় অংশগ্রহণ ছিল। জুলাইয়ে হেডিংলিতে অনুষ্ঠিত ঐ টেস্টেও ইংল্যান্ড দল খুব সহজেই জয় পায়। মাত্র ৬ রানে রান আউটের শিকারে বিদেয় নিলেও ৩টি ক্যাচ ও একটি স্ট্যাম্পিং করে ইংল্যান্ডকে ৯ উইকেটের জয়ে ভূমিকা রাখেন।

১৮ মার্চ, ১৯৭১ তারিখে ৭৭ বছর বয়সে হ্যাম্পশায়ারের ক্রাইস্টচার্চ এলাকায় জর্জ উডের দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. [১] ESPNcricinfo, ESPN, সংগ্রহের তারিখ: ১৭ নভেম্বর ২০১৯

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]